বিপ্লব রহমান RSS feed

biplobr@gmail.com
বিপ্লব রহমানের ভাবনার জগৎ

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • জবা ফুল গাছ সংশ্লিষ্ট গল্প
    সেদিন সন্ধ্যায় দেখলাম একটা লোক গেইটের কাছে এসে দাঁড়িয়েছে। বয়স আনুমানিক পঞ্চাশের উপরে। মাথায় পাকা চুল, পরনে সাধারণ পোষাক। আমার দিকে চোখ পড়তেই লোকটি এগিয়ে এলো।আমি বারান্দায় ছিলাম। নেমে গিয়ে জিজ্ঞেস করলাম, কাকে চাচ্ছেন?লোকটি নরম কন্ঠে বলল, আমি আপনাদের কয়েক ...
  • আবার কাঠুয়া
    ধর্ষণের মামলায় ফরেন্সিক ডিপার্টমেন্টের মুখ বন্ধ খাম পেশ করা হল আদালতে। একটা বেশ বড় খাম। তাতে থাকার কথা চারটে ছোট ছোট খামে খুন হয়ে যাওয়া মেয়েটির চুলের নমুনা। ঘটনাস্থল থেকে সিট ওই নমুনাগুলো সংগ্রহ করেছিল। সেগুলোর ডি এন এ পরীক্ষাও করেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু ...
  • ওই মালতীলতা দোলে
    ২আহাদে আহমদ হইলমানুষে সাঁই জন্ম নিললালন মহা ফ্যারে পড়ল সিরাজ সাঁইজির অন্ত না পাওয়ায়।এক মনে জমিতে লাঙল দিচ্ছিল আলিম সেখ। দুটি জবরজঙ্গী কালো মোষ আর লোহার লাঙল। অঝোরে বৃষ্টি পড়ছে। আজকাল আর কেউ কাঠের লাঙল ব্যবহার করে না। তার অনেক দাম। একটু দূরে আলিম সেখের ...
  • শো কজের চিঠি
    প্রিয় কমরেড,যদিও তুমি আমার একদা অভিভাবক ছিলে, তবুও তোমায় কমরেড সম্মোধন করেই এই চিঠি লিখছি, কারন এটা সম্পূর্নভাবে রাজনৈতিক চিঠি। এই চিঠির মারফত আমি তোমায় শো কজ জানাচ্ছি। তুমি যে রাজনীতির কথা বলে এসেছো, যে রাজনীতি নিয়ে বেচেছো, যে রাজনীতির স্বার্থে নিজের ...
  • ক্যালাইডোস্কোপ ( ১)
    ক্যালাইডোস্কোপ ১। রোদ এসে পড়ে। ধীরে ধীরে চোখ মেলে মানিপ্যান্টের পাতা। ওপাশে অশ্বত্থ গাছ। আড়াল ভেঙে ডেকে যায় কুহু। ঘুমচোখ এসে দাঁড়ায় ব্যালকনির রেলিং এ। ধীরে ধীরে জেগে ওঠা শহর, শব্দ, স্বরবর্ণ- ব্যঞ্জন; যুক্তাক্ষর। আর শুরু হল দিন। শুরু হল কবিতার খেলা-খেলি। ...
  • শেষ ঘোড়্সওয়ার
    সঙ্গীতা বেশ টুকটাক, ছোটখাটো বেড়াতে যেতে ভালোবাসে। এই কলকাতার মধ্যেই এক-আধবেলার বেড়ানো। আমার আবার এদিকে এইরকমের বেড়ানোয় প্রচণ্ড অনীহা; আধখানাই তো ছুটির বিকেল--আলসেমো না করে,না ঘুমিয়ে, বেড়িয়ে নষ্ট করতে ইচ্ছে করে না। তো প্রায়ই এই টাগ অফ ওয়ারে আমি জিতে যাই, ...
  • পায়ের তলায় সর্ষে_ মেটিয়াবুরুজ
    দিল ক্যা করে যব কিসিসে কিসিকো প্যার হো গ্যয়া - হয়ত এই রকমই কিছু মনে হয়েছিল ওয়াজিদ আলি শাহের। মা জানাব-ই-আলিয়া ( বা মালিকা কিশওয়ার ) এর জাহাজ ভেসে গেল গঙ্গার বুকে। লক্ষ্য দূর লন্ডন, সেখানে রানী ভিক্টোরিয়ার কাছে সরাসরি এক রাজ্যচ্যুত সন্তানের মায়ের আবেদন ...
  • ফুটবল, মেসি ও আমিঃ একটি ব্যক্তিগত কথোপকথন (পর্ব ৩)
    ফুটবল শিখতে চাওয়া সেই প্রথম নয় কিন্তু। পাড়ার মোড়ে ছিল সঞ্জুমামার দোকান, ম্যাগাজিন আর খবরের কাগজের। ক্লাস থ্রি কি ফোর থেকেই সেখানে দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে পড়তাম হি-ম্যান আর চাচা চৌধুরীর কমিকস আর পুজোর সময় শীর্ষেন্দু-মতি নন্দীর শারদীয় উপন্যাস। সেখানেই একদিন দেখলাম ...
  • ইলশে গুঁড়ি বৃষ্টি
    অনেক সকালে ঘুম থেকে আমাকে তুলে দিল আমার ভাইঝি শ্রী। কাকা দেখো “ইলশে গুঁড়ি বৃষ্টি”। একটু অবাক হই। জানিস তুই, কাকে বলে ইলশে গুঁড়ি বৃষ্টি? ক্লাস এইটে পড়া শ্রী তার নাকের ডগায় চশমা এনে বলে “যে বৃষ্টিতে ইলিশ মাছের গন্ধ বুঝলে? যাও বাজারে যাও। আজ ইলিশ মাছ আনবে ...
  • দুখী মানুষ, খড়ের মানুষ
    দুটো গল্প। একটা আজকেই ব্যাংকে পাওয়া, আর একটা বইয়ে। একদম উল্টো গল্প, দিন আর রাতের মতো উলটো। তবু শেষে মিলেমিশে কি করে যেন একটাই গল্প।ব্যাংকের কেজো আবহাওয়া চুরমার করে দিয়ে চিৎকার করছিল নীচের ছবির লোকটা। কখনো দাঁত দিয়ে নিজের হাত কামড়ে ধরছিল, নাহলে মেঝেয় ঢাঁই ...


বইমেলা হোক বা নাহোক চটপট নামিয়ে নিন রঙচঙে হাতে গরম গুরুর গাইড ।

বাংলা ব্লগের অপশব্দসমূহ ~

বিপ্লব রহমান

*সংবিধিবদ্ধ সতর্কীকরণ: বাংলা ব্লগে অনেক সময়ই আমরা যে সব সাংকেতিক ভাষা ব্যবহার করি, তা কখনো কখনো কিম্ভুদ হয়ে দাঁড়ায়। নতুন ব্লগার বা সাধারণের কাছে এসব অপশব্দ পরিচিত নয়। এই চিন্তা থেকে এই নোটে বাংলা ব্লগের কিছু অপশব্দ তর্জমাসহ উপস্থাপন করা হচ্ছে।

বলা ভালো, এটি মোটেই কোনো গূঢ় গবেষণাকর্ম নয়। নিছকই ব্লগাড্ডা মাত্র। তবে রীতিমত প্রাপ্তমনস্কদের জন্য লেখা।

ভাটিয়া৯ র প্রচলিত অপশব্দ যোগ করে নোটটির শ্রীবৃদ্ধির জন্য জনতার কাছে আবেদন রইল।

হ্যাপি ব্লগিং। 😎
---
১। ছাগু = ছাগলের সংক্ষিপ্ত রূপ। একটি বিশেষ গোষ্ঠিকে (যেমন তিন বাহু গং) বোঝায়। মগবাজারকে মক্কা শরীফ মনে করে তারা আমোদিত হয়। মতান্তরে, চাড্ডি, বাছুর, বকনা।

২। হিতা = হিযবুত তাহরীর। মডারেট জঙ্গি ইসলাম ; অধুনা নিষিদ্ধ। তবে নানান ছদ্মবেশে ব্লগে তাদের আনাগোনা আছে।

৩। গদাম! = পশ্চাদে পদাঘাত। সাধারণত ছাগু তাড়াতে প্রযোজ্য।

৪। লাদি = ছাগু/ চাড্ডির পোস্ট বা মন্তব্য।

৫। ম্যাৎকার = ছাগু/ চাড্ডিদের একক বা সম্মিলিত রব।

৬। কাঁঠাল পাতা = ছাগু/চাড্ডি কে আপ্যায়নের (?) ভাষা বিশেষ। ইদানিং উঠেছে, কাঁঠাল পাতার ইমোকটিন যোগ করার।

৭। ধনে পাতা = ধন্যবাদ। মতান্তরে, ধইন্যা, গুরুচণ্ডা৯ তে, ধনযোগ।

৮। হা হা প গে = হাসতে হাসতে পড়ে গেলাম। মতান্তরে, হা হা ম গে = হাসতে হাসতে মরে গেলাম।

৯। রেসিডেন্ট ভাঁড় = রাজ-রাজরার আমলের ভাঁড়দের মতো ব্লগের স্থায়ী বিনোদন হিসেবে পরিচিত বিশেষ প্রজাতির ব্লগার । যেমন, মুখফোড়

১০। মাইনাস = বাজে লেখা বা মন্তব্য বোঝাতে ব্যবহৃত হয়। যেমন, সাবেক ব্লগার ডা . আইজু বলেন, বা-ছা পোস্টে ডাবল মাইনাস! লেখায় এক তাঁরকা চিহ্ন দিলেও মাইনাসই বোঝায়।

১১। তাঁরাইলাম = উত্তম লেখা বা প্রসংশাসূচক মন্তব্য। পাঁচ তাঁরা বা প্লাস চিহ্ন দিয়ে লেখাটিকে সর্বোচ্চ রেটিং করা হয়।

১২। হ = ঠিক তাই।

১৩। ঞঁ! = বলে কি রে! মতান্তরে, কস্কী মমিন?

১৪। উঁ = যখন আর কিছুই বলা যাচ্ছে না। সহব্লগার আরিফ জেবতিক এর প্রবক্তা।

১৫। ছিক! = ছি: কথাটির ভিন্নরূপ। দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

১৬। অশ্লিষ = অশ্লিল লেখা বা মন্তব্য। দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

১৭। কাফি = ব্লগারের অন্তিম পরিনতির উদাহরণ বিশেষ।

১৮। বিপ্লব = লেখায় পাঁচ তাঁরা। মতান্তরে, আপনাকে বিপ্লব।

১৯। চুলকাইতে মুঞ্চায়? = অন্যকে উত্যাক্ত করতে ইচ্ছে করছে কী না, তা বোঝাতে।

২০। আছছালামু আলাইকুম = কহিনুল্লাহ। মতান্তরে, বঙ্গদেশ, সকলে ছহি ছালামতে থাকবেন - ইত্যাদি।

২১। পপকর্ন নিয়ে গ্যালারিতে বসলাম = ব্লগ বিতর্ক উপভোগ করছি, মতান্তরে, মজা দেখছি।

২২। জাঁঝা = উত্তম, লেখা বা মন্তব্য ভালো হয়েছে বোঝাতে।

২৩। সুশীল = অতিশয় আঁতেল অর্থে। যেমন, এই ধেনু যাহ, নইলে ফুল ছুঁড়ে মারবো কিন্তু। অখবা, সুশীল ব্লগ = সাহেব বাবুর বৈঠকখানা বিশেষ।

২৪। লুল বা লুল পুরুষ = বালিকা, নাবালিকা দেখলেই লালা ঝড়ে, এমন ব্লগার। উদাহরণ, এক মহারথী নারীলিপ্সু ব্লগার তার প্রোফাইলে ঘোষণা দেন, সুন্দরী বালিকা পেলে যত্ন করে কামড়ে দেই! ইদানিং ব্লগে 'লুল পুরুষ' ইমোকটিন যোগ করার দাবি উঠেছে।

২৫। সিটিএন = ইয়ের টাইম নাই, কোনো ব্লগারের সঙ্গে বাদানুবাদে না জড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশে তীব্র ঘৃণায় এটি বলা হচ্ছে।

২৬। পিটিএন = পোছার টাইম নাই, কোনো ব্লগারের সঙ্গে বাদানুবাদে না জড়ানোর ইচ্ছা প্রকাশে তীব্র ঘৃণায় এটি বলা হচ্ছে।

২৭। ডিজিএম = দূরে গিয়া মর।

২৮। মফিজ = এলেবেলে ধরণের সাধারণ জন।

২৯। ভাঁজ খুইল্যা গেছে = আসল রূপ ধরা পড়েছে।

৩০। বাঁচাও কালা কুদ্দুস = ছেঁড়ে দে মা কেঁদে বাঁচি -- এমন অর্থে। সাধারণতা উল্টো-পাল্টা মন্তব্য দেখলে এটি ব্যবহার করা হয়। সহব্লগার কারিমাট এর প্রবক্তা।

৩১। বুথে আয় বায়তুল = আবেগ সামাল দিন। লেখা বা মন্তব্যে মাত্রাতিরিক্ত আবেগের রাশ টেনে ধরতে বলা হচ্ছে।

৩২। চ্রম = চরম শব্দটির অপভ্রংশ। যেমন, চ্রম হৈছে -- বলতে লেখা বা মন্তব্যটি অসাধারণ হয়েছে বোঝায়।

৩৩। জটিল = খুব ভালো, মতান্তরে জট্টিল বা জটিলস = খুব ভালো লেখা বা মন্তব্য, এমন বোঝাতে।

৩৪। খ্যাক খ্যাক = হাসি, দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

৩৫। খিকজ = হাসি, দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

৩৬। অহম = গলা খাক্কারী, দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

৩৭। বিয়াফক = ব্যাপক, বেশ হয়েছে -- এমন বোঝাতে।

৩৮। মুঞ্চায় = মন চায়, মন চাইছে -- অর্থে। মতান্তরে, মন্‌চায়।

৩৯। কোবতে = কবিতা, দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

৪০। ভাদা = ভারতের দালাল।

৪১। পৈতা টেষ্ট = ভারতের দালাল সনাক্তের ব্লগীয় পরীক্ষা।

৪২। পাদা = পাকিস্তানী দালাল।

৪৩। কিপিটাপ = কিপ ইট আপ, চলুক -- এমন বোঝাতে।

৪৪। কস্কী মমিন? = বলে কি রে!

৪৫। আলু পোড়া = মজা দেখতে আসা, যেমন, এই পোস্টে কী আলু পোড়া খাইতে আইছেন?

৪৬। ব্লগাইতাছি = ব্লগিং করছি।

৪৭। কট = ধরা খাওয়া।

৪৮। জোশিলা হৈছে = খুব ভাল হয়েছে, এমন বোঝাতে।

৪৯। মডু = মডারেটর।

৫০। সঞ্জু = সঞ্চালক।

৫১। আমু = আমারব্লগ ডটকম।

৫২। সামু = সামহোয়ার ইনব্লগ ডটনেট।

৫৩। সচু = সচলায়তন ডটকম।

৫৪। আলু = প্রথমআলো ব্লগ ডটকম।

৫৫। নাগু ব্লগ = নাগরিক ব্লগ ডটকম।

৫৬। টেকি = টেকনোলজি।

৫৭। টেকি কানা = প্রযুক্তি বিষয়ক অজ্ঞ।

৫৮। ফেকি = ফেক নিক বা ভূয়া নামের ব্লগার।

৫৯। গিলমান = নির্লজ্জ জামাতি সমর্থক।

৬০। খুব খিয়াল কৈরা = ভাল করে পড়ুন বা লক্ষ্য করুন -- এমন বোঝাতে।

৬১। সেরাম হৈছে = সেই রকম হয়েছে, খুব ভালো হয়েছে -- এমন অর্থে।

৬২। ওয়েটান = আপেক্ষা করেন।

৬৩। থাপ্রামু = থাপ্পড় দেব।

৬৪। হুঁদাই = অযথায়।

৬৫। কেপি টেষ্ট = কাঁঠাল পাতা পরীক্ষা।

৬৬। কমেন্টানো = মন্তব্য করা।

৬৭। ডট ( . ) = আইকিউ।

৬৮। প্লাচানো = প্লাস দেওয়া, মতান্তরে যোগাইলাম।

৬৯। দেক্তারেন = দেখতে পারেন।

৭০। কাগুরে চা চু দে = সহব্লগারকে সম্ভাষণ জানাতে বলা হচ্ছে।

৭১। ইনপুট কাঁঠাল পাতা আউটপুট লাদি = পুরোটাই বাজে লেখা বা মন্তব্য।

৭২। হরিদাস পাল = এলেবেলে ধরণের ব্লগার বোঝাতে, সাবেক ব্লগার ডা. আইজুদ্দীন যেমন বলেন, ব্লগ ভরিয়া গেলো হরিদাস পালে। গুরুচণ্ডা৯ তে হরিদাস পালেরাই চালিকা শক্তি। 💔

৭৩। ভুকে আয় ভাভুল = তীব্র সহমত প্রকাশে ব্যাবহার করা হয়।

৭৪। বা * ছা *= সারবত্বা হীন লেখা বা মন্তব্য, সহব্লগার ডা . আইজু এটি প্রায়ই ব্যবহার করেন।

৭৫। বাঙ্গী ফাটানো = অসাধারণ লেখা বা মন্তব্য।

৭৬। ছাইয়া = ছেলে হয়েও মেয়ের নিক ধারণকারী ব্লগার।

৭৭। খুদাপেজ = খোদা হাফেজ, দুষ্টুমী করে বলা হচ্ছে।

---
(চলবে?) 😜

শেয়ার করুন


Avatar: প্রতিভা

Re: বাংলা ব্লগের অপশব্দসমূহ ~

দারুণ ইন্টারেস্টিং। এপার বাংলাতেও এইধরণের শব্দচয়ন হোক।
Avatar: b

Re: বাংলা ব্লগের অপশব্দসমূহ ~

বাঙ্গী মানে এদ্যাশে যারে ফুটি কয়? (রেফঃ ৭৫)
Avatar: বিপ্লব রহমান

Re: বাংলা ব্লগের অপশব্দসমূহ ~

হ, তাই তো। 😎

[সুধীজন, মাফ করবেন], আবার পেছন থেকে মিলনকেও অপভাষায় ওই "বাংগি ফাটানো"ই বলে!

আপ্নেরে ধইন্যা! 💔


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন