এই সপ্তাহের খবর্নয় ( নভেম্বর ৩০)


লিখছেন --- খবরোলা অ্যান্ড কোং


আপনার মতামত         


কম পড়িয়াছে সান্টা
------------------

এসে গেছে ক্রিসমাস। বিদেশে এই সময় দোকানে, বাজারে, শপিং মলে সর্বত্র দেখা যায় হাসিখুশি, মোটাসোটা, লাল পোশাক পরিহিত সান্টা ক্লজ। সান্টা সাজা কিন্তু সহজ নয়। একে তো শারীরিক গঠন সান্টার উপযুক্ত হতে হবে, তার ওপর এই একমাস সাংঘাতিক পরিশ্রম করতে রাজী থাকতে হবে। সবাই জানে যে সান্টা স্লে চড়ে তাই গাড়ি চালিয়ে কাজে যাবার অনুমতি নেই এই নকল সান্টাদের। কর্মক্ষেত্র থেকে বেশ খানিক দূরে তাদের গাড়ি রেখে হেঁটে আসতে হয়। তার ওপর থাকতে হবে বেশ ভালো অভিনয় ক্ষমতা। ছোটদের তো মনে হতে হবে যে আসলে এই সান্টা তাদের গল্পের বইয়ের আসল সান্টা। জার্মানীতে এই মুহূর্তে সান্টা সাজার লোক পাওয়া যাচ্ছে না। খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না কোনো অপরাধের ইতিহাস না থাকা মোটাসোটা, হাসিখুশি সান্টা। তাও এই অর্থনৈতিক মন্দার সময়ে জার্মানী যখন তাকিয়ে রয়েছে আসন্ন উৎসবের কেনাকাটার দিকে। জার্মানীতে থাকা গুরু পরিবারের কেউ চেষ্টা করে দেখবেন নাকি? মাইনে খারাপ নয়, ঘন্টা প্রতি ৭৫ ডলার।


বিনা মাইনেতে চাকরী
--------------------

সারা বিশ্ব জুড়ে অর্থনীতির এই মন্দার সময়ে কর্পোরেট জগতের উপরের দিকের লোকেদের আয়ের উপর নজর সবাইকার। কে বেশি বোনাস পেলেন, কারা অযথা পয়সা নষ্ট করছেন তা নিয়ে সরব হচ্ছে দুনিয়ার সমস্ত প্রচারমাধ্যম। এই অবস্থায় সুইডেনের পোস্ট অফিসের প্রধান - নর্ডস্ট্রম - ঘোষণা করলেন যে বাকী সময়টা তিনি বিনা মাইনেতে কাজ করবেন। সম্প্রতি ড্যাগেনস নাইটার নামক একটি সংবাদপত্র একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, যাতে দেখা গেছে নর্ডস্ট্রমের আয় তাঁর পূর্বসূরীদের দ্বিগুণ । তাঁর মাইনে ছিল বছরে ৫০০,০০০ ডলার এবং আরও অন্যান্য ক্ষেত্র থেকে প্রায় ১১০,০০০ ডলার মাসে। এই খবর প্রকাশিত হবার পরে, নর্ডস্ট্রম নিজেকে আড়াল করার কোনোরকম চেষ্টা না করে বাকী সময়টা বিনা মাইনেতে কাজ করার কথা ঘোষণা করেছেন।


চ্যারিটি বিগিনস অ্যাট হোম
-------------------------

দক্ষিণ-পশ্চিম চীনের সিচুয়ান প্রদেশের হেইঝুগাউ শহরের এক পুলিশ অফিসার লাওবুলালিউ মনে করিয়ে দিয়েছেন এই প্রায় ভুলে যাওয়া বাক্যটিকে। লাওবুলালিউ, তাঁর দশ বছরের চাকুরী জীবনে, গ্রেফতার করেছেন ৪৮ জন আত্মীয়কে। তাদের কেউ কেউ খুব কাছের আত্মীয়। যেমন তাঁর নিজের ভাই মদ্যপ অবস্থায় প্রাইমারী স্কুলের টীচারকে মারলে লাওবুলালিউ নিজে সেই ভাইকে গ্রেফতার করেন। শাস্তি পেয়ে অনেকেই লাওবুলালিউয়ের ওপর ক্ষিপ্ত, এমনকি গরুর লেজ কেটে, বা পা কেটে বা বাবা মা কে ভয় দেখিয়ে, শাসাতে চেয়েছে এই সৎ ও নির্ভীক পুলিশ অফিসারকে। কিন্তু তাতেও টলানো যায় নি লাওবুলালিউকে। আজ অবধি প্রায় ২৫ জন ঘনিষ্ঠ আত্মীয়কে নিজ হাতে গ্রেফতার করেছেন এই অফিসার।


স্পেস সেন্টারে জলের সমস্যা
--------------------------

ইন্টারন্যাশনাল স্পেস স্টেশনের কথা তো সবাই জানি। আমেরিকা, রাশিয়া, জাপান, কানাডা এবং ইউরোপের সাতটি দেশের সম্মিলিত প্রয়াসে তৈরি মহাকাশ গবেষণাগার। ২০০০ সালের নভেম্বর মাস থেকে সব সময় কোনো না কোনো মানুষ থাকছে ঐ স্পেস স্টেশনে। তা মহাকাশে থাকতে গেলে তো চাই থাকার মতন ব্যবস্থাপনা। স্পেস স্টেশনের থাকার বন্দোবস্ত নাকি বেশ ভালোই। সম্প্রতি গোল বেধেছে জল উৎপাদন করার যন্ত্রে। জল তৈরির যন্ত্র মানে হাইড্রোজেন আর অক্সিজেন মিশিয়ে রাসায়নিক বিক্রিয়া নয়। অ্যাস্ট্রোনটদের প্রস্রাব পরিশুদ্ধ করে তাই আবার পানীয় হিসেবে ব্যবহার করা হয়। তো, সেই যন্ত্রে গোলযোগ ধরা পড়েছে। নাসার বৈজ্ঞানিকদের মাথায় হাত। জলের বন্দোবস্ত ছাড়া তো সমস্ত প্রোজেক্টটাই ভণ্ডুল হয়ে যেতে বসেছে। এখন স্পেস স্টেশনে থাকে তিনজন, পরিকল্পনা অনুযায়ী আগামী বছর থেকে সেখানে থাকবে ছয় জন। মানে চাই আরও বেশি জল। তাই নাওয়া খাওয়া ভুলে বৈজ্ঞানিকেরা চেষ্টা করে চলেছেন যন্ত্র ঠিক করতে। দেখা যাক কি হয়।


নভেম্বর ৩০, ২০০৮