Prativa Sarker RSS feed

Prativa Sarkerএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • দক্ষিণের কড়চা
    গরু বাগদির মর্মরহস্য➡️মাঝে কেবল একটি একক বাঁশের সাঁকো। তার দোসর আরেকটি ধরার বাঁশ লম্বালম্বি। সাঁকোর নিচে অতিদূর জ্বরের মতো পাতলা একটি খাল নিজের গায়ে কচুরিপানার চাদর জড়িয়ে রুগ্ন বহুকাল। খালটি জলনিকাশির। ঘোর বর্ষায় ফুলে ফেঁপে ওঠে পচা লাশের মতো। যেহেতু এই ...
  • বাংলায় এনআরসি ?
    বাংলায় শেষমেস এনআরসি হবে, না হবে না, জানি না। তবে গ্রামের সাধারণ নিরক্ষর মানুষের মনে তীব্র আতঙ্ক ছড়িয়েছে। আজ ব্লক অফিসে গেছিলাম। দেখে তাজ্জব! এত এত মানু্ষের রেশন কার্ডে ভুল! কয়েকজনের সাথে কথা বলে জানলাম প্রায় সবার ভোটারেও ভুল। সব আইকার্ড নির্ভুল আছে এমন ...
  • যান্ত্রিক বিপিন
    (১)বিপিন বাবু সোদপুর থেকে ডি এন ৪৬ ধরবেন। প্রতিদিন’ই ধরেন। গত তিন-চার বছর ধরে এটাই বিপিন’বাবুর অফিস যাওয়ার রুট। হিতাচি এসি কোম্পানীর সিনিয়র টেকনিশিয়ন, বয়েস আটান্ন। এত বেশী বয়েসে বাড়ি বাড়ি ঘুরে এসি সার্ভিসিং করা, ইন্সটল করা একটু চাপ।ভুল বললাম, অনেকটাই চাপ। ...
  • কাইট রানার ও তার বাপের গল্প
    গত তিন বছর ধরে ছেলের খুব ঘুড়ি ওড়ানোর শখ। গত দুবার আমাকে দিয়ে ঘুড়ি লাটাই কিনিয়েছে কিন্তু ওড়াতে পারেনা - কায়দা করার আগেই ঘুড়ি ছিঁড়ে যায়। গত বছর আমাকে নিয়ে ছাদে গেছিল কিন্তু এই ব্যপারে আমিও তথৈবচ - ছোটবেলায় মাথায় ঢুকিয়ে দেওয়া হয়েছিল ঘুড়ি ওড়ানো "বদ ছেলে" দের ...
  • কুচু-মনা উপাখ্যান
    ১৯৮৩ সনের মাঝামাঝি অকস্মাৎ আমাদের বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ(ক) শ্রেণী দুই দলে বিভক্ত হইয়া গেল।এতদিন ক্লাসে নিরঙ্কুশ তথা একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করিয়া ছিল কুচু। কুচুর ভাল নাম কচ কুমার অধিকারী। সে ক্লাসে স্বীয় মহিমায় প্রভূত জনপ্রিয়তা অর্জন করিয়াছিল। একটি গান অবিকল ...
  • 'আইনি পথে' অর্জিত অধিকার হরণ
    ফ্যাসিস্ট শাসন কায়েম ও কর্পোরেট পুঁজির স্বার্থে, দীর্ঘসংগ্রামে অর্জিত অধিকার সমূহকে মোদী সরকার হরণ করছে— আলোচনা করলেন রতন গায়েন। দেশে নয়া উদারবাদী অর্থনীতি লাগু হওয়ার পর থেকেই দক্ষিণপন্থার সুদিন সূচিত হয়েছে। তথাপি ১৯৯০-২০১৪-র মধ্যবর্তী সময়ে ...
  • সম্পাদকীয়-- অর্থনৈতিক সংকটের স্বরূপ
    মোদীর সিংহগর্জন আর অর্থনৈতিক সংকটের তীব্রতাকে চাপা দিয়ে রাখতে পারছে না। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন শেষ পর্যন্ত স্বীকার করতে বাধ্য হয়েছেন যে ভারতের অর্থনীতি সংকটের সম্মুখীন হয়েছে। সংকট কতটা গভীর সেটা তার স্বীকারোক্তিতে ধরা পড়েনি। ধরা পড়েনি এই নির্মম ...
  • কাশ্মীরি পন্ডিত বিতাড়নঃ মিথ, ইতিহাস ও রাজনীতি
    কাশ্মীরে ডোগরা রাজত্ব প্রতিষ্ঠিত হবার পর তাদের আত্মীয় পরিজনেরা কাশ্মীর উপত্যকায় বসতি শুরু করে। কাশ্মীরি ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের মানুষেরাও ছিলেন। এরা শিক্ষিত উচ্চ মধ্যবিত্ত ও মধ্যবিত্ত শ্রেনি। দেশভাগের পরেও এদের ছেলেমেয়েরা স্কুল কলেজে পড়াশোনা করেছে। অন্যদিকে ...
  • নিকানো উঠোনে ঝরে রোদ
    "তেরশত নদী শুধায় আমাকে, কোথা থেকে তুমি এলে ?আমি তো এসেছি চর্যাপদের অক্ষরগুলো থেকে ..."সেই অক্ষরগুলোকে ধরার আরেকটা অক্ষম চেষ্টা, আমার নতুন লেখায় ... এক বন্ধু অনেকদিন আগে বলেছিলো, 'আঙ্গুলের গভীর বন্দর থেকে যে নৌকোগুলো ছাড়ে সেগুলো ঠিক-ই গন্তব্যে পৌঁছে যায়' ...
  • খানাকুল - ২
    [এর আগে - https://www.guruchan...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

সেই মেয়েটা

Prativa Sarker

এই সপ্তাহটাতেও মেয়েটার কথা কেউ বললো না। অথচ ঈদ ছিলো, ঈদের চাঁদ ছিলো, ছিলো,দাওয়াত ছিল, উৎসবের আমেজ ছিলো।আমার আশা ছিলো হয়তো আল্লার বান্দাদের হৃদয় পরিবর্তন হবে।
কিন্তু না, ফেসবুকের পাতা জুড়ে ব্রেক্সিট আছে, হিন্দু মুসলমানের লেঙ্গী মারামারি আছে, দিদির প্রশংসা, বিরোধীর মুন্ডুপাত, ইতিহাস, পরিবেশ, সওওওওব আছে,  শুধু মেয়েটা নেই !!

কিন্তু মেয়েটা হাসলে গালে টোল পড়তো, ঘাড় অব্দি উজ্জ্বল ঘন চুল ছিল। বুদ্ধির দীপ্তি ছিল। ত্রিশের কোঠাতেই বয়স আটকে ছিল। আর ছিল দুরন্ত সাহস, মানুষের ভালো করার অদম্য ইচ্ছে।
মেয়েটা আমার প্রতিবেশি। একই শহরে থেকেছি আমরা বহুকাল। কিন্তু সে হিন্দু নয় যে তার হারিয়ে যাওয়াকে বিষিয়ে দেবার কাজে লাগাবে হিন্দুত্ববাদীরা, আবার সে  মুসলমানও নয় যে আল্লার বান্দা হারিয়ে যাওয়ায় দুঃখ পাবে অনেক লোক।
দয়া আর করুণায় ভাসা মনটি সে ধর্মীয় প্রেক্ষিত থেকেই অর্জন করেছিল হয়তো কিন্তু সে কাজ করতো এমন একটি সেবামূলক সংস্থায় যেখানে তার ধর্মীয় পরিচিতি গুরুত্বপূর্ণ ছিল না।
সে ছিলো আগা খান ফাউন্ডেশনের সিনিয়র টেকনিক্যাল এডভাইসর (Gender)।এই প্রাইভেট অলাভজনক আন্তর্জাতিক ডেভেলপমমেন্ট এজেন্সিটি লড়াই করে দারিদ্র্য, ক্ষুধা, অশিক্ষা আর কুস্বাস্থ্যের বিরুদ্ধে। প্রায় সারা পৃথিবীতেই।
আফগানিস্তানেও এদের কর্মকান্ড ছড়িয়ে রয়েছে যুদ্ধদীর্ণ এলাকাগুলিতে। ও দেশে মেয়েদের বর্তমান অবস্থা সকলেরি জানা। তাদের দুর্দশা কমাবার জন্য যে বিরল সাহস এবং হৃদয়বত্তা দরকার তা মেয়েটির ছিলো।

সন্ধ্যবেলা বাড়ি ফেরার পথে তাকে তুলে নিল সন্ত্রাসীরা, তারপর থেকে দুই দেশের সরকারও চুপ, ফেসবুকও তাকে ভুলে গেছে।সবই নাকি তার নিরাপত্তার জন্য।! এ কোন নিরাপত্তার ছল যা তার মুক্তির দাবীকেও সোচ্চার হতে দেয় না !

আমিই কেন কে জানে প্রত্যেক সপ্তাহে তার কথা খুঁজে বেড়াই পোস্টে পোস্টে। শিউরে উঠি 2014 সাল থেকে আই এসের খালি ইয়াজিদি কমিউনিটি থেকেই 3000 যৌনদাসী সংগ্রহেরইতিবৃত্ত জেনে। স্মার্ট ফোনের এপেও মেয়ে কেনাবেচা ! সেখানে বারো বছরের মেয়ে আছে, তিনমাসের কন্যাসন্তানও। বোকো হারাম যে দুশো মেয়েকে তুলে নিয়ে গেল, তার কজন ফেরত এলো !
কাগজ হাতড়াই।পাঁচদিন বাদে বাড়ি আসবার কথা ছিলো মেয়েটির। হয়তো সে পাল্লায় পড়েছে
কোন সংগঠিত অপরাধী চক্রের মুক্তিপণ আদায় করাই যাদের পেশা। আফগানিস্তানে এই উদ্দেশে অপহরণ এখন খুব চালু। মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার হাতিয়ে নেওয়া যায় এইভাবে। আশার আলো দেখতে চাই, তাই মনে করি ডাচ এইড ওয়ার্কার আঞ্জা ডিবিয়া র্সের কথা যাকে গত জুন মাসে কিডন্যাপ করা হয়েছিল। তিনমাস বাদে বন্দীদশা থেকে ফিরে আসেন তিনি।

যা যা সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে তার কোনটাই শুভ নয়। আরো আশঙ্কা বাড়াচ্ছে সরকারের অদ্ভুত নীরবতা। মেয়েটা তো আর কর্পূর নয়। তার মুক্তির জন্য কি কি পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে অন্ততপক্ষে তার একটা সামারিও কি জানার অধিকার নেই একজন চিন্তাকুল নাগরিকের?


প্রবাসী বাইশ বছরের মেয়ের ক্লাস ফাইভে পড়ার সময়কার একটা পুরোনো ছবি আছে আমার পার্সে। সেদিকে চোখ পড়লেই নিজের মনে বিড়বিড় করি, জুডিথ  ডি সুজা, তুমি ফিরে এসো, প্লিজ !

281 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: kihobejene

Re: সেই মেয়েটা

sotti kharap laage; boddo beshi bishiye geche poribesh ta - amader moto sadharon netizen der ki kichu korar ache? e-signature? fb post? email to ministers? thaakle janaben.
Avatar: Du

Re: সেই মেয়েটা

সত্যি~ কোন খবর নেই!!
Avatar: π

Re: সেই মেয়েটা

সত্যিই ১৯ জুনের পর আর কোন খবর নেই ! মিডিয়াতে কোন উচ্চবাচ্যা নেই! আমরাও তো বলিনি। খেয়ালই করিনি।
Avatar: Abhyu

Re: সেই মেয়েটা

এই টইয়ের প্রসঙ্গ নয়, তবু ঈদ ছিলো, ঈদের চাঁদ ছিলো, এইটুকু পড়েই মনে হল লিখি। আমার শ্বশুরবাড়ির ফ্ল্যাটে যিনি প্রতিদিন এসে ময়লা নিয়ে যান তাঁকে ঈদের শুভেচ্ছা জানাতে ম্লান হেসে বললেন ঈদ আর মুবারক হল কই দিদি? আমার সাত বছরের ভাইঝি সাপের কামড়ে মারা গেল। এই কদিনের বর্ষায় ঘরে জল ঢুকেছিল, সাপটা জলের মধ্যেই ছিল ...

গরীব মুসলমান পরিবার, ওঝা ইত্যাদির হাত পেরিয়ে যখন ডাক্তারের কাছে পৌঁছল তখন বড় দেরী হয়ে গেছে। মেয়েটি আর ফিরবে না।
Avatar: Prativa Sarker

Re: সেই মেয়েটা

নিদেনপক্ষে একটা পিটিশন ? রোজ উড়তা পাঞ্জাব, ছাদ থেকে কুকুর ফেলে মোবাইলএ সেই আনন্দ তুলে রাখা, সব নিয়ে পিটিশন সাইন করছি এবং ন্যায্য কারণেই করছি। জুডিথের মা দিদি কলকাতাতেই থাকেন। ও লরেটো হাউসের ছাত্রী। সহ নাগরিকদের এই বিস্মরণ খুব পীড়াদায়ক ।
Avatar: Prativa Sarker

Re: সেই মেয়েটা

অভ্যু, সত্যি এবারের ঈদ মুবারক হবার চাইতে শত যোজন দূর!
Avatar: π

Re: সেই মেয়েটা

পিটিশন তো করা যায়। কিন্তু পরিবারের লোকের সাথে কথা বলতে পারলে ভাল হত। সবচে ভাল হত ওঁদের কেউ করলে। কারণ উদ্ধারকাজের কদ্দুর কী হয়েছে, কোথায় আটকেছে জানা নেই। ওঁরাই সবচে ভাল বলতে পারবেন। নইলে এমন দাবি নিয়ে পিটিশন হল, হয়তো দেখা যাবে সেই কাজ ইতিমধ্যেই হয়েছে বা হচ্ছে।
কোনোভাবে যোগাযোগ করা যায় এঁদের সাথে ?

অভ্যুর খবরটা শুনে খুব খারাপ লাগাল। এই ওঝাদের অ্যান্টি ভেনম সাপ্লাই করে বা তাই নিয়ে অবহিত ক'রে ট্রেনিং দিয়ে শেখানো ছাড়া উপায় দেখিনা ।
Avatar: Abhyu

Re: সেই মেয়েটা

ওনাকে উদ্ধার করা হয়েছে।
Avatar: Abhyu

Re: সেই মেয়েটা

Avatar: amit

Re: সেই মেয়েটা

এটা মোদি সরকারের একটা উল্লেখযোগ্য সাফল্য। বেকার হট্টগোল না করে, বাজার গরম না করে, চুপ চাপ ভেতরে ভেতরে কাজ সেরে ফেলার একটা ভালো নমুনা।


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন