মধ্যভারত কথা

দেবর্ষি দাস

শুভ্রাংশু চৌধরি ছত্তিসগড়ে Citizens Journalism Initiative ও CGnet-এর প্রতিষ্ঠাতা-সদস্য। ছত্তিসগড়ের একটি সংবাদপত্রে এক সময় নিয়মিত কলাম লিখতেন। একবার রাজ্যের চাষিদের আত্মহত্যার খবর নিয়ে লেখেন। চাপ দিয়ে, মিথ্যেপ্রচারের অভিযোগে তাঁর কলাম বন্ধ করে দেওয়া হয়(১)। শুভ্রাংশু দন্ডকারণ্যের কাছের বালিমেলা জলাশয় ও নিয়ামগিরি পাহাড় অঞ্চলে সাংবাদিকতার সূত্রে গেছিলেন(২)। বালিমেলা জলাশয় নেহরুর আমলের বৃহ্‌ৎ বাঁধ প্রকল্পের একটি নিদর্শন। অঞ্চলের আদিবাসীদের বহু গ্রাম এর ফলে ডুবে যায়, উচ্ছিন্ন লোকেরা যেখানে গিয়ে নতুন ঘর বাঁধেন সেগুলূ জলস্তর বাড়ার পর বাকি দুনিয়ার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। সব থেকে কাছের হাসপাতালে যেতে হলে তিন ঘন্টা লঞ্চ, যা দিনে একটা চলে, ও তারপর দুঞ্চঘন্টা হন্টন। অর্থাৎ মোট ৫ ঘন্টা। স্কুল ৩+৪ = ৭ ঘন্টা। বাঁধের উৎপাদিত বিদ্যুৎ এই গ্রামগুলোতে চার দশক পরেও পৌঁছোয় নি, ওড়িসার বড় শহরগুলোতে চলে যাচ্ছে তারে তারে। জল বয়ে চলেছে হিন্দু উঁচু জাতের চাষিদের জমিসেচের জন্য। উচ্ছিন্ন আদিবাসীদের হাতে যে অনুর্বর জমি আছে তাতে এত কম খাদ্যশস্য হয় যে অধিক অরতথকরী কিন্তু বেআইনি গাঁজার চাষ করে পেট চালাতে হয়। অথচ যে জমিতে তারা মাথা গুঁজেছে বা ফসল ফলাচ্ছে তার কাগজও কিন্তু সরকার তাদের দেয়নি, ক্ষতিপূরণ তো দূর অস্ত।

আরও পড়ুন...

খবর্নয়? (২৭শে জুলাই) -- মানবাধিকার কমিশন

খবরোলার প্রতিবেদন

ঘটনাটি ছত্তিশগড়ের, যেখানে, দীর্ঘদিন ধরেই মাওবাদীদের সঙ্গে সরকারের ভয়াবহ সংঘর্ষ চলছে। সরাসরি যুদ্ধে এঁটে উঠতে না পেরে সরকারের পক্ষ থেকে নামানো হয়েছে "সালোয়া জুডুম' নামের এক তথাকথিত শান্তি আন্দোলন। এই আন্দোলনের নামে মাওবাদী কুপ্রভাব থেকে রক্ষা করার জন্য সাধারণ আদিবাসীদের বাধ্য করা হচ্ছে, নিজেদের গ্রাম ছেড়ে এসে সরকারি ক্যাম্পে বসবাস করতে। বিশেষ পুলিশ অফিসার (এসপিও) তকমা দিয়ে কমবয়সী যুবকদের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে আগ্নেয়াস্ত্র। ঠেলে দেওয়া হচ্ছে যুদ্ধের ময়দানে, দেওয়া হচ্ছে খুন-জখম-লুণ্ঠনের অবাধ অধিকার।

আরও পড়ুন...

কারাগার, দেশে ও বিদেশে

সন্দীপন দাশগুপ্ত

শারীরিক নির্যাতনের সাহায্যে বিচারাধীন কয়েদীদের পছন্দমত "স্বীকারোক্তি" দিতে বাধ্য করার বিষয়টি গত এক বছরে বহুল প্রচারিত - মার্কিন প্রশাসন, প্রচারমাধ্যম ও সংসদের কল্যাণে। মার্কিন দেশে অবশ্য, গ্রেপ্তার করার আগে বা পরে, বিচারাধীন বন্দীদের উপর শারীরিক নির্যাতনের ব্যাপারে বেশ কড়া নিষেধাজ্ঞা আছে, যা নেহাতই "ব্যতিক্রমী' ব্যাপারস্যাপার ছাড়া, সাধারণভাবে মেনেও চলা হয়। এই কয়েকমাস আগে আটলান্টার এক গাড়িচালক কয়েকজন পুলিশকে চাপা দিয়ে চলে যাবার চেষ্টা করে। তাকে তাড়া করে ধরে ফেলার পর, ঐ পুলিশরা লোকটির উপরে শারীরিক আঘাত করে। ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, সেই আঘাতগুলি মোটেই ঠান্ডা মাথার পুলিশী মার নয়, বরং রক্তমাংসের সাধারণ মানুষের মতই। কোনো ক্রমে প্রাণে বেঁচে যাবার পর সাধারণ মানুষের পক্ষে এই ধরণের আচরণই প্রত্যাশিত। কিন্তু কর্তৃপক্ষের কাছে এই অজুহাত ধোপে টেকেনি, বরং অ-পুলিশী আচরণের অভিযোগে তিনজন পুলিশ অফিসারকে চাকরি থেকে বরখাস্ত হতে হয়।

আরও পড়ুন...

নারী প্রসঙ্গে

সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্প্রতি মধ্যপ্রদেশে সনাতন ভারতীয় পদ্ধতিতে "কন্যাদান' এর এক অভূতপূর্ব ঘটনা ঘটে গেল। "মুখ্যমন্ত্রী কন্যাদান যোজনা' নামক একটি সরকারি প্রকল্পে সম্প্রতি বিয়ে দিয়ে উদ্ধার করা হল ১৫১ জন দু:স্থ মহিলাকে। গত ২৬শে জুন। বেণীর সঙ্গে মাথার মতো, বিয়ে দিয়ে কন্যা উদ্ধার করার পাশাপাশি আরেকটি সামাজিক কর্তব্যও মধ্যপ্রদেশ সরকার পালন করলেন সম্পূর্ণ বিনামূল্যে। বিয়ের উপযুক্ত কিনা জানার জন্য, প্রতিটি কন্যার "পরীক্ষা' নেওয়া হল রীতিমতো সরকারি উদ্যোগে। যে-সে পরীক্ষা নয়, প্রতিটি বিবাহেচ্ছুক নারীর "কুমারীত্ব' পরীক্ষা করা হল একদম পাশ-করা স্ত্রীরোগবিশেষজ্ঞদের দিয়ে। খবরে প্রকাশ, যে, জনৈকা পরিক্ষার্থিনী সামান্য ট্যাঁফোঁ করেছিলেন, কিন্তু তাঁকে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়, যে, পরীক্ষায় না বসলে বিয়ের আসরে এϾট্রর কোনো প্রশ্নই নেই। ফেল করলে কি হবে, সেটা অবশ্য স্পষ্ট করে বলা হয়নি, কিন্তু ফেল করলে কি হয়, সে তো ক্লাস ফাইভের নাদান বালকও জানে।

আরও পড়ুন...

খবর্নয়? (১৯শে জুলাই) -- কারাগার, দেশে বিদেশে

খবরোলার প্রতিবেদন

চোদ্দ বছরের জেমি কুইন জেলে। কারণ, বন্ধুর সঙ্গে হাতাহাতি। হিলারি ট্রান্স্যু-র ক্ষেত্রে কারণটা অন্য। মেয়েটি স্কুলের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রিন্সিপালের প্যারডি করে একটি ওয়েবসাইটে পোস্ট করেছিল। মাত্র ৯০ সেকেন্ডের শুনানির পর হিলারিকে ৩ মাসের জন্য জেলে পাঠানো হয়, জেমির কপালে জোটে এক বছরের হাজতবাস। হ্যাঁ,আমেরিকার পেনসিলভ্যানিয়ায় প্রায় ৫০০০ শিশু আদালতের রায়ে এইরকম "দোষী প্রমাণিত' হয়েছে,আর তার মধ্যে জেল হয়েছে ২০০০-এর। অধিকাংশ হাজতবাসই সম্পূর্ণ হাস্যকর কারণে। বিচারপতি মার্ক এ সিয়াভারেলা জুনিয়র ও বিচারপতি মাইকেল টি কোনাহান, বেসরকারি প্রিজন সংস্থার কাছে প্রায় ২.৬ মিলিয়ন ডলার ঘুষ নিয়ে এই সব শিশুদের জেলে পাঠিয়েছেন। বিশেষ করে যারা কোন আইনজীবী জোগাড় করতে পারেনি তাদের।

আরও পড়ুন...

বাংলাভাষীর তীর্থদর্শন

কলিম খান

শ্রী হরিচরণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের "বঙ্গীয় শব্দকোষ' গ্রন্থটিতে "তীর্থ' শব্দের প্রায় ২৫টি মানে পাওয়া যায়। "ছাত্রদের অভিধান' তার থেকে ৮টি কমিয়ে ১৬টি মানে দিয়ে গেছে। কলকাতার "সংসদ বাংলা অভিধান' ও ঢাকার "ব্যবহারিক বাংলা অভিধান' তার থেকে আরও ৯টি বাদ দিয়ে মাত্র ৭টি মানে নিয়েছে। সাম্প্রতিক কয়েকটি অভিধানে এই সংখ্যা আরও কমেছে এবং শেষমেষ শব্দটির একটিমাত্র মানে দাঁড়িয়েছে

আরও পড়ুন...

হরিদাস পালের ডায়রি - ""খবর'' তৈরি হয় এমন করে

রঞ্জন রায়

'দ্য ফাউন্ডেশন ফর মিডিয়া প্রোফেশনাল্‌স' দিল্লির ইন্ডিয়া ইন্টার্ন্যাশনাল সেন্টারে ভারত ও পাকিস্তানের সাংবাদিকদের নিয়ে এক সেমিনারের আয়োজন করেছিলেন। তাতে দুইদেশেরই নামী-গিরামী বেশ কজন হাজির ছিলেন। ওপার থেকে দ্য নিউজ এর সংস্থাপক ও এক্‌জিকিউটিভ এডিটর সমেত বিবিসির উর্দু ও পুশ্‌তু সার্ভিস এবং টাইম ম্যাগাজিনের জন্যে রিপোর্টিং করা রহিমুল্লা ইউসুফজাই, করাচী থেকে ফ্রি-ল্যান্সার ও ফিল্ম নির্মাতা বীনা সারওয়ার, ডেলী আজকাল এর সম্পাদক সৈয়দ মিন্‌হাস, বিবিসির নামজাদা সাংবাদিক উস্তুলা খান, দ্য নিউজ এর মুনীবা কামাল ওআরও অনেকে।

আরও পড়ুন...

ইরান বিপ্লবের আসল ও নকল

সৌরভ ভট্টাচার্য

সুধী, ইন্টারনেটের গলিঘুঁজি দিয়ে যখন এতখানি এসেছেন তখন কোথাও না কোথাও, বড়রাস্তায়, নিশ্চয়ই দেখেছেন নেদাকে। নেদা আগা সোলতান। মেয়েটা বিক্ষুব্ধ তেহরানের রাস্তা দিয়ে হাঁটছিল। হয়ত প্রতিবাদে যোগ দিতে, হয়ত নয়। হঠাৎ এক মোটরবাইক তাকে উপহার দিয়ে যায় একটি বুলেট। ইউটিউবে, ব্লগে, টুইটারে ছড়িয়ে পড়েছে তার বুলেটবিদ্ধ, মুখ-দিয়ে-রক্ত-ওঠা, শেষ কয়েকটি মুহূর্তের দৃশ্য। ইরানের "সবুজ বিপ্লবের" প্রতীকী দৃশ্য। বিপ্লব!!

আরও পড়ুন...

অমানুষিক ব্যাপার স্যাপার -১

খবরোলার প্রতিবেদন

ম্যাসাচুসেটসের বেভার্লি এয়ারপোর্টে কদিন আগে রীতিমত হইহই কান্ড। একটি প্রশিক্ষণ বিমানের বাঁদিকের ডানার ওপর বসে পড়েছেন হাজারদশেক মৌমাছির এক বিশাল বাহিনী!! এহেন আচরণের হেতু? বিমানে চেপে ওড়ার শখ হয়েছে হয়ত বা! ডাক পড়ল পেশাদার মৌমাছিতাড়ুয়া উইলকিন্স সায়েবের। তিনি জানালেন উড়তে উড়তে নিশ্চয়ই রাণীমার একটু বিশ্রামের প্রয়োজন হয়েছিল, অনুগত প্রজাগণও যথারীতি রাণীমা কে অনুসরণ করেছেন।

আরও পড়ুন...

হরিদাস পালের ডায়রি - ভালোবাসার শক্তি

রঞ্জন রায়

সেই ২০০২এ গোধরা কান্ডের দাংগা থেমে যাওয়ার দু'মাস পর। আহমদাবাদের কাছে রসোল গ্রামের বাইরে হাইওয়ের ওপর দুটো লাশ পাওয়া গেল। ব্যস-, স্থানীয় পুলিশের দল কয়েকটা জীপ ভরে পৌঁছে গেল পাশের মজদুরদের বস্তি মোহম্মদনগরে। ঢুকেই শুরু হল এলোমেলো ফায়রিং।

আরও পড়ুন...

তথাকথিত বুদ্ধিজীবীদের প্রতি আবেদন

সম্বিৎ বসু

¢নরপেক্ষতার পাঠ ¢নন। এর জন্যে য¢দ ছ' লাইন লেখেন, ওর জন্যেও ছ' লাইন ¢লখতে ¢শখুন। এর জন্যে য¢দ ছ' সেকে¾ড, ওর জন্যেও ছ সেকে¾ড। বে¢শও নয় কমও নয়। মশা কামড়েছে বলে য¢দ মশার ¢বরুদ্ধে ছ'¢ট শব্দ ব্যবহার করেন, ¢নজের মনুষ্য জন্ম ও তৎসহ মনুষ্যরক্ত বহন করার ¢বরুদ্ধে ছ'¢ট শব্দ ব্যবহার করুন।

আরও পড়ুন...