আপনার মতামত         



তিনটি কবিতা

বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়



কানেকশান

রোদে ধান, ছায়ায় পান
বাঁচতে চান তো অল্প খান।
কী বলছেন, মন আনচান?
পঙ্কজ মল্লিকের গান
বেশি পুরনো ঠেকলে দিন
সিগারেটেই অসুখ টান

সাজি ভরতি ফুল আর স্বস্তি
খুঁজে ফেরেন, জানেন না?
হাত বদল হয়ে গেছেন
সব ঈমান, সব নিশান

তবুও কেউ থমকে নেই
গলায় উঠে আসুক প্রাণ
ঢোঁক গিলুন বলে ফেলুন-
জয় জওয়ান, জয় কিশান

বলতে বলতে দৌড়ে যান
দৌড়ে যান, দৌড়ে যান
আর মাত্র কয়েকঘন্টা

একশো টাকায় কানেকশান!



রকের ছেলেদের অভিশাপ

পরলে পরে লম্বা গাউন
হয় না সবাই রিনা ব্রাউন
খরিদ করো লোকশানে আর বিক্রি করো লাভে-

সমাপ্তিতে নয় সমাপ্তি
নর্মদাতে মিশেছে তাপ্তি
চোখের জলের বিন্দু বিন্দু জমছে কচি ডাবে

কথার পিঠে কথা ভাঙা
বেড়াল ভরতি পায়রাডাঙা
মাংস হয়ত নরম, হাড়ের ঠ্যালা কে সামলাবে?

লোককে খাচ্ছ কিন্তু লোকের দু:খ তোমায় খাবে
এই জন্মের পাপের স্বাস্তি এইজন্মেই পাবে।


তৃতীয়

কত যুবকের ছদ্মবেশে
কত না আতর বিক্রি করো
যতবার ছুটে যায় ঘোড়া
স্বহস্তে লাগাম টেনে ধরো

কিন্তু আমি কখনও তো মই
দিইনি তোমার পাকা ধানে
তাহলে কী পেতে পারো তুমি
আমার এতখানি অপমানে

তাছাড়া দিয়েছে, সসাগরা
তোমাকে তোমার বাপখুড়ো
দাঁড়িয়েছি মাদুর বগলে
আমি ও আমার খুদকুঁড়ো

পাশে এসে দাঁড়াও সময়
ভবিষ্যত উজ্জ্বল তোমার
আমাদের মাঝখানে ঢুকে
জটিলতা বাড়িয়ো না আর।