Swarnendu Sil RSS feed

Swarnendu Silএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • বদল
    ছাত্র হয়ে অ্যামেরিকায় পড়তে যারা আসে - আমি মূলতঃ ছেলেদের কথাই বলছি - তাদের জীবনের মোটামুটি একটা নিশ্চিত গতিপথ আছে। মানে ছিল। আজ থেকে কুড়ি-বাইশ বছর বা তার আগে। যেমন ধরুন, পড়তে এল তো - এসে প্রথম প্রথম একেবারে দিশেহারা অবস্থা হত। হবে না-ই বা কেন? এতদিন অব্দি ...
  • নাদির
    "ইনসাইড আস দেয়ার ইজ সামথিং দ্যাট হ্যাজ নো নেম,দ্যাট সামথিং ইজ হোয়াট উই আর।"― হোসে সারামাগো, ব্লাইন্ডনেস***হেলেন-...
  • জিয়াগঞ্জের ঘটনাঃ সাম্প্রদায়িক রাজনীতি ও ধর্মনিরপেক্ষতা
    আসামে এনার্সি কেসে লাথ খেয়েছে। একমাত্র দালাল ছাড়া গরিষ্ঠ বাঙালী এনার্সি চাই না। এসব বুঝে, জিয়াগঞ্জ নিয়ে উঠেপড়ে লেগেছিল। যাই হোক করে ঘটনাটি থেকে রাজনৈতিক ফায়দা তুলতেই হবে। মেরুকরনের রাজনীতিই এদের ভোট কৌশল। ঐক্যবদ্ধ বাঙালী জাতিকে হিন্দু মুসলমানে ভাগ করা ...
  • অরফ্যানগঞ্জ
    পায়ের নিচে মাটি তোলপাড় হচ্ছিল প্রফুল্লর— ভূমিকম্পর মত। পৃথিবীর অভ্যন্তরে যেন কেউ আছাড়ি পিছাড়ি খাচ্ছে— সেই প্রচণ্ড কাঁপুনিতে ফাটল ধরছে পথঘাট, দোকানবাজার, বহুতলে। পাতাল থেকে গোঙানির আওয়াজ আসছিল। ঝোড়ো বাতাস বইছিল রেলব্রিজের দিক থেকে। প্রফুল্ল দোকান থেকে ...
  • থিম পুজো
    অনেকদিন পরে পুরনো পাড়ায় গেছিলাম। মাঝে মাঝে যাই। পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে দেখা হয়, আড্ডা হয়। বন্ধুদের মা-বাবা-পরিবারের সঙ্গে কথা হয়। ভাল লাগে। বেশ রিজুভিনেটিং। এবার অনেকদিন পরে গেলাম। এবার গিয়ে শুনলাম তপেস নাকি ব্যবসা করে ফুলে ফেঁপে উঠেছে। একটু পরে তপেসও এল ...
  • কাঁসাইয়ের সুতি খেলা
    সেকালে কাঁসাই নদীতে 'সুতি' নামের একটা খেলা প্রচলিত ছিল। মাছ ধরার অভিনব এক পদ্ধতি, বহু কাল ধরে যা চলে আসছে। আমাদের পাড়ার একাধিক লোক সুতি খেলাতে অংশ নিত। এই মৎস্যশিকার সার্বজনীন, হিন্দু ও মুসলিম উভয় সম্প্রদায়ে জনপ্রিয়। মনে আছে ক্লাস সেভেনে পড়ার সময় একদিন ...
  • শুভ বিজয়া
    আমার যে ঠাকুর-দেবতায় খুব একটা বিশ্বাস আছে, এমন নয়। শাশ্বত অবিনশ্বর আত্মাতেও নয়। এদিকে, আমার এই জীবন, এই বেঁচে থাকা, সবকিছু নিছকই জৈবরাসায়নিক ক্রিয়া, এমনটা সবসময় বিশ্বাস করতে ইচ্ছে করে না - জীবনের লক্ষ্য-উদ্দেশ্য-পরিণ...
  • আবরার ফাহাদ হত্যার বিচার চাই...
    দেশের সবচেয়ে মেধাবীরা বুয়েটে পড়ার সুযোগ পায়। দেশের সবচেয়ে ভাল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নিঃসন্দেহে বুয়েট। সেই প্রতিষ্ঠানের একজন ছাত্রকে শিবির সন্দেহে পিটিয়ে মেরে ফেলল কিছু বরাহ নন্দন! কাওকে পিটিয়ে মেরে ফেলা কি খুব সহজ কাজ? কতটুকু জোরে মারতে হয়? একজন মানুষ পারে ...
  • ইন্দুবালা ভাতের হোটেল-৭
    চন্দ্রপুলিধনঞ্জয় বাজার থেকে এনেছে গোটা দশেক নারকেল। কিলোটাক খোয়া ক্ষীর। চিনি। ছোট এলাচ আনতে ভুলে গেছে। যত বয়েস বাড়ছে ধনঞ্জয়ের ভুল হচ্ছে ততো। এই নিয়ে সকালে ইন্দুবালার সাথে কথা কাটাকাটি হয়েছে। ছোট খাটো ঝগড়াও। পুজো এলেই ইন্দুবালার মন ভালো থাকে না। কেমন যেন ...
  • গুমনামিজোচ্চরফেরেব্বাজ
    #গুমনামিজোচ্চরফেরেব্...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

Swarnendu Sil

দুর্গাপুজোর মাঝে কিছু অদ্ভুত পোস্ট চোখে পড়ল ফেসবুকে... এক ধরণের কাউন্টার-প্রোপাগ্যান্ডা... মহিষাসুর 'অসুর' নামের কোন আদিবাসী উপজাতির লোককথার এক রাজা... যাকে সাদাচামড়ার ( implying, depending on the context, উচ্চবর্ণের বা ইন্দো-ইউরোপীয় ) দুর্গা কৌশলে হত্যা করে... আর তাই দুর্গাপুজো তাদের কাছে শোকের দিন...

এমন পোস্ট অবশ্য এবছরই প্রথম নয়, এর আগেও 'হুদুর-দুর্গা' ইত্যাদি নিয়ে লেখালিখি চোখে পড়েছে...

যাই হোক, ইতিহাস বিকৃতি এই হনুমানদের ভারতবর্ষে একরকম গা-সওয়া হয়ে যাচ্ছে বা গেছে বলা চলে... কিন্তু হনুমানদের বিরোধীদেরও সেই একই রাস্তায় হাঁটতে দেখলে ভবিষ্যৎ ভেবে একটু ডিপ্রেসসড লাগে এখনো... আমার কাছে অন্তত ইতিহাস বিকৃত করে কি বলছের থেকে এই অভিসন্ধিমূলক বিকৃতিটাই মৌলবাদের সমার্থক... সেই থেকেই কিছু কথা লেখা...

এই ধরণের propaganda য় subscribe যারা করেন তারা কি আদৌ মানুষের ইতিহাসে মাতৃপূজার ইতিহাস ও সেই সংক্রান্ত মতগুলো নিয়ে সামান্যও ওয়াকিবহাল? মহিষাসুর কোন আদিবাসী উপজাতীয় রাজা বা নেতা তো দুরে থাকুক, আদৌ কোন মানুষকে ( অর্থাৎ কোন ব্যক্তিকে, কোন individual কে, সে মানুষ, দেবতা, অসুর, রাক্ষস যাই হোক না কেন) রিপ্রেজেন্ট করে কি না আদৌ...

নাকি রিপ্রেজেন্ট করে, আজ্ঞে হ্যাঁ, বন্য মহিষকে... অন্যত্র বন্য ষাঁড়কে... এই অন্যত্রটা বুঝিয়ে বলি... একজন মহিলা ও একটা ষাঁড়, সঙ্গে কোন একটা big cat, মানুষের সংস্কৃতির ইতিহাসে এই symbol টার বয়স কত জানেন? ৯৫০০ বছর... আজ্ঞে হ্যাঁ, একটাও শূন্য বেশী দেখেন নি... সাড়ে নহাজারই লেখা ওটা... সবচেয়ে পুরনো এমন সিম্বল পাওয়া গেছে চাতালহয়ুক এ ...

https://en.wikipedia.org/wiki/%C3%87atalh%C3%B6y%C3%BCk

এই পেজেই ছবি পাবেন... দুটো লেপার্ড বা প্যান্থারের ওপর বসে থাকা mother goddess....... মন্দিরগুলোয় ষাঁড়ের শিং, ষাঁড়ের খুলি ভর্তি... দেওয়ালে ষাঁড়ের ছবি ও ...

cattle domestication এর সামান্য আগে-পরে... মোটামুটি সেই সময় থেকেই ( ৭৫০০ খ্রীষ্টপূর্বাব্দ মোটামুটি ) থেকেই এই সিম্বলটার অস্তিত্ব আছে...এবং যাকে নিওলিথিক রেভল্যুশন বলা হয় সেই থেকেই... আর্য-অনার্য, উচ্চ বর্ণ-নিম্ন বর্ণ, আদিবাসী জনজাতি এইসব ভাগাভাগি আস্তে তখনো বহু সহস্রাব্দ বাকি, এমনকি ইন্দো-ইউরোপীয় material culture এর জন্মলাভ তখনো কয়েক হাজার বছর ভবিষ্যতের গর্ভে...

এই নিওলিথিক কালচার প্যাকেজ-এর ছড়িয়ে পড়া ( উৎপত্তিস্থল মোটামুটিভাবে লেভান্ত, আজকের সিরিয়া-ইরাক-প্যালেস্তাইন-ইজরায়েল-লেবানন অঞ্চল) ... পুবে ও পশ্চিমে... এবং পুবে বন্য ষাঁড় এর বন্য মহিষে ট্রান্সফর্মড হয়ে যাওয়া ( মোষ বা water buffalo ভারতীয় উপমহাদেশে অথবা চীনে domesticated হয় প্রথম ) ... এগুলো জানার দুর্ভাগ্যক্রমে কোন শর্টকাট নেই... definitive account ও কম... without controversy ও নয় সেগুলো... তবু বই আছে... পড়ে দেখতে পারেন... একটা ১৯৫৯ এর ক্লাসিক,
জেমস এর কাল্ট অফ দ্য মাদার গডেস ...
https://books.google.ch/books/about/The_Cult_of_the_Mother_goddess.htm
l?id=ppyAoAEACAAJ&redir_esc=y


এছাড়াও
https://books.google.ch/books/about/The_Birth_of_the_Gods_and_the_Orig
ins_of.html?id=z4epGQpNyucC&redir_esc=y


সুমেরীয় বা মেসোপটেমিয়ার Ananna-Ishtar এর ছবি ও গুগল সার্চ দিলেই পাবেন... একটা দিলাম নিচে...সিংহবাহিনী দুর্গার সাথে মিলিয়ে নিন নিজেরাই...


http://67.media.tumblr.com/fd18556dbf36472c7e76fde7f082692e/tumblr_inl
ine_nkkr7xbnIg1qhe44g.jpg


প্রাচীন সিম্বলগুলোকে নাহয় একটু রেহাইই দিলেন আপনাদের আইডেন্টিটি পলিটিক্স এর থেকে...

যাই হোক, নবমীর রাত ফুরতে চলল... আপাতত এইটুকুই ...

[ লেখাটা ফেসবুকে লিখি গতকাল... এখানেও দিলাম আজ... অবিকৃতভাবেই...
সব্বাইকে শুভ বিজয়া ]

2830 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


মন্তব্যের পাতাগুলিঃ [1] [2] [3] [4] [5] [6]   এই পাতায় আছে 86 -- 105
Avatar: sswarnendu

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

ওপরে একটা বাজে টাইপো থেকে গেল।

"একই কথা প্রযোজ্য "ইন্দো ইউরোপীয় এবং ইন্দো আর্য খুব বেশী হলে একটা ভাষা গোষ্ঠী এবং সাংস্কৃতিক পরিচয়। তাকে জাতির সাথে কখনোই গোলানো যায়না।" --- এর মানেও ভাষাটা বা সংস্কৃতিটা উপমহাদেশে বহিরাগত এটাও নয়, আবার জাতির সাথে গোলানো যায় না মানেই এই আসার সাথে কোন জিন-ফ্লো জড়িয়ে নেই এইটাও না। "


এখানে "... এর মানেও ভাষাটা বা সংস্কৃতিটা উপমহাদেশে বহিরাগত নয় এটাও নয়... " হবে।
Avatar: কল্লোল

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

দূর্গা পূজা শুরু হয় আশ্বিন মাসে?
তথ্য হিসাবে বোধহয় ঠিক নয়। পুরাণ মতে শুরুটা বসন্তকালে, সুরথ রাজার হাতে।
রামায়ণ মতে রাম শরৎকালে পূজা করেন, রাবণ বধের উদ্দেশ্যে, তাই তা অকাল বোধন হিসাবে খ্যাত। অর্থাৎ রামায়ণেও মানা হচ্ছে যে দূর্গাপূজার আদি কাল বসন্তকাল।

Avatar: সৌম্যদীপ

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

স্বর্ণেন্দু বাবুর বক্তব্য নিয়ে পরে মত রাখছি ,অনেক কিছু বলার আছে
। কল্লোল বাবু আপনি সুস্থ জেনে খুব ভালো লাগলো, আপনার বই টি আমার বাবা এবং আমার দুজনের ই খুব প্রিয় । আর বাল্মীকি রামায়ণে দুর্গা পুজোর কোনো উল্লেখ নেই, রাম সূর্য পূজা করেছিলেন । কৃত্তিবাসী রামায়ণের সম্ভবত প্রথম রামের অকাল বোধনের কথা আসে ।
Avatar: কল্লোল

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

সৌম্যদীপ।
আপনাকে ও আপনার বাবাকে অনেক ধন্যবাদ। এখন অনেকটা ভালো।
রামায়ণের নানান পাঠ আছে, ফলে কোন কোন রামায়ণে অকাল বোধন না-ই থাকতে পারে।
তবে পুরাণমতে দূর্গাপূজার শুরু সুরথ রাজার হাতে, বসন্তকালে, যা এখন বাসন্তীপূজা নামে চলে।

Avatar: Atoz

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

বেচারা সমাধি বৈশ্য! টাকা দিল পয়সা দিল, নাম হল শুধু রাজা সুরথের!
ঃ-)
Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

স্বর্ণেন্দু- লেখা আর স্টাটাস কি পার্থক্য জানি না :) যাই হোক

আপনার বক্তব্যের জবাব দেবার আগে দু এক টা ছোট্ট কথা। এক নম্বর, আপনি একটা জিনিস মিস করেছেন , সেটার দায় আমি ই নিচ্ছি - এটা কোনো ইন্ডিপেন্ডেন্ট লেখা নয়, বরঞ্চ এক টা সদ্য প্রচলিত ( বেশ্যা ব্রাহ্মণ্যবাদী এজেন্ট দুর্গার ছলনা র দ্বারা অনার্য রাজা মহিষাসুর হত্যা ইত্যাদি ) প্রোপাগান্ডার জবাব হিসেবে লেখা , সেই জন্য কিছু প্রেক্ষিত হয়তো আপনার কাছে পরিষ্কার হয়নি, এবং আমার বক্তব্য বিক্ষিপ্ত লেগেছে।

এবার এক এক করে

১. আপনার ১ নম্বর পয়েন্ট এ কি বলতে চেয়েছেন সেটা একটুও পরিষ্কার নয়। আপনার বক্তব্যগুলো কনফিউসিং ও মিসলিডিং ।- খুব সংক্ষিপ্ত ভাবে, প্রোপাগান্ডার মূল প্রতিপাদ্য ছিল , বাইরে থেকে আসা আর্য রা মূলনিবাসী/ অনার্য সভ্যতা ধ্বংস করে - আমি যেটা জানিয়েছি সেটা হলো আধুনিক প্রাচ্য এবং পাশ্চাত্যের বাঘা বাঘা পন্ডিত কেউ ই এই ইনভেশন থিওরি তে আর বিশ্বাসী নন ( আস্ক পারপোলা র এ বিষয়ে অনেক লেখা আছে, ডেভিড ফ্রলি ও রেফার করতে পারেন ) এবং ভারতীয় দের মধ্যে রোমিলা থাপার, কোশাম্বী ( তথাকথিত ডানপন্থী ঐতিহাসিক বক্তব্য আর লিখছি না ) এবং আম্বেদকর কেউ ই এই এ আই টি ( আরিয়ান ইনভেশন থিওরি ) কে নম্বর দিচ্ছেন না বিন্দুমাত্র, এবং এর পিছনে টিপিকাল হোয়াইট সুপ্রিমেসি কমপ্লেক্স কেই দায়ী করছেন। এই তত্ত্ব খারিজ হলে, প্রোপাগান্ডার প্রথম খুঁটি ই নড়বড়ে হয়ে যায়।

" আর্য রা সবাই বাইরে থেকে এসেছে এবং বৈদিক সভ্যতা স্থাপন করেছে , তা একদম ই প্রামাণ্য নয়,"... এই বাক্যটিতে ভুল কিচ্ছু নেই, কিন্তু আপত্তি আপনার এই বাক্যটার রিপ্রেসেন্টেশনে। কারণ এই বাক্যটার অর্থ এইটা নয় যে 'আর্য' সংস্কৃতি ( ঠিক শব্দ ব্যবহার করলে প্রোটো-ইন্দো-ইউরোপিয়ান মেটিরিয়াল কালচার ) ভারতীয় উপমহাদেশে বাইরে থেকে আসা জিনিস নয়। আপনি ঠিক সেই অর্থেই বাক্যটা ব্যবহার করতে চেয়েছেন বলে মনে হচ্ছে আপনার লেখায়।- আবার ,ওপরের পয়েন্ট দ্রষ্টব্য , এটাও উত্তর হিসেবে লেখা, কন্টেক্সচুয়াল। এই অর্থেই ব্যবহার করেছি।

"few Indians had any conscious memory of an "Aryan" warrior''-" এইটা আপনি কোট করছেন, তাই দায় আপনার নয়। তবু বলে যাই, কন্সাস মেমরি নেই এটা কোন যুক্তি নয়। আজকের পৃথিবীর কোন জনগোষ্ঠীর কোন মিথ এ লাস্ট গ্লেসিয়াল ম্যাক্সিমাম এর কোন স্মৃতি কোনভাবে রক্ষিত আছে বলে আমি শুনিনি বা পড়িনি কোথাও, তাতে লাস্ট গ্লেসিয়াল ম্যাক্সিমাম এ মডার্ণ হিউম্যান যে ইউরেশিয়া ও উত্তর আমেরিকায় ছিল ( অর্থাৎ, 'আইস এজ' দেখেছে ) সেইটা মিথ্যে হয়ে যায় না। কালেক্টিভ মেমরি ঐতিহাসিক সত্য নিরূপণের ভাল মার্কার নয়।

একই কথা প্রযোজ্য "ইন্দো ইউরোপীয় এবং ইন্দো আর্য খুব বেশী হলে একটা ভাষা গোষ্ঠী এবং সাংস্কৃতিক পরিচয়। তাকে জাতির সাথে কখনোই গোলানো যায়না।" --- এর মানেও ভাষাটা বা সংস্কৃতিটা উপমহাদেশে বহিরাগত এটাও নয়, আবার জাতির সাথে গোলানো যায় না মানেই এই আসার সাথে কোন জিন-ফ্লো জড়িয়ে নেই এইটাও না।

- এই দু ক্ষেত্রেই মূল প্রতিপাদ্য বিষয় ওপরেই লিখেছি। এই দু তিনটে লাইনে যদি আপত্তি থাকে, আপনি অল্প খুঁজলেই নেটে এনাদের ডিটেল বক্তব্য পেয়ে যাবেন , যেটা এ আই টি বিরুদ্ধাচরণ করছে - আপনি এর মধ্যে যে কোনো অন্য লাইন ও পছন্দ করতে পারেন, দি দি কোশাম্বী এ ক্ষেত্রে ফিউ ইন্ডিয়ান বলতে ঐতিহাসিক এবং নৃতত্ব বিদ দের কথাই বলছেন বলে আমার বিশ্বাস, জেনারেল সুইপিং স্টেটমেন্ট নয়।

"আচ্ছা একবার এটাও ভাবুন, এরকম কেন হতে ই হবে যে আর্য রা, বা উচ্চবর্ণ ব্রাহ্মণ রা এসে নিজেদের সংস্কৃত চাপিয়ে দিলো অনার্য্য দের ওপর ? সংস্কৃতিক মেলবন্ধন তো হতেই পারে'' এবং " তারমানে, সাংস্কৃতিক আদান প্রদান ছিল যথেষ্ট।" এই বাক্যদুটোও সমস্যার। 'মেলবন্ধন' শব্দটার শাক দিয়ে এই মাছটা আদৌ ঢাকা পড়বে না যে একটা বিপুল জনজাতির ল্যাঙ্গুয়েজ রিপ্লেসমেন্ট এমনি এমনি ঘটে না। অন্য ভাষাটা বলা, অন্য কালচারটা অ্যাডপ্ট করাটা বেশী লাভজনক, বেশী প্রেস্টিজিয়াস বা এইজাতীয় বড়সড় ইনসেন্টিভ ছাড়া ঘটে না। সেগুলো কি সে নিয়ে বিতর্ক থাকতে পারে, কিন্তু উপমহাদেশে তৎকালীন এক্সিস্টিং ভাষা ও সংস্কৃতির সাথে প্রোটো-ইন্দো-ইউরোপিয়ান ভাষা ও সংস্কৃতির যে লেগাসি উপমহাদেশের পশ্চিম প্রান্তে এসে পৌঁছেছিল, তাদের ইন্টারঅ্যাকশনটা 'সাংস্কৃতিক মেলবন্ধন' টাইপ গোল-গোল ভাল-ভাল অ্যামিকেবল কিছু নয়। পরবর্ত্তীকালে তো আরোই নয়, এমনকি আজও নয়।- এ ব্যাপারে একটাই কথা বলার আছে, যে তথাকথিত লোকায়ত সংস্কৃতি এতটাই বৈদিক ধর্মে প্রবেশ করে , যে আজকের দিনে দেবী ই অ বৈদিক পূজিত হচ্ছেন তাঁরা প্রায় সবাই অবৈদিক। ব্রাহ্মণ পদবী বেশীরভাগ ই এসেছে, আদিবাসী টোট্যাম থেকে , শান্ডিল্য, কশ্যপ সব ই নাকি পাখী বা জন্তু দের নাম থেকে আসা ( ডিটেলস এর জন্য দেবী প্রসাদ চট্টোপাধ্যায় এর লোকায়ত দর্শন দ্রষ্টব্য )

"অনার্য মানেই অহিন্দু এরম কিছুও প্রতিপাদ্য নয় দেখলাম।" --- এইটা নিছক অ্যানাক্রনিজম। যে আর্য-অনার্য নিয়ে আপনার ওই অংশটা লেখা, সেই অর্থে হিন্দু কথাটা অপ্রাসঙ্গিক, কারণ যে কোনরকম হিন্দু আইডেন্টিটি তখন কিছু না হলেও এক হাজার বছর ভবিষ্যতের গর্ভে।-"অনার্য মানেই অহিন্দু এরম কিছুও প্রতিপাদ্য নয় দেখলাম।" --- এইটা নিছক অ্যানাক্রনিজম। যে আর্য-অনার্য নিয়ে আপনার ওই অংশটা লেখা, সেই অর্থে হিন্দু কথাটা অপ্রাসঙ্গিক, কারণ যে কোনরকম হিন্দু আইডেন্টিটি তখন কিছু না হলেও এক হাজার বছর ভবিষ্যতের গর্ভে।–
উত্তর কন্টেক্সচুয়াল এক্ষেত্রেও। তবে আপনি যে সময় ক্রম বলছেন, তা কাছাকাছি।
২ নম্বর পয়েন্ট এ ঋগ্বেদে Asura র মানে সম্পর্কে যা লিখেছেন তাইই, কিন্তু এই শব্দটার অর্থ ও কনোটেশনটা সময়ের সাথে সাথে নেগেটিভ দিকেই গেছে সেইটা না উল্লেখ করা একটা সিলেক্টিভ পিকচার দেওয়া। ভাষায় শব্দের মানে পাল্টাতে থাকে। সামান্য সময় আগেই মাগী শব্দটা বহুলভাবে ব্যবহৃত হত আলাদা করে কোন গালাগালির কনোটেশন ছাড়াই।

আহুর থেকেও ইন্দো-আর্য শব্দকোষে অসুর ঢুকে পড়েনি। আভেস্তান এ শব্দটা Ahura আর ইন্দো-আর্য এ Asura, প্রিসাইসলি একই শব্দ। ঠিক যেমন Haravati=Saraswati, Hapta Hindu=Sapta Sindhu। শব্দগুলো আভেস্তান থেকে ইন্দো-আর্য এ আসেনি, আভেস্তান আর ইন্দো-আর্য দুটোতেই ইন্দো-ইরানিয়ান থেকে এসেছে ( যেটা ইন্দো-আর্য আর আভেস্তান, দুটোরই কমন মাদার ল্যাঙ্গুয়েজ )।

প্রথমত কোন সময় থেকে কোন অসুর শব্দ নেগেটিভ কনটেশন পেয়েছে বলা মুশকিল, সেখানে আপনার অনুমান এবং আমার অনুমান দুটোই ঠিক বা ভুল হবার স্পেস রয়েছে। তাই সে বেসিসে সিলেকটিভ বলা যায় কি? - পরবর্তী কালের ঋগবেদেও অসুর দের কখনো ই নেগেটিভলি দেখানো হয়নি। আর বেশিরভাগ দেব অসুর সংঘর্ষ আসলে আদিত্য( বৈদিক দেবী অদিতির সন্তান) এবং দৈত্য ( অদিতির বোন দিতি র সন্তান) /দানব (অদিতির বোন দনু র সন্তান) দের মধ্যে।

এবং এখানেও যে কনটেক্সটে লেখা যে অসুর মানেই আর্য রা নেগেটিভ পোর্ট্রে করেছে , সেটার উত্তর। আরেকটা তথ্য দিয়ে শেষ করি , মহাভারতে দৈত্য এবং দানব দের ''নিখুঁত '' সুন্দর বলেই দেখানো হয়েছে .

আহুর থেকেও ইন্দো-আর্য শব্দকোষে অসুর ঢুকে পড়েনি। আভেস্তান এ শব্দটা Ahura আর ইন্দো-আর্য এ Asura, প্রিসাইসলি একই শব্দ। ঠিক যেমন Haravati=Saraswati, Hapta Hindu=Sapta Sindhu। শব্দগুলো আভেস্তান থেকে ইন্দো-আর্য এ আসেনি, আভেস্তান আর ইন্দো-আর্য দুটোতেই ইন্দো-ইরানিয়ান থেকে এসেছে ( যেটা ইন্দো-আর্য আর আভেস্তান, দুটোরই কমন মাদার ল্যাঙ্গুয়েজ )।- ঠিক , আমিও ঢুকে পড়েছে বলতে এটাই মিন করেছিলাম, এ টা বাইরের কোনো শব্দ হিসেবে এসেছে তা বলিনি। স এবং হ নিয়ে একদম ঠিক বলেছেন।

নেগ্রিটো টার্মটা প্রবল কন্ট্রোভার্সিয়াল, অ্যানথ্রোপলজিকালিই, পলিটিকাল কারেক্টনেস এর অর্থে বলছি না। আপনি AIT নিয়ে যা লিখেছেন ঠিক সেই কথাটাই, with no less justification, বলা চলে ওই নেগ্রিটো টার্মটার সম্পর্কে।- এটা নিয়ে আমার কোনো বক্তব্য নেই, কারণ কে কি হিসেবে দেখবেন সে টা নিতান্তই ব্যক্তিগত ডায়েট।


"অন্যান্য প্রাচীন প্যাগান দেবী দের মত তাঁরও আগমন ফসল এর সময় , আশ্বিন মাসে "--- নিছক ভুল তথ্য। আপনি দুর্গা র লেগাসি বলতে গিয়ে নিজেই যে নামগুলো লিখেছেন তাদের বেশিরভাগ এর আলাদা করে বাৎসরিক পুজোর দিন ( মানে পুজো সম্বৎসর, উৎসবের দিন বলা উচিৎ ) ছিল স্প্রিং ইকুইনক্স এ, বসন্তকালে। দুর্গাপুজোও প্রিসাইসলি তাই ছিল, এখনো বহু জায়গায় বাসন্তী পুজো বলে চালুও আছে।- আংশিক সত্য। বাসন্তী পুজো অবশ্যই হয়, কিন্তু শরৎ কালের সাথে দেবী দুর্গার সম্পর্ক অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ ( আউশ ধানের জন্যেই হয়তো ). দু একটা উদাহরণ দি ,

১. ত্রিপুরা সুন্দরী - দুর্গা নামের আরেকটা অর্থ, দুর্গ ধ্বংস কারী ( দুর্গা ঘ্ন ) . এই বিষয়ে সবচেয়ে বিখ্যাত যে কাহিনী তা হলো ত্রি পুরা ( পুর অর্থাৎ দুর্গ , দেবী সেখানে তিনটে দুর্গ ধ্বংস করেছিলেন ) . এই দুর্গ দের ঋগবেদে শরৎকালীন ( অটামনাল ) বলা হয়েছে। এর অর্থ পুরো পুরি পরিষ্কার নাহলেও মনে করা হয় যে এই দুর্গ গুলি ছিল দেবীর শরৎ কালীন উপাসনা স্থল )

২. কাশ্মীর -এখানেও একই কারণে দেবী কে সারদা ( শরৎ ) বলা হয় এবং অন্যতম প্রধান উপাসনাস্থল এর নাম সাৱদি।

৩. নেপাল - এখানে দুর্গা কে দেশের রক্ষাকর্ত্রী হিসেবে ধরা হয় এবং নব রাত্রি উৎসব হয় দুর্গের মধ্যে -শরৎ কালে

( আস্ক পারপোলা - রুটস অফ হিন্দুইজম)


"হরপ্পার কৃষি ভিত্তিক মাতৃপ্রধান সমাজে "-- হরপ্পার সমাজ মাতৃপ্রধান ছিল এটা কেউ কোথাও ডেমনস্ট্রেট করেননি।- বিতর্ক রয়েছে , যেহেতু নারী মূর্তি খনন করে বেশী পাওয়া গেছে তবে তা মাতৃ পুজো র জন্যেই কিনা, এনিয়ে প্রশ্ন উঠছে। আপনার কথা মেনে নিলাম।

" কৃষিজীবী অন্ত্যজ দের ঘরের দেবতাই যে ছিলেন দুর্গা,"-- আবারো সম্ভবত অ্যানাক্রনিজম, কিন্তু আমি অতটা নিশ্চিত নওই এইটা নিয়ে। এইটুকু বলার যে কৃষিভিত্তিক কালচারের লেগাসি মানেই চাষিরাই পুজো করত, এবং চাষিদের মধ্যে পুজোটা প্রচলিতই ছিল, তাও আবার চাষিরা যখন থেকে 'অন্ত্যজ' বলে পরিগণিত হয়েছে তখন পর্যন্ত - এ খুবই সন্দেহজনক ক্লেইম। দেখুন, মনুসংহিতা ( প্রোপাগান্ডা যার বিরুদ্ধে ) পরিষ্কার বলছে, ব্রাহ্মণ এবং ক্ষত্রিয় দের কৃষি কাজ করা নিষেধ। তো কৃষি কাজ তাহলে কারা করবে? উত্তর তো সহজ। চাইলে মূল শ্লোক দিয়ে দিতে পারি।

এবারে আপনি বলতে পারেন মনু সংহিতা কি ঠিক, আমি বলবো নয়। কিন্তু, মনুবাদ চাপিয়ে দেবার বিরুদ্ধে যে যুক্তি দেওয়া হচ্ছে সেই লাইনেই বলা যায় যে মনুবাদ অনুযায়ী কৃষি সমাজ অন্ত্যজ দের ই একচেটিয়া। আর প্যাগান পুজো কৃষি ভিত্তিক সমাজে প্রাধান্য পাবেই এ ব্যাপারেই বা সন্দেহ কি ? তাহলে, মনুবাদ অনুযায়ী ই এই পুজো উচ্চ বর্ণের নয়। বাণভট্টের কাদম্বরী তেও শবর দের ধূমধাম করে চন্ডী পুজোর উল্লেখ আছে। ফলে তাদের থেকেই যে আমার আপনার চন্ডী মণ্ডপে দুর্গার আবির্ভাব এ নিয়ে মোটামুটি সবাই একমত।


এমনিতেও বজ্রজানী বৌদ্ধ ট্র্যাডিশনের হাত ধরে তন্ত্র বহুদিনই শুধু 'হিন্দু' দের ব্যাপার ছিল না। বজ্রযানের তারা, উগ্রতারা এগুলো পার্বতীরই নানান রূপকল্প।- তাতে কি প্রমাণ হলো বুঝলাম না। বৌদ্ধ তন্ত্র শাস্ত্র সম্ভবত হিন্দু তন্ত্র শাস্ত্রের পূর্বজ। তন্ত্র মূলত অবৈদিক , এবং পূর্ব ভারতে এর প্রসার ছিল ব্যাপক এবং এখনো আছে। ( এজন তামিল ব্রাহ্মণের বা উত্তর ভারতীয় ব্রাহ্মণের সাথে নিজের খাবার প্লেট দেখলেই তফাৎ তা বোঝা যায় ) এবং মহাভারতেও বংগ কে পান্ডব বর্জিত বলা হয়েছে কারণ এখানে বেদ মানা হতো না। হিন্দু দের নির্গুণ এবং নিরাকার ব্রহ্ম যেহেতু সবাইকে আকর্ষিত কৰতে পারেনি তাই ধীরে ধীরে পৌত্তলিকতা জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এই লড়াই তে হীনযান রা ক্রমশ পিচিয়ে পড়ে এবং তান্ত্রিক বজ্রযান আসন গ্রহণ করে। এসব বৌদ্ধ স্থাপত্যে বিভিন্ন হিন্দু দেব দেবী দের বৌদ্ধ দেব দেবীর থেকে ছোট হিসেবে দেখানো হয় ( কখনো দ্বারপাল রূপে কখনো ছোট মূর্তি বৌদ্ধ মূর্তির পায়ের কাছে রেখে ).বৌদ্ধ রা হিন্দু পৌত্তলিকতা অনুসরণ করলো কিন্তু তার সাথে জাস্টিফাই করার জন্য কিছু অদ্ভুত শ্লোক ও লিখলো যেমন ''দেবদেবীরা সবাই শূন্যের বহিঃস্ফূর্তি এঁদের অন্তরাত্মা সব ই শূন্য। এনারা সবাই শূন্যের প্রতিমূর্তি ''

কৃতজ্ঞতা - তন্ত্রের কথা -সতীন্দ্র মোহন চট্টোপাধ্যায়

" বৈদিক সভ্যতা মূলতঃ পশুপালক " - এইটাও কি বলতে চাইলেন পরিষ্কার নয়।- আদি বৈদিক মানুষ রা তো পশুপালক ছিলেন বলেই জানি। বেশীর ভাগ শ্লোক তো তাই বলে। ভুল বললাম কি ?


Avatar: sswarnendu

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

সৌম্যদীপবাবু,
সত্যিই হতাশ হলাম।

"আধুনিক প্রাচ্য এবং পাশ্চাত্যের বাঘা বাঘা পন্ডিত" হল David Frawley??!!! :) :) :)
তা ওনার এই সংক্রান্ত বিষয়গুলোর মধ্যে ডিগ্রিটা কিসে? Yoga Philosophy?? :D :D :D


ডিটেল এ লেখার সময় নেই, এবং একই জিনিস নিয়ে আলাদা করে একাধিক জায়গায় 'উত্তর' লিখতে ভাল ও লাগে না। যদি বা লিখতাম, ফ্রলে পণ্ডিত এর পড়ে আর প্রশ্নই নেই। তাই আপাতত এইটার পরে আমার আর এইটায় কিছু লেখা হবে না হয়ত।

তবু ছোট্ট করে লিখে যাই।

আপনার লেখা পড়ে মনে হয়েছিল লেখাটা কনফিউসিং হয়েছে, আপনার এই কমেন্ট টা পড়ে বুঝলাম আপনিই কনফিউসড, নিছক বাক্যগঠনের জন্যে কনফিউসিং হয়ে গেছে এমন নয়।

আমি পরিষ্কার কাটা কাটা প্রশ্ন করি? আপনার ভাবনায়

ইন্দো-ইউরোপীয় ভাষা এবং কালচার কি ভারতীয় উপমহাদেশে বাইরে থেকে আসা না নয়?

যদি এইটার উত্তর আপনার আছে হ্যাঁ হয়, তাহলে সেই 'আসা' টা invasion না migration না trickling in না diffusion, এগুলোয় দুর্গা-অসুর এর প্রোপাগ্যান্ডাটির কন্টেক্সট এ অপ্রাসঙ্গিক। কারণ মেকানিজম যাই হয়ে থাকুক না কেন, এইটার উত্তর হ্যাঁ বলার মানে হচ্ছে 'আর্য সভ্যতা' ও 'অনার্য সভ্যতা' এই টার্মদুটোকে ডিফাইন করার মত প্রয়োজনীয় কন্ট্রাস্ট ছিল এবং 'আর্য সভ্যতা' উপমহাদেশে ইন্ট্রুসিভ।


আর যদি এইটার উত্তর আপনার কাছে না হয়, তাহলে অন্তত থাপার কে সিলেক্টিভলি কোট করা বন্ধ করুন, কারণ থাপার আদৌ এটায় আপনার সাথে এগ্রিড নন। and at least own up to the fact that what you are saying is essentially what the frauds like Frawley, Kak, Rajaram are screaming.


বাকিও একগাদা অদ্ভুত যুক্তি দিয়েছেন, কিন্তু সেইগুলো কাটাছেঁড়া করার সময়, ইচ্ছে কোনটাই বিশেষ নেই।
নেহাত নিজের লেখা না হলে আপনাকে বলতাম, যে টই এ ভুল করে লেখাটা পেস্ট করেছিলেন, সেইটায় চোখ রাখলে এমন অনেক "আধুনিক প্রাচ্য এবং পাশ্চাত্যের বাঘা বাঘা পন্ডিত" দের খড় কুচোনো কুচোনো হবে দেখতে পাবেন।


আর হ্যাঁ, স্ট্যাটাস তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়া, লেখা বলতে আমি অন্যজাতের জিনিস বুঝি, টাইপ করে ফেললাম আর লিখে ফেললাম এই দুটো আমার কাছে সমার্থক নয়। যা অন্তত দুবার রিরাইট করতে হয়নি কিম্বা দুটো রাত জাগতে হয়নি তাকে আমি লেখা বলিনা।




Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

নিজের লেখা নিয়ে সুপারইগো থেকে দূরে থাকাই ভালো , তবে আস্ক পারপোলা নামটা ইচ্ছাকৃত অমিসন করলেন কেন বুঝলাম না, (সিলেকটিভ কোটেশন ?) দেবীপ্রসাদ চট্টোপাধ্যায় নিয়েও হয়তো একই বক্তব্য রাখবেন , আমরা আসলে সবাই নিজের হাইপোথেসিস সাপোর্ট করা লোক ই খুঁজি, কি আর করা যাবে ।


আমি বরঞ্চ ইন্টার মিংলিঙ শব্দ তা ব্যবহার করতাম , ইনট্রুসিভ না লিখে, যাক সে আর কি করা যাবে । প্রয়োজনীয় কনট্রাস্ট মানেই যে নেগেটিভ , সেটা বোধয় অন্য কোনো স্কুলের সিলেবাসে ছিল ।


আর অদ্ভুত যুক্তি ( মানে যা আপনার কাছে প্যালেটেবল নয় ) নিয়ে কাটা ছেঁড়া করার সময় বা ইচ্ছে না থাকা আপনার চয়েস ।

and at least own up to the fact that what you are saying is essentially what the frauds like Frawley, Kak, Rajaram are screaming. ( এই আক্রমণ তার মানে বুঝলাম না , আপনিও তো নিজের কথা কিছু লেখেন নি ,অন্যদের বই থেকেই কোট করছেন - আমি বা আপনি কেউই ইন্ডোলজিস্ট নই)

এছাড়া বহু প্রসঙ্গ আপনি ইচ্ছে করেই এড়িয়ে গেলেন , যেমন কোথায় কোনো লিখিত ইতিহাস বা ফোক কালচার না থাকা সত্ত্বেও কি ভাবে অসুর কে মহিষাসুর কে বানিয়ে দেওয়া হলো , কালচারাল এসিমিলেশন কিনবো অগ্গ্রেশন হিসেবে দেখতেই হবে, ইন্দো ইরানিয়ান ভাষা গোষ্ঠী এতদিন ধরে কেন মাইগ্রেশন করলো মিলিটারি সুপ্রিম হয়েও ইত্যাদি, যাক সে জন্যে আপনাকে কিছু বলে লাভ নেই বুঝতেই পারলাম ।

আর সত্যি মনে হয় এ ব্যাপারে আলোচনা করা উচিত নয়- ভালো থাকুন ।








Avatar: sswarnendu

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

সৌম্যদীপবাবু,

পারপোলার নাম না লেখার কারণ নেহাতই আপনার জুয়াচুরি নিয়ে আর সময় নষ্ট না করার ইচ্ছের জন্য। পারপোলা অবশ্যই ক্রেডিবল স্কলার, আর ঠিক সেইজন্যেই আপনাকে থাপার এর মত তাঁকেও মিসরিপ্রেসেন্ট করতে হয়েছে। ( মূল লেখাটায় নয় অবশ্য, সেখানে পারপোলার রেফারেন্স শুধু মহিষ বলির ট্র্যাডিশন নিয়ে, কিন্তু কমেন্ট এ এমনভাবে লিখেছেন যেন পারপোলা ও ফ্রলে একই মত সাবস্ক্রাইব করেন, ঠিক যেমন মূল লেখাটায় থাপারকে নিয়ে যেমনভাবে লেখা; থাপার যা বলেছেন আর আপনি যেভাবে থাপারকে রিপ্রেসেন্ট করেছেন সেটাকে জুয়াচুরি বলে )।

"Asko Parpola, THE COMING OF THE ARYANS TO IRAN AND INDIA AND THE CULTURAL AND
ETHNIC IDENTITY OF THE DÃSAS "

লিঙ্ক ও রেখে গেলাম, পড়ে দেখে নিতে পারেন যে কেউ সৌম্যদীপবাবুর এই 'সিলেকটিভ' কোটগুলোর চরিত্রটা...
http://ojs.tsv.fi/index.php/StOrE/article/view/49745/14789

আরও একগাদা দিতে পারি পারপোলার লেখা থেকে, সবকটার লিঙ্ক নেই তাই স্ক্রিনশট নিয়ে দিতে হবে তাই আর খাটলাম না এখন।

আর আবারো intermingling এর শাক দিয়ে মাছ ঢাকা। যেকোন দুটো কালচার যারা পরস্পরের সংস্পর্শে বহুদিন আছে সেগুলো ইন্টারমিঙ্গল করেই, ফলত ওটা কোন কথাই নয়। ইন্দো-ইউরোপীয় কালচার ভারতীয় উপমহাদেশে ইন্ট্রুসিভ না নয়? বাইরে থেকে এসে এক্সপ্যান্ড করেছে না নয়? এই সোজা প্রশ্নটার উত্তর দিতে আপনার ব্যথাটা কিসে সেটা বাকিদেরও বলুন একটু। ( পারপোলার এ বিষয়ে মত জানতে যে আর্টিকলটা দিলাম সেটা পড়তে অবধিও হবে না, টাইটেলটা পড়লেই হবে :P )।

এখন এই অবধিই থাকুক নাকি সৌম্যদীপবাবু? লাগলে বলবেন। :D






Avatar: sswarnendu

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

আর একটা চ্যালেঞ্জ ও রেখে গেলাম, আমাকে পারপোলা র একটা লেখার রেফারেন্স দিতে হবে যেখানে উনি উপমহাদেশে ইন্দোইউরোপীয় কালচারকে ইন্ট্রুসিভ নয় বলেছেন।
Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

জুয়াচুরি - বাহ্ , অসাধারণ। ফ্রলে র নাম শুনেই এতো উত্তেজিত হয়ে পড়বেন না মশাই ,

নিজেকে একটু বেশী পড়ুয়া ভেবে ফেলছেন বোধয়, তো যাই হোক সিলেক্টিভ ব্যাপারে রোমিলা থাপারের এই বক্তব্য দেখতে পারেন- ( http://www.indoaryans.org/romila-thapar-aryans.html

আপনি নিশ্চয়ই আমার চেয়ে বেশি সৎ উদ্দেশ্য নিয়ে লেখেন, ফলে পার্সোনাল এট্যাক এ নেমে আস্তে হচ্ছে, তো আমার টাইটেল পড়ার দরকার নেই আস্ক পারপোলার বই টি আমার কাছে আছে ( অবাক হবেন না যেন। )

আশা করি বাকি রেফারেন্স দেওয়া বই গুলো ও উল্টে পাল্টে দেখে আপনি আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করবেন একটু ,দূরাশাই বলতে পারেন ।

আর ইমোটিকন গুলো এখানে ঠিক কাজ করে না বুঝলেন , তাই বেকার টাইপ করছেন এগুলো । তার থেকে একটু অন্য মতের প্রতি সন্মান জানানো শিখুন লেবেলিং এর মতো ড্রিবলিং না করে, এই বয়স টা আমি অন্তটি পেরিয়ে এসেছি ।

আপনি কন্টিনু করুন, আমি এখানে আর কিছু লিখবো না , কারণ যে কনক্লুশন কোনো ঐতিহাসিক এখনো দিতে পারেন নি, সেটা আপনাকে প্রমান করতেই হবে - শুভেচ্ছা রইলো










Avatar: চুপি চুপি

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

সৌম্যদীপ বাবু ,
আপনি হয়তো নতুন এখানে লিখেছেন বলে জানেন না , এখানে কিন্তু এক্ষুনি আপনাকে 'চাড্ডি' ইত্যাদি বলে দাগিয়ে দেওয়া হলো বলে।গুরুচন্ডালী ফোরাম টি বামঘেঁষা , মায়াপাতায় পোস্টমডার্ন নিওলিবারেল লেফট এক্টিভিজম এর জায়গা । বহু লোকের বক্তব্য পছন্দ না হলেই তাকে বুলি করে তাড়ানো হয়েছে ।ডানপন্থী থট অফ স্কুল এখানে নিষিদ্ধ তবে যেকোনো বামপন্থী চিন্তনের চেরিপিকিং স্বাগত ।
তবে ছাড়বেন না , সাহস করে লিখে যান - ওই যে মাও বলেছেন না সদর দপ্তরে কামান দাগতে :-)
Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

আর আমি বলেছি আস্ক পারপোলা এ আই টি খারিজ করেছেন , আপনি ওনার বই টি (দা রুটস্ অফ হিন্দুইজম )
দেখে নিতে পারেন উনি কোথায় আপনার ভাষায় ইনট্রুসিভ টাইপ বাক্যবন্ধ ব্যবহার করেছেন কিনা। রোমিলা থাপারের জ্যে যেন ইউ তে বক্তৃতার লিংক তা তো দিয়েই দিয়েছি, দেখুন উনি আপনার পছন্দের ভোক্যাবুলারি ব্যবহার করেছেন কিনা । জানি না এবার হয়তো বলবেন, আমি গিয়ে ওয়েব সাইটে ওনার মন্তব্য বিকৃত করেছি , সব ই সম্ভব ।










Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

চুপি চুপি বলি- আছি অনেক দিন ই ।


Avatar: sswarnendu

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

এখনো সাদা প্রশ্নের সাদা উত্তর এল না...

কালচারটা ইন্ট্রুসিভ না নয়?

আর থাপারের আপনার ই দেওযা লিঙ্ক থেকে

"So the idea is not that there is a huge displacement of people and culture but a kind of slow trickling in of people bringing in new technology, new ideas."

:D

Avatar: Blank

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

ইয়ে মানে সৌম্যদীপ বাবু, এই প্রশ্ন টার একটু সিম্পল উত্তর দিন না

"ইন্দো-ইউরোপীয় কালচার ভারতীয় উপমহাদেশে ইন্ট্রুসিভ না নয়? বাইরে থেকে এসে এক্সপ্যান্ড করেছে না নয়?"
AIT নিয়ে কেউ ভাবছে কি আদৌ, এই কনটেক্সটে!!
Avatar: pi

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

পুরো আলোচনা পড়িনি ঠিক করে , কিন্তু এক জায়গায় গিয়ে চোখ আটকে গেল। ত্রিপুরা নামের উৎস তো এখানকার লোকজন আলাদা বলেন। তিপরা থেকে এসেছে, তার মানে জল, যদ্দুর মনে পড়ছে। দুর্গা দিয়ে কিছু তো পড়িনি।
Avatar: গোপাল

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

সংস্কৃত ত্রিপুরা আর এই ত্রিপুরা বোধয় আলাদা। তিপ্পারার সঙ্গে ত্রিপুরার অ্যাসোসিয়েশনটা, ঐ বৈদিকীকরণ না আর্যীকরন কি বলে, ঐসব ব্যাপার। এই প্রসঙ্গে কদিন আগে ভাট বা কোন টইতে কি যেন কথা হচ্ছিল...
ভয়ঙ্কর স্বল্পবিদ্যা ফলিয়ে গেলাম, ত্রিপুরা প্রসঙ্গ দেখে।
Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

ত্রিপুরা সংক্রান্ত জায়গাটা আস্ক পারপোলার (ফিনিশ ইন্ডোলজিস্ট
) এর বই থেকে নেওয়া
Avatar: Soumyadeep Bandyopadhyay

Re: দুর্গা, নিওলিথিক উত্তরাধিকার

স্বর্ণেন্দু বাবু , মনে হয় উত্তর দেবার তাগিদে ঠিক ঠাক পড়লেন না ।।।

''So let's turn then to the question of the coming of the Indo-Aryans. The very question that is largely accepted in academic circles except for a minority of people at the moment. And largely rejected by the media, that seems to support the notion that the Aryans were indigenous and didn't come from anywhere. By the Aryans please note that I mean people who spoke Indo-Aryan.
Who were they? They were the speakers of a language that belongs to the Indo-European family. They have common roots with Iran - Old Iranian, Indo-Aryan. There are similarities in the society of both. You have a warrior aristocracy, you have householders, you have ritual specialists. They break away from the Iranians with some ?and increasing it. Now in this situation there has to be, anybody who's raiding, is coming in and is a raider and is building his wealth on the basis of a raid, there has to be a dependence on the host society. They have to settle in the vicinity in order to carry out the raids. And they need to negotiate relationships with the host society. The negotiations may be - I'll come and bash you and take away all your cattle. But the negotiations may also be - let's come to some agreement, over pastoral lands, over water over agriculture, over whatever it may be. Given the terrain of inhospitable mountains there would be a tendency to migrate in small groups, which means there would be a tremendous mixture of people, language and ways of life’’
আমার বক্তব্যে আমি কোথাও বলিনি যে এই ভাষা গোষ্ঠী বাইরে থেকে আসেনি – ফলে ইন্ত্রুসন হয়েছে কি হয়নি বলতে আপনি আলাদা কি কনফার্মেশন চাইছেন আমার এই অদীক্ষিত মাথায় ঠিক ঢুকছেনা..কারণ ইন্ভেসন থিওরি বাতিল করা নিয়ে বক্তব্য রেখেছিলাম, মায়গ্রেসন নিয়ে কখনই নয় .
এবার আপনার কোট করা অংশে ( trickle) আমার কোনো আপত্তি নেই , কারণ আমিও বলেছি এই মায়গ্রেসন চলেছে বহু বছর ধরে এবং সংশ্লিষ্ট সাংস্কৃতিক মিশ্রণ ঘটেছে > আমার এই অংশ টা আবার লেখা এই কারণেই যে দুর্গা বনাম মহিষাসুর এর মূল প্রতিপাদ্য় বিষয় যে আর্য রা এলো এসে পুরো লাশ কা মাউন্টেন খুন কা ফাউন্টেন বানিয়ে সমস্ত সংস্কৃতি আত্মসাত করে নিজেদের টা চাপিয়ে দিল , এরম সোজা সাপ্টা মোটেই নয় . এবং অবশ্যি কিছু কিছু জায়গায় ভারতের এই মিশ্রণ / অনুপ্রবেশ বেশী হয়েছে কিছু অংশে হয়ই নি > যে কোনো টাইম টেকিং মাস মায়গ্রেসন এর ক্ষেত্রেই যা ঘটে থাকে >
একটা উদাহরন দিতে পারি, আমি বাংলার বাইরে কাজ করি > সময়ের সাথে আমি এখানের ভাষা ও সংস্কৃতি কিছু টা আত্মস্থ করেছি এবং ফলত আমার বাংলায় মাঝে মাঝে এই ভাষার অনুপ্রবেশ ঘটে আবার উল্টো দিকে মাছ বিক্রেতা জানেন আমি কিরকম মাছের পিস চাই , তাই তিনি আমাকে লোকাল ভাষায় মাছের বেঙ্গলি কাট দিয়ে থাকেন – এটাকে আপনি ইন্ত্রুসন বলতেই পারেন এবং সেটা কোন কনোটেশন এ ব্যবহার করবেন সে বিষয়ে আমার আর কিছুই বলার নেই .
Furthermore pastoralists have what has been called symbiotic relationships with agriculturalists. And the symbiotic relationship is that frequently - and it's at two levels - one is, of course, at the level of exchange. The pastoralists bring in their products and the agriculturists have their products and there might be an exchange. For instance, dairy produce may be given to the agriculturalists, while grain is taken from the agriculturalists by the pastoralists. But there is a much more subtle and intensive interrelationship. For example when the crop is harvested and the field is covered with stubble - usually six inches high after the harvest has been cut. That’s when the pastoralists come in with their herds and the animals feed on the stubble. And the animal droppings manure the field. To this day if you travel through Rajasthan at particular periods, particularly in spring, you will find herds of animals going along a circuit and the circuit is always that they will spend one week in this village, they will eat the stubble of the grain and manure the field and then the animal herd will move on to the next village and do the same. And this is an unwritten convention between the agriculturist and the pastoralist. And this is extremely important because one can't talk about the two being separate societies - they're integrated societies.
ওপরের অংশেও রোমিলা সেই ইন্টার মিন্গ্লিং (শাক দিয়ে মাছ ঢাকা) এবং ইন্টার রিলেটিভ সিম্বীয়টিক এর কথাই বলছেন , লক্ষ্য করতেই পারেন .
আস্ক পার্পলা ঠিক যেমনি আর্য রা ইন্ত্রুসন করেনি এরকম কিছু বলেননি , ঠিক সেরকম ভাবেই আপনি যে অর্থে ইন্ত্রুসন ব্যবহার করতে চাইছেন সে অর্থেও কিছু বলেননি- তাই প্রশ্নোত্তরের অবকাশ এখনো রয়েছে এবং হরপ্পার সমস্ত লিপির পাঠ সম্ভব হলে হয়ত কোনো নতুন দিশা পাওয়া যাবে .
তদ্দিন আমার আপনার ব্যক্তিগত অনুমানে কিছুই যায় আসবে না.
যাই হোক শেষ পর্যন্ত এই এক সেমান্টিক নিয়ে জিমনাস্টিক আর ভালো লাগছেনা, কারণ সব কিছু ছেড়ে হ্যান কি না টাইপ ক্লোস্ড কোশ্চেন এইরকম বিতর্কে ঠিক প্রত্যাশিত নয় .


মন্তব্যের পাতাগুলিঃ [1] [2] [3] [4] [5] [6]   এই পাতায় আছে 86 -- 105


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন