Sarit Chatterjee RSS feed

Sarit Chatterjeeএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • শকওয়েভ
    “এই কি তবে মানুষ? দ্যাখো, পরমাণু বোমা কেমন বদলে দিয়েছে ওকে সব পুরুষ ও মহিলা একই আকারে এখন গায়ের মাংস ফেঁপে উঠেছে ভয়াল ক্ষত-বিক্ষত, পুড়ে যাওয়া কালো মুখের ফুলে ওঠা ঠোঁট দিয়ে ঝরে পরা স্বর ফিসফাস করে ওঠে যেন -আমাকে দয়া করে সাহায্য কর! এই, এই তো এক মানুষ এই ...
  • ফেকু পাঁড়ের দুঃখনামা
    নমন মিত্রোঁ – অনেকদিন পর আবার আপনাদের কাছে ফিরে এলাম। আসলে আপনারা তো জানেন যে আমাকে দেশের কাজে বেশীরভাগ সময়েই দেশের বাইরে থাকতে হয় – তাছাড়া আসামের বাঙালি এই ইয়ে মানে থুড়ি – বিদেশী অবৈধ ডি-ভোটার খেদানো, সাত মাসের কাশ্মিরী বাচ্চাগুলোর চোখে পেলেট ঠোসা – কত ...
  • একটি পুরুষের পুরুষ হয়ে ওঠার গল্প
    পুরুষ আর পুরুষতন্ত্র আমরা হামেশাই গুলিয়ে ফেলি । নারীবাদী আন্দোলন পুরুষতন্ত্রের বিরুদ্ধে, ব্যক্তি পুরুষের বিরুদ্ধে নয় । অনেক পুরুষ আছে যারা নারীবাদ বলতে বোঝেন পুরুষের বিরুদ্ধাচরণ । অনেক নারী আছেন যারা নারীবাদের দোহাই পেড়ে ব্যক্তিপুরুষকে আক্রমন করে বসেন । ...
  • বসন্তকাল
    (ছোটদের জন্য, বড়রাও পড়তে পারেন) 'Nay!' answered the child; 'but these are the wounds of Love' একটা দানো, হিংসুটে খুব, স্বার্থপরও:তার বাগানের তিন সীমানায় ক'রলো জড়ো,ইঁট, বালি, আর, গাঁথলো পাঁচিল,ঢাকলো আকাশ,সেই থেকে তার বাগান থেকে উধাও সবুজ, সবটুকু নীল।রঙ ...
  • ভুখা বাংলাঃ '৪৩-এর মন্বন্তর (পর্ব ৫)
    (সতর্কীকরণঃ এই পর্বে দুর্ভিক্ষের বীভৎসতার গ্রাফিক বিবরণ রয়েছে।)----------১৯৪...
  • শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস
    ১৩ ডিসেম্বর শহিদুল্লাহ কায়সার সবার সাথে আলোচনা করে ঠিক করে বাড়ি থেকে সরে পড়া উচিত। সোভিয়েত সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের প্রধান নবিকভ শহিদুল্লাহ কায়সারের খুব ভাল বন্ধু ছিলেন।তিনি সোভিয়েত দূতাবাসে আশ্রয় নেওয়ার জন্য বলেছিলেন। আল বদর রাজাকাররা যে গুপ্তহত্যা শুরু করে ...
  • কালচক্রের ছবি
    বৃষ্টিটা নামছি নামছি করছিল অনেকক্ষন ধরে। শেষমেশ নেমেই পড়ল ঝাঁপিয়ে। ক্লাশের শেষ ঘন্টা। পি এল টি ওয়ানের বিশালাকৃতির জানলার বাইরে ধোঁয়াটে সব কিছু। মেন বিল্ডিং এর মাথার ওপরের ঘড়িটা আবছা হয়ে গেছে। সব্যসাচী কনুই দিয়ে ঠেলা মারল। মুখে উদবেগ। আমারও যে চিন্তা ...
  • এয়ারপোর্টে
    ১।আর একটু পর উড়ে যাবভয় করেকথা ছিল কফি খাবফেরার গল্প নিয়েকত সহজেই না-ফিরেফুল হয়ে থাকা যায়যারা ফেরে নি উড়ার শেষেতাদের পাশ দিয়ে যাইভয় আসেকথা আছে কফি নেব দুজন টেবিলে ফেরার পর ২।সময় কাটানো যায়শুধু তাকিয়ে থেকেতোমার না বলা কথাওরা বলে দেয়তোমার না ছুঁতে পারাওরা ...
  • ভগবতী
    একদিন কিঞ্চিৎ সকাল-সকাল আপিস হইতে বাড়ি ফিরিতেছি, দেখিলাম রাস্তার মোড়ের মিষ্টান্নর দোকানের সম্মুখে একটি জটলা। পাড়ার মাতব্বর দু-চারজনকে দেখিয়া আগাইয়া যাইলাম। বাইশ-চব্বিশের একটি যুবক মিষ্টির দোকানের সামনের চাতালে বসিয়া মা-মা বলিয়া হাপুস নয়নে কাঁদিতেছে আর ...
  • শীতের কবিতাগুচ্ছ
    ফাটাও বিষ্টুএবার ফাটাও বিষ্টু, সামনে ট্রেকার,পেছনে হাঁ হাঁ করে তেড়ে আসছে দিঘাগামী সুপার ডিলাক্স।আমাদের গন্তব্য অন্য কোথাও,নন্দকুমারে গিয়ে এক কাপ চা,বিড়িতে দুটান দিয়ে অসমাপ্ত গল্প শোনাব সেই মেয়েটার, সেই যারজয়া প্রদার মত ফেস কাটিং, রাখীর মত চোখ।বাঁয়ে রাখো, ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

ডিপ্রেশন

Sarit Chatterjee

ডিপ্রেশন
সরিৎ চট্টোপাধ্যায় ।

ললিতা শুক্রবার বিকেল সাড়ে পাঁচটায় ঠিক করল, তারও ডিপ্রেশন হবে।

কেন হবে না? রাজাদার গতবছর হয়েছিল। মানসদার বউ মালতীও তো সেবার পুজোর পর বলেছিল, "মাত্র আটটা শাড়িতে কি লোকসমাজে বেরনো যায়! এত ডিপ্রেশন হচ্ছে জানিস? আজ দশদিন ওষুধ খাচ্ছি। মানসের মুখটা দেখলেই ইচ্ছে করছে ডাক ছেড়ে কাঁদি। দেখিস, একদিন ঠিক আমি সুইসাইড করব!"

ললিতা অনিকেতকে ফোন করল।
: এই শোনো না, আমার খুব ডিপ্রেশন হচ্ছে।
: সেকী! কখন? কী করে?
: আজ। এক্ষুনি।
: আরে কী মুস্কিল! কেন?
: কেন আবার কী? তুমি তিনদিন আমায় 'গুডনাইট সুইটি' বলে রাতে শোবার আগে ম্যাসেজ করোনি!
: ইস্! আরে ওটা ম্যাসেজ না! ওটা মেসেজ হবে! কিন্তু ডিপ্রেশন! ওরম হঠাৎ করে আবার হয় নাকি!
: আলবৎ হয়! দেখোনি মানসদার বউ ...
: হ্যাঁ হ্যাঁ, মনে পড়েছে। হাউ স্যাড! তাহলে আমাকে কী করতে হবে তুমিই বলে দাও! প্লিজ!
: কাল বাবা-মা তারকেশ্বর যাচ্ছে। তুমি বিকেলে ..
: আরে! অফ কোর্স! তুমি কিন্তু ওই ডিপ্রেশন-টিপ্রেশন ওসব ফালতু কথা বলবে না!
: আচ্ছা বলব না। তুমি কিন্তু একদম দুস্টুমি করবে না! শুধু আদর করবে। প্রমিস?

হাসছেন তো? আসলে অনেকেই ভাবেন ডিপ্রেশন এমনই কিছু হবে হয়ত।

আজ্ঞে না। এগুলো ডিপ্রেশন বা অবসাদ নয়। যাঁরা এসবকে ডিপ্রেশন ভাবেন তাঁরা ব্যাপারটা জানুন, বোঝার চেষ্টা করুন।
নাহলে, একদিন হয়ত আপনার খুব কাছের একজনকে হারাবেন কারণ 'ডিপ্রেশন কী' তা আপনি কখনও জানার চেষ্টা করেননি।

যেমন কাজল। বিয়ের বয়েস পেরিয়ে যাচ্ছিল। ওদিকে ওজন-টজন কমে চেহারা আরও খারাপ হচ্ছিল। কথা কম বলত। বাইরে বেরনোও প্রায় বন্ধ করেছিল কয়েকদিন। গতকাল ওর জন্মদিন ছিল। সকালে ওর মা পায়েস রাঁধছিল এমন সময় একটা শব্দ পেয়ে ছুটে গিয়ে দেখে কাজল ফ্যান থেকে ঝুলছে।
এখন অনেকেই বলছে ওর ডিপ্রেশন ছিল।

ডিপ্রেশন তাহলে কী?
ডিপ্রেশন হলো এমন এক অসুখ যেখানে মস্তিষ্কে রাসায়নিক পরিবর্তনের জন্য রোগীকে সর্বক্ষণ বিষন্নতা, হতাশা, ব্যর্থতার অনুভূতি, বিরক্তি, আনন্দহীনতা, অপরাধবোধ, অশান্তি, ইচ্ছাহীনতা, ক্লান্তি, যৌনতায় উৎসাহহীনতা বা আত্মহত্যার চিন্তা ঘিরে ধরে। তার কোনও ক্ষমতাই থাকে না এই চক্রব্যুহ থেকে বার হওয়ার। তাকে বুঝিয়ে, বকাবকি করে, জ্ঞান দিয়ে কিচ্ছু লাভ হয় না। একটা ভিসিয়াস সার্কেলের মধ্যে সে ঘুরতে থাকে। এক অতল গহ্বরে সে ডুবতে থাকে।

ডিপ্রেশন একটা সিরিয়াস অসুখ। প্রায় ছ'কোটি ভারতবাসী এই অসুখের কবলে পড়েন প্রতি বছর। এর কবলে আবালবৃদ্ধবনিতা সকলেই পড়তে পারেন। দারিদ্র, কর্পোরেট লাইফস্টাইল বা গৃহরুদ্ধ জীবন এর প্রধান কারণ হিসাবে দেখা গেছে। প্রতি বছর কয়েকহাজার প্রাণ গ্রাস করে এই রোগ।

কী করে বুঝবেন ডিপ্রেশন আছে কিনা?
নিচে ছবিতে একটি প্রশ্নসমষ্ঠি দিলাম। আর লেখার নিচে তার লিংক। যদি মনে হয় এই প্রশ্নপত্র অনুযায়ী আপনার বা আপনার কোনও কাছের মানুষের এই অসুখ আছে, সময় নষ্ট না করে সাইকিয়াট্রিস্ট দেখান।

শেষে একটাই কথা বলব, এ নিয়ে সাধারণ মানুষকে সচেতন করুন।
শারীরিক অসুখ তবু চোখে পড়ে। মানসিক অসুখ কিন্তু ধরা সহজ না। আর এ নিয়ে সমাজে এখনও প্রচুর অনাবশ্যক ট্যাবু আছে।

আর একটা মিথ আছে। ডিপ্রেশন হলো বড়লোকদের অসুখ। আজ্ঞে না, ডিপ্রেশন গরীব মানুষদেরই বেশি হয়। কিন্তু এ পোড়া দেশে তাদের অসুখ বুঝবেই বা কে? এ নিয়ে এখনও আমাদের দেশে কোনও কাজ হয়নি। তাই বিদেশের দুটো স্টাডির লিংক রইল।

https://www.ncbi.nlm.nih.gov/pmc/articles/PMC5069819/

https://www.hindawi.com/journals/ecri/2012/278906/

আর যাঁরা "আমারও ঠিক ডিপ্রেশন হবে এটাই আমার অ্যামবিশান!" .. বলে গলা ফাটান, নিশ্চিন্ত থাকুন .. হবে না।
ডিপ্রেশন হওয়ানো যায় না।
হয়।

https://www.psychiatry.org/File%20Library/Psychiatrists/Practice/DSM/A
PA_DSM5_Severity-Measure-For-Depression-Adult.pdf


আরেকটা কথা।
আমার ইনবক্স সবসময়, সকলের জন্য খোলা থাকে। সাহায্য লাগলে আমি আছি।

২৫০৯২০১৮

680 বার পঠিত (সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে)

শেয়ার করুন


Avatar: বিপ্লব রহমান

Re: ডিপ্রেশন

জনগুরুত্বপূর্ণ লেখা। লেখনী স্টাইলও ভাল। এই সুযোগে আপনার কয়েকটি অনুগল্প পড়ে ফেললাম।

#

অনেকদিন আগে ক্লিনিকাল সাইকোলজিস্ট মনোদি "মেয়েদের ডিপ্রেশন" নিয়ে একটি চমৎকার লেখা লিখেছিলেন, সেই লেখাটিও এখানে তুলে দিচ্ছি।

http://archive-bn.newsnextbd.com/article184799.nnbd/
Avatar: সায়ন্তন ভট্টাচার্য্য

Re: ডিপ্রেশন

আগামীতে অবসাদ বিষয়ে আরও বিশদে জানবার ইচ্ছে তৈরি হল ।


Avatar: অভি

Re: ডিপ্রেশন

ভালো। বেশ ভালো। দুঃখের বিষয় হলো, এত বড় এবং বিপজ্জনক একটা রোগ নিয়ে ডাক্তারদেরই একটা বড় অংশের মধ্যে যে লেভেলে অশিক্ষা আর কুসংস্কার আছে, সে না দেখলে তবু বিশ্বাস করা যায়, দেখলে আর কোনোভাবেই বিশ্বাসের জো ন। অথচ প্রায় প্রতি মাসে পরিচিত বা অপরিচিত চিকিৎসকের আত্মহত্যার খবর আসছে। আর পাঁচটা অতি স্ট্রেসফুল পেশার মধ্যে এটাও পড়ে কিনা। তার পরেও।
Avatar: dd

Re: ডিপ্রেশন

আচ্ছা, হাঁড়ীর খবর দেই।

দেখুন, ডিপ্রেসনকে "এক কথায় প্রকাশ" করুন বল্লে উত্তর দিতে হয় hopelessness। বাকী সব - দুঃখ,বেদনা, শোক,মনস্তাপ, হতাশা, অবসাদ ইঃসব সেকেন্ডারি।

কে জানি , খুব সুন্দরী,খুব নামকরা, খুব মহিলা - কেটরিনা কেইফ? না কি ঐশ্বরিয়া ? তিনিও ডিপ্রেশনে ভোগেন। তাতে ডিপ্রেশন বেশ জাতে উঠেছে। কিন্তু লোকে খালি জান্তে চায়, আরে আপনের আবার ডিপ্রেশন কিসে? ঐ ধাঁ লম্বা, টকটকে গায়ের রং, দুই কৃতি ছেলে, প্রচুর ট্যাকা, মাথায় টাক নেই,এমন কি বাড়ীর ব্যারালটিও সুমধুর। তাইলে ডিপ্রেশন ক্যানো?

ডিপ্রেশন অহৈতূকী অসুখ। যেমতি হাঁপানি ব বাতের ব্যাথা। সবাইকেই ধরতে পারে।

আর সব ডিপ্রেশনের রুগী কিন্তু সারাক্ষণ গোমড়ামুখে হায় কিহোলো হায় কি হোলো করে এক কোনে ঝিম মেরে থাকে না। সে আপনের মতনই দিব্যি হেঁটে চলে বেরোয়। কিন্তু তাকে কুরে কুরে খায় কোনো বিপন্ন বিস্ময়। দেখে টেখে কিছু বুঝবেন না,
Avatar: সিকি

Re: ডিপ্রেশন

দীপিকা পাডুকোন।


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন