Jhuma Samadder RSS feed

Jhuma Samadderএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • ট্রেড ওয়ার ও ট্রাম্প শুল্ক নিয়ে কিছু সাধারণ আলোচনা
    বর্তমানে আলোচনায় আসা সব খবরের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প চীনের বিলিয়ন ডলার মূল্যের উপর কঠিন শুল্ক বসিয়ে দিয়েছে, যাদের মধ্যে ডিশ ওয়াশার থেকে শুরু করে এয়ারক্রাফট টায়ার সবই আছে। চায়না অনেক দিন ধরেই এই হুমকির মুখে ...
  • নারীবাদ নিয়ে ইমরান খানের বক্তব্য ও নারীবাদে মাতৃত্ব নিয়ে বিতর্ক
    সম্প্রতি একটা খবর পড়লাম। পাকিস্তান তেহরিক ই ইনসাফ এর নেতা ও পাকিস্তান দলের সাবেক ক্রিকেটার ইমরান খান বলেছেন, তিনি পশ্চিমাদের থেকে আমদানি করা নারীবাদ সমর্থন করেন না। তার নারীবাদকে সমর্থন না করবার কারণও তিনি জানান, তার মতে নারীবাদ মাতৃত্বের মর্যাদাকে ছোট ...
  • রেনবো জেলি: যেমন লাগলো দেখে.....
    ইপ্সিতা বলল, রিভিউ লেখ। আমি বললাম, আমি কি সিনেমা বুঝি নাকি? ইপ্সিতা বলল, যা দেখে ভাল লাগল তাই লেখ। আমি বললাম, তবে তাই হোক।সিনেমা র নাম, রেনবো জেলি। ইউটিউবে ট্রেলার দেখেই বড্ড ভাল লাগল। তাই রিলিজ করার পরের দিনই আমার চারবছুরের কন্যে সহ আমি হলমুখী।টাইটেল ...
  • বর্ষা ও খিচুড়ি
    বর্ষাকাল। তিনদিন ধরে ঝমঝম করে বৃষ্টি হয়েই চলেছে। আমাদেরও ইস্কুল টিস্কুল বন্ধ। রাস্তায় এক হাঁটু জল। মায়েরও আজ অফিস যাওয়ার উপায় নেই। কি মজা। যদিও পুরোনো বাড়ির ছাদ চুঁইয়ে জল পড়ছে, ঘরের মেঝেতে ড্যাম্প, জামাকাপড় না শুকিয়ে স্যাঁতস্যাঁত করছে, কিন্তু তাতে আমাদের ...
  • বিজ্ঞাপনের কল
    তত্কালে লোকে বিজ্ঞাপন বলিতে বুঝাইতো সংবাদপত্রের ভেতরের পাতায় শ্রেণীবদ্ধ সংক্ষিপ্ত বিজ্ঞাপন, এক কলাম এক ইঞ্চি, সাদা-কালো খোপে ৫০ শব্দে লিখিত-- পাত্র-পাত্রী, বাড়িভাড়া, ক্রয়-বিক্রয়, নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, চলিতেছে (ঢাকাই ছবি), আসিতেছে (ঢাকাই ছবি), থিয়েটার (মঞ্চ ...
  • বিশ্বাস, পরিবর্তন ও আয়ার্ল্যান্ড
    সম্প্রতি আয়ার্ল্যান্ডে আইনসিদ্ধ হল গর্ভপাত । যদিও এ সিদ্ধান্তকে এখনও অপেক্ষা করতে হবে রাষ্ট্রপতির আনুষ্ঠানিক অনুমোদনের জন্য, তবু সকলেই নিশ্চিত যে, সে কেবল সময়ের অপেক্ষা । এ সিদ্ধান্ত সমর্থিত হয়েছে ৬৬.৪ শতাংশ ভোটে । গত ২৫ মে (২০১৮) এ ব্যাপারে আইরিশ সংসদের ...
  • মব জাস্টিস-মব লিঞ্চিং এর সংস্কৃতি ও কিছু সমাজ-মনোবৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা
    (আজকে এখানে "জুনেদ-এর চিঠিঃ ঈদের নতুন পোশাকে" আর্টিকেলটি পড়তে গিয়ে একটা নতুন টার্মের সাথে পরিচিত হলাম - "মব লিঞ্চিং এর সংস্কৃতি"। এটা কেবল একটা নতুন টার্মই নয়, একটি নতুন কনসার্নও, তাই এটা নিয়ে লেখা...)মব লিঞ্চিং এর ব্যাপারটা এখন আমরা প্রায়ই শুনি। ...
  • বিশ্ব যখন নিদ্রামগন
    প্রত্যেকটি মানুষের জীবন বদলে দেওয়া কিছু দিন থাকে, থাকে রাত, যার পর আর কিছুতেই নিজের পূর্বসত্বার কাছে ফিরতে পারা যায় না, ওটাই বোধহয় নিজঅস্ত্বিত্বের 'রেস্টোর পয়েন্ট' হয়ে দাঁড়ায় সর্বশক্তিমান প্রোগ্রামারের মর্জিমাফিক।25শে সেপ্টেম্বর, 1992 রাত আনুমানিক পৌনে ...
  • শিক্ষায় সমস্যা এবং মানবসম্পদ উন্নয়ন
    (সম্প্রতি গুরুচণ্ডালির ফেইসবুক গ্রুপে Gour Adhikary বাবুর শিক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে একটি অসাধারণ লেখা পড়লাম। বেশ কিছু প্রশ্নের জবাব চেয়েছেন তিনি সেখানে। এরমধ্যে কয়েকটি প্রশ্নকে সাজিয়ে লিখলে এরকম হয়, "যারা ফেইল করে, তারা কেন সামান্য পাশ মার্ক জোগাড় করতে পারে ...
  • পরবাসে পরিযায়ী
    আজকে ভারতে চাঁদরাত। অনেকটা দূরে বসে আমি ভাবছি কি হচ্ছে আমার বাড়িতে, আমার পাড়াতে। প্রতিবারের মতো এবারেও নিশ্চয়ই সুন্দর করে সাজিয়েছে পুরো শহরটা। আমাদের বাড়ির সামনের ক্লাবে সার সার দিয়ে বসে আলুকাবলি, আচার, ফুচকা, আইসক্রীম এবং আরো কতকি খাবারের স্টল! আমি ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

'দাগ আচ্ছে হ্যায়!'

Jhuma Samadder

'দাগ আচ্ছে হ্যায়!'
ঝুমা সমাদ্দার।
ভারতবর্ষের দেওয়ালে দেওয়ালে গান্ধীজির চশমা গোল গোল চোখে আমাদের মুখের দিকে চেয়ে থাকে 'স্বচ্ছ ভারত'- এর 'স্ব-ভার' নিয়ে। 'চ্ছ' এবং 'ত' গুটখা জনিত লালের স্প্রে মেখে আবছা। পড়া যায় না।

চশমা মনে মনে গালি দিতে থাকে, "এই চশমায় লেখার আইডিয়াটা কার ছিল, কাকা ? এটুকু বোধ নেই, আমরা মানুষ ? আমরা দ্বিনেত্র শ্রেনীর প্রাণী ? তায় 'মহান ভারত'বাসী। একসঙ্গে দুটি জিনিস আমরা দুই চোখে দেখতে পাই না।
আমরা হয় 'স্বচ্ছ' দেখতে পাই, নয়তো 'ভারত' দেখতে পাই। 'স্বচ্ছ ভারত' কথাটাই তো কেমন.... অদ্ভুত... 'সোনার পাথরবাটি' টাইপ শুনতে। বোকা বোকা। রাস্তায় ময়লা ফেলা, থুথু ফেলা, ইয়ে করা... এ সব আমাদের হক হ্যায়, বস্। আমরা অমনি ছেড়ে দেব? ইয়ার্কি নাকি?"

তারপর, আমাদের 'ঝাঁটা সেলফি' তোলা শেষ হয়ে গেলে দেখা যায়, কোথা দিয়ে হাজার হাজার কোটি গলে গিয়েছে।

সে যাকগে যাক। ও সব সরকারী 'দাগ'। আমাদের মাথা ঘামাবার দরকার নেই। আমরা হলাম বেচারা 'ভোটার'...ট্যাক্সের জোগানদার, আদার ব্যাপারী।

আমরা ভারতীয়রা আজন্ম সমস্ত বিষয়ে জাতি-ধর্মের ধুঁয়ো তুলে ভাগাভাগি করে মরলেও 'দাগে'র ক্ষেত্রে একেবারে এককাট্টা। একই রকমের 'দাগী' আমরা সকলে।

সেই কবে শ্রী শ্রী রামকৃষ্ণদেব বলে গেলেন "মানুষ হয়ে জন্মেছিস, একটা দাগ রেখে যাস।"

ব্যস, সেই ইস্তক সমগ্র জাতি মুখে গুটখা নিয়ে তৈরী, দাগ রাখার জন্যে। যেখানে পারে সেখানেই খুনীয়া লালের স্প্রে ছিটোয় । অহো! কী নিখুঁত লক্ষ্য ! কী তেজোদ্দীপ্ত স্বভাব! (ভাষাটা লক্ষ্য করুন একবার।) এক 'থুঃ'... আর সঠিক নিশানা।

কিম্বা, দাঁড়িয়ে রইল কাঠকয়লা হাতে, যেখানেই ঐতিহাসিক ইমারত, কিম্বা, সুলভ শৌচালয় দেখেছে , সেখানেই 'বিজ্জু লাভস্ মুন্নি' লিখে ফেলেছে ঝট্ করে। প্রেমে একেবারে জড়ামড়ি দশা। না, ঠিক জড়ামড়ি নয়, ও আবার যত ইয়ে জিনিস। আমাদের ওসব একেবারে সাফসুতরো, 'পবিত্র' 'পবিত্র' ব্যাপার, 'নিকশিত হেম' কিম্বা 'রবীন্দ্রনাথ' মার্কা সাবানে কাচা প্লেটোনিক প্রেম।

রাস্তার ধার মানেই অলিখিত পাবলিক ইউরিনাল থেকে গড়িয়ে আসা 'কল্লোলিনী' দাগ, যা পথকে 'তিলোত্তমা' করে তোলে, আর রেললাইনের ধারের সকালবেলার খোলা হাওয়ায় হাল্কা হওয়ার দাগ ....

এ ব্যাপারে আমাদের কোনো ভেদাভেদ নেই। জাত-ধর্ম নির্বিশেষে, এক মন... এক প্রাণ - একতা...

তবে, কিছু কিছু দাগ আছে, যা সাধারণ হয়েও অসাধারন। একান্ত ব্যক্তিগত ক্ষত সে সব।

আমার নিজের ছেলেবেলার জায়গার সঙ্গে শেষ বিচ্ছেদ বার্তা লেখা হয়েছিল , রেলের স্টেশনে, কোনো এক সকাল বেলায়। চিরতরে ছেলেবেলার জায়গা ছেড়ে চলে আসার সময় স্টেশনের শেড থেকে সে দাগ এঁকে দিয়েছিল এক হতভাগা 'ভারতীয় কাক'। সে দাগ পুরোপুরি ধুয়ে ফেলা যায়নি...এমনই নাছোড়বান্দা সে ভালোবাসার দাগ।

আহা! সে যে উড়ে যেতে যেতে 'খ্যাঁ খ্যাঁ' আওয়াজে কানে কানে বলে গিয়েছিল, 'দাগ আচ্ছে হ্যায়।'

শেয়ার করুন



আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন