Sumon Ganguly Bhattacharyya RSS feed

Sumon Ganguly Bhattacharyyaএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ব্রুনাই দেশের গল্প
    আশেপাশের ভূতেরা – ব্রুনাই --------------------...
  • 'বখাটে'
    তেনারা বলতেই পারেন - কেন, মাও সে তুঙ যখন ঘোষণা করেছিল, শিক্ষিত লোকজনের দরকার নেই, লুম্পেন লোকজন দিয়েই বিপ্লব হবে, তখন দোষ ছিল না, আর 'বখাটে' ছেলেদের নিয়ে 'দলের কাজে' চাকরি দেওয়ার কথা উঠলে দোষ!... কিন্তু, সমস্যা হল লুম্পেনের ভরসায় 'বিপ্লব' সম্পন্ন করার পর ...
  • ডাক্তার...
    সবচেয়ে যে ভাল ছাত্র তাকেই অভিভাবকরা ডাক্তার বানাতে চায়। ছেলে বা মেয়ে মেধাবী বাবা মা স্বপ্ন দেখে বসে থাকল ডাক্তার বানানোর। ছেলে হয়ত প্রবল আগ্রহ নিয়ে বসে আছে ইঞ্জিনিয়ারিঙের কিন্তু বাবা মা জোর করে ডাক্তার বানিয়েছে এমন উদাহরণ খুঁজতে আমাকে বেশি দূর যেতে হবে ...
  • বাতাসে আবারও রেকর্ড সংখ্যক কার্বন-ডাই-অক্সাইড, কোন পথে এগোচ্ছে পৃথিবী?
    সাম্প্রতিক একটি প্রতিবেদন বলছে বায়ুতে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ আবারও বেড়ে গেছে। এই নিয়ে প্রতিবছর মে মাসে পরপর কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ বৃদ্ধি পেতে পেতে বর্তমানে বায়ুতে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ রেকর্ড সংখ্যক। গত মাসে (মে-তে) কার্বন ডাই অক্সাইডের ...
  • ফেসবুক রোগী
    অবাক হয়ে আমার সামনে বসা ছেলেটার কান্ড দেখছি। এই সময়ে তার আমার পাশে বসে আমার ঘোমটা তোলার কথা। তার বদলে সে ল্যাপটপের সামনে গিয়ে বসেছে।লজ্জা ভেঙ্গে বলেই ফেললাম, আপনি কি করছেন?সে উৎকণ্ঠার সাথে জবাব দিলো, দাঁড়াও দাঁড়াও! 'ম্যারিড' স্টাটাস‌ই তো এখনো দেইনি। ...
  • ভালো গরু খারাপ গরু
    আজকাল হ্যাজ দিতে ভালো লাগেনা। সামাজিক অসামাজিক রাজনৈতিক প্রাকৃতিক পারিবারিক - কিচ্ছুর ওপর না। পুরো " ভাড় মে যায় দুনিয়া হাম বাজায়ে হারমুনিয়া" মোডে থাকি। তবু, তবু, তবু দু একটা জিনিস নিয়ে না লিখলে ব্রেন থেকে চোঁয়া ঢেকুরের আওয়াজ আসে। বাধ্য হয়ে এই ক্যাচাল ...
  • চলো পাল্টাই ২০২১ আন্দোলন
    বিগত কয়েকদিন ধরে "চলো পাল্টাই" নামক বঙ্গভাষীদের একটি আন্দোলনের নাম সামাজিক মাধ্যমের ইতিউতি কান পাতলেই শোনা যাচ্ছে। এও শোনা যাচ্ছে, এ নিয়ে আসাম উত্তাল। যদিও পশ্চিমবঙ্গের বঙ্গভাষীরা এ নিয়ে খুব বেশি ওয়াকিবহাল, একথা বলা যায়না। কী নিয়ে এই আন্দোলন? খুব বড় ...
  • ভালোবাসা ও বন্ধুত্ব
    আমার জীবনে দেখা একটা ইন্টারেস্টিং ক্যারেক্টার হলো প্রত্যয়। খুব সুন্দর করে কথা বলতে পারে সে। আর সবসময়ই হাসছে। কেউ খারাপ কথা বললেও হাসছে,ভালো কথা বললেও হাসছে। পরিবার নিয়ে আমাকে দেখতে এসেছিলো প্রত্যয়। সেখানেই আমাদের প্রথম আলাপ। কথাবার্তা প্রায় পাকা হয়ে ...
  • দৃশ্যের জন্ম:ব্রোকন ইমেজেস
    রাণী ছিল গাঁয়ের মেয়ে। ছোট্ট।লক্ষ্মী। শান্ত।যেমনটি মেয়েদের হতে হয় আর কি।মানে যেমন হলে লোকে লক্ষ্মী মেয়ে বলে।ধরা যাক তাকে নিয়ে একটা গান বাঁধা হল।এইরকম।এক যে ছিল মেয়ে মেয়ের নামটি ছিল রাণীঘন চুলে খোঁপা বেঁধে সাজাতো ফুলখানি।রাণীর হাঁটু পর্যন্ত ঘন কালো কোঁকড়া ...
  • জোড়াসাঁকো জংশন ও জেনএক্স রকেটপ্যাড-১০
    আমায় তাই পরালে মালা, সুরের গন্ধ ঢালা....------------...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

চলো এগিয়ে চলি 3

Sumon Ganguly Bhattacharyya

#চলো এগিয়ে চলি
#সুমন গাঙ্গুলী ভট্টাচার্য

আমরা যখন ছোট তখন থেকেই দেখবেন মা -বাবা রা আমাদের সম্ভাব্য বিপদ সম্পর্কে শেখান।সাঁতার না জানলে পুকুরের ধারে যাবেনা,খোলা ইলেকট্রিক তার এ হাত দিতে নেই,ভিজে হাতে সুইচ বোর্ড ধরতে নেই, ইত্যাদি। আমাদের সন্তান রা যেহেতু একটু পিছিয়ে তাই এই বিপদের সম্ভবনা কিন্তু তাদের
অনেক বেশি।আমাদের মধ্যে অনেকের সন্তান
হয় তো বিপদের আন্দাজ করতে পারেন না সেই ভাবে তাই আমরা যারা স্পেশাল বাচ্চার বাবা-মা আমাদের যুদ্ধ টা হয় তো একটু বেশি।
আমি বিশেষজ্ঞ নই আমার অভিজ্ঞতা লিখছি আপনাদের জন্য যদি আপনাদের কাজে লাগে।
দেখুন আমাদের বাচ্চা দের ইনফিনিটি বিপদ ঘরের মধ্যে গ্যাস সিলিন্ডার,ইলেকট্রিক সুইচ,টেবিল ফ্যান,ধারালো কিচেন নাইফ,কাঁচের শিশি,ভারি জলের বোতল, হাতুড়ি জাতীয় যন্ত্র সাবধানে রাখুন।চেষ্টা করুন টেবিলের কোণা, আর দরজা মুক্ত ঘর করার।ওল্টানো U shape এর ডিজাইন যদি করা যায় দরজার বদলে ।
আর একটি ঘরের বিপদ হলো ঘরের কিছু মানুষের ব্যবহার।ধরুন আপনি বাচ্চাকে শেখাচ্ছেন বাইরের খাবার, মিষ্টি ক্ষতিকর, বা খালি গায়ে থাকা অনুচিত,চেঁচিয়ে কথা বলা অনুচিত,মুখ ব্যাকানো ঠিক নয়।কিন্তু বাচ্চা বাড়ির কোন মানুষ কে দেখছে বাড়ির কাজের মানুষ এর সাথে চেঁচিয়ে কথা বলছেন,অথবা
খালি গায়ে ঘুরছেন অথবা এক বাক্স বাইরের খাবার রোজ বাড়িতে আনছেন এবং খাচ্ছেন।
আপনার বাচ্চা কিন্তু গুলিয়ে ফেলতে পারে।
এই ব্যাপারে যদি বাড়ির সবাই টিম হিসেবে কাজ করেন ভালো হয়।
বাচ্চা সাধারণ স্কুল এ গেলে সেখানে অন্য বাচ্চাদের কাছ থেকে বুলিড হলে এদের আত্মবিশ্বাস তলানিতে ঠেকে যায়। আমি আমার ছেলের ক্ষেত্রে ওকে একটি ক্লোজ গ্রুপ
করে দিয়েছিলাম।ওরা 3 চার জন বন্ধু গাড়ি,স্কুল, বসার বেঞ্চ,সেকশন share করেছিল একসাথে। একটু হলেও বুলিড হওয়া কমেছিল তার ক্ষেত্রে। স্পেশাল স্কুল হোক বা নর্মাল স্কুল বাচ্চা রা একত্রে থাকলে মারামারি হবেই যদি একটু লক্ষ্য রাখা যায়।স্কুল কতৃপক্ষের কাছে আবেদন করা সিসি টিভি বসানোর জন্য।বাচ্চা কে স্কুলে ভর্তি করার আগে স্কুলের ন্যূনতম সিকিউরিটি ব্যবস্থা দেখুন।দারোয়ান,গেট, আয়া ইত্যাদি।বিপদ কখনো বলে আসে না।সাবধান হতে ক্ষতি নেই।লিঙ্গবাদ নয়, প্রতিটি মানবশিশুর নিরাপত্তা জরুরী।সময় থাকতে সাবধান হওয়া।
সব মানুষের সাঁতার শেখা জরুরি।আমাদের বাচ্চাদের জন্য ভীষণ জরুরি। এই এক্সারসাইজের মাধ্যমে মস্তিস্ক এবং অঙ্গ প্রত্যঙ্গের সঞ্চালনের অসুবিধে কাটিয়ে উঠতে পারে এরা অনেকেই। অনেক বাচ্চা ই জলের কাছে গিয়ে চিল চিৎকার করে ট্যান্টরম শুরু করে ,চেষ্টা চালিয়ে যেতেই হয়।আমার ছেলে কে গত 4 বছর চেষ্টা করছি কিছুই শেখেনি,আমি হাল ছাড়িনি।সামনের বছর আবার যাবো পুলে।প্রসঙ্গ ক্রমে বলি অনেক বাচ্চা পুকুরে ঝাঁপ দিয়ে দেয়, বোঝেনা বিপদ টা ঠিক কোথায় তাই সাবধান।কোন হোটেল যদি সুইমিংপুল থাকে,সেখানে থাকলে নজর রাখুন।বাড়ির আসে পাশে পুকুর থাকলে খেয়াল রাখুন।
লাল আলো,খুলি চিহ্ন,মাতাল,কুকুর,বিদ্যুতের
খুঁটি,কাঁটা তার বিপদজনক এটা বোঝাবেন দরকার হলে ছবি ,ভিডিও দেখিয়ে।পাড়ার চায়ের দোকান হোক বা জমায়েত বাচ্চা কে
সাবধান করে রাখবেন।গুপি গাইন সিনেমার প্রথমে ভাবুন এক ঝাঁক তথাকথিত পন্ডিত জটলা কিভাবে ভালো মানুষ গুপি কে বোকা বানিয়েছিল।মেয়ে বাচ্চা হোক বা ছেলে বাচ্চা
এখন কেউ নিরাপদ নয়।থেরাপি সেন্টার হোক
বা স্কুল সিসি টিভি বসানোর ব্যবস্থা আমাদের করতেই হবে মাথায় রাখি আমরা।
বাচ্চা কে লোকালয় চেনাতে হলে রাস্তায় একা
ছাড়তে হবেই ।কিন্তু এক্ষেত্রে খুব বিচক্ষণতার সাথে শেখাতে হবে।আপনার বাচ্চা যদি গাড়ি থেকে কি বিপদ আসতে পারে সেটা না বোঝে তবে তাকে আগে সেটা শেখান।ক্রমাগত গাড়ির ছবি,ধাক্কা লাগছে এই ছবি,জিভ বার করে মারা পড়বো অভিনয় করে বোঝান,সিগন্যাল ইত্যাদি দেখান।খুব ছোট থেকে কোমরের বেল্টের সাথে দড়ি বেঁধে আমি গন্ডি চিনিয়েছি বাচ্চা কে।ভোর বেলা ফাঁকা রাস্তায় দুজনে হাঁট তাম তারপর রাস্তায় একা ছেড়েছি।এই একা ছাড়া ব্যাপার টি খুবই চিন্তা ভাবনা করে সিদ্ধান্ত নেবেন তবে ছাড়বেন।কারণ আমরা যখন থাকবোনা ওদের একা করতে হবে সব।
তবু সব বাচ্চা তো সমান নয়।
বাচ্চারা যদি খেলতে পারে কোথাও খেলতে দিন। জাম্প করতে করতে,জিক জ্যাক পথে দৌড়াতে দৌড়াতে কখন দেখবেন বাস্তবে কাজে লাগাচ্ছে।বাচ্চার সাইকেল নিয়ে ঘোরার
অভ্যেস থাকলে লোকালয় এর যতসম্ভব মানুষ কে তার সম্পর্কে জানিয়ে রাখুন।রুট বেঁধে দিন সেখানেই থাকতে বলুন। সেখানেও
বাচ্চার বোধ শক্তি কত টা দেখে তাকে ছাড়ুন।
আমি আমার জীবনের ছোট ঘটনা share করছি মাত্র।আপনাদের কাছে অনুরোধ আপনারা বিশেষজ্ঞ মানুষের পরামর্শ নেবেন।
আপনারাও বলুন আর কি সম্ভ্যাব্য বিপদ থাকতে পারে।আসুন সবাই মিলে ওদের পথের
কাঁটা সরাই।
এক নীল সমুদ্র ভালোবাসা।
সুমন।

https://m.facebook.com/story.php?story_fbid=10214826722293374&id=15857
35784


584 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: বিপ্লব রহমান

Re: চলো এগিয়ে চলি 3

শিশুদের যৌন হয়রানি সম্পর্কেও ধারণা দেওয়া উচিত। আশাকরি, এই নিয়ে লিখবেন।
Avatar: Sumon Ganguly Bhattacharyya

Re: চলো এগিয়ে চলি 3

হ্যাঁ লেখার ইচ্ছে আছে ধন্যবাদ।


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন