গুরুচণ্ডা৯র খবরাখবর নিয়মিত ই-মেলে চান? লগিন করুন গুগল অথবা ফেসবুক আইডি দিয়ে।

রং নে বাসন্তি

গুরুচণ্ডা৯

সময়টা ভাল নয়। ফুল হাফ যাই ফুটুক না ফুটুক বসন্ত এসেছে। দুগ্গি হোক কি বাসন্তি, পুজো ইস্পিশাল এসেছে। স্বভাব কবির ভাব এসেছে, শান্তিনিকেতনে অশান্তি, সব খাপে খাপ। জঙ্গলমহলে নিচে রক্ত-লাশ উপরে পলাশ, ডবল হোলি ব্যাপার। আমাদের পুজো ইস্পেশালও ডবল ডেকার।

আরও পড়ুন...

আমার পুজো

শঙ্খ কর ভৌমিক

প্রতি বছর পূজো আসে, বাবার সঙ্গে নতুন জুতো কিনতে যাই। নতুন জুতো পরে বিছানার ওপর হাঁটাহাটি করি, কেউ বকে না। এলাকায় বারোয়ারী পূজো মাত্র দুটি, তারা বছর বছর নিজেদের মধ্যে রেষারেষি করে উঁচু উঁচু মূর্তি তৈরী করে- এ বছর এদের বারো হাত ঠাকুর তো ও বছর ওদের চৌদ্দ হাত প্রতিমা।

আরও পড়ুন...

দুগ্গোপুজোঃ দুই দেশে, দুইকালে

রঞ্জন রায়

উনি পুরাণ-টুরাণ ঘেঁটে দেখাতে চাইছেন যে পুলস্ত্য মুনি ও নিকষা রাক্ষসীর পুত্র রাবণ জাতিতে ব্রাহ্মণ বটেক! তায় সকাল -সন্ধ্যে বেদপাঠ করেন। রাবণের নামে বৈশেষিক সূত্রের ওপর ""লংকাবতার ভাষ্য'' আছে। এমন মহাপণ্ডিত রাবণকে মারার অধিকার সির্ফ ভগবান বিষ্ণুর অবতার রামের আছে, অন্য কোন মনুষ্যের নেই।

আরও পড়ুন...

রাবন্দা ও পুজো ঃ ২০০৯

তীর্থংকর দাশগুপ্ত

ভারী অবাক হয়ে বললুম, "সে কি দাদা! লঙ্কাতেও আজকাল উইক-এন্ড পুজো হচ্ছে আর আপনি সেই পুজো থেকে পালাচ্ছেন?' রাবন্দার ভারী করুণ গলায় বললেন, "আর বলো কেন! এই উইক-এন্ড পুজো যে জীবন এমন দুর্বিষহ করে তুলতে পারে তা কি আর আগে জানতুম ভায়া?'

আরও পড়ুন...

নেই পুজো

সম্বিৎ বসু

সেপ্টেম্বর-অক্টোবারে দেশে-¢বদেশে বাঙালী ¢হন্দুর মন পুজো-পুজো করে। এই অমোঘ সত্যকে এ¢ড়য়ে যেতে চাই নানারকম প্যাঁচপয়জার কষে। আজ ওবামার হেলথ কেয়ার ¢ডবেট তো কাল রেড সক্স। আজ বসের ধাঁতা¢ন তো কাল আই¢পওর ¢ন¢শর ডাক। বু¢ঝ।

আরও পড়ুন...

মতুর ষষ্ঠী

চতুর্মূর্খ

পুজোর কদিন এ গলির সব কটা বাড়ি আলোর মালায় সাজানো। দুপাশের আলোর সজ্জা দর্শনার্থীকে পথ দেখিয়ে নিয়ে যাবে প্যান্ডেল পর্যন্ত। ছোটর মধ্যে হলেও এ পাড়ার পুজোটার বেশ নামডাক আছে। তাই ভিড়ও হয়েছে বেশ। বাড়ি পর্যন্ত পৌঁছতে হিমসিম খেতে হল সোমলতাকে। দোতলার ডোরবেলটায় হাত রেখে বেল বাজানোর আগে আবার একরাশ স্মৃতি ভিড় করে এল মনে।

আরও পড়ুন...

খোলা চিঠি

দুর্গা ঠাকুর

দু:খের কারণগুলি আরো খুলিয়াই বলি তাহলে। এত বৎসর ধরিয়া বাঙালী আমার পূজা করিতেছে, অথচ মেয়েদের আশীর্বাদ করিয়া কেহ কখোনো বলে না "মা দুগ্গার মতন তেজী হও,সাহসী হও, শক্তিশালী হও'! পুরুষ যে বলিবে না ইহাতে বিস্ময়ের কিছু নাই। মেয়েরা দলে দলে শক্তিশালী হইলে তাহাদের ঘোর বিপদ, বলাই বাহুল্য।

আরও পড়ুন...

দুর্গা আসছেনা.....

হাসান মোরশেদ

দূর্গা তার ছোট মেয়ে। বাজারের সবচেয়ে বড় আড়ত ওদের, সবচেয়ে বড় ফার্মেসী, সবচেয়ে বড় কাপড়ের দোকান। শিলিগুড়িতে ও নাকি ওরা বাড়ি কিনেছে, ব্যবসা করেছে। হরে ফিসফিসিয়ে আমাকে শুনিয়েছে এইসব- "দেখিস শ্যামা শালা একদিন পাততাড়ি গুটিয়ে ঐ পারে চলে যাবে'।

আরও পড়ুন...

অসুখের পুজো

আর্য্য ভট্টাচার্য্য

ওষুধে নয়, মূহুর্তের সেই উচ্ছাস পথ্যে। হাতে করে মানুষ করা নাতনির আদরে। বোঝা গেল দশমীর দিনই। সেদিন আর ওঠার ক্ষমতা নেই, শ্বাসকষ্টটাও খুব বেশি। কিন্তু আজ কি করবে? আটত্রিশ বছরের সঙ্গীটি আজ অসহায়। কোথাও যাওয়া আসার উপায় নেই। আর একটা দিন কাটাতে পারলেই হল। সময় গোনে লোকটি। কিছু করার না থাকায় ফোন করে সকলকে। যিনি নিয়ে যাবেন তাকে বার চারেক ফোন করে বলে দেন ভোর হলেই যেন চলে আসে। ফোন করাতে কি কি হতে পারে না তার ফিরিস্তি দিতে থাকেন। পূবকোণে আগুন রাঙিয়ে ভোর হয় রোজকার মতন।

আরও পড়ুন...

পুজোর ব্লগ

ত্রিদিব সেনগুপ্ত

যেটা পুজো সংক্রান্ত স্মৃতি আমার খুব স্পষ্ট ভাবে আছে, সেটা পাঁচ ছয় নাগাদ, নিউব্যারাকপুরের স্মৃতিটা ঠিক পুজোর নয়, পুজো উপলক্ষে ব্যায়ামসমিতির করা শরীরের পেশী প্রদর্শন, আর মামাবাড়িতে, মধ্যমগ্রামের বিধানপল্লীতে, দুলুদার দোকানের সামনে ফাঁকা মাঠে পুজোর মণ্ডপে, খুবই মাঠো সব, বাঁশের বেড়ার গায়ে চটের আবরণ, তার মধ্যে তখনকার ডেকরেটরের কাঠ-পিজবোর্ডের চেয়ারে বসে আমি আর গজো, তখনকার এক সঙ্গী, একটা খেলনা পিস্তল দিয়ে মারামারি করছি।

আরও পড়ুন...

শেষ পরিচ্ছদ

সুমন মান্না

সেসব কথা বাড়তে বাড়তে এখন পুরো আস্ত নদী। যে যার মতো মতো নৌকা ভাসায়, জল তোলে কেউ, কেউ বা কিছু না করে সেই নদীর দিকে তাকিয়ে থাকে। জলেই জল বাড়তে থাকে - পায়ের পাতা ভিজল যখন কেমন যে এক শিরশিরনি, এক গোড়ালি জল মানে সব জুতো মোজা যায় বগলে। হাঁটু জলে প্রথম টের পাচ্ছিল সেই স্রোতের আভাস।

আরও পড়ুন...

বিসর্জন

শুদ্ধপ্রসাদ বাগচী

অটোয়ালা থেকে ইনস্যুরেন্স এজেন্ট, প্রাইভেট টিউটর থেকে ছোকরা মাস্তান, নাচের দিদিমণি আর ছেনাল পাব্লিক সব গা ঘষাঘষি করে নানাবিধ বাওয়ালিতে মেতে থাকে পাঁচদিন। নতুন জামার আড়ালে তীব্র আমোদগেঁড়েমি ও ত্‌ৎসহ হারামিপনার জমাট আবহে কারুর কিঞ্চিৎ গুরুপাক হলেও, মোটের ওপর তামাশাটা মন্দ দাঁড়ায়না। তার সাথে ভক্তিভাবের ভ্যাদভেদে গুমোট হাওয়ায় ছোটখাটো বেহেড ঢ্যামনামি ও এগরোল, ফুচকা, আইসক্রীম আর অবাধ্য জীভ বেয়ে গড়িয়ে পড়া প্রেম-লালা-ভালবাসা মাখামাখি কিছু লাভ স্টোরি।

আরও পড়ুন...

রাবেয়া কি রুকসানা

জ্যোতির্ময় দে

গত ১-লা ফেব্রুয়ারী ২০১০ উত্তর ২৪ পরগনার বারাসাত থানার কাজিপাড়া (৪ নং গেট) থেকে মুমতাজ বেওয়া (নামবদল, বয়স ২১) বলে এক যুবতীকে অপহরণকরে অসদুদ্দেশ্যে পাচার করা হয়েছে বলে মেয়েটির মা ফাতিমা বেওয়া বারাসাত থানাতে অভিযোগ দায়ের করেন।

আরও পড়ুন...

হাসতে লেডিস! হার্টে যদিও সাচ্চা

Rিতেন মিত্র

আরে মানবিকতা কি ইজের নাকি য্‌খন খুশী যত খুশী যেদিকে চাই স্ট্রেচ করা যায়? এরকম করতে করতে একদিন পশু-মানব মৈত্রীর খাতিরে কচি পাঁঠাও ত্যাগ করতে হবে। তোদের মত যারা সরল হাসির জিনিস কে নিয়ে জলঘোলা করতে পারে, তাদের মনেই খুঁত। বিলক্ষণ জানি। আর জানি -- ক্লীবে প্রেম করে যে জন, সে জন মারিছে হিউমার । আবার বলি, আমরা কিন্তু শুধুই হাসতে চেয়েছিলাম। আমার হার্ট ঠিক জায়গাতেই আছে, তাতে কেউ হার্ট হলে আমার দোষ না। দুনিয়া টা জানবি কন্সার্ভেশান ওফ খিল্লি প্রিন্সিপলে চলছে। খিল্লি লস্ট = খিল্লি গেইনড।

আরও পড়ুন...

শয়তানের ওকালতি

সোমনাথ রায়

মুসলমানের বাড়িতে আগুন লাগিয়ে নামাজ পড়াতে মিমিক করবার মজা পাওয়া যায়না, হোমোসেক্সুয়াল দেখে মুখ ফিরিয়ে নিলে গে-কে ভেঙানো যায়না - ঠিক যেমন আমাদের অজস্র প্রাচীন বাংলা জোকস-এর ভেতর (বি:দ্র: গোপাল ভাঁড়) চণ্ডাল, ডোম প্রভৃতিদের নিয়ে একটিও গল্পকথা খুঁজে পাবেন না, সব হাস্যরসের চরিত্র-ই ইনক্লুডেড যাঁরা, তারা-ই। আর যখন-ই এক্সক্লুশন - এড়িয়ে চলা, ঘেন্না, বিরক্তি এগুলো প্রবলতর হয়ে পড়ে, তখন ঐ হাস্যরস নির্মাণের জায়গাটা চলে যায়।

আরও পড়ুন...

পশ্চিমবঙ্গের পরিপ্রেক্ষিতে মাওবাদী আন্দোলন ঃ কিছু ব্যক্তিগত পর্যবেক্ষণ

অনিন্দ্য পাত্র

হ্যাঁ। এটা একটা রাজনৈতিক প্রবন্ধই বটে। অবশ্য ঠিক প্রবন্ধ বললে ভুল হবে। কারণ, একটা রাজনৈতিক প্রবন্ধের থেকে লোকের যা যা প্রত্যাশা থাকে সাধারণত:, যেমন - কিছু নতুন ধরণের তত্ত্ব, ব্যাখ্যা, বা মতামত - সেসব প্রত্যাশা এই লেখা থেকে পূরণ হবে - এরকম কোনও গ্যারান্টি দিতে পারছি না। তার চেয়ে বরং এই লেখাকে অনেক দিন ধরে জমা হতে থাকা কিছু একান্ত ব্যক্তিগত পর্যবেক্ষণ, কিছুটা স্বগতোক্তির মত করেই যা আমি রাখতে চাইছি - সেভাবেই পাঠককে নিতে অনুরোধ করব। স্বাভাবিকভাবেই স্বগতোক্তির কোনও নির্দিষ্ট ক্রম থাকা মুশকিল। তাই ছেঁড়া ছেঁড়া টুকরোগুলোকে জুড়ে নেওয়ার দায়টা এক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের নয়, পাঠকের উপরেই ছাড়া রইলো। :-)

আরও পড়ুন...

সিনেমা সিনেমা

মধুজা মুখার্জী

রাজাধ্যক্ষের বইয়ের প্রথম দুটি পরিচ্ছেদ বলিউডের শিল্পগত তাৎপর্য বিশেষভাবে আলোচনা করে। সম্প্রতিকালে "বলিউড' সংক্রান্ত একাধিক বই প্রকাশিত হয়েছে, যা মূলত ভারতীয় Diaspora র কাছে হিন্দী ছবির গ্রহণযোগ্যতা বিশ্লেষণ করে। রাজাধ্যক্ষ এর আগেও (২০০২) বিস্তারিত ভাবে দেখিয়েছেন বলিউড কীভাবে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ভাযার পুনর্নিমাণ করেছে।

আরও পড়ুন...

খাননামা

অর্ণব রায়

অধীর হোয়ো না বৎস, আরো আছে। চরিত্ররূপায়ণ!! তোর সাথে সুর্মাকে দিচ্ছি। আজ অব্দি যে কটায় তোদের দুজনের জুটি নামিয়েছি সবকটা মেগাহিট! কেমিস্ট্রিটাই আসল বুঝলি! তুই আর সুর্মা মিলে কেমিস্ট্রিটা নামিয়ে দিবি ঠিকমতো। সুর্মা আবার আবেগ বেশি হলে এট্টু বাড়াবাড়ি, চিল্লামিল্লি করে ফেলে বটে, কিন্তু কেমিস্ট্রি জমিয়ে ক্ষীর করে দেয়!

আরও পড়ুন...

নামচরিত

অধীশা সরকার

নাম: শাহরুখ খান। ইনি বলিউডের বাদশা। বলিউড অর্থাৎ রামরাজ্য ও শ্যামরাজ্যের মাঝামাঝি যে গোবেচারা যদুরাজ্যকে আমরা ভারতবর্ষ বলি তার প্রধান শহরের প্রধানতম ইন্ডাস্ট্রি। শাহরুখ খান, ইন শর্ট SRK , এই শহরের এবং এই ইন্ডাস্ট্রির সবেধন বৈদূর্যমণি। গ্লোবাল আইকন।

আরও পড়ুন...

জেমস ক্যামেরুনের অবতার ঃ শুধুই কল্পবিজ্ঞান?

বিপ্লব পাল

ক্রিসমাসের এবারের ছুটিতে আমেরিকা তথা বিশ্বে সবথেকে আলোচিত টাইটানিকের পরিচালক জেমস ক্যামেরুনের "অভতার' (বাংলা অবতার)। শুধু অত্যাধুনিক স্টিরিওগ্রাফিক ক্যামেরা বা থ্রি ডাইমেনশনার কম্পুটার গ্রাফিক্সের জন্যেই অবতার নিয়ে এত শোরগোল হচ্ছে তা ঠিক না। হলে গিয়ে মনে হল আমেরিকান বস্তুবাদী সভ্যতায় বিধ্বস্ত অনেকেই ফিরে যেতে চাইছে, ফিরিয়ে দাও সে অরণ্যের যুগে যেখানে প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষা করেই বেঁচে থেকেছে মানুষ।

আরও পড়ুন...

একাদশী অবতার

কৃষ্ণকলি রায়

ভালো লাগেনি , কারণটা গোদা ভাষায় বললে এই হয় যে সিনেমার গল্পটি অত্যন্ত "ঘিসাপিটা'। বন্ধু শুনে বললেন "কী বলিস কী? ভেবে দেখ এই যে আসল মানুষটা চোখ বন্ধ করে এক জায়গায় শুয়ে রয়েছে, অথচ তারই এক রূপ অন্য জায়গায় ঘুরে বেড়াচ্ছে। এটাই কি একটা দারুণ আইডিয়া না? চমকপ্রদ!!!' আমার চমক লাগেনি।

আরও পড়ুন...

অবতার ঃ একটি ব্যক্তিগত নোট

সোমনাথ রায়

এইখানেই অবাক হয়ে গেলাম, avatar দেখে, যেখানে সমস্ত গ্রহটার সঙ্গে মানুষগুলো একাত্ম বোধ করছে,আর তাদের সামগ্রিক জীবনচর্যাটাই সেই একাত্মবোধের ওপর ভিত্তি করে, গাছের শিকড়ের সঙ্গে ডেটা ট্রান্সফারের মেকানিজম খুঁজছেন বিজ্ঞানী, কিন্তু সভ্যতা গড়ে তোলার প্রসেস-এ তারা জেনেছে যে ঐ গাছ, ঐ পাখি, ঐ ঘোড়া, ঐ উড়ন্ত পাহাড়, সব কিছুই তাদের বেঁচে থাকার সঙ্গে সম্পৃক্ত।

আরও পড়ুন...

থ্রি ইডিয়টস - একটি সমালোচনা

কণিষ্ক লাহিড়ি

সিনেমাটা যাঁরা বানিয়েছেন তাঁদের বুদ্ধির আমি তারিফ করি। ওঁদের এই সূক্ষ্ম কমার্শিয়াল স্ট্র্যাটেজি কী চমৎকার ভাবে মাল্টিপ্লেক্স, গেটেড কমিউনিটি, এই সবের পাশাপাশি একটা এমন মাহোল তৈরী করে দিলো যেখানে স্বচ্ছল শহুরে ভারত প্রাণ খুলে হাসতে পারে, বাস্তবের কিছুমাত্র না বুঝে বাস্তবকে নিয়েই হাসি! চমৎকার নয়? হ্যাঁ ওঁদের বুদ্ধির আমি তারিফ করি যে দর্শককে ওঁরা একই সঙ্গে একটা মেকি "ফিল গুড' অনুভূতি দিতে পেরেছেন।

আরও পড়ুন...

৩-ইডিয়টস - একটি আলোচনা

অর্ণব রায়

এই প্রথম হিন্দি সিনেমায় ফুটে উঠেছে কলেজের সেই জীবন, যাতে কুল পোষাক, সুন্দরীদের ক্যাটওয়াক, অত্যাধুনিক গাড়ি বা নাচ-গান-পার্টি এর উপরে জায়গা করে নিয়েছে কঠোর বাস্তব। কলেজ মানে পড়াশোনার চাপ, ব্যর্থতার ভয়, পরিবার এবং কর্তৃপক্ষের জাঁতাকল।

আরও পড়ুন...

পশ্চিম বাংলায় পুলিশের "জনদরদী' নমুনা

কল্লোল দাশগুপ্ত

৩ মার্চ ২০১০ সন্ধ্যাবেলা মাসুম অফিসে খরব আসে আব্দুল আলিম গাজী নামে ১৫ বছরের একটি অপ্রাপ্তবয়স্ক ছেলেকে বেলঘরিয়া থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তাকে ডানলপ ব্রিজ এলকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে সময় সে তার মা ও মাসির সাথে ময়লা কুড়াচ্ছিল।

আরও পড়ুন...