Muhammad Sadequzzaman Sharif RSS feed

Muhammad Sadequzzaman Sharifএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • আমার প্রতিবাদের শাড়ি
    আমার প্রতিবাদের শাড়িসামিয়ানা জানেন? আমরা বলি সাইমানা ,পুরানো শাড়ি দিয়ে যেমন ক্যাথা হয় ,গ্রামের মেয়েরা সুচ সুতো দিয়ে নকশা তোলে তেমন সামিয়ানাও হয় । খড়ের ,টিনের বা এসবেস্টাসের চালের নিচে ধুলো বালি আটকাতে বা নগ্ন চালা কে সভ্য বানাতে সাইমানা টানানো আমাদের ...
  • টয়লেট - এক আস্ফালনগাথা
    আজ ১৯শে নভেম্বর, সলিল চৌধুরী র জন্মদিন। ইন্দিরা গান্ধীরও জন্মদিন। ২০১৩ সাল অবধি দেশে এটি পালিত হয়েছে “রাষ্ট্রীয় একতা দিবস” বলে। আন্তর্জাতিক স্তরে গুগুল করলে দেখা যাচ্ছে এটি আবার নাকি International Men’s Day বলে পালিত হয়। এই বছরই সরকারী প্রচারে জানা গেল ...
  • মার্জারবৃত্তান্ত
    বেড়াল অনেকের আদরের পুষ্যি। বেড়ালও অনেককে বেশ ভালোবাসে। তবে কুকুরের প্রভুভক্তি বা বিশ্বাসযোগ্যতা বেড়ালের কাছে আশা করলে দুঃখ লাভের সম্ভাবনা আছে। প্রবাদ আছে কুকুর নাকি খেতে খেতে দিলে প্রার্থনা করে, আমার প্রভু ধনেজনে বাড়ুক, পাতেপাতে ভাত পড়বে আমিও পেটপুরে ...
  • বসন্তবৌরী
    বিল্টু তোতা বুবাই সবাই আজ খুব উত্তেজিত। ওরা দেখেছে ছাদে যে কাপড় শুকোতে দেয়ার একটা বাঁশ আছে সেখানে একটা ছোট্ট সবুজ পাখি বাসা বেঁধেছে। কে যেন বললো এই ছোট্ট পাখিটার নাম বসন্তবৌরী। বসন্তবৌরী পাখিটি আবার ভারী ব্যস্তসমস্ত। সকাল বেলা বেরিয়ে যায়, সারাদিন কোথায় ...
  • সামান্থা ফক্স
    সামান্থা ফক্সচুপচাপ উপুড় হয়ে শুয়ে ছবিটার দিকে তাকিয়েছিলাম। মাথায় কয়েকশো চিন্তা।হস্টেলে মেস বিল বাকি প্রায় তিন মাস। অভাবে নয়,স্বভাবে। বাড়ি থেকে পয়সা পাঠালেই নেশাগুলো চাগাড় দিয়ে ওঠে। গভীর রাতের ভিডিও হলের চাম্পি সিনেমা,আপসু রাম আর ফার্স্ট ইয়ার কোন এক ...
  • ইংরাজী মিডিয়ামের বাংলা-জ্ঞান
    বাংলা মাধ্যম নাকি ইংরাজী মাধ্যম ? সুবিধা কি, অসুবিধাই বা কি? অনেক বিনিদ্র রজনী কাটাতে হয়েছে এই সিদ্ধান্ত নিতে! তারপরেও সংশয় যেতে চায় না। ঠিক করলাম, না কি ভুলই করলাম? উত্তর একদিন খানিক পরিস্কার হল। যেদিন একটি এগার বছরের আজন্ম ইংরাজী মাধ্যমে পড়া ছেলে এই ...
  • রুশ বিপ্লবের ইতিহাস
    রুশ বিপ্লবের ইতিহাসরাশিয়ায় শ্রমিকশ্রেণির নেতৃত্বে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখলের বিষয়টিকেই বলা হয় রুশ বিপ্লব। ১৯১৭ সালের ৭ নভেম্বর থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত ‘দুনিয়া কাঁপানো দশদিন’ সময়পর্বের মধ্যে এই বিপ্লবের চূড়ান্ত পর্বটি সংগঠিত হয়েছিল।অবশ্য দুনিয়া কাঁপানো এই দশ ...
  • হিজিবিজি
    শীত আসছে....মানে কোলকাতার শীত আর কি। কোলকাতার বাইরে সব্বাই শুনে যাকে খিল্লি করে সেই শীত। অবশ্য কোলকাতার সব কিছু নিয়েই তো তামাশা চলে আজকাল, গরীব আত্মীয় বড়লোকের ড্রয়িংরুমে যেমন। তাও কাঁথার আরামের মতোই কোলকাতার মায়া জড়িয়ে রাখে, বড় মায়া হে এ শহর ছাড়িয়ে মাঠ ...
  • আমার কালী....... আমিও কালী
    কালী ঠাকুরে আমার খুব ভয়। গলায় মুন্ডমালা,হাতে একটা কাটা মুন্ডু থেকে রক্ত ঝরে পড়ছে, একটা হাড় জিরজিরে শেয়াল তা চেটে চেটে খাচ্ছে, হাতে খাঁড়া, কালো কুস্টি, এলো চুল,উলঙ্গ দেহ, সেই ছোট বেলায় মন্ডপে দেখে এমন ভয় পেয়েছিলাম সেই ভয় আমার আজও যায়নি। আর আমার এই কালী ...
  • নভেম্বর ২০১৭
    ষাট বা সত্তর সম্পর্কে প্রত্যক্ষজ্ঞান নেই, তবে আশির দশক মোটামুটিভাবে ছিল শ্রেণীসংগ্রামের যুগ। মানে ভারতের বামঘরানার লোকজনের চিন্তনে। ফ্রান্সে ১৯৬৮ সালের বিপ্লব প্রচেষ্টা তখন অতীত। সেসব উত্তাল সময়ে অদ্ভুত তত্ত্বের জন্ম হয়েছে জানা ছিল। কিন্তু সেগুলো খায় না ...

সিনামা রিভিউ - "মুহাম্মদ" ম্যাসেঞ্জার অফ গড

Muhammad Sadequzzaman Sharif

বহু সাধ্য সাধনার পর দেখার সুযোগ পেলাম ইরানি পরিচালক মাজিদ মাজিদির ঐতিহাসিক চলচিত্র “মুহাম্মদ।” মাজিদ মাজিদি হচ্ছে সেই সব পরিচালকদের একজন যার চলচিত্র শেষ পর্যন্ত আর চলচিত্র থাকে না অন্য কিছু হয়ে যায়, দামি শিল্পকর্মের মত কিছু। মাজিদ মাজিদির চিল্ড্রেন অফ হেভেন কেউ না দেখে থাকলে তা আমার মতে পাপের পর্যায় পরে। আর তার কালার অফ প্যারাডাইজ কিংবা সং অফ স্প্যারো জাস্ট মধু।
মহানবী কে নিয়ে ছবি বানানো একটা দুঃসাহসিক কাজ নিঃসন্দেহে। কিন্তু তিনি তা করে দেখিয়েছেন। মহানবীর জীবনী নিয়ে ট্রিলজি বানাবেন তিনি। আর এটা হচ্ছে তার প্রথম পর্ব। এই পর্বে উনার জন্ম থেকে ১৩ বছর বয়স পর্যন্ত দেখানো হয়েছে। ৫০ মিলিয়ন ডলার খরচ করে বানানো এই ছবি হচ্ছে ইরানের সব চেয়ে ব্যয় বহুল সিনামা।

মুসলিম ধর্মীয় বিশ্বাস কে এতটুকুও আঘাত না করে ছবিটা বানানোর চেষ্টা করা হয়েছে। মহানবীর মুখ একবারের জন্যও দেখানো হয় নাই পুরো ছবিতে। শিশু মহাম্মদের চেহারাও দেখানো হয় নাই কোথাও। পিছন থেকে বা সাইড থেকে দেখানো হয়েছে, চুল দেখানো হয়েছে, পা দেখানো হয়েছে। পরিচালক উনার প্রতি সম্মান রেখে কে বা কোন শিশু মহানবীর চরিত্রে কাজ করেছে তার নাম পর্যন্ত কোথাও প্রকাশ করেন নাই। শুটিং চলাকালে কঠোর ভাবে সাংবাদিকদের কে দূরে রাখা হয়েছিল শুটিং স্পট থেকে।
মহানবীর জীবনী অন্য বিষয়। কম বেশি সবারই জানা। এই ছবির মূল আকর্ষণ হচ্ছে ৫৭০ খ্রিস্টাব্দ কে জীবন্ত করে তুলে আনা। যে বিশাল খরচ পরিচালক করেছেন তার বেশির ভাগ এর সেটের পিছনেই খরচ হয়েছে। একদম শুরুর মক্কা নগরী কিংবা কাবা শরীফ কে চোখের সামনে এনে হাজির করেছেন তিনি। সিনেমাটোগ্রাফি ছিল অসাধারণ, পরিচালকের কেরামতি খুব ভাবেই প্রতিফলিত হয়েছে সিনামা জুড়ে। এই ছবির প্রান হচ্ছে এর আবহসঙ্গীত। প্রিয় এ আর রহমান দারুন কাজ করেছেন ছবিতে। তৎকালীন সময়ের সঙ্গীত তৈরি করতে মোটামুটি ভাল প্রস্তুতি যে নিতে হয়েছিল তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

ইরানে এই ছবিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে আরবের অনেক দেশেই। বিভিন্ন ফতুয়া দেওয়া হয়েছে এই ছবির বিরুদ্ধে। বিভিন্ন ইসলামিক স্কলার বিভিন্ন মতামত দিয়েছে। তারা অবশ্য এর আগে নানা চমৎকার চমৎকার মতামত দিয়ে দিয়ে আমাদের কে এর আগে মুগ্ধ করেছে অনেক বার। কাজেই তাদের নিয়ে মাথা ব্যাথা নেই আমার। আপনি যদি পাপ হয়ে যাওয়ার ভয়ে এই ছবি না দেখতে চান দেইখেন না। সিনামাটাকে সিনামা হিসেবে দেখলেই আমার মনে হয় আর সমস্যা থাকে না। আমি সে ভাবেই দেখেছি। মহানবীর জীবনী মনে করে দেখি নাই। এটা একটা সিনামা যেখানে একজন মহাপুরুষের শৈশব কে খুব সুন্দর করে উপস্থাপন করা হয়েছে। আমি মুগ্ধ হয়ে পরিচালকের মুনশিয়ানা দেখেছি, দেখেছি তৎকালীন আরবের সংস্কৃতি,তাদের জীবন যাপন। এই ছবি নিয়ে এ আর রহমান ভারতে প্রবল প্রতিবাদের মুখোমুখি হয়েছিলেন। তখন তিনি এর জবাবে একটা কথা বলেছিলেন, সেটাই বরং শেয়ার করি, তিনি বলেছিলেন, “আপনরা আমাকে মহানবীর জীবনী নিয়ে তৈরি সিনামাতে সঙ্গীত দেওয়ার জন্য গালিগালাজ করছেন, কিন্তু পরকালে আল্লাহ যদি উল্টা আমাকে জিজ্ঞাস করে, আমি তোমাকে মেধা দিয়ে ছিলাম, আমার রসূলের নামে এত সুন্দর একটা কাজ হলো, তোমাকে তাতে কাজ করার জন্য বলাও হল তুমি করলে না কেন? আমি তখন কি জবাব দিব খোদার কাছে?” আপনিও চিন্তা করুন, কি জবাব দিবেন তখন?

ইংরেজি সাব টাইটেল দিয়ে দেখতে হয়েছে এই ছবি, যা এর রস আস্বাদন করতে বাঁধা স্বরূপ ছিল। আর এত্ত কুৎসিত ইংরেজি সাব টাইটেলও আমি আমার জীবনে দেখি নাই। আমার কাছে মনে হয়েছে সাব টাইটেলের নামে ইয়ার্কি করেছে কেউ। আমাদের জন্য এই একটা খারাপ দিক এই ছবির।


Avatar: শঙ্খ

Re: সিনামা রিভিউ - "মুহাম্মদ" ম্যাসেঞ্জার অফ গড

পাইসি, কিন্তু হালারা তুর্কিতে কপি বানাইসে। লিপসিঙ্ক হইতেছে না, আর ব্যাকগ্রাউন্ড স্কোরের 'post' মারা গ্যাসে। (https://www.facebook.com/photo.php?fbid=326345351152090&set=gm.1792855187399086&type=3)
Avatar: pi

Re: সিনামা রিভিউ - "মুহাম্মদ" ম্যাসেঞ্জার অফ গড

এটা দেখতে হবে তো, গানগুলোও শুনতে। গান ছড়া আর কোন গ্রাউণ্ডে আটকাল?

আর এটা জব্বর। এর কোন উত্তর এসেছিল? ঃ)

ঃ“আপনরা আমাকে মহানবীর জীবনী নিয়ে তৈরি সিনামাতে সঙ্গীত দেওয়ার জন্য গালিগালাজ করছেন, কিন্তু পরকালে আল্লাহ যদি উল্টা আমাকে জিজ্ঞাস করে, আমি তোমাকে মেধা দিয়ে ছিলাম, আমার রসূলের নামে এত সুন্দর একটা কাজ হলো, তোমাকে তাতে কাজ করার জন্য বলাও হল তুমি করলে না কেন? আমি তখন কি জবাব দিব খোদার কাছে?” আপনিও চিন্তা করুন, কি জবাব দিবেন তখন?'
Avatar: d

Re: সিনামা রিভিউ - "মুহাম্মদ" ম্যাসেঞ্জার অফ গড

বেশ রিভিউ। পেলে দেখবো।

ইয়ে, "ফতুয়া" দেওয়া হয়েছে না "ফতোয়া" দেওয়া হয়েছে? ফতুয়া তো সেই ঢোলা জামা, গরমকালে পরে।
Avatar: dc

Re: সিনামা রিভিউ - "মুহাম্মদ" ম্যাসেঞ্জার অফ গড

ইরান এ এই ছবি নিষিদ্ধ হয়নি বলেই জানি । মূলত আরব দেশগুলো যেগুলো সুন্নি প্রধান মুসলমান মতাবলম্বী সেই দেশগুলোতে ছবিটি নিষিদ্ধ বা আপত্তিকর ।
Avatar: Muhammad Sadequzzaman Sharif

Re: সিনামা রিভিউ - "মুহাম্মদ" ম্যাসেঞ্জার অফ গড

কিছু ভুল আছে। কিন্তু আমি জানি না কিভাবে এডিট করে ভুল গুলো কে ঠিক করা যাবে। ছবিটা ইরানে নিষিদ্ধ হয় নাই। বরং ওই বছর তাদের অস্কার জন্য পাঠানো সিনামা ছিল এইটা। আল আজহার থেকে ইরান কে অনুরোধ করা হয়েছিল ছবিটা যেন ইরান নিষিদ্ধ করে কিন্তু ইরান তা করে নাই।
এর একটা অসাধারণ সাউন্ড ট্র্যাকের লিংক দিচ্ছি, শুনে মন জুড়ান -


https://www.youtube.com/watch?v=AWvDnaCHKxA


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন