গুরুচণ্ডা৯র খবরাখবর নিয়মিত ই-মেলে চান? লগিন করুন গুগল অথবা ফেসবুক আইডি দিয়ে।

এই সুতোর পাতাগুলি [1] [2] [3] [4] [5] [6] [7] [8] [9] [10] [11] [12] [13] [14]     এই পাতায় আছে367--397


           বিষয় : ঐতিহ্যমন্ডিত বাংলা চটি সিরিজ
          বিভাগ : বই
          বিষয়টি শুরু করেছেন : sumeru
          IP Address : 117.99.47.91          Date:29 Jan 2010 -- 01:25 PM




Name:  pi          

IP Address : 57.29.203.108 (*)          Date:01 Sep 2017 -- 06:59 AM

হ্যাঁ, উনি ডেলিভারি চার্জ নিচ্ছেন, লোকজনের কাছে শুনলাম, এখানে আপডেট দেওয়া হয়নি।


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:03 Sep 2017 -- 06:10 PM

গুরুর কিছু বই নিয়ে পাঠপ্রতিক্রিয়া। আরো আসছে।

https://www.youtube.com/channel/UCWgrn4gymNDVSMveOoyyF1g


Name:  i          

IP Address : 212.159.161.169 (*)          Date:14 Sep 2017 -- 06:18 PM

h এর বক্তব্যঃ
https://youtu.be/fa4cBB8yx2c


Name:  pinaki          

IP Address : 90.254.154.105 (*)          Date:14 Sep 2017 -- 10:26 PM

দুটো আলাদা ইউটিউব চ্যানেল গুরুচন্ডালি নামে। এরকম কেন? একটা হলেই তো ভালো হত।


Name:  pi          

IP Address : 57.29.206.10 (*)          Date:15 Sep 2017 -- 01:41 AM

বড় ফাইল আপলোড করতে চাপ হয়, নেট স্পিড অনেকেরই ভাল না। এত আর কোঅর্ডিনেট করা যায়না।
এমনিতেও বিস্তর চাপ।
এটা আনতেই কতদিন লেগে গেল।


Name:   π           

IP Address : 57.15.14.96 (*)          Date:30 Sep 2017 -- 10:24 AM

নির্বাচিত গল্পাপাঠ নিয়ে

https://youtu.be/GYN4A1wlCP8


Name:   π           

IP Address : 57.15.14.96 (*)          Date:30 Sep 2017 -- 10:24 AM

নির্বাচিত গল্পাপাঠ নিয়ে

https://youtu.be/GYN4A1wlCP8


Name:   π           

IP Address : 57.15.12.131 (*)          Date:30 Sep 2017 -- 12:40 PM

বন্দরের সান্ধ্যভাষা নিয়ে কুলদা রায়।

https://m.youtube.com/watch?v=KL6Or2AaMt4


Name:   π           

IP Address : 57.15.12.131 (*)          Date:30 Sep 2017 -- 12:43 PM

বিপুল দাসের বই নিয়ে ইন্দ্রাণী ঃ

https://m.youtube.com/watch?v=2MFQaA9kWL0


Name:  পাই          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:13 Oct 2017 -- 02:02 AM

'ভ্রমণকাহিনিই, তবে শুধুমাত্র ভ্রমণকাহিনি নয়। এ বই আসলে সাধারণ্যের ঘুম থেকে জেগে ওঠার গপ্পো। নিজের সামনে নিজেরই চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেবার গপ্পো। বেড়ানোটা তো তার সাথে উপরি।
পায়ের তলায় সর্ষে নিয়ে যারা বেঁচে থাকে, সুযোগ পেলেই বেরিয়ে পড়ে, শেষরাতের নির্জন হাইওয়ে যাদের হাতছানি দেয়, তাদেরই একজন লিখে ফেলেছে অতিসাধারণ এই বইটা। সব ঠিকঠাক চললে, নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহেই প্রকাশিত হবে এ বই। আলাদা করে নেমন্তন্ন যাবে আপনাদের কাছে।
আর, সেখানে দেখা না হলে, জানুয়ারি মাসে কলকাতা বইমেলা তো আছেই। দেখা হবেই। পথেই হবে এ পথ চেনা।
আরও আপডেট আসবে ধীরে ধীরে। সঙ্গে থাকুন।'

https://s1.postimg.org/5iaw2cwsrj/motorcycle_lr01_promo.jpg


Name:  পাই          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:13 Oct 2017 -- 02:03 AM

প্রচ্ছদ ঃ সায়ন কর ভৌমিক
আলোকচিত্র ঃ লেখক


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:13 Oct 2017 -- 02:06 AM

আগামী ২৩ নভেম্বর প্রকাশিত হতে চলেছে,

স্বাস্থ্য (অ)ব্যবস্থা ঃ সম্পাদনা পুণ্যব্রত গুণ
------------------------------------------------
স্বাস্থ্য ভারতীয়দের মৌলিক অধিকার নয়। তদুপরি '৪৭ পরবর্তী সময়ে স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে যে কল্যাণকর ভূমিকা পালন করার উদ্যোগ ছিল, রাষ্ট্র তার থেকে সরে আসছে গত শতকের নব্বই-এর দশকের শুরু থেকে। স্বাস্থ্য এখন মূলত পণ্য, পুঁজির চারণক্ষেত্র এবং মৃগয়াভূমি।
এই অদ্ভুত ব্যবস্থায় নাগরিকের ক্ষোভ মেটাতে রাষ্ট্রের কোনও কার্যকর উদ্যোগ নেই, পরিবর্তে আছে কেবল একের পর এক ফাঁপা ঘোষণা। আর স্বাস্থ্যকর্মীদের, বিশেষ করে চিকিৎসকদের জনগণের রোষের সামনে দাঁড় করিয়ে দেওয়া। যেন একমাত্র তাঁদের দোষেই মানুষ যথাযথ পরিষেবা পাচ্ছেন না।
এই সংকলনে লিখেছেন চিকিৎসকরা, জনস্বাস্থ্য আন্দোলনের কর্মীরা, নীতিনির্ধারকরা।।।।যাতে বাস্তবটাকে বোঝা যায়, এবং সেই অনুযায়ী চলার পথ ঠিক করা যায়।


https://s1.postimg.org/1z2zoj3f9r/swastho_abyabstha_lr01_promo.jpg

প্রচ্ছদঃ চিরঞ্জিৎ সামন্ত, সায়ন কর ভৌমিক




Name:  পাই          

IP Address : 57.29.220.107 (*)          Date:13 Oct 2017 -- 03:43 PM

বিপুল দাসের কামান বেবির পাঠ-প্রতিক্রিয়াঃ অধ্যাপক রাজদীপ্ত রায়।

কিছু কথা ছোটবেলা থেকে কোনও দিন কারও কাছে বলা হয়নি। যেমন বলা হয়নি যে ওয়ার্ডসওয়ার্থ পড়তে আমার কখনো ভালো লাগেনি। যেমন প্রতিটি বাংলা রোম্যান্টিক কবিতার আড়ালে আমি একটা না-বলা ইংরেজি কবিতা দেখতে পেতাম। যেমন খুব মৃদুভাবে লেখা, নরম, কুয়াশা কুয়াশা গন্ধমাখা পংক্তিগুলোর ফাঁকে নিরন্তর দেখতে পেতাম অভ্যস্ত চর্যার অসতর্ক অথচ অপ্রাণ প্রতিবিম্ব। এইসব লেখাগুলোতেই বড্ডবেশি চেনাবাঁক থাকত/ থাকে, আর তার আড়ালে কবিতাচর্যার কখনওই শেষ না হওয়া, ওই তাতুর ঠাম্মার আশরীর "ধুলোর গন্ধ... নারকোলের ভেতরে শাঁস পচে গেলে যেমন একটা তেল তেল গন্ধ হয় - তেমন" বাসি "মড়ার গন্ধ" বুঝি গমকে গমকে পাক খেতে থাকে। বললাম কবিতা ঠিকই, কিন্তু এই কাব্যদোষে দুষ্ট আমার বাংলা বুলির আপামর গদ্যময়তাও। এ সব ভেবেছি। বলা হয়নি। অস্বস্তি হয়েছে। শুধু গলা ছেড়ে চিৎকার করে উঠতে পারিনি। জানতাম এই ভাবনা, অসৎ ভাবনা, এ কথা কুকথা। বলতে নেই। মনে এলেও গিলে ফেলতে হয়। হঠাৎ অসাবধানে কাশির দমকায় মুখে চলে আশা কফের দলার মত। বেরিয়ে এলেই অপ্রস্তুত। একরাশ অপ্রতিভ বোকা ছেলে মার্কা দাঁতক্যালানো হাসি। ধরা পড়ে যাওয়া বেকুব বেহায়া। এ সবই হ'ত, এ সবই হয়েছে। আজীবন। সংকোচে। গোপনে। বুঝতেও পারিনি, অন্তত অবয়বে এতদূর বড় না হয়ে ওঠা পর্যন্ত, যে এই কুণ্ঠা-শরম মাখামাখি পাঠবোধ, বা আরোও খুলে বললে, এই guilt ridden anxiety of a failed reader আদতে আমার নীরবে বইতে থাকা অভ্যাস-ভূতগ্রস্থ পাঠ নিয়তি। যে উপনিবেশের শিক্ষাসংস্কার আমার পাঠচিত্র তৈরি করে, তার ঈজেলের একদিকে যদি আমি পাঠক সসংকোচ, গুটিসুটি, তবে ওই একই ফ্রেমের মাঝখানে আলো করে আমার রহস্যময়ী মোনালিজা বাঙালি লেখকের দুশোবছরের আভা আভা স্ফটিক স্ফটিক ইতিহাস বিস্তার। যে বিপন্নতার এতক্ষণ কাঁদুনি গাইলাম, এ পটচিত্রে তার পাহাড় পাহাড় কৃষ্ণ-দলনি স্তনপেষন থেকে না আছে মুক্তি লেখকের, না আছে তা পাঠকের। অতএব যে guilt উপনিবেশের genre-specific পাঠাভ্যাসে অমোঘ নিয়তি, তার শ্বাসরোধকারি খারাপ/ভালো মিশ্রিত কিছু একটা লাগা থেকে আমাদের কারোও অচেতন মুক্তি সম্ভব নয়। বড় হলাম। অনেক ভুল ভাঙল। বুঝলাম এ জন্মে লেখালেখি এই বান্দার হবে না। পাঠ নির্ভর প্রতিবন্ধী বোধে তাতুর মত শব্দ আর ভাষা আর অর্থ আর ম্রিয়মান সংশয়ে দগ্ধে দগ্ধে বিপন্ন অভিজ্ঞতায় নিজের অজান্তে খুঁজে মরতে হবে সারাজীবন নিজেকেই। আড়ালে প্রশ্নরা বুড়বুড়ি কাটবেই - কেন হয় আকাশের রঙ লাল? কেন অযথা anticipated ইমেজ লেখেন কবি? কেন ইনিয়েবিনিয়ে প্রেম আসে প্রতিবার? কেন বেড়ে ওঠার গল্পগুলোতে আমার সকাল থাকেনা? কেন বিভূতিবাবুর লেখার আড়ালে ভীড় করে আসে অনেক না-বলা কথা, বাক্য, অনুপস্থিত অভিজ্ঞতা? অথবা, কেনই বা ছোটবেলা থেকে শুনে আসা সমস্ত বাংলার মাস্টারমশাইদের কাছে অপুর বেড়ে ওঠাটাই আদর্শ জেনে বারে বারে শিউরে ওঠা, অপরাধ বোধে ভোগা!
কারণটা, পরে, অনেক পরে, তলিয়ে দেখলাম এই আমাদের স্বাভাবিক, সিদ্ধ এবং/অতএব কাব্যিক বলে চালাতে চাওয়া, ভীষন repressive, ভীষন ঔপনিবেশিক সাহিত্য অভ্যেসের গেঁজে যাওয়া সংস্কৃতিটার হাড়ে মজ্জায় নিহিত। আমাদের সাহিত্য চর্চার একটি দিক খুলে দিয়েছিল ইংরেজি সাহিত্যের স্পর্শ। আমাদের কবি মানসে রোম্যান্টিক বিশুদ্ধতার বোধের বোধনও অনেকটা সেই স্পর্শের কাছে আভারী। কিন্তু গোলমালটা আবার বাঁধলও ওই স্পর্শের কারনেই। ইংরেজের রোম্যান্টিকতা অদ্ভুতুড়ে রকমের জীবনবিমুখ। সেখানে জীবনের কাব্য আছে, ঠিক, কিন্তু একইসঙ্গে আছে জীবনবোধের মধ্যিখানে এক অলম্বুষের মত দন্ডায়মান ক্ষমতা রাজনীতির সুচারু পদচারনা; সেখানে হৃদয় অন্তস্থ বোধের বা অনুভূতিগুলির মাঝে বৈষম্য তৈরি করা হয়; নিক্তিতে মাপা হয় প্রবৃত্তিদের। ঘোষণা হয় এরা এরা ভালো, সুতরাং কাব্যে বিবেচ্য, অথচ এরা এরা, যেমন যৌনতার বোধ, অশৈল, সুতরাং কাব্যে নৈব নৈব চ। অর্থাৎ আমরা শিখলাম যে কবিতায় বা গল্পে বেলাগাম প্রেমের বা যৌবন উন্মেষের ইমেজ নির্ভর সিম্বলিক চারুবর্ণনা থাকবে কিন্তু কখনওই শিউরে-ওঠা যৌনতার প্রথম জ্ঞানের শিরশিরে অপরাধময় এপিফ্যানি থাকবেনা। ফলাফল, আমরা পথের পাঁচালি পেলাম, অপুর বাসা ও ট্রেন গাড়ি খুঁজে পেলাম নিজের ভেতরে, অথচ নিজের বেড়ে ওঠার কূট-ন্যারেটিভে স্কুলের দেওয়ালে লেখা বা আঁকা নারী/পুরুষ অংগের অতিসরলিকৃত ইটের রেখাচিত্র দেখে ফেলার কোন অপরাধ বোধ অপুর ভেতরে কোথাও নেই দেখে একটা সময় নিজেকে অ-বাংগালি, বা নরাধম ভাবতে আরম্ভ করেছিলাম অনেকদিন ধরেই।
বিভূতিবাবুকে সামনে রেখে বাঙালীর শৈশব নির্মাণ একটি একরৈখিক গড়ন, অসামান্য রোম্যান্টিক ও কাব্যিক - সন্দেহাতীত - কিন্তু ততটাই নির্দিষ্ট স্থান-কাল-পাত্র নির্ভর, নিরপেক্ষ নয় এবং, সর্বোপরি, বাংলা নামক বিস্তৃত জনপ্রদেশের সমস্ত বহুজনতা বা বহুরৈখিক অভিজ্ঞতার ধারকপাত্র নয়। কথাটা জোরের সংগে বলব বলেই এই লেখাটার বা বলা ভালো এই আত্মকথনটির প্রাথমিক ভাষ টুকু প্রয়োজন ছিল। এই একরৈখিকতার দায় কোনভাবেই বিভূতিবাবুর নয়। তিনি যেভাবে ইংরেজ পরিপুষ্টি তে দেখতে বা ভাবতে অভ্যস্ত ছিলেন, তাই লিখেছেন। দায়টা আমাদের, পাঠকদের এবং আমাদের এই বাঁধাগতের সংস্কৃতি নির্মানের অভ্যাসের। বাঙালি, অন্তত এই সেদিন পর্যন্ত এতে নিরাপদ বোধ করত। আমি নবারুণকে সেলাম করি তিনি নির্দ্বিধায় এই নিরাপদ repression-এর নিগড় থেকে ভারতীয় সমাজবোধকে মুক্তি দিয়েছেন বলে। নবারুণে, আমি মনে করি, ভারতীয় বামপন্থার চিত্তশুদ্ধি ঘটেছে। তেমনিই, আমি মনে করি, তোমার হাতে, হয়ত আরোও এক-দুজনেরই মতো যদিও সেসব লেখকেরা সংখ্যায় নেহাতই কম, বিভূতিবাবুর মডেল শৈশব নির্মাণের কালশুদ্ধি ঘটেছে। Repression-এর ছুঁতমার্গ কাটিয়ে, সাবলীল শৈশব শৈল্পিক অথচ নির্ভার কথা ফুটিয়েছে আন্তর্গ্রন্থীয় মরমী ন্যারেটিভে। অসামান্য কাজ তোমার এই "কামান বেবি"। আমার ইন্দির ঠাকরুন আমি অবলীলায় পেয়ে যাই তাতুর ঠাম্মির মধ্যে। আমার সুপারিগাছের সারিভরা ডুয়ার্স শৈশব গুনগুন করে বাতাসির পলাশ-শিমুলের চরে। আমার দুর্গাদিদিরা অবৈধ সংসর্গের রাত্রি যাপন করে ভয়ে আশংকায় কাঁটা হয়ে। আর আমি, তাতু বা অপু বা আরোও আরোও অন্য অনেক এই প্রত্যন্ত বাংলাপ্রদেশের কোনে কোনে পাতাকুড়ানির দেহবল্লরীতে চুরি করে দেখে ফেলা অপার বিস্ময় দেখতে দেখতে ক্রমান্বয়ে ডিসপ্লেসড হতে থাকি, হতেই থাকি এ ভব অরণ্যের আনাচে কানাচে। একবার, বার বার, বহুবার। আমার আর guilty-feeling হয়না বিপুলদা। আমি এখন জানি যে অপুর নিটোল পাপগন্ধহীন শৈশব আমার না হলেও তাতুর un-repressed ন্যারেটিভটি অন্তত আমার শৈশবের কথা বলে। আর আমি এও জানি এখন যে, সারল্য শুধুমাত্র কিছুকথাকে ট্যাবু করে না বললেই রক্ষিত হয়না। সব কথা নির্ভার বলেফেলার মধ্যেও একই নিষ্পাপতা, সারল্য থাকে, যা বলতে জানতে হয়।
"আচ্চজ্জ ঘটনা"।

_---------------------------------
বইটি পাওয়া যাবে কলেজ স্ট্রীটে ধ্যানবিন্দু, দেজ, উবুদশ, দে বুক স্টোরে।

অনলাইনে www.collegestreet.net এ

এছাড়াও, এবার বাড়িতে বসেই গুরুর সব বই পেয়ে যান।
শ্রী তরুণ শ কে ফোন করে বললে উনি আপনার ঘরে পৌঁছে দেবেন। ওনার নং টা রইল। একটা ফোন করলেই আপনার চাওয়া বই আপনার হাতে।
তরুণদার নং ঃ ৯৮৩১২ ০১৪০২



Name:  পাই          

IP Address : 57.29.218.255 (*)          Date:21 Oct 2017 -- 05:40 PM

অভিষেক সরকার গুডরিডসে লিখেছেন,

এ বই শিল্পবিপ্লবোত্তর ইউরোপের আমেরিকা এবং অস্ট্রেলিয়ার ডায়াস্পোরা নিয়ে এক আশ্চর্য ভাষ্য। লেখক খুব সরল কথায় তুলে এনেছেন ওই যুগের ইউরোপীয় মানসিকতার অহং এবং প্রবৃত্তির অংশগুলো। যা তারপরে নিয়ন্ত্রণ করে চলবে বিশ্বজুড়ে ইউরোপের কলোনীগুলোকে। এবং তাদের আধুনিক বহমান হালহকীকতকে।
লেখকের মেধাবী কলমের আঁচড়ে স্পষ্ট হয়ে উঠেছে পোস্ট কোল্ড ওয়ার যুগের দুনিয়াব্যাপী অবস্থান।ইউরোপকেই মানদন্ড ধরে আধুনিক বিশ্বমুখীনতার নামে যে ইউরোপকেন্দ্রীক বোধ ও ভাবনা তার সূত্রপাতে এশিয়ার কলোনীরা য্যামোন হয়ে উঠেছে 'উচ্ছিষ্ট ইউরোপ' ত্যামোনই আমেরিকা এবং অস্ট্রেলিয়া হয়ে উঠেছে খোদ ইউরোপেরই উদ্বৃত্ত শক্তি। এই আলো আঁধারের মধ্যেই আজও যে বিগত ইতিহাসের স্বর ভেসে যায় সিডনি কিম্বা নিউ ইয়র্কের বন্দরে তারই খোঁজ করেছে এই বই।
এ বই আরও বড় হতে পারে আরো বড় পরিসর ব্যাপ্ত করে , ভবিষ্যতে লেখক যদি চান। কিছু সরলীকরণ তাহলে আরও বিস্তৃত হতে পারে আমাদের মতন সাধারণ পাঠকের জন্যে।
যারা এই রিভিও পড়বেন তাঁদের বলবো পারলে এই বই সংগ্রহ করে পড়ুন, পড়ান। সরল সমাজতত্ত্বের বাংলা বই সহজবোধ্য নয় সচরাচর। এই লেখকের কলমে কিন্তু সে গুণ আছে।

https://www.goodreads.com/review/show/2158447231!


Name:  pi          

IP Address : 57.15.11.155 (*)          Date:29 Oct 2017 -- 02:20 PM

কাল প্রকাশিত হতে চলেছে।


প্রকাশিত হচ্ছে কাল। মৌলালি যুবকেন্দ্রে স্বাস্থ্য নিয়ে কনভেনশনে। বিকেল চারটে থেকে।
স্বাস্থ্য ভারতীয়দের মৌলিক অধিকার নয়। তদুপরি '৪৭ পরবর্তী সময়ে স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে যে কল্যাণকর ভূমিকা পালন করার উদ্যোগ ছিল, রাষ্ট্র তার থেকে সরে আসছে গত শতকের নব্বই-এর দশকের শুরু থেকে। স্বাস্থ্য এখন মূলত পণ্য, পুঁজির চারণক্ষেত্র এবং মৃগয়াভূমি।
এই অদ্ভুত ব্যবস্থায় নাগরিকের ক্ষোভ মেটাতে রাষ্ট্রের কোনও কার্যকর উদ্যোগ নেই, পরিবর্তে আছে কেবল একের পর এক ফাঁপা ঘোষণা। আর স্বাস্থ্যকর্মীদের, বিশেষ করে চিকিৎসকদের জনগণের রোষের সামনে দাঁড় করিয়ে দেওয়া। যেন একমাত্র তাঁদের দোষেই মানুষ যথাযথ পরিষেবা পাচ্ছেন না।
এই সংকলনে লিখেছেন চিকিৎসকরা, জনস্বাস্থ্য আন্দোলনের কর্মীরা, নীতিনির্ধারকরা।।।।যাতে বাস্তবটাকে বোঝা যায়, এবং সেই অনুযায়ী চলার পথ ঠিক করা যায়।
প্রচ্ছদ ঃ চিরঞ্জিৎ সামন্ত, প্রচ্ছদ সহায়তা ঃ সায়ন কর ভৌমিক

https://s1.postimg.org/1dfy9018xb/swastho_abyabstha_lr01_promo.jpg


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:03 Dec 2017 -- 11:19 AM

গুরুর বইচই।
৯ ডিসেম্বর ২০১৭ বিকাল সাড়ে ৪টে।

কল্লোলের 'কারাগার বধ্যভূমি ও স্মৃতিকতকথা' নিয়ে বলবেন শিবাংশু দে।
আলিসিয়া পার্টনয়ের 'দ্য লিটল স্কুল'এর ভাবান্তর জয়া মিত্রের কলমে, 'অবান্তর পাঠশালা', আর্জেন্টিনার
গোপন বন্দিশালার ডায়রি, বইটি নিয়ে বলবেন অভিষেক সরকার।
দীপ্তেনের 'আমার সত্তর' নিয়ে বলবেন, তাপস দাশ।

কল্লোল লাহিড়ীর ‘গোরা নকশাল’ প্রাকাশিত হবে। প্রকাশ করবেন জয়া মিত্র, বই নিয়ে বলবেন শাক্যজিৎ ভট্টাচার্য।

প্রকাশিতব্য বই , মিঠুন ভৌমিকের কাশ্মীর রাজনৈতিক অস্থিরতা, , জনমত
এবং কল্লোলের তক্কোগুলি, চরিতাবলী ও আখ্যানসমূহ থেকে পাঠ

কাশ্মীর ও সত্তর নিয়ে আলোচনা ঃ সুজাত ভদ্র, জয়া মিত্র ও আরো অনেকে।

সঞ্চালনাঃ প্রতিভা সরকার।


স্থান ঃ কমলা কুটির। বইচই এখানে অনুষ্ঠিত হতে চলেছে রাজ আড্ডার সৌজন্যে ।
এটি রবীন্দ্র সরোবর মেট্রো স্টেশনের কাছে। ভবানী সিনেমার উল্টো দিকের রাস্তা চিন্ময় চ্যাটার্জি সরণী। একটু এগোলেই ডান দিকে।

সবার নেমন্তন্ন।

অনুষ্ঠান সংক্রান্ত প্রশ্ন, বক্তব্য, পথনির্দেশ, যেকোন কিছু নিয়ে যোগাযোগ ঃ ৯৯০৩২৬৫৩৭৬




Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:03 Dec 2017 -- 07:05 PM

https://www.facebook.com/events/530830747270414/?notif_t=plan_edited&n
otif_id=1512307939388525

ইভেন্ট পেজ। স্বচ্ছন্দে ইন্ভাইট , শেয়ার করতে পারেন।

আর লাইভেরও বন্দোবস্ত থাকবে, ইভেন্ট পেজে।


Name:  দ          

IP Address : 144.159.168.72 (*)          Date:04 Dec 2017 -- 10:09 AM

আচ্ছা, টিমি র বইটা কাশ্মীর কবে থেকে কলকাতায় পাওয়া যাবে?


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:04 Dec 2017 -- 11:52 AM

উদ্বোধন জানুয়ারিতে।


Name:  i          

IP Address : 147.157.8.253 (*)          Date:05 Dec 2017 -- 04:09 AM

জনুঅরির কবে? বৈমেলায় না আগে?


Name:  i          

IP Address : 147.157.8.253 (*)          Date:05 Dec 2017 -- 04:09 AM

জানুয়ারির কবে? বইমেলায় না তার আগে?


Name:  pi          

IP Address : 57.29.197.116 (*)          Date:05 Dec 2017 -- 08:28 AM

বইমেলার আগেই ইচ্ছা ছোটাইদি, ১০ ই জানের পরে। তারিখ এখনো ঠিক হয়নি।


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:08 Dec 2017 -- 08:00 PM

কালকেই অনুষ্ঠান। তুললাম।


Name:  tuhin bhowmick          

IP Address : 122.133.246.130 (*)          Date:09 Dec 2017 -- 04:01 PM

একটা বই ডাউনলোডের সাইট কিছু দিন আগে দেখেছিলাম। দয়া করে কেউ কি ঐটা আরেকবার দেবেন ?


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:09 Dec 2017 -- 04:06 PM

পুজোর ইবুক ?


Name:  pi          

IP Address : 24.139.221.129 (*)          Date:09 Dec 2017 -- 05:23 PM

লাইভ।
কল্লোলদা, দীপ্তেনদার বই নিয়ে এখন আলোচনা চলছে

https://www.facebook.com/MARIANIIL/videos/1218672031610957/?notif_id=1
512820158106755¬if_t=live_video



Name:  pi          

IP Address : 57.29.246.98 (*)          Date:09 Dec 2017 -- 06:05 PM

নতুন লিন্ক।

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=1218690314942462&id=100004
045160791



Name:  কল্লোল          

IP Address : 233.227.59.41 (*)          Date:10 Dec 2017 -- 09:38 AM

৯ তারিখের অনুষ্ঠন সম্পন্ন হলো। মোটমুটি সুসম্পন্ন। মোটমুটি কারন আলোচনার দুটো ভাগ ছিলো ৭০এর দশক ও কাশ্মীর। হয়তো স্বাভাবিক কারনেই ৭০এর দশক প্রচুর সময় নিয়ে নেওয়ায় (দু ঘন্টার সামান্য বেশী) কাশ্মীর বেচারী আধ ঘন্টার মতো সময় পেলো।
আমাদের এই নিয়ে সতর্ক থাকতে হবে।
প্রথমে তাপস বললো। শুরুতেই বেশ চমক I love 69 এই বাক্যটি দিয়ে শুরু। আজ কেমন করে ৬৯ নকশালবাড়ি থেকে দূরে একটি যৌন অনুসঙ্গে পর্যবসিত, সেই জয়গা থেকে, সেই সময় তথা নকশাল আন্দোলনের ক্লেদের দিকটি নিয়ে দরুন আলোচনা। না, তার মানে এই নয় যে নকশাল আন্দোলন শুধুই ক্লেদের জন্ম দিয়েছে। তাপসের বলার ছিলো ঐ আন্দোলন ক্লেদের-ও জন্ম দিয়েছে সে ইতিহাসও উঠে আসুক। ন্যায্য দাবী। অবশ্য এই নিয়ে তাপসের মতে দীপ্তেনের আমার সত্তর কথা বলেছে। আরও বেশ কিছু কাজ হয়েছে। তার মধ্যে উল্লেখ্য কৃষ্ণা বন্দোপাধ্যায় সম্পাদিত খোঁজ পত্রিকার নকশাল আন্দোলনে নারী সংখ্যা। জয়ারও বেশ কিছু লেখা আছে এই নিয়ে।
এর পর কল্লোল লহিড়ীর বই প্রকাশিত হলো জয়ার হাত দিয়েই। এবং আলোচনা ৭০ ও স্মৃতি নিয়ে চলতে থাকে। মাঝে অভিষেক অবান্তর পাঠশালা নিয়ে কথা বলে এবং ৭০ ও স্মৃতি নিয়ে আলোচনা চলতেই থাকে। শিবাংশু কারাগার বধ্যভূমি স্মৃতিকথকতা নিয়ে বলে। কিন্তু ঐ যে সময়! কাশ্মীর ক্ষুব্ধ হচ্ছিলো, তাই সে আলোচনা অসম্পূর্ণ রেখেই মিঠুনের বই থেকে অংশ বিশেষ পাঠ করা হলো আর শেষে সুজাত কাশ্মীর নিয়ে চাঁচাছোলা বক্তব্য রাখলো। ওর মতে স্বাধীনতা কাশীরের ন্যয পাওনা, যা থেকে বারত কাশ্মীরকে বঞ্চিত করেছে। জুনাগড় ও কাশ্মীরের অর্ন্তভূক্তি নিয়ে যে দ্বিচারীতা করা হয়েছে তা নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই। আলোচনার সময় ছিলো না। নইলে বিষয়টি অনেক কৌতুহলোদ্দীপক হয়ে উঠতে পারতো। আমাদের সময় নিয়ে সতর্ক হতে হবে।
সব শেষে জয়গাটি নিয়ে না বললে কথা অসম্পূর্ণ থাকবে। খুব পুরোণো একটি জমিদার বাড়ির বৈঠকখানা। গোটা কাঠামোতেই বয়সের চাপ খুব স্পষ্ট এবং লুকানোর কোন চেষ্টাও নেই। সেটাই অনেকের খুব ভলো লেগেছে, বিশেষ করে একটি খুবই অল্প বয়সী মানুষের।
এটা আমার কাছে খুব বড়ো পাওনা।

প্রসঙ্গতঃ এই বাড়িটায় মাসের প্রথম শনি ও রবিবার বিষমুক্ত হাট বসে। জৈব সারে তৈরী চাল, ডাল, আলু, তরকারীর হাট। উৎপাদনকারীরা সরাসরি নিয়ে আসেন, তাই দামও সাধ্যের মধ্যেই। উত্সাহী হলে চলে আসুন।


Name:  কল্লোল          

IP Address : 233.227.59.41 (*)          Date:10 Dec 2017 -- 09:41 AM

*ওর মতে স্বাধীনতা কাশীরের ন্যয পাওনা, যা থেকে বারত কাশ্মীরকে বঞ্চিত করেছে।
পড়তে হবে - ওর মতে স্বাধীনতা কাশ্মীরের ন্যায্য পাওনা, যা থেকে ভারত কাশ্মীরকে বঞ্চিত করেছে।



Name:  অভিষেক          

IP Address : 52.110.184.99 (*)          Date:11 Dec 2017 -- 10:31 AM

গোরা নকশাল- পাঠ পতিক্রিয়া
************************

'নকশাল মানে যারা উড়তে পারে'। গোরা নকশাল কি শুধুই সাদা উড়ন্ত এক পাখীর রূপকের আড়ালে সম্ভাব্যতার খোঁজ, আততি। নাকি সুস্থভাবে হাঁটতে পারার ক্ষমতা জেলে রেখে আসা দাড়িওয়ালা প্রসন্ন এক প্রতিস্পর্ধীর এক আবছায়া বিবরণ?
সদ্য পড়ে উঠলাম এই বই। লেখক যে ছায়াছবির শিল্পচর্চার সাথে সংযুক্ত তা বয়ানের ঝোঁকে বেশ বুঝতে পারা যায়। ঝকঝকে নির্মাণ আর লেখকের মতে যা শুধুই 'কাল্পনিক' বিবরণ তা উত্তাল সত্তরের আর এক ভাষ্য। এবং শুধু তাও নয়। এ ভাষ্য স্বপ্নের বহমানতার। স্বপ্নবীজক অনন্ত জপের অসীম চংক্রমণের। পথ যাই হোক।
গঙ্গাপারের মফস্বল জনপদ বালীর এক উদবাস্তু পরিবারে টুকনু তার দাদা, ঠাকুমা আর বাবা-মায়ের জগতে উপস্থিত হয় তাদের এক নিকটাত্মীয় গোরা। গোরার পরিচয় বইএর নামেই তবু না বললে নয় যে টুকনুদের পায়রার নামও নকশাল। জেলযাপনের গর্বিত স্মারক চিহ্ন বয়ে চলা গোরার প্রসন্নতায় আলোকিত হয়ে ওঠে বয়ে চলা এক স্বপ্নের নদীপথ।
সে নদীতে কখনো গঙ্গা বেয়ে ভেসে আসে পরিচিত সদ্যউনিশ এক ছেলের ফুলে ওঠা লাশ। সে নদী কখনও হয়ে ওঠে স্থানীয় জুটমিলের দারোয়ান হরকিষনের গ্রামের ছোটো নদী কমলা। হরকিষনের মন খারাপ বহুদিন সে নদী না দেখে। হয়ত সে নদীরও মন খারাপ। এ বই গতকাল প্রকাশ হয়েছে যে বাড়িতে তারও নাম কমলা।
উঁকি দিয়ে যায় স্বপ্নভঙ্গের অস্থির কিছু স্মৃতি। অধিকার চিনে বুঝে নেওয়ার অদম্য ইচ্ছার মুখে ক্ষমতাতন্ত্রের প্রদর্শন ছিঁড়েখুঁড়ে নিতে চায় যাবতীয় স্বপ্নের চারাগাছগুল্মদের। গোরা চোখ বোজেন একদিন বুক ভরা টিবিকীটাণু নিয়ে। প্রাচীন রিলেরেসের ক্লান্ত বিধ্বস্ত দৌড়বাজ প্রাচীন পবিত্র স্বপ্নদেরকে অবশ্য এগিয়ে দিয়েছেন।
চোখ উপড়ে দিয়ে খুলিতে গুলি খাওয়া গোরার সহপথিক সেই জেলখানায় খুন হওয়া আলোর পথের আর এক অভিযাত্রী এবং গোরার কতশত বান্ধবদের নিজের, নিজেদের পারানির কড়ি এবং আলোর ঠিকানার খোঁজ আজ নতুন মানুষদের হাতে। টুকনুদের চোখে এবং কলমে সে স্বপ্ন বয়ে চলে তুরতুর করে।
এ ভাষ্য তাই শুধু ভাঙাস্বপ্নের উপাখ্যান নয়। এ ভাষ্য ব্যাটনবদলের, নতুন চোখে দ্যাখার এবং অবশ্যই আগামী টুকনুদের করোটিতে সেঁধিয়ে ফণা তোলা ফোঁসফোঁসানির।
কল্পনা এবং বাস্তবের সীমারেখা এখানে য্যানো সেই চশমাটা। যা ছাড়া সুশান্ত দেখতে পেতোনা ভালো। সেই সুশান্ত যার ফুলে ওঠা লাশ গঙ্গা থেকে তুলে আনে টুকনুর বন্ধু। পুলিশ তাকে ভ্যানে তোলার সময়ে যা পড়ে থাকে মাটিতে।
প্রচ্ছদ খুব সুন্দর। লেখকের আরও লেখা আসুক। যেকোনো মাধ্যমেই পড়তে চাইবো।

১০/১২/২০১৭


Name:  aranya          

IP Address : 172.118.16.5 (*)          Date:11 Dec 2017 -- 11:05 AM

খুবই প্রিয় লেখা - 'গোরা নকশাল'। ভাল লাগল অভিষেকের পাঠ-প্রতিক্রিয়া

এই সুতোর পাতাগুলি [1] [2] [3] [4] [5] [6] [7] [8] [9] [10] [11] [12] [13] [14]     এই পাতায় আছে367--397