Abhijit Majumder RSS feed
Abhijit Majumder খেরোর খাতা

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • তোত্তো-চান - তেৎসুকো কুররোয়ানাগি
    তোত্তো-চানের নামের অর্থ ছোট্ট খুকু। তোত্তো-চানের অত্যাচারে তাকে স্কুল থেকে বের করে দিয়েছে। যদিও সেই সম্পর্কে তোত্তো-চানের বিন্দু মাত্র ধারনা নেই। মায়ের সঙ্গে নতুন স্কুলে ভর্তি হওয়ার জন্য সে চলছে। নানা বিষয়ে নানা প্রশ্ন, নানান আগ্রহ তার। স্টেশনের টিকেট ...
  • চলো এগিয়ে চলি
    #চলো এগিয়ে চলি#সুমন গাঙ্গুলী ভট্টাচার্য প্রথম ভাগের উৎসব শেষ। এরপরে দীপাবলি। আলোর উৎসব।তার সাথে শব্দবাজি। আমরা যারা লিভিং উইথ অটিজমতাদের ক্ষেত্রে সব সময় এই উৎসব সুখের নাও হতে পারে। অটিস্টিক মানুষের ক্ষেত্রে অনেক সময় আওয়াজ,চিৎকার, কর্কশ শব্দশারীরিক ...
  • সিনেমা দেখার টাটকা অভিজ্ঞতা - মনোজদের অদ্ভুত বাড়ি
    চট করে আজকাল সিনেমা দেখতে যাই না। বাংলা সিনেমা তো নয়ই। যদিও, টেলিভিশনের কল্যাণে আপটুডেট থাকা হয়ে যায়।এইভাবেই জানা যায়, এক ধাঁচের সমান্তরাল বাংলা ছবির হয়ে ওঠার গল্প। মধ্যমেধার এই রমরমার বাজারে, সিনেমার দুনিয়া আলাদা হবে, এমন দুরাশার কারণ দেখিনা। কিন্তু, এই ...
  • কিংবদন্তীর প্রস্থান স্মরণে...
    প্রথমে ফিতার ক্যাসেট দিয়ে শুরু তারপর সম্ভবত টিভিতে দুই একটা গান শোনা তারপর আস্তে আস্তে সিডিতে, মেমরি কার্ডে সমস্ত গান নিয়ে চলা। এলআরবি বা আইয়ুব বাচ্চু দিনের পর দিন মুগ্ধ করে গেছে আমাদের।তখনকার সময় মুরুব্বিদের খুব অপছন্দ ছিল বাচ্চুকে। কী গান গায় এগুলা বলে ...
  • অনন্ত দশমী
    "After the torchlight red on sweaty facesAfter the frosty silence in the gardens..After the agony in stony placesThe shouting and the crying...Prison and palace and reverberationOf thunder of spring over distant mountains...He who was living is now deadWe ...
  • ঘরে ফেরা
    [এ গল্পটি কয়েক বছর আগে ‘কলকাতা আকাশবাণী’-র ‘অন্বেষা’ অনুষ্ঠানে দুই পর্বে সম্প্রচারিত হয়েছিল, পরে ছাপাও হয় ‘নেহাই’ পত্রিকাতে । তবে, আমার অন্তর্জাল-বন্ধুরা সম্ভবত এটির কথা জানেন না ।] …………আঃ, বড্ড খাটুনি গেছে আজ । বাড়ি ফিরে বিছানায় ঝাঁপ দেবার আগে একমুঠো ...
  • নবদুর্গা
    গতকাল ফেসবুকে এই লেখাটা লিখেছিলাম বেশ বিরক্ত হয়েই। এখানে অবিকৃত ভাবেই দিলাম। শুধু ফেসবুকেই একজন একটা জিনিস শুধরে দিয়েছিলেন, দশ মহাবিদ্যার অষ্টম জনের নাম আমি বগলামুখী লিখেছিলাম, ওখানেই একজন লিখলেন সেইটা সম্ভবত বগলা হবে। ------------- ধর্মবিশ্বাসী মানুষে ...
  • চলো এগিয়ে চলি
    #চলো এগিয়ে চলি #সুমন গাঙ্গুলী ভট্টাচার্যমন ভালো রাখতে কবিতা পড়ুন,গান শুনুন,নিজে বাগান করুন আমরা সবাই শুনে থাকি তাই না।কিন্তু আমরা যারা স্পেশাল মা তাঁদেরবোধহয় না থাকে মনখারাপ ভাবার সময় না তার থেকে মুক্তি। আমরা, স্পেশাল বাচ্চার মা তাঁদের জীবন টা একটু ...
  • দক্ষিণের কড়চা
    দক্ষিণের কড়চা▶️অন্তরীক্ষে এই ঊষাকালে অতসী পুষ্পদলের রঙ ফুটি ফুটি করিতেছে। অংশুসকল ঘুমঘোরে স্থিত মেঘমালায় মাখামাখি হইয়া প্রভাতের জন্মমুহূর্তে বিহ্বল শিশুর ন্যায় আধোমুখর। নদীতীরবর্তী কাশপুষ্পগুচ্ছে লবণপৃক্ত বাতাস রহিয়া রহিয়া জড়াইতে চাহে যেন, বালবিধবার ...
  • #চলো এগিয়ে চলি
    #চলো এগিয়ে চলি(35)#সুমন গাঙ্গুলী ভট্টাচার্যআমরা যারা অটিস্টিক সন্তানের বাবা-মা আমাদের যুদ্ধ টা নিজের সাথে এবং বাইরে সমাজের সাথে প্রতিনিয়ত। অনেকে বলেন ঈশ্বর নাকি বেছে বেছে যারা কষ্ট সহ্য করতে পারেন তাঁদের এই ধরণের বাচ্চা "উপহার" দেন। ঈশ্বর বলে যদি কেউ ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

Abhijit Majumder প্রদত্ত সর্বশেষ দু পয়সা

লেখকের আরও পুরোনো লেখা >> RSS feed

রামায়ণ, ইন্টারনেট ও টেনিদা (পর্ব ২)

ঘুগনীটা শেষ করে শালপাতাটা আমার দিকে এগিয়ে টেনিদা বললে, "বলতো, রামায়ণ কাকে নিয়ে লেখা?"

আমি অনেকক্ষণ ধরে দেখছিলাম শালপাতায় কোণায় এককুচি মাংস লেগে আছে। টেনিদা পাতাটা এগোতেই তাড়াতাড়ি করে কোণে লেগে থাকা মাংসের কুচিটা মুখে চালান করে দিয়ে বললুম, "কেন, রামচন্দ্রকে নিয়ে।"

টেনিদা একটা পিলে চমকানো হাসি হেসে বললে, "ফুংসুক ওয়াংড়ুর সঙ্গে দেখা হওয়ার আগে আমিও তাই ভাবতাম।"

ফুংসুক ওয়াংড়ুর নাম শুনে দেখলাম সবজান্তা ক্যাবলাও চোখ পিটপিট করে ঘুরে বসল।

-মতলব, বিখ্যাত বৈজ্ঞানিক ফুং

রামায়ণ, ইন্টারনেট ও টেনিদা

রামায়ন ও ইন্টারনেট (পর্ব ১)

টেনিদা একটু গলাটা ঝেড়ে নিয়ে বলল, বুঝলি সেকালেও ফেসবুক, ইন্টারনেট ছিল।

ক্যাবলা চাপাস্বরে বলল, ওই শুরু হল ঢপের চপ।

টেনিদা হুংকার ছেড়ে বলল, "এ্যাই ক্যাবলা কি বললি রা?"

ক্যাবলা তাড়াতাড়ি সামলে নিয়ে বলল, "আমি না, প্যালা বলছিল, আসার সময় দেখে এসেছে কালিকায় চপ ভাজছে। তাই বলছিলাম, একটু চপ টপ হলে এই বৃষ্টিতে ভালো হত।"

আমি সবে প্রতিবাদ করতে যাব, এমন সময় টেনিদা উদাস গলায় বলল, "নাহ্ চপ আর খাবো না। বরং নগেনের দোকান থেকে একটু পকোড়া নি

রাজনৈতিক প্যারডি

কয়েকটি পলিটিক্যাল প্যারডি

1.
কখনো বদল আসে, সময় মুচকি হাসে,
চারিদিকে সব কিছু সাজানো ঘটনা,
দেখব না ভুলগুলো, কানেতে অহং তুলো,
শুনব না আমি কোনও সম-আলোচনা।
পার্ক স্ট্রীট-কামদুনি, গুন্ডা-মাফিয়া-খুনি,
ছাড়া পায়, ধরা পড়ে শিলা-মৌসুমি,
চোপ! চোপ! চিৎকার, বেয়াদব কোথাকার,
প্রশ্ন করলে জানি মাওবাদী তুমি।
সন্ধ্যে নিবিড় হতে, বারোভুতে লুটেপুটে
ছিঁড়ে খাক, তা হলেও মুখ খোলা মানা,
পুলিশ আজ্ঞাবহ, জীবন যে দুঃসহ,
ফেসবুকে পোস্টালে হবে জরিমানা,
চারিদিক

কাজের লোক ও আমরা

বাণী বসু অলকানন্দা রায়রা খুব চিন্তিত। তার সাথে আনন্দবাজার। এবং আমরা।

গৃহশ্রমিক (মানে কাজের লোকেরা) ইউনিয়ন বানিয়েছে। এইবার শুরু হবে গৃহস্থদের হয়রানি।

এই কাজের লোকগুলো মাসে চার দিন ছুটি দাবী করেছে। অর্থাৎ প্রতি সপ্তাহে একদিন। যেমন আমার আপনার থাকে আর কি।

বাণী বসু তাতে খুব চিন্তিত। কেন না এই কাজের লোকগুলো না বলে কামাই করে খুব ফ্যাসাদে ফেলে।

হক কথা।

না বলে কামাই করবে কেন? বলেই তো ছুটি নিতে পারে। সি এল, ই এল, মেডিক্যাল লীভ তো আছেই। শরীর খারাপের অজুহাত

বর্ষা ও খিচুড়ি

বর্ষাকাল। তিনদিন ধরে ঝমঝম করে বৃষ্টি হয়েই চলেছে। আমাদেরও ইস্কুল টিস্কুল বন্ধ। রাস্তায় এক হাঁটু জল। মায়েরও আজ অফিস যাওয়ার উপায় নেই। কি মজা। যদিও পুরোনো বাড়ির ছাদ চুঁইয়ে জল পড়ছে, ঘরের মেঝেতে ড্যাম্প, জামাকাপড় না শুকিয়ে স্যাঁতস্যাঁত করছে, কিন্তু তাতে আমাদের কি? ওইসব বাবা-মাদের চিন্তা। আমরা জানলার ধারে বসে ভাইবোনে মনের আনন্দে কাগজের নৌকো বানাচ্ছি আর রাস্তায় ফেলছি। মা বারদুয়েক বারণ করে গেছে। বৃষ্টির ছাঁট গায়ে লাগলে জ্বর আসতে পারে। কিন্তু হু কেয়ারস? এমন বৃষ্টি কি আর রোজ রোজ হয়? এমন দিনেই তো চাই কাগজের

যে কথা ব্যাদে নাই

যে কথা ব্যাদে নাই

আমগো সব আছিল। খ্যাতের মাছ, পুকুরের দুধ, গরুর গোবর, ঘোড়ার ডিম..সব। আমগো ইন্টারনেট আছিল, জিও ফুন আছিল, এরোপ্লেন, পারমানবিক অস্তর ইত্যাদি ইত্যাদি সব আছিল। আর আছিল মাথা নষ্ট অপারেশন। শুরু শুরুতে মাথায় গোলমাল হইলেই মাথা কাইট্যা ফালাইয়া নুতন মাথা লাগাইয়া দিত। এই যেমন গণশার করসিল। যন্তু...জানোয়ার.... ওই মানে হাতের কাসে যা পাওয়া যায় আর কি। তারপর হইল কি, লোকজন ইস্যামত মাথা কাটতে আরম্ভ কইর্র্যা দিল। কারুর লাল মাথা কাটি সবুজ কইর্র্যা দিল, তো কাউরে মুকুলেই কাইট্যা করি দিল ক

কাল্পনিক কথোপকথন

কাল্পনিক কথোপকথন

রাম: আজ ডালে নুন কম হয়েছে। একটু নুনের পাত্রটা এগিয়ে দাও তো।
রামের মা: গতকাল যখন ডালে নুন কম হয়েছিল, তখন তো কিছু বলিস নি? কেন তখন ডাল তোর বউ রেঁধেছেন বলে?
বাবা: শুধু ডাল নিয়েই কেন কথা হচ্ছে? পরশু তো মাছেও নুন কম হয়েছিল। তার বেলা? তোমাদের যত চিন্তা শুধু ডাল নিয়ে, তাই না? মাছের কথা কে বলবে? মাছের কেজি বাজারে কত করে চলছে জানো? বাজারে যাও তো আর না, জানবে কোথা থেকে?
তিন বছরের ছেলে: মাথ বালো না। আমি তিকেন কাবো।
কলেজে পড়া বোন (গম্ভীরভাবে): শুধু ডাল বা মা

যে গল্প রামায়ণে লেখা নেই

যে গল্প রামায়ণে লেখা নেই

মারীচ বলল, "না আমি যাব না। আমার পেটে ব্যথা কর্চে।"

সেই কথা শুনে রাবন নয় মুখে দাঁত খিঁচিয়ে বললে, "হতচ্ছাড়া যাবি না মানে? দেশের জন্য এটুকু করতে পারবি নে? নিজের পেটটার দিকেই খালি নজর, না? ওদিকে যে আমার কচি মেঘনাদ আকাশের ওপরে দাঁড়িয়ে কনকনে ঠান্ডায় সোনার লঙ্কা পাহারা দিচ্চে, ওর কথাটা ভাববি নে?"

মারীচ প্রবলবেগে শিং নাড়িয়ে বলল, "সে তোমার তোমার নংকা, তোমার বেটা পাহারা দিচ্চে, তাতে আমার কি? সোনা, রূপো যাই হোক না কেন, আমাকে তো আর ভাগ দিচ্চ না। কেন যাব

আজ বিরজ মে হোরি রে রসিয়া...

আজ বিরজ মে হোরি রে রসিয়া...

বৃন্দাবনের পথে পথে আজ রঙের উৎসব। গত এক মাস যাবৎ পলাশ, অপরাজিতা, গোলাপ ইত্যাদি পুষ্পপত্র শুষ্ক ও চূর্ণ করে প্রস্তুত করা হয়েছে লাল, গোলাপি, সবুজ ও নীল গুলাল। আর সব কিছুর ওপরে রয়েছে বৃন্দাবনের নয়নমণি পীতাম্বরের প্রিয় হলুদ। হরিদ্রাচূর্ণর ভেষজগুনের জন্যই অত্যন্ত বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে নন্দলাল একে হোরিখেলায় প্রাধান্য দিয়েছেন। চতুরচূড়ামণি জানেন অনুরোধ-উপরোধ-পরামর্শ-তিরস্কারে যে কার্য সিদ্ধি করা যায় না, তাকে রীতি-লৌকিকতায় মিশিয়ে দিলে সহজেই পালিত হয়।

এই সব আব

একটি কাল্পনিক ইন্টারভিউ

একটি কাল্পনিক ইন্টারভিউ

-আমার কাজকর্মের বিচার কিন্তু নোট বাতিল দিয়ে করলে চলবে না।
-তবে? জিএসটি দিয়ে করি?
-না, না ওটাও চলবে না।
- তবে স্যার জিডিপি?
-হুমমম্.. নাহ্, ওটারও তো অবস্থা লজ্ঝড়ে। । অন্য কিছু হোক।
-তবে কৃষকদের অবস্থা নিয়ে কথা বলি?
-পরের প্রশ্ন।
-স্যার এক কোটি চাকরি? জব ক্রিয়েশন?
-সেটা হয়েছে। পকোড়া। হ্যাঁ পকোড়া। দিদির চপ, আমার পকেড়া। তারপর ধরো গোরক্ষা বাহিনী, রোমিওদমন ব্রিগেড...চাকরির অভাব? শাইনিংদের জন্য আছে আই টি সেল। ট্রোলপিছু দশ টাকা। এর বাইরে
>> লেখকের আরও পুরোনো লেখা >>

এদিক সেদিক যা বলছেনঃ

17 Jul 2018 -- 11:57 PM:মন্তব্য করেছেন
অপেক্ষায়...
17 Jul 2018 -- 11:53 PM:মন্তব্য করেছেন
💜
12 Jul 2018 -- 10:13 PM:মন্তব্য করেছেন
Jio??? :(
11 Jul 2018 -- 11:07 PM:মন্তব্য করেছেন
http://www.guruchandali.com/blog/2018/07/07/1530982058410.html?author=majumder.abhijit আগের ...
09 Jul 2018 -- 11:47 PM:মন্তব্য করেছেন
পুরো চুমু
09 Jul 2018 -- 08:47 AM:মন্তব্য করেছেন
Thank you all.. Poroborti porbo asiteche
26 Jun 2018 -- 08:44 AM:মন্তব্য করেছেন
"আবাসন হলে, কমন টয়লেট রাখা বাধ্যতা মূলক হওয়া দরকার।" কেন? আমাদের বাড়িতে গেস্ট এলে কি আমরা ...
21 Jun 2018 -- 08:11 PM:মন্তব্য করেছেন
কস্কি মমিন মানে?
18 Jun 2018 -- 11:29 AM:মন্তব্য করেছেন
অসম্ভব ভালো। অনেক শিখলাম, জানলাম। ধন্যবাদ।
31 Jan 2018 -- 10:14 PM:মন্তব্য করেছেন
Biplob দা, অর্ক, দীপক বাবু ও সুব্রত বাবু, আমাদের পক্ষ থেকে অনেক ধন্যবাদ
25 Jan 2018 -- 02:51 PM:মন্তব্য করেছেন
রৌহিন দা ইংলিশ তা বেটার ছিল
22 Jan 2018 -- 03:05 PM:মন্তব্য করেছেন
পিনাকী এবং দা, ধন্যবাদ। কাজটা আসলে অনেক জনের। তারা ছবিগুলো তৈরী Na করলে এবং Archan বাবু ছবি না বানাল ...
22 Jan 2018 -- 11:26 AM:মন্তব্য করেছেন
Dhonyobad :)
02 Jan 2018 -- 08:21 AM:মন্তব্য করেছেন
মিষ্টি মন ভালো করা লেখা
29 Dec 2017 -- 03:00 PM:মন্তব্য করেছেন
কৈফিয়তের কৈফিয়ত দেই লেখাটা আমার ফেসবুক দেওয়ালের লেখা। তাই শুধু সাহিত্য উদ্দেশ্য ছিল না। আমার নিজ ...
27 Jul 2015 -- 10:43 AM:মন্তব্য করেছেন
বাহ
21 Jul 2015 -- 04:41 PM:মন্তব্য করেছেন
একমত। আমার মতে নাউ সিরিয়াসলি বলে থাকলে বক্তব্য অনেক লঘু হয়ে যায়। এমন কি শুরুর বক্তব্যটা রসিকতা ...
19 Jul 2015 -- 05:17 PM:মন্তব্য করেছেন
"that shows his toast was received with appreciative laughter. " এই টুকু দেখতে পেলাম। তাই দিয়ে ক ...
14 Jul 2015 -- 12:55 PM:মন্তব্য করেছেন
বাহ। দারুন লেখা। আমার নিজের জন্য তো বটেই ইংলিশ-এ লেখা হলে আমার স্টুডেন্ট দের ও পড়তে দিতাম। খুব ভালো
07 Jul 2015 -- 06:32 PM:মন্তব্য করেছেন
'নাউ সিরিয়াসলি' এটা উড়িয়ে দিলে আমাদের অনেকের অনেক কথার মানে পাল্টে যাবে।