জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্য RSS feed

Lilaboti Lbএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • বাম-Boo অথবা জয়শ্রীরাম
    পর্ব ১: আমরাভণিতা করার বিশেষ সময় নেই আজ্ঞে। যা হওয়ার ছিল, হয়ে গেছে আর তারপর যা হওয়ার ছিল সেটাও শুরু হয়ে গেছে। কাজেই সোজা আসল কথায় ঢুকে যাওয়াই ভালো। ভোটের রেজাল্টের দিন সকালে একজন আমাকে বললো "আজ একটু সাবধানে থেকো"। আমি বললাম, "কেন? কেউ আমায় ক্যালাবে বলেছে ...
  • ঔদ্ধত্যের খতিয়ান
    সবাই বলছেন বাম ভোট রামে গেছে বলেই নাকি বিজেপির এত বাড়বাড়ন্ত। হবেও বা - আমি পলিটিক্স বুঝিনা একথাটা অন্ততঃ ২৩শে মের পরে বুঝেছি - যদিও এটা বুঝিনি যে যে বাম ভোট বামেদেরই ২ টোর বেশী আসন দিতে পারেনি, তারা "শিফট" করে রামেদের ১৮টা কিভাবে দিল। সে আর বুঝবও না হয়তো ...
  • ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনঃ আদার ব্যাপারির জাহাজের খবর নেওয়া...
    ভারতের নির্বাচনে কে জিতল তা নিয়ে আমরা বাংলাদেশিরা খুব একটা মাথা না ঘামালেও পারি। আমাদের তেমন কিসছু আসে যায় না আসলে। মোদি সরকারের সাথে বাংলাদেশ সরকারের সম্পর্ক বেশ উষ্ণ, অন্য দিকে কংগ্রেস বহু পুরানা বন্ধু আমাদের। কাজেই আমাদের অত চিন্তা না করলেও সমস্যা নেই ...
  • ইন্দুবালা ভাতের হোটেল-৪
    আম তেলবিয়ের পরে সবুজ রঙের একটা ট্রেনে করে ইন্দুবালা যখন শিয়ালদহ স্টেশনে নেমেছিলেন তখন তাঁর কাছে ইন্ডিয়া দেশটা নতুন। খুলনার কলাপোতা গ্রামের বাড়ির উঠোনে নিভু নিভু আঁচের সামনে ঠাম্মা, বাবার কাছে শোনা গল্পের সাথে তার ঢের অমিল। এতো বড় স্টেশন আগে কোনদিন দেখেননি ...
  • জোড়াসাঁকো জংশন ও জেনএক্স রকেটপ্যাড-৯
    আমি যে গান গেয়েছিলেম, মনে রেখো…। '.... আমাদের সময়কার কথা আলাদা। তখন কে ছিলো? ঐ তো গুণে গুণে চারজন। জর্জ, কণিকা, হেমন্ত, আমি। কম্পিটিশনের কোনও প্রশ্নই নেই। ' (একটি সাক্ষাৎকারে সুচিত্রা মিত্র) https://www.youtube....
  • ডক্টর্স ডাইলেমা : হোসেন আলির গল্প
    ডক্টর্স ডাইলেমা : হোসেন আলির গল্পবিষাণ বসুচলতি শতকের প্রথম দশকের মাঝামাঝি। তখন মেডিকেল কলেজে। ছাত্র, অর্থাৎ পিজিটি, মানে পোস্ট-গ্র‍্যাজুয়েট ট্রেনি। ক্যানসারের চিকিৎসা বিষয়ে কিছুটা জানাচেনার চেষ্টা করছি। কেমোথেরাপি, রেডিওথেরাপি, এইসব। সেই সময়ে যাঁদের ...
  • ঈদ শপিং
    টিভিটা অন করতেই দেখি অফিসের বসকে টিভিতে দেখাচ্ছে। সাংবাদিক তার মুখের সামনে মাইক ধরে বলছে, কতদূর হলো ঈদের শপিং? বস হাসিহাসি মুখ করে বলছেন,এইতো! মাত্র ছেলের পাঞ্জাবী আমার স্যুট আর স্ত্রীর শাড়ি কেনা হয়েছে। এখনো সব‌ই বাকি।সাংবাদিক:কত টাকার শপিং হলো এ ...
  • বর্ণমালা, আমার দুঃখিনী বর্ণমালা
    ‘কেন? আমরা ভাষাটা, হেসে ছেড়ে দেবো?যে ভাষা চাপাবে, চাপে শিখে নেবো?আমি কি ময়না?যে ভাষা শেখাবে শিখে শোভা হবো পিঞ্জরের?’ — করুণারঞ্জন ভট্টাচার্যস্বাধীনতা-...
  • ফেসবুক সেলিব্রিটি
    দুইবার এস‌এসসি ফেইল আর ইন্টারে ইংরেজি আর আইসিটিতে পরপর তিনবার ফেইল করার পর আব্বু হাল ছেড়ে দিয়ে বললেন, "এই মেয়ে আমার চোখে মরে গেছে।" আত্নীয় স্বজন,পাড়া প্রতিবেশী,বন্ধুবান্ধ...
  • বর্ণমালা, আমার দুঃখিনী বর্ণমালা
    ‘কেন? আমরা ভাষাটা, হেসে ছেড়ে দেবো?যে ভাষা চাপাবে, চাপে শিখে নেবো?আমি কি ময়না?যে ভাষা শেখাবে শিখে শোভা হবো পিঞ্জরের?’ — করুণারঞ্জন ভট্টাচার্য স্বাধীনতা-পূর্ব সরকারি লোকগণনা অনুযায়ী অসমের একক সংখ্যাগরিষ্ঠ ভাষাভাষী মানুষ ছিলেন বাঙালি। দেশভাগের পরেও অসমে ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

ফেক আইডি

জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্য

‍ছয়মাস ফেসবুকে প্রেম করার পর আজ প্রথম দেখা করতে এসেছি। রেস্টুরেন্টে বসে বসে পানি খাচ্ছি আর পাশের মেয়েটার দিকে আড়চোখে তাকাচ্ছি। আমার মতো সেও কারোর জন্য অপেক্ষা করছে।

আমার নীল ড্রেস পরে আসার কথা ছিল। আমি একটা নীল রঙের কামিজ পরে এসেছি। ছেলেটার সাদা শার্ট পরে আসার কথা। সাদা শার্ট পরা কাউকে আসতে দেখা যাচ্ছে না এখনো। তবে পাশের টেবিলের ঐ মেয়েটার বফ চলে এসেছে। ছেলেটাকে আমার খুব চেনা চেনা লাগছে। আবার সেও আমার দিকে পরিচিত ভঙ্গিতে তাকাচ্ছে। আমি আজ চশমা আনিনাই। চশমা ছাড়া দূরের জিনিস আমি ভালো দেখি না। চশমা থাকলে হয়তো চিনে ফেলতাম।

আমার প্রেমিক চলে এসেছে। সাদা শার্ট কালো জিন্স। জিন্সের কয়েক জায়গায় আধুনিক স্টাইলে ছেঁড়া। আমি তাকে দেখে উঠে দাঁড়ালাম। সে গোলাপ নিয়ে এগিয়ে আসতে আসতে পাশের টেবিলের মেয়েটাকে দেখে হালকা চমকালো। মেয়েটাও তাকে দেখে হালকা চমকালো।

প্রেমিকের সাথে বসে কফি খেতে খেতে গল্প করছি। সে বলছে,প্রোফাইল পিকে তোমাকে যতটা সুন্দর লাগে তুমি তারচেয়ে‌ও বেশী সুন্দর।
আমি বললাম,কভার পিকে তোমাকে যতটা বাজে দেখা যায় তুমি তারচেয়ে মোটামুটি সুন্দর!

পাশের টেবিলের ছেলেটার সাথে আমার বারবার চোখাচোখি হচ্ছে। এদিকে পাশের টেবিলের মেয়েটার সাথে আমার প্রেমিকের বারবার চোখাচোখি হচ্ছে। অথচ আমরা চারজন‌ই এমন ভাব করছি যেন কিছুই হয়নি।

কৌতূহল দমন করতে না পেরে আমিই প্রথম বলে উঠলাম, ঐ মেয়েটাকে চেনো?

সে ইতস্তত করে বললো, ক‌ই না তো!

-তোমার দিকে বারবার তাকাচ্ছে কেন?

:কি জানি! হ্যান্ডসাম ছেলে দেখলে সবাই তাকায়! হাহা!

আমি হাসলাম না। আমার হাসি এলো না। তার বদলে অন্য একটা কথা মনে পড়ে চমকে উঠলাম।

পাশের টেবিলের ওরা আমাদের টেবিলের দিকেই এগিয়ে আসছে। কাছাকাছি আসতেই ছেলেটাকে আমি চিনতে পারলাম। এই ছেলের সাথে ফেসবুক একাউন্ট খোলার প্রথমদিকে আমার প্রেম ছিল। মোটামুটি তিন থেকে চারমাস। এককথায় বলা যায় সে আমার প্রাক্তন প্রেমিক! মাই গড!

তারা এই টেবিলে এসে চেয়ার টেনে বসল। মেয়েটা রাগী গলায় আমার প্রেমিককে বললো, কি খবর!?

আমার প্রেমিক শুকনা মুখে আমার দিকে তাকিয়ে আছে।

মেয়েটা আবার বললো, জানতাম, তুমি লুইচ্চা,আবার প্রেম করবা!

তারপর আমার দিকে তাকিয়ে বললো, তুমি হয়তো জানো না, তোমার এই প্রেমিকের সাথে ফেসবুকে টানা একবছর আমার রিলেশন ছিল। তারপর "তুমি আমার চেয়ে ভালো কাউকে ডিজার্ভ করো" বলে আমাকে ব্লক দিয়ে দিয়েছিলো।

আমি কঠিন চোখে আমার প্রেমিকের দিকে তাকিয়ে আছি।

মেয়েটা আবার ওর উদ্দেশ্যে বললো, দেখো,আমার বফকে দেখো, সত্যিই তোমার থেকে ভালো একজনকে পেয়েছি।

এদিকে মেয়েটার বফ,মানে আমার প্রাক্তন প্রেমিক আমার দিকে তাকিয়ে বললো, এইজন্যই তাহলে আমাকে ছেড়ে গিয়েছিলে? এই ছেলের জন্য? হাহা! ও বেশী সুন্দর না আমি?

আমি তাকে রাগী গলায় জবাব দিলাম, আমি মোটেও ওর জন্য তোমাকে ছেড়ে যাইনি। তুমি কি এক 'এন্জেল মারিয়া' নামের মেয়ের সাথে ফষ্টিনষ্টি শুরু করেছিলে, তোমার পাস‌ওয়ার্ড যে আমার কাছে ছিলো তা তো ভুলে গিয়েছিলে! ওসব দেখেই আমি তোমাকে ছেড়ে চলে গিয়েছিলাম!

এতক্ষনে আমার প্রেমিক আমার প্রাক্তনের দিকে তাকিয়ে অবাক হয়ে বললো, কি! এন্জেল মারিয়া? ওটাতো আমার ফেক আইডি! তাইলে কি আমি আপনার সাথে প্রেম করছিলাম??

আমি জবাব দেয়ার আগেই পাশের মেয়েটা বলে উঠলো, জানতাম! তোমার চরিত্র খারাপ! আরো প্রেম করে বেড়াতে। তাইতো তোমাকে ছেড়ে চলে এসেছিলাম! তোমাকে পরীক্ষা করার জন্য আমি 'সাদা মেঘ' নামের ফেক আইডি খুলেছিলাম!

এতক্ষনে আমি আঁতকে উঠে মেয়েটার দিকে তাকিয়ে আছি। কারণ সাদা মেঘ নামক আইডির সাথে অনেকদিনের ঘনিষ্ঠতা ছিল আমার! ওটা তাহলে এই মেয়েটার ফেক আইডি!!!.....

-জান্নাতুল ফেরদৌস লাবণ্য

500 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: বিপ্লব রহমান

Re: ফেক আইডি

গুরু তে এইসব টিন এজ গাঞ্জাখুড়ি গপ্পো লেখার কেউ একজন আছে, ভাবতেই ভালো লাগছে। 😜
Avatar: র২হ

Re: ফেক আইডি

থাকুক না টিনএজ গল্প, আমরা তো সব বুড়ো হতে চল্লাম (সৈকতদা আর ডিডি বাদে)। অল্পবয়সীরা আসুন!
আমার তো জান্নাতুলের লেখাগুলি পড়তে বেশ লাগে, পড়ার শেষে টের পাই মুখটা বেশ হাসিহাসি হয়ে আছে!


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন