Sumana Sanyal RSS feed

Sumana Sanyalএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • সেটা কোনো কথা নয় - দ্বিতীয় পর্ব - ত্রয়োদশ তথা অন্তিম ভাগ
    অবশেষে আমরা দ্বিতীয় পর্বের অন্তিমভাগে এসে উপস্থিত হয়েছি। অন্তিমভাগ, কারণ এরপর আমাদের তৃতীয় পর্বে চলে যেতে হবে। লেখা কখনও শেষ হয় না। লেখা জোর করেই শেষ করতে হয়; সেসব আমরা আগেই আলোচনা করেছি।তবে গল্পগুলো শেষ করে যাওয়া প্রয়োজন কারণ এই পর্বের কিছু গল্প পরবর্তী ...
  • প্রাণের মানুষ আছে প্রাণে..
    'তারা' আসেন, বিলক্ষণ!ক্লাস নাইনযষ্ঠীর সন্ধ্যে। দুদিন আগে থেকে বাড়াবাড়ি জ্বর, ওষুধে একটু নেমেই আবার উর্ধপারা।সাথে তীব্র গলাব্যাথা, স্ট্রেপথ্রোট। আমি জ্বরে ঝিমিয়ে, মা পাশেই রান্নাঘরে গুড় জ্বাল দিচ্ছেন, দশমীর আপ্যায়ন-প্রস্তুতি, চিন্তিত বাবা বাইরের ...
  • জীবনপাত্র উচ্ছলিয়া মাধুরী, করেছো দান
    Coelho র সেই বিখ্যাত উপন্যাস আমাদের উজ্জীবিত করবার জন্যে এক চিরসত্য আশ্বাসবাণী ছেড়ে গেছে একটিমাত্র বাক্যে, “…when you want something, all the universe conspires in helping you to achieve it.”এক এন জি ও'র বিশিষ্ট কর্তাব্যক্তির কাছে কাতর ও উদভ্রান্ত আবেদন ...
  • 'দাগ আচ্ছে হ্যায়!'
    'দাগ আচ্ছে হ্যায়!'ঝুমা সমাদ্দার।ভারতবর্ষের দেওয়ালে দেওয়ালে গান্ধীজির চশমা গোল গোল চোখে আমাদের মুখের দিকে চেয়ে থাকে 'স্বচ্ছ ভারত'- এর 'স্ব-ভার' নিয়ে। 'চ্ছ' এবং 'ত' গুটখা জনিত লালের স্প্রে মেখে আবছা। পড়া যায় না।চশমা মনে মনে গালি দিতে থাকে, "এই চশমায় লেখার ...
  • পাছে কবিতা না হয়...
    এক বিশ্ববন্দিত কবি , কবিতার চরিত্রব্যাখ্যায় বলেছিলেন, '... Spontaneous overflow of powerful feeling,it takes its origin from emotion recollected in tranquility'আমি কবি নই, আমি সুললিত গদ্য লিখিয়েও নই, শব্দ আর মনের ভাব প্রকাশ সর্বদা কলহরত দম্পতি রুপেই ...
  • মনীন্দ্র গুপ্তর মালবেরি ও বোকা পাঠক
    আমি বোকা পাঠক। অনেক পরে অক্ষয় মালবেরি পড়লাম। আমার একটি উপন্যাস চির প্রবাস পড়ে দেবারতি মিত্রর খুব ভাল লাগে। উনিই বললেন, তুমি ওনার অক্ষয় মালবেরি পড় নি? আজি নিয়ে যাও, তোমার পড়া বিশেষ প্রয়োজন। আমি সম্মানিত বধ করলাম। তাছাড়া মনীন্দ্র গুপ্ত আমার প্রিয় কবি প্রিয় ...
  • আপনি কি আদর্শ তৃণমূলী বুদ্ধিজীবি হতে চান?
    মনে রাখবেন, বুদ্ধিজীবি মানে কিন্তু সিরিয়াস বুদ্ধিজীবি। কথাটার ওজন রয়েছে। এই বাংলাতে দেব অথবা দেবশ্রী রায়কে যতজন চেনেন, তার দুশো ভাগের এক ভাগও দীপেশ চক্রবর্তীর নাম শোনেননি। কিন্তু দীপেশ বুদ্ধিজীবি। কবির সুমন বুদ্ধিজীবি। তো, বুদ্ধিজীবি হতে গেলে নিচের ...
  • উন্নয়নের তলায় শহিদদের সমঝোতা
    আশা হয়, অনিতা দেবনাথরা বিরল বা ব্যতিক্রমী নন। কোচবিহার গ্রামপঞ্চায়েতের এই তৃণমূল প্রার্থী তাঁর দলের বেআব্রু ভোট-লুঠ আর অগণতন্ত্র দেখে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, এই তামাশায় তাঁর তরফে কোনও উপস্থিতি থাকবে না। ভোট লড়লে অনিতা বখেরা পেতেন, সেলামি পেতেন, না-লড়ার জন্য ...
  • ইচ্ছাপত্র
    আমার ডায়াবেটিস নেই। শত্তুরের মুখে ছাই দিয়ে (যদি কখনো ধরা পড়েও বা, আমি আর প্যাথোলজিস্ট ছাড়া কাকপক্ষীতেও টের পাবে না বাওয়া হুঁ হুঁ! ) হ', ওজন কিঞ্চিত বেশী বটেক, ডাক্তারে বকা দিলে দুয়েক কেজি কমাইও বটে, কিঞ্চিত সম্মান না করলে চিকিচ্ছে করবে কেন!! (তারপর যে ...
  • হলদে টিকিটের শ্রদ্ধার্ঘ্য
    গরমের ছুটিটা বেশ মজা করে জাঁকিয়ে কাটানো যাবে ভেবে মনটা চাঙ্গা হয়ে উঠেছিলো সকাল থেকে। তার আগে বাবার হাত ধরে বাজার করতে যাওয়া। কিন্তু একি গঙ্গার ধারে এই বিশাল প্যান্ডেল...কি হবে এখানে? কেউ একজন সাইকেলে চড়ে যেতে যেতে বলে গেল “মাষ্টারমশাই...বালীত...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

মন ভালো নেই

Sumana Sanyal

ভালোবাসায় আদর আসে,সোহাগ আসে,মন ভেঙে যাওয়া আসে, যন্ত্রণা আসে, বিরহ জেগে থাকে মধুরাতে, অপেক্ষা আসে, যা কখনো আসেনা, তার নাম 'জেহাদ'। ভালোবাসায় কোনো 'জেহাদ' নেই। ধর্ম নেই অধর্ম নেই। প্রতিশোধ নেই। এই মধ্যবয়সে এসে আজ রাতে আমার সেই হারিয়ে যাওয়া বাংলা কে মনে পড়ছে। আজ প্রখ্যাত ডাক্তার ভিন্নধর্মের বিবাহ আর প্রেম কে যখন 'লাভ জিহাদ' বলে লেবেল সেঁটে দেন, তখন পূর্ব বর্ধমানের সমস্ত 'বামপন্থী' 'স্যেকুলার' তকমা আঁটা মানুষ চুপ করে থাকেন। ডাক্তার কে চটিয়ে দেবার ক্ষমতা কারোর নেই। ভাবি, আজ যদি কোনো শিক্ষক বলেন মুসলমান ছাত্র পড়াবো না? ডাক্তার যদি বলেন যে হিন্দু মেয়েটি মুসলমান ছেলেটিকে বিয়ে করে মা হবার জন্যে এসেছে তার প্রসব করাবো না, কারণ সেটা 'লাভ জিহাদ'! তখন কোথায় যাবো? আমার তো এই বাংলা ছাড়া অন্য কোথাও যাবার জায়গা নেই, ইচ্ছেও নেই। আমার পিতামহ, মাতামহ সবাই দেশভাগের ক্ষতচিহ্ন বহন করে এপারে এসেছিলেন, এপারের লোকের ভাষায় আমরা 'লোটা'। কিছুকাল আগে এক মান্য অধ্যাপক আমাকে রীতিমতো হুমকি দিয়েই লিখেছিলেন ওপার বাংলা থেকে আসা সবাইকে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। সবাইকে কাগজপত্র দেখিয়ে প্রমাণ করতে হবে তাঁর সঙ্গে বাংলাদেশের 'জেহাদি' যোগ কতোটা। অধ্যাপক আমাকে বলেছিলেন আমার বাবার মাধ্যমিক এর অ্যাডমিট কার্ড, বার্থ সার্টিফিকেট, চাকরীর কাগজপত্র সব দেখাতে হবে। আর তারপরেই অসমে বাঙালী খেদাও যজ্ঞের প্রথম আহূতিটি দিলেন আমার প্রিয় লেখক, প্রিয় অধ্যাপক তপোধীর ভট্টাচার্য। আচ্ছা, এখানেও কি একটা Schindler's list বেরোবে? কারণ বিজেপির কাছে 'বাংলাদেশ' মানেই জঙ্গী, জেহাদ। হয়তো আমাদের নামও খেদানোর তালিকাভুক্ত হবে।
আমি যে বাংলায় জন্মেছি, শৈশব পার করে পূর্বাচল থেকে অস্তাচলের পাড়ে এসে দাঁড়িয়েছি, সেই বাংলায় 'সরস্বতীপুজো' নিয়ে কোনো যুক্তিবাদী সমিতি কে খড়্গহস্ত সবজান্তার ভূমিকায় দেখিনি, অথচ সেইসব দিনগুলোতে কি বিজ্ঞান ছিলোনা? যুক্তি ছিলোনা? ছিলো তো! কিন্তু তখন সরস্বতীপুজো যে কেবলমাত্র হিন্দুদের এই চিন্তাটাই কারোর মাথায় আসেনি। আমার স্কুলের যে বন্ধু সবথেকে ভালো আলপনা দিতো, তার নাম ছিলো যেসমিন বেগম। নবীদিবস পালনের জন্যে স্কুল বন্ধ করে অশান্তি, এসব তো ছিলোনা আমার সেই বাংলায়? ২০১১ সালের পরে, আর কেন্দ্রে বিজেপি আসার পরেই কেনো 'লাভ জিহাদ' শব্দটা শুনলাম আমি?
ছাদের পাইপ বেয়ে উঠে বিপদজনকভাবে এক স্কুলবালিকার প্রেমমুগ্ধ এক অপরূপ কিশোর ঝুলে থাকতো রোমিওর মতোনই। পড়ে গেলে মরেও যেতে পারতো আশি র দশকের সেইসব ভালোবাসার বোকা বোকা রাতে। সে মুসলমান ছিলো। তারা ছিলো আমার প্রাণের দোসর। তাদের কথা মনে পড়ে। তারা কালের নিয়মেই বিচ্ছিন্ন হয়েছে। কিন্তু 'জেহাদ' শব্দটাই তারা জানতো না।
কেউই বোধহয় তার ভালোবাসায় ফিরতে পারেনা। যেমন তসলিমা পারলেন না বাসায় ফিরতে। আজ তিনি শিবপুজোর ছবি পোস্ট করেন। কিন্তু মুসলিম দরদী মমতা হিন্দু দরদী মোদী কেউ তাঁকে ফেরালেন না। এইসব দেখি। আর দেখি সাইকেল চালিয়ে প্রচণ্ড গ্রীষ্মদুপুরে অপেক্ষারত সেই মুসলিম অপরূপ কিশোরকে, তার চুলেও এখন রূপোলী ছাপ। আমরা দেখা হলেই বলি "সব কেমন বদলে গেলো, তাই না রে?"
তীব্র অনভিজাত, অশিক্ষিত, বোধহীন আমাদের এত যুক্তি এত রাজনীতি ছিলোনা, কিন্তু একটা মায়াময় বাংলা ছিলো। সেই বাংলায় আমরা দোল পূর্ণিমায় একসঙ্গে পাড়ার সোনামণিদিদিদের বাড়িতে চৈতন্য মহাপ্রভুর প্রেমকীর্তন শুনতাম। আমরা রাস্তার পাশে ভীড় করে মহরমের জমজমাট তাজিয়া দেখতাম। চিরকেলে বোকা আমি বাড়িতে বায়না করতাম আমার ঈদপুজোর জামা চাই। কাকেই বা আর চীৎকার করে বলবো
" আমাকে তুই আনলি কেনো? ফিরিয়ে নে"
আমি চিরকাল অযুক্তির সঙ্গেই কথা বলেছি। এই আমার নিয়তি। অযুক্তির সঙ্গেই কথা বলতে বলতে একদিন চলে যাবো। আমার আর ভালো লাগছেনা।

শেয়ার করুন


Avatar: Du

Re: মন ভালো নেই

এইমাত্র ইশকজাদে সিনেমাটা দেখে উঠলাম। শেষে দেখালো শুধুমাত্র ভিন্ন ধর্মে ভালোবাসার জন্য প্রতিবছর হাজারের ওপর ছেলেমেয়েকে মরে যেতে হয় এই ভারতবর্ষে !
Avatar: সুতপা

Re: মন ভালো নেই

বিজ্ঞান যখন এগোচ্ছে, রাষ্ট্রযন্ত্রের মাথায় থাকা ধর্মগুরুরা বরং হীরকরাজার মতো আদেশ দিন না, এমন জেনেটিক প্রোগ্রামিং করতে হবে যাতে ধর্ম, জাত সব মিললে তবেই মানুষ প্রেমে পড়ে! না হলে তো এ বিপদে উদ্ধার পাওয়া মুস্কিল! মানুষের চেয়ে যখন মানুষ সৃষ্ট জাত ও ধর্ম বড় হয়ে ওঠে, তখন সভ্যতা সংস্কৃতির অস্তাচলে যাওয়ার সময় হয়েছে অনুমান স্বতঃসিদ্ধ নয় কি?
Avatar: aranya

Re: মন ভালো নেই

কী আর বলব, লিখব.. সময় পাল্টাবে, মানুষ আবার মানুষ হবে, এই আশাটা ছাড়তে ইচ্ছে করে না

Avatar: h

Re: মন ভালো নেই

এট এত কষ্টের একটা লেখা , কিন্তু মানতে পারছি না যে যুক্তি র অভাবে পরম সুখ। ইন ফ্যাক্ট এখন যুক্তির অভাব কে গ্ল্যামারাইজ না করাই ভালো, মন খারাপ হলেও। বাজার তা গা জোয়ারির ফেক নিউজ এর এবং ঢপবাজ সরকারদের।
Avatar: Ankit

Re: মন ভালো নেই



আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন