এই সুতোর পাতাগুলি [1] [2]     এই পাতায় আছে12--42


           বিষয় : রমজান মাসে ইফতারকে কেন্দ্র করে রাজনৈতিক নাটুকেপনা নিয়ে কিছু কথা
          বিভাগ : অন্যান্য
          শুরু করেছেন : সেখ সাহেবুল হক
          IP Address : 52.110.184.226 (*)          Date:26 May 2017 -- 12:10 PM




Name:  sm          

IP Address : 52.110.161.35 (*)          Date:27 May 2017 -- 10:11 AM

তার মানে কোনো অ হিন্দু বিজয়া করে বলতে পারবেনা বিজয়া করলাম? তাকে অঞ্জলি দিতে হবে?


Name:  হারু          

IP Address : 116.208.82.64 (*)          Date:27 May 2017 -- 10:22 AM

বাংলাদেশে হিন্দুদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত না করে অঞ্জলির নাটক করলে তাকে ঢ্যামনামো বলব।


Name:  Du          

IP Address : 57.184.32.243 (*)          Date:27 May 2017 -- 10:28 AM

অঞ্জলি না দিলে বলতে পারবে না অঞ্জলি দিলাম এইটাই বক্তব্য


Name:             

IP Address : 116.193.214.237 (*)          Date:27 May 2017 -- 10:51 AM

কোনো হিন্দু কি পারবে না পারবে সে সম্পর্কে উনি কিছুই বলেন নি। 'হিন্দু' মানে কোনও ইউনিফর্ম স্ট্রাকচারড কিসু থাকলে সে নিয়ে যারা ওয়াকিবহাল তারাই বলতে পারবেন।

আমি জানি না, বৈষ্ণব মতানুযায়ী বিজয়া কী, কীভাবে পালন করা উচিৎ? শৈব মতানুযায়ীইই বা কী? যদ্দুর শুনেছি নভ্‌রাত্রি পালনকারীদের কাছে যে বিজয়া ইত্যাদি নাকি সহী হিন্দুত্ব নয়,




Name:             

IP Address : 116.193.214.237 (*)          Date:27 May 2017 -- 10:54 AM

ভাল কথা দু, খেয়াল করেছ ঠিক রমজান শুরু হওয়ার আগের দিনই সারা দেশে গরুকাটা নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হল? এদিকে বীফ এক্সপোর্টে বিজিপির লোকজনই তো শীর্ষে। তো ওরা না কেটে ক্যামেন বিক্রী করবে বিদেশে সেইটা ভাবছি


Name:  কল্লোল          

IP Address : 233.186.16.14 (*)          Date:27 May 2017 -- 10:56 AM

কিন্তু নাস্তিকদের ভোজ খাওয়ালে কি হবে, সে নিয়ে তো কেউ কিসু কইলে না?



Name:  কল্লোল          

IP Address : 233.186.16.14 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:10 AM

হিন্দুত্ব নিয়ে দুপহা, আমারই একটা পুরোনো লেখা থেকে ঃ
১৮৭২এ জনগণনার সময় এই সব উঠে আসে।
প্রাক্‌ ঔপনিবেশিক সময় ভারতীয় উপমহাদেশের বিভাজনগুলি ছিলো মূলতঃ জাতপাতের ওপর ভিত্তি করে । ধর্মবিশ্বাস নিয়ে ততো আগ্রহী ছিলো না মানুষ । প্রতিবেশীর ধর্মবিশ্বাসের চাইতেও মানুষ অনেক বেশি আগ্রহী ছিলো এটা জানতে যে, সে জলচল কিনা । অবশ্য এই জলচলের বিভাজনের মধ্যে অন্য ধর্ম (বিশেষ করে ভারতীয় উপমহাদেশের বাইরে থেকে আসা ধর্ম) একটা জাত হিসাবেই গণ্য হতো - যবন বা ম্লেচ্ছ ।
জনগণনার কাজে ঔপনিবেশিক শাসকরা যে বিভাজনগুলি তৈরী করলো তা এরকম ঃ
১) ভারতীয় আর্য -
ক) হিন্দু - (১) ব্রাহ্মণ্য হিন্দু , (২) বৈদিক হিন্দু , (৩) ব্রাহ্ম হিন্দু ;
খ) শিখ ;
গ) জৈন ;
ঘ) বৌদ্ধ
২) ইরাণীয় - পার্সি
৩) সেমেটিক -
ক) মুসলমান ,
খ) খ্রীষ্টান ,
গ) ইহুদি
৪) আদিম - মূলতঃ বিভিন্ন আদিবাসী সম্প্রদায়ের ধর্ম
৫) বিবিধ - এই চার বিভাগের অর্ন্তভুক্ত নয় এমন ।

এই কাজ করতে গিয়ে জনগণনা কর্তাদের বেশ ঝামেলায় পড়তে হয়েছিলো । এই সব বিভাগগুলি কখনোই স্বয়ংসম্প¨র্ণ নয় । এরা একে অন্যের সঙ্গে/মধ্যে এমন ভাবে জড়িয়ে যে আলাদা করাটা প্রায় অসম্ভব । যেমন কাদের হিন্দু বলা হবে - এই নিয়ে নানান সংজ্ঞা দেওয়া হতে লাগলো । ১৮৭২-এর জনগণনা সংজ্ঞা অনুযায়ী , হিন্দু হলো ভারতের সেই অধিবাসী যারা ইউরোপীয়, আর্মেনীয়, মুঘল, পারসীয় বা অন্য কোন বিদেশী জাতি থেকে উদ্ভুত নয় , যাদের জাতিগত অবস্থান হিন্দু ধর্ম অনুমোদিত যে কোন একটি জাত-এর ভিতর , যারা ব্রাহ্মণের আধ্যাত্মিক আধিপত্য স্বীকার করে , যারা গোহত্যা করে না ।
আগ্রা-অওধ যুক্তপ্রদেশের জনগণনা কর্তা জর্জ গ্যারিসনের মতে, হিন্দি অর্থ ভারতের সমস্ত অধিবাসী । হিন্দু অর্থ ভারতের অ-মুসলমান অধিবাসী ।
শুধু হিন্দু নয়, শুদ্ধ হিন্দু কে তাই নিয়েও মাথা ঘামিয়েছে জনগণনা । ১৯১১-য় বলা হলো সেই সব গোষ্ঠীকে হিন্দুদের থেকে আলাদা করে দেখাতে , যারা -
১) ব্রাহ্মণের আধ্যাত্মিক আধিপত্য স্বীকার করে না ,
২) ব্রাহ্মণের বা হিন্দুধর্ম অনুমোদিত অন্য কোন গুরুর থেকে মন্ত্রদীক্ষা নেয় না ,
৩) বেদের কতৃত্ব স্বীকার করে না ,
৪) প্রধান হিন্দু দেবদেবীর পূজা করে না ,
৫) কোন ব্রাহ্মণ যাদের যজমান হিসাবে গ্রহন করে না ,
৬) হিন্দু মন্দিরে যাদের প্রবেশাধিকার নেই ,
৭) যাদের ছুঁলে বা যারা কাছে এলেই হিন্দুরা অশুদ্ধ বোধ করে ,
৮) যারা মৃতদেহ কবর দেয় এবং
৯) যারা গোমাংস খায় বা গরুর পূজা করে না ।

এই করতে গিয়ে দেখা গেল , মধ্যপ্রদেশের বেরার-এ যাদের হিন্দু বলে ধরা হয়েছিলো তাদের মধ্যে ২৫ শতাংশ ব্রাহ্মণের/বেদের কতৃত্ব স্বীকার করে না । ৫০ শতাংশ ব্রাহ্মণের বা হিন্দুধর্ম অনুমোদিত অন্য কোন গুরুর থেকে মন্ত্রদীক্ষা নেয় না । ২৫ শতাংশ প্রধান হিন্দু দেবদেবীর পূজা করে না । ৩৩ শতাংশের মন্দিরে প্রবেশাধিকার নেই । ২৫ শতাংশ অচ্ছুত । ১৪ শতাংশ মৃতদেহ কবর দেয় । ৪০ শতাংশ গোমাংস খায় ।
বাংলা বিহার উড়িষ্যায় ৫৯টি হিন্দু জাতের মধ্যে ৭টি জাত, যাদের সংখ্যা তখন ১০ লক্ষেরও বেশী, যারা এই ৯টি বৈশিষ্টের কোন একটির অধিকারী । প্রায় ১৪টি জাত গোমাংস খায় এবং হিন্দু মন্দিরে যাদের প্রবেশাধিকার নেই । এদের অশুদ্ধ হিন্দু বা অংশত হিন্দু বলা হল ।
এছাড়াও তখন ভারতীয় উপমহাদেশে এরকম অজস্র গোষ্ঠী বিরাজ করতো যারা নিজেদের হিন্দু বলতো অথচ তারা মুসলমান ধর্মের বহু আচার আচরণ মেনে চলতো । আবার ঠিক এর উল্টোটাও বিরল ছিলো না যারা নিজেদের মুসলমান বলতো অথচ হিন্দু ধর্মের বহু আচার আচরণ পালন করতো । বাংলাতেই এরকম - আউল, বাউল, ফকির, দরবেশ, কর্তাভজা, লালনপন্থী আরও অগুণতি এমন গোষ্ঠী আজও বিরাজ করে ।



Name:  sm          

IP Address : 52.110.157.76 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:15 AM

তাহলে কল্লোল বাবুর পোস্টেই দেখা গেলো যার যেমন খুশি ,যতটা খুশি আচার রীতি নীতি পালন করতে পারে। কোনো গ্রামার নেই।
সুতরাং হক বাবুর প্রি রিক্যুইসাইট যুক্তি তর্কের মধ্যে আশ্চ্যে না।


Name:  sm          

IP Address : 52.110.157.76 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:16 AM

#আসছে


Name:             

IP Address : 116.193.214.237 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:23 AM

উনি তো হিন্দুদের নিয়ে কিসু বলেনই নি, আসবে কোত্থেকে?? উনি মুসলমান ধর্মের দিক থেকে বলেছেন ওটা হয় না, ইফতারির প্রি-রিক্যুইসিট আছে।
#ঝুড়িকোদাল




Name:  PT          

IP Address : 213.110.242.5 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:26 AM

কল্লোলদার লেখা থেকে সব ধর্ম নিয়ে একই সিদ্ধান্তে আসার চেষ্টা করলে সমস্যা হবে। তার একটা প্রধান কারণ বোধহয় হিন্দু ধর্ম "অপৌরুষেয়" এবং অন্যান্য ধর্ম কোন একজন মানুষের (পুরুষের) থেকে শুরু। এর মানে এই নয় যে হিন্দু ধর্ম মহত্বর কোন ব্যাপার। এর একটাই অর্থঃ হিন্দুধর্মের (আদৌ সেটাকে যদি ধর্ম বলা যায়) কাঠামোটাই সম্পূর্ণ আলাদা। অথবা কাঠামো বলতে কিসুই নাইঃ ঐ জন্যেই "মধ্যপ্রদেশের বেরার-এ যাদের হিন্দু বলে ধরা হয়েছিলো তাদের মধ্যে ......১৪ শতাংশ মৃতদেহ কবর দেয় । ৪০ শতাংশ গোমাংস খায় ।"


Name:  sm          

IP Address : 52.110.157.76 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:28 AM

এটি দেখা গেলো অনেক হিন্দু কবর পর্যন্ত্য দেয়।
আর উনি তো হিন্দু লোকেরা ইফতার করেছি বলতে গেলে প্রি রিক্যুইসিটি হিসাবে শর্ত পালন করার কথা বলেছে। তো শর্ত পালন করা আবশ্যিক এটাই বা উনি বলছেন কেন?




Name:             

IP Address : 116.193.214.237 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:28 AM

একটা স্ট্রাকচারড আর একটা আনস্ট্রাকচারড ধর্মের ব্যবহারিক নিয়মকানুনে, অন্তর্নিহিত ফিলোসফিউতে তফাৎ থাকে। এখানে সেইটা খেয়াল না করলে ....


Name:             

IP Address : 116.193.214.237 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:32 AM

শুধু হিন্দু বলেনন নি, সাধারণভাবেই ওঁর বক্তব্য কোনও মুসলমানও প্রিরিক্যুইসিট পালন না করে শুধু 'ইফতার' করেছি বলা যায় না, সেটা স্রেফ ভোজ খাওয়া হয়। আর এটা "শুধু হিন্দু" নয় হিন্দু মুসলনমান (যিনি রোজা রাখেন নি) খ্রীস্টান, বৌদ্ধ, জৈন, ম্যারোনাইট, জিহোভাইট, নিয়েন্ডারথাল, হোমো-ইরেকটাস সবার জন্যই প্রযোজ্য।


Name:  sm          

IP Address : 52.110.157.76 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:39 AM

সেই জন্যই তো বলছি উনি সবার জন্যই প্রি রিকুইসিট অবশ্য পালনীয় বলেছেন। নিশ্চয় এর মধ্যে হিন্দুরাও পড়েন।কারণ উনি শুরুই করেছিলেন ভড়ং বাজি নিয়ে। সুতরাং হিন্দুদের উদ্দেশ্য করে কিছুই বলেন নি, এটা ঠিক কথা নয়। এটা বোঝাও এমন কিছু শিশি বোতল নয়।
আমার আপত্তি এই প্রি রিক্যুসিটি শর্ত পালন নিয়ে।
আমার মতে কেউ মনের খুশিতে ইফতার, দেওয়ালি, বিজয়া করতে পারে ও বলতেও পারে।



Name:  sinfaut          

IP Address : 11.23.77.223 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:46 AM

#‍১, #৬, আর #৭ আরেকবার পড়ে নিলে বুঝতে সুবিধে হবে।

"কাউকে বাড়িতে ডেকে খাওয়ানো, কিংবা কেউ খেতে চাইলে খাওয়ানোটা জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে অতি উত্তম ব্যাপার। কিন্তু সেজন্য আমার অমুসলিম ভাই বোনকে অযথা টুপি বা হিজাব পরে আসতে হবে না।"

"অমুসলিম ভাইদের বেশিবেশি করে আমন্ত্রণ করুন। তাঁদের সাথে জমিয়ে খাওয়াদাওয়া হোক। অন্তত খাদ্যসম্প্রীতি আসুক। ফল খেতে কার না ভালোলাগে!"

"একসাথে খাওয়াদাওয়া কোনও ব্যাপার নয়। সবাইকেই আন্তরিকভাবে স্বাগত। কিন্তু কেউ যদি বলেন ‘ইফতার করলাম’, সেক্ষেত্রে ইসলাম মেনে তাঁকে সেহেরী এবং রোজাটাও রাখতে হবে। ...

অন্যের ধর্মকে শ্রদ্ধা দেখাতে হলে ভড়ংবাজির প্রয়োজন নেই। ...

অন্যের কেয়ার করি, বা অন্যকে ভালোবাসি দেখাতে কোনও ধর্মের প্রতি লোকদেখানো শ্রদ্ধা কেন থাকবে!"

পুরোটা পড়ে তো রাজনৈতিক পার্টির ইফতার পার্টির কথাই মনে হচ্ছে।


Name:  sinfaut          

IP Address : 11.23.77.223 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:49 AM

"ইফতার করলাম" বলা যাবে না, বলাটা রেস্ট্রিকটিভ লাগছে ঠিকই, কিন্তু আমি এখানে বেনিফিট অফ ডাউট দেব লেখককে, যে উনি রাজনৈতিক দলগুলোর কথাই বলছেন।


Name:  sm          

IP Address : 52.110.157.76 (*)          Date:27 May 2017 -- 11:59 AM

আমার ও আপত্তি ওই জায়গায়। ইফতার করলাম বলা যাবে না। এটা যেন কেউ নীতি নির্ধারক কথা বলছে বলে মনে হলো।ভড়ংবাজি নিয়ে যা বলেছেন তাতে আপত্তি নাই। কারণ আমার মনে হয় লোকজন ভেবে চিন্তেই ভোট দেয় ভড়ং বাজি দেখে নয়।


Name:   সেখ সাহেবুল হক           

IP Address : 111.221.128.163 (*)          Date:27 May 2017 -- 12:20 PM

আমি 'রাজনৈতিক নাটুকেপনা' শব্দটিতে জোর দিয়েছি। সেটিই আসল বিষয়বস্তু। ইফতার পার্টি যেন রাজনৈতিক পার্টি না হয়ে যায়।


Name:  কল্লোল          

IP Address : 233.176.3.40 (*)          Date:27 May 2017 -- 12:42 PM

মোদ্দা কথা রাজনীতি থেকে ধর্ম বিযুক্ত থাক। কিন্তু এই উপমহাদেশে সেটিতে নানান ঝামেলা আছে। তিতুমীর, আদিবাসী বিদ্রোহ, সিপাহী বিদ্রোহ, গান্ধী সবেতেই ধর্ম।


Name:  PT          

IP Address : 213.110.242.6 (*)          Date:27 May 2017 -- 02:42 PM

সে তো জামাই ষষ্ঠীতেও ধর্মের গন্ধ। তাই বলে নাস্তিক জামাইদের কি ঐদিন খাওয়ানো হবেনা? নাকি জামাইরা বলবে যে ষষ্ঠীর দিন না খেয়ে সপ্তমীতে খাব?


Name:  sm          

IP Address : 52.110.154.26 (*)          Date:27 May 2017 -- 02:53 PM

এটা পিটি পুরো একঘর দিলো।😆


Name:  S          

IP Address : 184.45.155.75 (*)          Date:28 May 2017 -- 01:41 AM

রমজানে অনেক দিন ধরেই অনেক নেতা নেত্রীদের মাথায় ফেট্টি বেঁধে ইফতার পার্টিতে পার্টিসিপেট করতে দেখেছি। তার ছবিও মস্ত ফেস্টুনে বেড়োয়। বিগত কয়েক বছরে আবার ঘটা করে পাড়ায় পাড়ায় গণেশ পুজো-ও শুরু হয়েছে। টাকা আসছে নাকি দিদি-ভাইদের কাছ থেকে। এখানেই আমার আপত্তি।

এদুটো এক কেস নয়। মুসলমানরা ইন্ডিয়াতে মাইনরিটি। তাদের সাথে সহমর্মিতা, বা তাদেরকে পলিটিকাল সাপোর্ট দেওয়া, এমনকি ঐরকম মাথায় ফেট্টি বেঁধে ফেস্টুনে ছবি দেওয়াতেও আপত্তি নেই। বা শেখ হাসিনার অঞ্জলি দেওয়াও। তাতে যদি মাইনরিটিদের সুরক্ষা বাড়ে, দক্ষীন পন্থীদের সাহস কমে। তাই পূর্ণ সমর্থন আছে।

কিন্তু গণেশ পুজোটা স্রেফ ধান্দাবাজী। আর তখনই রমজানে ইফতার পার্টির নাটকটা অসহ্য লাগে।


Name:  sm          

IP Address : 52.110.157.119 (*)          Date:28 May 2017 -- 09:21 AM

ভড়ং বাজি দেখে লোকে ভোট দেবে কেন?যদি দেয় তাহলে চিন্তা ভাবনা করেই দিয়েছে বলতে হবে। আমি গণেশ বাবাজীবন কে ভক্তি করি ও পুজো দেই,তাবলে লকেট, গণেশ পুজো দিচ্ছে বলে ফেসবুকে ছবি দিলে ,আমি বিজেপি কে ভোট দিয়ে দেবো?


Name:  sinfaut          

IP Address : 11.23.208.194 (*)          Date:28 May 2017 -- 09:24 AM

https://en.wikipedia.org/wiki/Heuristics_in_judgment_and_decision-maki
ng



Name:  h          

IP Address : 184.79.160.147 (*)          Date:30 May 2017 -- 04:57 AM

এইটা পিটি জেনু দিল, সেকুলার আর ধর্ম অন্ধ সকলেই পেটুক😊😊😊😊😊


Name:  amit          

IP Address : 149.218.40.152 (*)          Date:30 May 2017 -- 10:34 AM

লীলা মজুমদারের কথায়: "শতকরা 75-% লোক খেতে যতটা ভালোবাসে , তত আর কিছুতে বাসে না। আর শতকরা 100% লোক না খেলে বাঁচে না"।

যাক, টোয়ি বিপথে করে লাভ নেই, তর্ক চলুক।


Name:  dc          

IP Address : 132.174.123.15 (*)          Date:30 May 2017 -- 10:50 AM

এতে কোন সন্দেহই নেই, জীবনে খেয়ে যা সুখ তা আর অন্য কিছুতে নেই।


Name:  S          

IP Address : 184.45.155.75 (*)          Date:30 May 2017 -- 11:19 AM

এখানে একটা গুরুগম্ভীর আলোচোনা করে দিই। ভারতবর্ষে ফুড সিকিউরিটি চিরকালই খুব বেশি। সেই কারণেই বোধয় এতো পপুলেশন আর আমরা কখনো অন্যের দেশ দখল করতে যাইনি বাড়তি রিসোর্সের জন্য।


Name:  সিকি          

IP Address : 158.168.96.23 (*)          Date:01 Jun 2017 -- 04:54 PM

তুললাম।


Name:  de          

IP Address : 69.185.236.54 (*)          Date:05 Jun 2017 -- 11:49 AM

http://www.anandabazar.com/supplementary/rabibashoriyo/a-hindu-family-
always-maintains-all-the-rituals-that-a-muslim-family-does-1.622843?re
f=rabibashoriyo-ft-stry


এই সুতোর পাতাগুলি [1] [2]     এই পাতায় আছে12--42