কুশান গুপ্ত RSS feed

নাম পরিবর্তন করি, এফিডেফিট বিনা।আসল নামে হাজার হাজার ডক্টর হাজরা আছেন, কে প্রথম জানা নেই, কে দ্বিতীয়, কে অদ্বিতীয়, এ ব্যাপারে ধারণা অস্বচ্ছ। অধমের ব্লগ অত্যন্ত ইনকনসিস্টেন্ট,কিছু বা খাপছাড়া, খানিকটা বারোভাজা ধরণের। কিন্তু গম্ভীর নিবন্ধের পর ক্লান্তি আসে, তখন কবিতা, তারপর ঘুম, ক্লান্তি ও নস্টালজিয়া। কোনো গন্তব্য নেই, তবু হাঁটতে হয় যেমন। একসময় অবকাশ ছিল অখন্ড, নিষিদ্ধ তামাশা লয়ে রংদার সমকাল চোখ মারিত। আজকাল আর মনেও হয় না, এ জীবন লইয়া কি করিব? আপনাদের হয়?

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ভুখা বাংলাঃ '৪৩-এর মন্বন্তর
    পর্ব ১-------( লালগড় সম্প্রতি ফের খবরের শিরোনামে। শবর সম্প্রদায়ের সাতজন মানুষ সেখানে মারা গেছেন। মৃত্যু অনাহারে না রোগে, অপুষ্টিতে না মদের নেশায়, সেসব নিয়ে চাপান-উতোর অব্যাহত। কিন্তু একটি বিষয় নিয়ে বোধ হয় বিতর্কের অবকাশ নেই, প্রান্তিকেরও প্রান্তিক এইসব ...
  • 'কিছু মানুষ কিছু বই'
    পূর্ণেন্দু পত্রীর বিপুল-বিচিত্র সৃষ্টির ভেতর থেকে গুটিকয়েক কবিতার বই পর্যন্তই আমার দৌড়। তাঁর একটা প্রবন্ধের বই পড়ে দারুণ লাগলো। নিজের ভালোলাগাটুকু জানান দিতেই এ লেখা। বইয়ের নাম 'কিছু মানুষ কিছু বই'।বেশ বই। সুখপাঠ্য গদ্যের টানে পড়া কেমন তরতরিয়ে এগিয়ে যায়। ...
  • গানের মাস্টার
    আমাকে অংক করাতেন মনীশবাবু। গল্পটা ওনার কাছে শোনা। সত্যিমিথ্যে জানিনা, তবে মনীশবাবু মনে হয়না মিছে কথা বলার মানুষ। ওনার বয়ানেই বলি।তখনও আমরা কলেজ স্ট্রীটে থাকি। নকশাল মুভমেন্ট শেষ। বাংলাদেশ যুদ্ধও শেষ হয়ে গেছে। শহর আবার আস্তে আস্তে স্বভাবিক হচ্ছে। লোকজন ...
  • বিজ্ঞানে বিশ্বাস, চিকিৎসা বিজ্ঞানে বিশ্বাস বনাম প্রশ্নের অভ্যাস
    এই লেখাটি চার নম্বর প্ল্যাটফর্ম ওয়েবম্যাগে প্রকাশিত। এইখানে আবারও দিলাম। যাঁরা পড়েন নি, পড়ে দেখতে পারেন। বিজ্ঞানে বিশ্বাস, চিকিৎসাবিজ্ঞানে বিশ্বাস বনাম প্রশ্নের অভ্যেসবিষাণ বসু“সোমপ্রকাশ। - স্বয়ং হার্বাট স্পেন্সার একথা বলেছেন। আপনি হার্বাট স্পেন্সারকে ...
  • অতীশ দীপংকরের পৃথিবী : সন্মাত্রনন্দের নাস্তিক পণ্ডিতের ভিটা
    একাদশ শতকের প্রথমদিকে অতীশ দীপঙ্কর বৌদ্ধধর্ম ও সংশ্লিষ্ট জ্ঞানভাণ্ডার নিয়ে বাংলা থেকে তিব্বতে গিয়েছিলেন সেখানকার রাজার বিশেষ অনুরোধে। অতীশ তিব্বত এবং সুমাত্রা (বর্তমান ইন্দোনেশিয়া) সহ পূর্ব ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার বিস্তৃর্ণ ভূভাগে বৌদ্ধ ধর্ম ও দর্শনের ...
  • the accidental prime minister রিভিউ
    ২০০৫ সালের মে মাসে ইউপিএ সরকারের প্রথম বর্ষপূর্তিতে হঠাৎ একটা খবর উঠতে শুরু করল যে প্রধাণমন্ত্রী সব ক্যাবিনেট মিনিস্টারের একটা রিপোর্ট কার্ড তৈরি করবেন।মনমোহন সিং যখন মস্কোতে, এনডিটিভি একটা স্টোরি করল যে নটবর সিং এর পারফর্মেন্স খুব বাজে এবং রিপোর্ট কার্ডে ...
  • উল্টোরথ, প্রসাদ ও কলিন পাল
    ছোটবেলা থেকেই মামাবাড়ির 'পুরোনো ঘর' ব'লে একটি পরিত্যক্ত কক্ষে ঝিমধরা দুপুরগুলি অতিবাহিত হতো। ঘরটি চুন সুরকির, একটি অতিকায় খাটের নীচে ডাই হয়ে জমে থাকত জমির থেকে তুলে আনা আলু, পচা গন্ধ বেরুত।দেওয়ালের এক কোণে ছিল বিচিত্র এক ক্ষুদ্র নিরীহ প্রজাতির মৌমাছির ...
  • নির্বাচন তামসা...
    বাংলাদেশে জাতীয় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হয়ে গেছে। এবার হচ্ছে একাদশ তম জাতীয় নির্বাচন। আমি ভোট দিচ্ছি নবম জাতীয় নির্বাচন থেকে। জাতীয় নির্বাচন ছাড়া স্থানীয় সরকার নির্বাচন দেখার সুযোগ পেয়েছি বেশ কয়েকবার। আমার দেখা নির্বাচন গুলোর মাঝে সবচেয়ে মজার নির্বাচন ...
  • মসলা মুড়ি
    #বাইক_উৎসব_এক্সরে_নো...
  • কাঁচঘর ও ক্লাশ ফোর
    ক্লাস ফোরে যখন পড়ছি তখনও ফেলুদার সঙ্গে পরিচয় হয়নি, পড়িনি হেমেন্দ্রকুমার। কিন্তু, যথাক্রমে, দুটি প্ররোচনামূলক বই পড়ে ফেলেছি। একটির নাম 'শয়তানের ঘাঁটি' ও অপরটি 'চম্বলের দস্যুসর্দার'। উক্ত দুটি বইয়ের লেখকের নাম আজ প্রতারক স্মৃতির অতলে। যতদূর মনে পড়ে, এই ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

কুশান গুপ্ত প্রদত্ত সর্বশেষ দু পয়সা

লেখকের আরও পুরোনো লেখা >> RSS feed

উল্টোরথ, প্রসাদ ও কলিন পাল

ছোটবেলা থেকেই মামাবাড়ির 'পুরোনো ঘর' ব'লে একটি পরিত্যক্ত কক্ষে ঝিমধরা দুপুরগুলি অতিবাহিত হতো। ঘরটি চুন সুরকির, একটি অতিকায় খাটের নীচে ডাই হয়ে জমে থাকত জমির থেকে তুলে আনা আলু, পচা গন্ধ বেরুত।দেওয়ালের এক কোণে ছিল বিচিত্র এক ক্ষুদ্র নিরীহ প্রজাতির মৌমাছির বাসা। বাতিল হয়ে যাওয়া গ্রামোফোন রেকর্ড, সেজমামার '১৯৭২ সালের কবিতাগুচ্ছ' সম্বলিত ডায়ারি, অজস্র আত্মীয়স্বজনের চিঠিপত্র, দাদুর হাতের লেখায় 'সান্ত্বনার ফ্রকের মাপ' এসব তুচ্ছাতিতুচ্ছ জিনিসের ভিড় দৃষ্টি আকর্ষণ করত। দ্বিপ্রাহরিক নির্জনতায় অধিকতর আকর্ষণ ছ

কাঁচঘর ও ক্লাশ ফোর

ক্লাস ফোরে যখন পড়ছি তখনও ফেলুদার সঙ্গে পরিচয় হয়নি, পড়িনি হেমেন্দ্রকুমার। কিন্তু, যথাক্রমে, দুটি প্ররোচনামূলক বই পড়ে ফেলেছি। একটির নাম 'শয়তানের ঘাঁটি' ও অপরটি 'চম্বলের দস্যুসর্দার'। উক্ত দুটি বইয়ের লেখকের নাম আজ প্রতারক স্মৃতির অতলে। যতদূর মনে পড়ে, এই বইদুটি ছিল দেব সাহিত্য কুটিরের প্রকাশনা।সে সময়ে দেব সাহিত্য কুটির ছিলো বালকদিগের অনিবার্য ঠিকানা, রহস্য ও রোমাঞ্চে একেবারে ঠাসা।

দুটি বইই পড়তে দিয়েছিলেন মেদিনীপুর কলেজিয়েট স্কুলের লাইব্রেরিয়ান পানুদা।শয়তানের ঘাঁটির প্লট এরকম: পদ্মার চর থেকে

ইরোডভের 'প্রব্লেমস ইন জেনেরাল ফিজিক্স'- ছোট জিজ্ঞাসা

এক বন্ধুর কাছে শুনলাম আই.আই. টির এন্ট্রান্স টেস্ট নাকি পৃথিবীর কঠিনতম পরীক্ষাগুলোর মধ্যে অন্যতম। সেই প্রসঙ্গে খানিক আলোচনা হলো বন্ধুদের সঙ্গে। কিছু তথ্য, ফিটজি ইত্যাদি সংস্থা, এম সি কিউ, বইপত্তর ইত্যাকার বিষয়ে খানিক খোঁজ নেওয়ার পর একটি আশ্চর্য তথ্য পেলাম। যেখান থেকে এই লেখা লিখতে প্ররোচিত হলাম।

আই আই টির এন্ট্রান্স যারা ক্র্যাক করেন তাঁরা নিঃসন্দেহে প্রতিভাবান, তাঁদের অনেকেই বিদেশে প্রতিষ্ঠিত হন, কেউ হন নামী সংস্থার সি ই ও, কেউ বা গবেষণায় সফল, বিশেষত পলিসি মেকিং এও তাঁদের ভূমিকা থাকবেই।

বাইসাইক্লিস্ট

ক্লাস সিক্স কি সেভেন তখন। মনের মধ্যে সাইকেল শেখার অদম্য ইচ্ছে। আমাদের সময়ে বাড়িতে আমাদের বয়সোপযোগী মানানসই ছোট সাইজের সাইকেল কিনে দেওয়ার খুব একটা চল ছিলো না।  সমবয়সী ছেলেমেয়েদের দেখতাম বড়দের  সাইকেল নিয়েই হাফ-প্যাডেলে পাড়া মাতাচ্ছে। আমার এক কাকার সাইকেল নিয়ে হাফ প্যাডেলে মকশো করতে শুরু করলাম। সাইকেল বা সাঁতার, দুটোতেই এই পদ্ধতি, শেখার জন্য অপরিহার্য। সাঁতারে জলে নেমে হাত পা ছোঁড়া, আর সাইক্লিং এর জন্য ডাঙায় দু চাকায় ব্যালেন্সিংয়ের কসরৎ।

সাইকেলের তিনটি রডের মধ্যবর্তী 'ব' বা ডেল্টার মতো ফা

ছিপছিপে বই, রঙীন মলাট

আমাদের ছোটবেলায় স্কুলে বুক লিস্ট বলে একটা জিনিস দেওয়ার চল ছিল। বুক লিস্ট বা বইয়ের ফর্দ দেওয়ার পর স্কুলে কিছু সরকারি তথা দরকারি বই (যথা সহজ পাঠ, কিশলয়, গণিত মুকুল ইত্যাদি) ফ্রিতে পাওয়া যেত। টুকিটাকি বই কিনতে হত। এর মধ্যে বিশেষ করে মনে পড়ে 'জানা-অজানা' নামক বই। সে বইতে ভারতের রাষ্ট্রপতি, পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালের নামধাম থেকে শুরু করে, কতগুলি মহাদেশ, আসন্ন অলিম্পিকের লোগো, ইত্যাদি জানিয়ে দেওয়া হত। মনে রাখতে হবে তখন, আমাদের সেই ছেলেবেলায়, হাতের কাছে ইন্টারনেট, গুগল বা সিধুজ্যাঠা-কেউই নেই। কিন্তু, এই অ

রবি-বিলাপ

তামুক মাঙায়ে দিছি, প্রাণনাথ, এবার তো জাগো!
শচীন খুড়ার গান বাজিতেছে, বিরহবিধুর।
কে লইবে মোর কার্য, ছবিরাণী, সন্ধ্যা রায়, মা গো!
এইক্ষণে ছাড়িয়াছি প্রিয়ঘুম, চেনা অন্তঃপুর।
তুহু মম তথাগত, আমি আজ বাটিতে সুজাতা।
জাগি উঠ, কুম্ভকর্ণ, আমি বধূ, ভগিনী ও মাতা।

তামুক সাজায়ে দিছি, দুয়ারে তৈয়ার তব হুঁকা।
তোমা লাগি সাজিয়াছে, দ্যাখো, দেওদাসী সুতনুকা।
কপালে বিন্দিয়া, আর, কেশদামে রচিয়াছি ফুল।
রবিমামা দেয় হামা, তুমি নাক ডাকিছ আকুল।
আজু শুভ রবিবার, কুচুমনা, গিয়াছ কি ভুলে?

আটানা-যুগ       (বকুবাবুকে খোলা চিঠি)

যবে থেকে আটানা বিলুপ্ত হলো, বকুবাবু,
নদীমাতৃক সভ্যতার থেকে,
যবে থেকে বুনিয়াদী গোশালার ঠিকা নিলো রক্ষকবাহিনী,
যবে থেকে, বকুবাবু, গেরুয়ার মানে শুধু ভয়,

সেই থেকে, বকুবাবু, আমিও ভুলেছি ফুটানি।
সেই কবে বিশটাকায়  খেয়েপরে লাগাতার স্বাচ্ছন্দ্য কিনেছি,
সে ছিল  বিদিশাযুগ,
জীবন যখন ছিল মোটামুটি বাওয়ালসম্মত।

কিন্তু, ও বকুবাবু, শুনছেন...
যবে থেকে আটানা বিলুপ্ত হলো হরপ্পার ভাঙা ম্যাপ থেকে,
যবে থেকে তুমুল লগ্নির দাপটে আগুন লাগল ধানের গাদায়,
যবে থেকে সুলভ ম

বেকারার দিল

বেহাল পাছায় তার দৈনিক বরাদ্দ লাথ,
তবু তার বেকারার দিল!
দিনগত যত পাপ ধুয়ে দেবে সন্ধ্যের লাজবাব দারু,
উপমাও এনে দেবে যথাযথ ইনসাফ
জমে গেলে তার মাহফিল।

তাকে সব ছেড়ে গেছে, কেননা এ-
মেহেঙ্গাবাজার
কাউকেই দেয়নি সেই স্বঘোষিত পাঙ্গাসুযোগ।
তবুও সে নির্বিকার, লড়ে যায়, হারামি এ-সভ্যতার খাল খিঁচে নেয়।
দ্যাখো তার সমূহ রগড়।
আ এমন ছায়াযুদ্ধ হাল ছেড়ে কখন সে অকারণ অশ্রুসজল,
তখন সে মুন্না আজিজ,
তখন সে মির্জা গালিব।

পারবে, বসন্তসেনা, মৃচ্ছকটিকের ছেঁড়া পা

বছর ছেচল্লিশ

এমনই গজদাঁতের মিনার,  রূপ তেরা মস্তানা।
শুনেই ঈষৎ মুখ বেঁকালে : 'ধুস এত শস্তা না!'

সকল দামী, সালতামামি, শহরে ভিড় আজো।
যখন দুপুর, কিশোর-লতায় আঁধির সুরে বাজো।

হায় গো আমার দোখনো-হৃদয়, দুব্বো গজায় হাড়ে।
তোমার সঙ্গে বাজে বকায় কেবলই রাত বাড়ে।

চাল চাপিয়ে ফুঁকছি চুলো, এবার আব্বুলিশ।
ওপরচালাক ভিতরবোকা বছর ছেচল্লিশ।

নাম (একটি সরল প্রয়াস)

চাপের নাম টরিসেলি, বাপের নাম খগেন।
লাফের নাম হনু-লুলু, বিবেকের নাম লরেন।

হাঁফের নাম কোলেস্টেরল, মাফের নাম যীশু।
আমার নাম জানতে চাও? ডেকো পিপুফিশু।

খাপের নাম পঞ্চায়েত, খাপের বাপ পঞ্চু।
বিরল খোয়াবনামায় নিদ যাচ্ছে হাঁসচঞ্চু।

সাপের নাম বালকিষণ,  পাপের নাম লোভ।
রাঘব কিংবা বোয়াল জানে, কেঁচোর নাম টোপ?

গ্রাফের নাম অর্থনীতি, গ্রাফের নাম স্টেফি।
আদর ডাকে সোনা, রুপো, আয়রে আমার খেপি।

কি যায় আসে লাভের গুড় সাবড়ে দিলে ক্ষতি?
গোলাপ, চাই, অন্য
>> লেখকের আরও পুরোনো লেখা >>

এদিক সেদিক যা বলছেনঃ

16 Nov 2018 -- 02:41 PM:মন্তব্য করেছেন
দ, আপনার দীর্ঘ লেখার জন্য ধন্যবাদ। i dd ও স্মৃতি যে, আমার তুচ্ছ লেখা মন দিয়ে পড়লেন, ধন্যবাদ জানবেন।
16 Nov 2018 -- 02:17 PM:মন্তব্য করেছেন
ভুল শুধরে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। শৈলেশ ই হবেন। আমি সুভাষ বলছি কিছুটা পড়েছিলাম। ওখানে উল্লিখিত নিকুঞ্জ ...
16 Nov 2018 -- 09:44 AM:মন্তব্য করেছেন
শৈলজাসংক্রান্ত তথ্যটি একেবারেই জানতাম না, dd.শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।
16 Nov 2018 -- 09:36 AM:মন্তব্য করেছেন
মতামত ও প্রতিক্রিয়ার জন্য ধন্যবাদ জানবেন সবাই। dd না কবিতা ছাপা হতো না বলেই মনে হয়। তবে এগু ...
14 Nov 2018 -- 07:15 AM:মন্তব্য করেছেন
ধন্যবাদ। আপনি ঠিকই বলেছেন। সম্পূর্ণ স্মৃতির ওপর নির্ভর ক'রে লিখেছি বলেই এই অসতর্ক ভুল, হয়তো বা, মার্ ...
11 Nov 2018 -- 10:18 AM:মন্তব্য করেছেন
ভূত চতুর্দশী তে আহ্লাদে আটখানা হইয়া ভালোবাসা লইলাম। তথাপি, পায়সান্ন খাইতে ইচ্ছুক।
11 Nov 2018 -- 08:18 AM:মন্তব্য করেছেন
আজকের হুজুগে মধ্যবিত্ততার বিপক্ষে শাণিত প্রতিবাদ অনমিত্রর কলমে। বেঁচে থাক কলম, বেঁচে থাক বিকল্প চিন্ ...
10 Nov 2018 -- 11:12 PM:মন্তব্য করেছেন
সৎ উচ্চারণ। এক ধরণের বিশ্বাসবোধ, আর জীবনের প্রতি আস্থার সংরাগ পংক্তিমালায়। ভাবতে বাধ্য করে। পড়তেও।শু ...
05 Nov 2018 -- 02:13 PM:মন্তব্য করেছেন
খালপাড়, ধানি-বিল,ডাল বা ঢাকুরিয়া লেকে এক পায়ে যে দণ্ডায়ে আছে সে কি তালগাছ? আসলে সে অধার্মিক ও সন ...
04 Nov 2018 -- 06:48 PM:মন্তব্য করেছেন
আমি সর্বাঙ্গাসনে এই প্রস্তাব সমর্থন করিলাম। এবং, মৌনতা। আসলে শবাসনে আছি।
04 Nov 2018 -- 02:40 PM:মন্তব্য করেছেন
এবার ঝুলি থেকে বেরোচ্ছে সব। বেড়াল না। কেউটে বের করে ভয় দেখাতে চাইনি। হালকা ইঙ্গিত দিয়ে আসল জায়গাটা ধ ...
04 Nov 2018 -- 01:09 PM:মন্তব্য করেছেন
স্বপ্নে ঘি খেতে হলের সঙ্গে আংশিক সহমত। কল্লোল dc সহ অন্য যারা খেলছেন, তাঁরা খেলুন। পয়েন্ট গুলো ইন্টা ...
04 Nov 2018 -- 11:18 AM:মন্তব্য করেছেন
1 আর 2 নম্বর পয়েন্টের উত্তর আসে নি। 3 এর উত্তরে পাল্টা প্রশ্ন আছে।উত্তর দিতে সময় লাগবে। 4 টা আমা ...
04 Nov 2018 -- 10:48 AM:মন্তব্য করেছেন
1.প্রতিযোগিতা নিয়ে একটা মৌলিক প্রশ্ন তুলেছিলাম। কেউ address করেনি। বসে আঁকো, দাঁড়িয়ে নাচো টাইপস নয়। ...
04 Nov 2018 -- 09:34 AM:মন্তব্য করেছেন
dc আপনার আর আমার বক্তব্য এক। রেফারেন্স আলাদা। Something called nothing মন্দ লাগেনি।
04 Nov 2018 -- 09:33 AM:মন্তব্য করেছেন
Icm চমৎকার মূল্যায়ন। একটা জিনিস এই প্রসঙ্গে বলি। সোভিয়েতের বিজ্ঞান ও উপন্যাস, গল্প এগুলো ...
04 Nov 2018 -- 09:10 AM:মন্তব্য করেছেন
আলোচনা হচ্ছে, তবে ব্যক্তিগত দু একটা কথা: 1. dc, রেসনিক হ্যালিডে দেখেছি। পাতা উল্টে পাঠোদ্ধার করত ...
04 Nov 2018 -- 08:02 AM:মন্তব্য করেছেন
S ও dc আপনাদের বক্তব্যের স্পিরিটের সঙ্গে অনেকাংশে একমত। তাছাড়া মূল্যবান রেফারেন্স কিছু পেলাম। তার আগ ...
04 Nov 2018 -- 03:57 AM:মন্তব্য করেছেন
S আপনাকে লিখছি স্কিলটাকে জোর দিতেই মারাদোনার analogy. ফার্স্ট বয় মানে ভালো সবাই জানে। তার পরের বাক্য ...
04 Nov 2018 -- 01:23 AM:মন্তব্য করেছেন
সরি, বিপ এর বক্তব্যর সঙ্গে অনেকটা সহমত। কিছুটা না। বলা উচিত ছিল।