আপনার মতামত         




কয়েকটি সিরিয়াস কবিতা


সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়



কবির গোপন ডায়েরি থেকে উঠে এল জীবনের প্রতিটি ধাপে যাপনের অসহ্য বেদনার গোপন ও গম্ভীর শিলালিপি। গম্ভীর, কারণ নিষিদ্ধ কামনা ও প্রত্যাখ্যানের উপাখ্যান ব্যতিক্রমহীনভাবেই সিরিয়াস। গোপন, কারণ, কবি লিখেছেন, &হয়ষঢ়;প্রণয় প্রকাশ হলে হয় লোকনিন্দা/রাধার প্রণয় আছে প্রকাশের বৃন্দা'।


      ব্রহ্মচর্য -- প্রেম

শরীরে আঁচড়ে দেব
চুমুতে ফুলিয়ে দেব ঠোঁট
তুঁহু মম সই হবি?
কাননে কুসুমকলি শুনে বলে, ফোট।
প্রেমের শৃণ্বন্তু বিশ্বে 
তুই এক আছোলা রোবট।


ব্রহ্মচর্য -- বিরহ

পল্লব আজ হয়েছে কীর্তনীয়া
চন্দন বসু সল্টলেকে থাকে
তবু যদি ভ্রূপল্লবে ডাকো
স্মাইলি দেব ইমেলের ফাঁকে

রেশম ত্বক নাইবা গেল ছোঁয়া
সিল্ক রুটে নাইবা যাওয়া হল
অমল ধবল পালে লেগেছে হাওয়া
ওয়েব ক্যামেই রেশমী কাবাব ভাল


গার্হস্থ্য

প্রতিটি লোক যৌনভাবে সৎ
প্রতিটি লোকের আছে বাঁধা গৎ
প্রতিটি লোকই খালাসিটোলা যায়
বৌ এর কাছে ফিরে নাকে খৎ।


বানপ্রস্থ

আবার বছর কুড়ি পরে
তোমাকে পেয়েছি একা ঘরে
খান কুড়ি চুল আছে প্রশস্ত ললাটে
যৌবন ধরে রাখি হলুদ মলাটে
চুপচাপ ফুলে ছাপ ডু ইট নাও
বেলঘরিয়ার দিকে পানসি চালাও


সন্ন্যাস

বোধিবৃক্ষে লিঙ্গ বেঁধে সেধেছি নির্বাণ
অকস্মাৎ নাকে আসে নবান্নের ঘ্রাণ
পেটে ক্ষিধে মুখে লাজ ব্রণ ভরা গাল
পায়েসের বাটি হাতে সুজাতা সান্যাল