জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্য RSS feed

জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্যের খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা... বাংলাদেশের রাজনীতির গতিপথ পরিবর্তন হওয়ার দিন
    বিএনপি এখন অস্তিত্ব সংকটে আছে। কিন্তু কয়েক বছর আগেও পরিস্থিতি এমন ছিল না। ক্ষমতার তাপে মাথা নষ্ট হয়ে গিয়েছিল দলটার। ফলাফল ২০০৪ সালের ২১ আগস্টে তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেত্রী শেখ হাসিনাকে গ্রেনেড মেরে হত্যার চেষ্টা। বিরোধীদলের নেত্রীকে হত্যার চেষ্টা করলেই ...
  • তোমার বাড়ি
    তোমার বাড়ি মেঘের কাছে, তোমার গ্রামে বরফ আজো?আজ, সীমান্তবর্তী শহর, শুধুই বেয়নেটে সাজো।সারাটা দিন বুটের টহল, সারাটা দিন বন্দী ঘরে।সমস্ত রাত দুয়ারগুলি অবিরত ভাঙলো ঝড়ে।জেনেছো আজ, কেউ আসেনি: তোমার জন্য পরিত্রাতা।তোমার নমাজ হয় না আদায়, তোমার চোখে পেলেট ...
  • বার্সিলোনা - পর্ব ২
    বার্সিলোনা আসলে স্পেনের শহর হয়েও স্পেনের না। উত্তর পুর্ব স্পেনের যেখানে বার্সিলোনা, সেই অঞ্চল কে বলা হয় ক্যাটালোনিয়া। স্বাধীনদেশ না হয়েও স্বশাসিত প্রদেশ। যেমন কানাডায় কিউবেক। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই মনে হয় এরকম একটা জায়গা থাকে, দেশি হয়েও দেশি না। ...
  • বার্সিলোনা - পর্ব ১
    ঠিক করেছিলাম আট-নয়দিন স্পেন বেড়াতে গেলে, বার্সিলোনাতেই থাকব। বেড়ানোর সময়টুকুর মধ্যে খুব দৌড় ঝাঁপ, এক দিনে একটা শহর দেখে বা একটা গন্তব্যের দেখার জায়গা ফর্দ মিলিয়ে শেষ করে আবার মাল পত্তর নিয়ে পরবর্তী গন্তব্যের দিকে ভোর রাতে রওনা হওয়া, আর এই করে ১০ দিনে ৮ ...
  • লাল ঝুঁটি কাকাতুয়া
    -'একটা ছিল লাল ঝুঁটি কাকাতুয়া।আর ছিল একটা নীল ঝুঁটি মামাতুয়া।'-'এরা কারা?' মেয়েটা সঙ্গে সঙ্গে চোখ বড়ো করে অদ্ভুত লোকটাকে জিজ্ঞেস করে।-'আসলে কাকাতুয়া আর মামাতুয়া এক জনই। ওর আসল নাম তুয়া। কাকা-ও তুয়া বলে ডাকে, মামা-ও ডাকে তুয়া।'শুনেই মেয়েটা ফিক করে হেসে ...
  • স্টার্ট-আপ সম্বন্ধে দুচার কথা যা আমি জানি
    স্টার্ট-আপ সম্বন্ধে দুচার কথা যা আমি জানি। আমি স্টার্ট-আপ কোম্পানিতে কাজ করছি ১৯৯৮ সাল থেকে। সিলিকন ভ্যালিতে। সময়ের একটা আন্দাজ দিতে বলি - গুগুল তখনও শুধু সিলিকন ভ্যালির আনাচে-কানাচে, ফেসবুকের নামগন্ধ নেই, ইয়াহুর বয়েস বছর চারেক, অ্যামাজনেরও বেশি দিন হয়নি। ...
  • মৃণাল সেন : এক উপেক্ষিত চলচ্চিত্রকার
    [আজ বের্টোল্ট ব্রেশট-এর মৃত্যুদিন। ভারতীয় চলচ্চিত্রে যিনি সার্থকভাবে প্রয়োগ করেছিলেন ব্রেশটিয় আঙ্গিক, সেই মৃণাল সেনকে নিয়ে একটি সামান্য লেখা।]ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে কীভাবে যেন পরিচালক ত্রয়ী সত্যজিৎ-ঋত্বিক-মৃণাল এক বিন্দুতে এসে মিলিত হন। ১৯৫৫-তে মুক্তি ...
  • দময়ন্তীর সিজনস অব বিট্রেয়াল পড়ে
    পড়লাম সিজনস অব বিট্রেয়াল গুরুচন্ডা৯'র বই দময়ন্তীর সিজনস অব বিট্রেয়াল। বইটার সঙ্গে যেন তীব্র সমানুভবে জড়িয়ে গেলাম। প্রাককথনে প্রথম বাক্যেই লেখক বলেছেন বাঙাল বাড়ির দ্বিতীয় প্রজন্মের মেয়ে হিসেবে পার্টিশন শব্দটির সঙ্গে পরিচিতি জন্মাবধি। দেশভাগ কেতাবি ...
  • দুটি পাড়া, একটি বাড়ি
    পাশাপাশি দুই পাড়া - ভ-পাড়া আর প-পাড়া। জন্মলগ্ন থেকেই তাদের মধ্যে তুমুল টক্কর। দুই পাড়ার সীমানায় একখানি সাতমহলা বাহারী বাড়ি। তাতে ক-পরিবারের বাস। এরা সম্ভ্রান্ত, উচ্চশিক্ষিত। দুই পাড়ার সাথেই এদের মুখ মিষ্টি, কিন্তু নিজেদের এরা কোনো পাড়ারই অংশ মনে করে না। ...
  • পরিচিতির রাজনীতি: সন্তোষ রাণার কাছে যা শিখেছি
    দিলীপ ঘোষযখন স্কুলের গণ্ডি ছাড়াচ্ছি, সন্তোষ রাণা তখন বেশ শিহরণ জাগানাে নাম। গত ষাটের দশকের শেষার্ধ। সংবাদপত্র, সাময়িক পত্রিকা, রেডিও জুড়ে নকশালবাড়ির আন্দোলনের নানা নাম ছড়িয়ে পড়ছে আমাদের মধ্যে। বুঝি না বুঝি, পকেটে রেড বুক নিয়ে ঘােরাঘুরি ফ্যাশন হয়ে ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

ফেক আইডি

জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্য

‍ছয়মাস ফেসবুকে প্রেম করার পর আজ প্রথম দেখা করতে এসেছি। রেস্টুরেন্টে বসে বসে পানি খাচ্ছি আর পাশের মেয়েটার দিকে আড়চোখে তাকাচ্ছি। আমার মতো সেও কারোর জন্য অপেক্ষা করছে।

আমার নীল ড্রেস পরে আসার কথা ছিল। আমি একটা নীল রঙের কামিজ পরে এসেছি। ছেলেটার সাদা শার্ট পরে আসার কথা। সাদা শার্ট পরা কাউকে আসতে দেখা যাচ্ছে না এখনো। তবে পাশের টেবিলের ঐ মেয়েটার বফ চলে এসেছে। ছেলেটাকে আমার খুব চেনা চেনা লাগছে। আবার সেও আমার দিকে পরিচিত ভঙ্গিতে তাকাচ্ছে। আমি আজ চশমা আনিনাই। চশমা ছাড়া দূরের জিনিস আমি ভালো দেখি না। চশমা থাকলে হয়তো চিনে ফেলতাম।

আমার প্রেমিক চলে এসেছে। সাদা শার্ট কালো জিন্স। জিন্সের কয়েক জায়গায় আধুনিক স্টাইলে ছেঁড়া। আমি তাকে দেখে উঠে দাঁড়ালাম। সে গোলাপ নিয়ে এগিয়ে আসতে আসতে পাশের টেবিলের মেয়েটাকে দেখে হালকা চমকালো। মেয়েটাও তাকে দেখে হালকা চমকালো।

প্রেমিকের সাথে বসে কফি খেতে খেতে গল্প করছি। সে বলছে,প্রোফাইল পিকে তোমাকে যতটা সুন্দর লাগে তুমি তারচেয়ে‌ও বেশী সুন্দর।
আমি বললাম,কভার পিকে তোমাকে যতটা বাজে দেখা যায় তুমি তারচেয়ে মোটামুটি সুন্দর!

পাশের টেবিলের ছেলেটার সাথে আমার বারবার চোখাচোখি হচ্ছে। এদিকে পাশের টেবিলের মেয়েটার সাথে আমার প্রেমিকের বারবার চোখাচোখি হচ্ছে। অথচ আমরা চারজন‌ই এমন ভাব করছি যেন কিছুই হয়নি।

কৌতূহল দমন করতে না পেরে আমিই প্রথম বলে উঠলাম, ঐ মেয়েটাকে চেনো?

সে ইতস্তত করে বললো, ক‌ই না তো!

-তোমার দিকে বারবার তাকাচ্ছে কেন?

:কি জানি! হ্যান্ডসাম ছেলে দেখলে সবাই তাকায়! হাহা!

আমি হাসলাম না। আমার হাসি এলো না। তার বদলে অন্য একটা কথা মনে পড়ে চমকে উঠলাম।

পাশের টেবিলের ওরা আমাদের টেবিলের দিকেই এগিয়ে আসছে। কাছাকাছি আসতেই ছেলেটাকে আমি চিনতে পারলাম। এই ছেলের সাথে ফেসবুক একাউন্ট খোলার প্রথমদিকে আমার প্রেম ছিল। মোটামুটি তিন থেকে চারমাস। এককথায় বলা যায় সে আমার প্রাক্তন প্রেমিক! মাই গড!

তারা এই টেবিলে এসে চেয়ার টেনে বসল। মেয়েটা রাগী গলায় আমার প্রেমিককে বললো, কি খবর!?

আমার প্রেমিক শুকনা মুখে আমার দিকে তাকিয়ে আছে।

মেয়েটা আবার বললো, জানতাম, তুমি লুইচ্চা,আবার প্রেম করবা!

তারপর আমার দিকে তাকিয়ে বললো, তুমি হয়তো জানো না, তোমার এই প্রেমিকের সাথে ফেসবুকে টানা একবছর আমার রিলেশন ছিল। তারপর "তুমি আমার চেয়ে ভালো কাউকে ডিজার্ভ করো" বলে আমাকে ব্লক দিয়ে দিয়েছিলো।

আমি কঠিন চোখে আমার প্রেমিকের দিকে তাকিয়ে আছি।

মেয়েটা আবার ওর উদ্দেশ্যে বললো, দেখো,আমার বফকে দেখো, সত্যিই তোমার থেকে ভালো একজনকে পেয়েছি।

এদিকে মেয়েটার বফ,মানে আমার প্রাক্তন প্রেমিক আমার দিকে তাকিয়ে বললো, এইজন্যই তাহলে আমাকে ছেড়ে গিয়েছিলে? এই ছেলের জন্য? হাহা! ও বেশী সুন্দর না আমি?

আমি তাকে রাগী গলায় জবাব দিলাম, আমি মোটেও ওর জন্য তোমাকে ছেড়ে যাইনি। তুমি কি এক 'এন্জেল মারিয়া' নামের মেয়ের সাথে ফষ্টিনষ্টি শুরু করেছিলে, তোমার পাস‌ওয়ার্ড যে আমার কাছে ছিলো তা তো ভুলে গিয়েছিলে! ওসব দেখেই আমি তোমাকে ছেড়ে চলে গিয়েছিলাম!

এতক্ষনে আমার প্রেমিক আমার প্রাক্তনের দিকে তাকিয়ে অবাক হয়ে বললো, কি! এন্জেল মারিয়া? ওটাতো আমার ফেক আইডি! তাইলে কি আমি আপনার সাথে প্রেম করছিলাম??

আমি জবাব দেয়ার আগেই পাশের মেয়েটা বলে উঠলো, জানতাম! তোমার চরিত্র খারাপ! আরো প্রেম করে বেড়াতে। তাইতো তোমাকে ছেড়ে চলে এসেছিলাম! তোমাকে পরীক্ষা করার জন্য আমি 'সাদা মেঘ' নামের ফেক আইডি খুলেছিলাম!

এতক্ষনে আমি আঁতকে উঠে মেয়েটার দিকে তাকিয়ে আছি। কারণ সাদা মেঘ নামক আইডির সাথে অনেকদিনের ঘনিষ্ঠতা ছিল আমার! ওটা তাহলে এই মেয়েটার ফেক আইডি!!!.....

-জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্য

589 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: বিপ্লব রহমান

Re: ফেক আইডি

গুরু তে এইসব টিন এজ গাঞ্জাখুড়ি গপ্পো লেখার কেউ একজন আছে, ভাবতেই ভালো লাগছে। 😜
Avatar: র২হ

Re: ফেক আইডি

থাকুক না টিনএজ গল্প, আমরা তো সব বুড়ো হতে চল্লাম (সৈকতদা আর ডিডি বাদে)। অল্পবয়সীরা আসুন!
আমার তো জান্নাতুলের লেখাগুলি পড়তে বেশ লাগে, পড়ার শেষে টের পাই মুখটা বেশ হাসিহাসি হয়ে আছে!


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন