Muhammad Sadequzzaman Sharif RSS feed

Muhammad Sadequzzaman Sharifএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • আমার প্রতিবাদের শাড়ি
    আমার প্রতিবাদের শাড়িসামিয়ানা জানেন? আমরা বলি সাইমানা ,পুরানো শাড়ি দিয়ে যেমন ক্যাথা হয় ,গ্রামের মেয়েরা সুচ সুতো দিয়ে নকশা তোলে তেমন সামিয়ানাও হয় । খড়ের ,টিনের বা এসবেস্টাসের চালের নিচে ধুলো বালি আটকাতে বা নগ্ন চালা কে সভ্য বানাতে সাইমানা টানানো আমাদের ...
  • টয়লেট - এক আস্ফালনগাথা
    আজ ১৯শে নভেম্বর, সলিল চৌধুরী র জন্মদিন। ইন্দিরা গান্ধীরও জন্মদিন। ২০১৩ সাল অবধি দেশে এটি পালিত হয়েছে “রাষ্ট্রীয় একতা দিবস” বলে। আন্তর্জাতিক স্তরে গুগুল করলে দেখা যাচ্ছে এটি আবার নাকি International Men’s Day বলে পালিত হয়। এই বছরই সরকারী প্রচারে জানা গেল ...
  • মার্জারবৃত্তান্ত
    বেড়াল অনেকের আদরের পুষ্যি। বেড়ালও অনেককে বেশ ভালোবাসে। তবে কুকুরের প্রভুভক্তি বা বিশ্বাসযোগ্যতা বেড়ালের কাছে আশা করলে দুঃখ লাভের সম্ভাবনা আছে। প্রবাদ আছে কুকুর নাকি খেতে খেতে দিলে প্রার্থনা করে, আমার প্রভু ধনেজনে বাড়ুক, পাতেপাতে ভাত পড়বে আমিও পেটপুরে ...
  • বসন্তবৌরী
    বিল্টু তোতা বুবাই সবাই আজ খুব উত্তেজিত। ওরা দেখেছে ছাদে যে কাপড় শুকোতে দেয়ার একটা বাঁশ আছে সেখানে একটা ছোট্ট সবুজ পাখি বাসা বেঁধেছে। কে যেন বললো এই ছোট্ট পাখিটার নাম বসন্তবৌরী। বসন্তবৌরী পাখিটি আবার ভারী ব্যস্তসমস্ত। সকাল বেলা বেরিয়ে যায়, সারাদিন কোথায় ...
  • সামান্থা ফক্স
    সামান্থা ফক্সচুপচাপ উপুড় হয়ে শুয়ে ছবিটার দিকে তাকিয়েছিলাম। মাথায় কয়েকশো চিন্তা।হস্টেলে মেস বিল বাকি প্রায় তিন মাস। অভাবে নয়,স্বভাবে। বাড়ি থেকে পয়সা পাঠালেই নেশাগুলো চাগাড় দিয়ে ওঠে। গভীর রাতের ভিডিও হলের চাম্পি সিনেমা,আপসু রাম আর ফার্স্ট ইয়ার কোন এক ...
  • ইংরাজী মিডিয়ামের বাংলা-জ্ঞান
    বাংলা মাধ্যম নাকি ইংরাজী মাধ্যম ? সুবিধা কি, অসুবিধাই বা কি? অনেক বিনিদ্র রজনী কাটাতে হয়েছে এই সিদ্ধান্ত নিতে! তারপরেও সংশয় যেতে চায় না। ঠিক করলাম, না কি ভুলই করলাম? উত্তর একদিন খানিক পরিস্কার হল। যেদিন একটি এগার বছরের আজন্ম ইংরাজী মাধ্যমে পড়া ছেলে এই ...
  • রুশ বিপ্লবের ইতিহাস
    রুশ বিপ্লবের ইতিহাসরাশিয়ায় শ্রমিকশ্রেণির নেতৃত্বে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখলের বিষয়টিকেই বলা হয় রুশ বিপ্লব। ১৯১৭ সালের ৭ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত ‘দুনিয়া কাঁপানো দশদিন’ সময়পর্বের মধ্যে এই বিপ্লবের চূড়ান্ত পর্বটি সংগঠিত হয়েছিল।অবশ্য দুনিয়া কাঁপানো এই দশ ...
  • হিজিবিজি
    শীত আসছে....মানে কোলকাতার শীত আর কি। কোলকাতার বাইরে সব্বাই শুনে যাকে খিল্লি করে সেই শীত। অবশ্য কোলকাতার সব কিছু নিয়েই তো তামাশা চলে আজকাল, গরীব আত্মীয় বড়লোকের ড্রয়িংরুমে যেমন। তাও কাঁথার আরামের মতোই কোলকাতার মায়া জড়িয়ে রাখে, বড় মায়া হে এ শহর ছাড়িয়ে মাঠ ...
  • আমার কালী....... আমিও কালী
    কালী ঠাকুরে আমার খুব ভয়। গলায় মুন্ডমালা,হাতে একটা কাটা মুন্ডু থেকে রক্ত ঝরে পড়ছে, একটা হাড় জিরজিরে শেয়াল তা চেটে চেটে খাচ্ছে, হাতে খাঁড়া, কালো কুস্টি, এলো চুল,উলঙ্গ দেহ, সেই ছোট বেলায় মন্ডপে দেখে এমন ভয় পেয়েছিলাম সেই ভয় আমার আজও যায়নি। আর আমার এই কালী ...
  • নভেম্বর ২০১৭
    ষাট বা সত্তর সম্পর্কে প্রত্যক্ষজ্ঞান নেই, তবে আশির দশক মোটামুটিভাবে ছিল শ্রেণীসংগ্রামের যুগ। মানে ভারতের বামঘরানার লোকজনের চিন্তনে। ফ্রান্সে ১৯৬৮ সালের বিপ্লব প্রচেষ্টা তখন অতীত। সেসব উত্তাল সময়ে অদ্ভুত তত্ত্বের জন্ম হয়েছে জানা ছিল। কিন্তু সেগুলো খায় না ...

বাংলাদেশে ফেসবুক বন্ধের জন্য আকুল আবেদন !!

Muhammad Sadequzzaman Sharif

বাংলাদেশে ফেসবুক বন্ধের জন্য আকুল আবেদন জানাচ্ছি। আমরা আসলে তৈরি না এই ধরনের মাধ্যমের জন্য। বিশাল জনগোষ্ঠী শিক্ষার নামে আল্লাই জানে কি শিখে শিক্ষিত হচ্ছে। তথাকথিত শিক্ষিতদের বাহিরে আরও আছে আরও বিশাল আরেক অশিক্ষিত সমাজ। যাদের কাছে সব চেয়ে বড় জ্ঞানী হচ্ছে এলাকার লম্বা দাড়ি আর টাকনুর উপরে পায়জামা পড়া মসজিদের ইমাম সাহেব। এদের সবার হাতেই ফেসবুক। এইটা আসলে কি, খায় না মাথায় দেয় তার সম্পর্কে বিন্দু মাত্র ধারনা না থাকা সত্যেও এই বিশাল জনগোষ্ঠী এই মাধ্যম ব্যবহার করে চলছে। আর তাদের খেসারত দিতে হচ্ছে সমাজের এমন এক শ্রেণী যাদের কোন ধারনাই নেই ফেসবুক নামের এই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম দিয়ে আসলে কি হয়। তারা হয়ত এর নামও শুনেনি এই জীবনে। অথচ খেসারত দিচ্ছে হুট করে নিমিষের মধ্যে সর্বশান্ত হয়ে।

ফেসবুকে টিটু রায় নামের এক ব্যাক্তি কি কি পোস্ট করছে আর তাতে ইসলাম নামক ধর্মের সমস্ত আগল খুলে পরে গেলো। মুসলিম নামক যে জাতি আছে এই দেশের তাদের আজব এক যে অনুভূতি আছে তাতে প্রচণ্ড আঘাত লাগলো।যদি সত্যই কোন ধর্মের মান সম্মান অন্যের ফেসবুক পোস্টের উপরে নির্ভর করে তাহলে সেই ধর্ম কে বাঁচানোর মনে হয় আর কোন উপায় থাকে না। টিটুর নামে মামলা করা হলো কিন্তু মামলা করে ধর্মের যে ক্ষতি হয়েছে তা সম্ভবত পূরণ হলো না। আজ শুক্রবার, জুম্মাবার, জুম্মা নামাজের পরে আমার প্রাণ প্রিয় মুসলিম ভাইয়েরা এক হয়ে যা ক্ষতি হয়েছে তা পুরনের চেষ্টা করেছে, এবার পথ একটু ভিন্ন। টিটু রায়ের বাড়িতে আগুন। আগুনে টিটু রায়ের তিনটি ঘর পুড়ে ফিনিশ। কিন্তু এতেও ধর্মের যে অপমান হয়েছে তার কিছু মাত্র শোধ হয় না। আর তাই আমার ভাইয়েরা ঝাপিয়ে পড়ল টিটু রায়ের আসেপাসের বাড়ির উপরে।তাদের অপরাধ তাদের বাড়ি টিটু রায়ের বাড়ির পাসে, এর চেয়ে বড় অপরাধ আর কি হত পারে এই দেশে? ফলাফল টিটু রায়ের তিনটি ঘর ছাড়াও সুধীর রায়ের ছয়টি ঘর, অমূল্য রায়ের দুটি ঘর, বিধান রায়ের দুটি ঘর, কৌশল্ল রায়ের দুটি, কুলীন রায়ের একটি, ক্ষীরোদ রায়ের একটি, দীনেশ রায়ের একটি ঘর মোট সাতটি বাড়ির ১৫টা ঘর পুড়ে ফিনিশ!!! এতে ধর্মের যে অপমান হয়েছে, যে ক্ষতি হয়ে গেছে তা পূরণ হয়ে গেছে কিনা তা এখনো জিহাদি ভাইয়েরা কাওকে জানায়নি বা কোন সংবাদ মাধ্যমেও প্রকাশ হয়নি। তবে টিটু রায়ের ঘরে সামনে আহাজারি করতে করতে তাঁর মা জিতেন বালা, ‘আমরা কিছুই জানি না। কেন আমাদের বাড়িঘরে আগুন দেওয়া হলো। এখন আমি কেমন করিয়া বাস করব।’ ধরনের কথা বলেছে বলে প্রথম আলো প্রকাশ করেছে। তবে আনুমান করা যায় সম্ভত জিহাদি ভাইদের জিহাদি জোশ সহজে যেতে চাইনি। পুলিশের সাথে সংঘাতে এগারো জন আহত এবং এক জিহাদি ভাই মারা যাওয়ার পর তারা নিজ নিজ ডেরায় ফিরে গেছে।

তো, এই দেশে আমি ফেসবুক দিয়ে কি করব? খুব কি জরুরি ফেসবুক আমার দেশে? অমূল্য রায়ের ঘরের টিনের চালা থেকে কি জরুরি ফেসবুক আমার দেশে? যে বৃদ্ধা আহাজারি করেছে তার সব শেষ হয়ে গেছে বলে, তার চোখের জলের থেকে কি বেশি দামি ফেসবুক বাংলাদেশে? আমরা এক অসভ্য সময়ের অসভ্য জাতি, কোন দিন যদি সভ্য হতে পারি, কোনদিন যদি মানুষের আহাজারির মূল্য বুঝতে পারি, কোন দিন যদি সব হারানোর ব্যাথা অনুভব করতে পারি, যদি এমন দিন আসে যেদিন ধর্মের আগে মানুষ মানুষ কে চিনবে। যদি এমন দিন আসে সেদিন আমরা আবার সভ্য সমাজে মুখ দেখব, ফেসবুক, টুইটার ইচ্ছামত চলাব। অশিক্ষিত জনগোষ্ঠীর কাছে আমার চাওয়ার কিচ্ছু নাই আর।


Avatar: utpal mitra

Re: বাংলাদেশে ফেসবুক বন্ধের জন্য আকুল আবেদন !!

সবার যদি এই বিচার বোধ থাকতো
Avatar: de

Re: বাংলাদেশে ফেসবুক বন্ধের জন্য আকুল আবেদন !!

এই খবর গুলো উঠে আসাও জরুরী! মেইনস্ট্রীম মিডিয়া এসব খবর চেপে যায়!


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন