Prativa Sarker RSS feed

Prativa Sarkerএর খেরোর খাতা।

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • লড়িয়ে দেবেন না, প্লিজ
    পদ্মাবতী ডিবেটের সূত্রে একটা কথা চার পাশে শোনা যাচ্ছে, যে এ সব পদ্মাবতী ইত্যাদি দেশের আসল ইস্যু নয়। এই মুহূর্তে দিল্লির কৃষক বিক্ষোভটাই দেশের সমস্যা, সেখান থেকে নজর ঘোরাতেই রাষ্ট্র ও মিডিয়া পদ্মাবতীর মত উল্টোপাল্টা ফিল্মি ইস্যু বানানোর কারসাজি করছে। আমি ...
  • আজকের নাটক -পদ্মাবতী
    পরের পর নাটক আসতেই থাকে আজকাল। গল্প সাধারণ, একটা জনগোষ্ঠীর গরিষ্ঠ অংশের অহংকে সুড়সুড়ি দেওয়া প্লট। তাদের বোঝান যে বাকিরা ও তাদের পূর্বপুরুষেরা লুঠতরাজ করে তোমাদের লাট করে দিয়েছিল, আজই সময় হয়েছে বদলা নিয়ে নাও, নয়ত কাল আবার ওরা তোমাদের শেষ করে দেবে। এই নাটক ...
  • বেশ্যাদ্বার
    বেশ্যাদ্বার (প্রথম পর্ব)প্রসেনজিৎ বসুরামচন্দ্র দুর্গাপুজো করছেন। রাবণবধের জন্য। বানরসেনা নানা জায়গা থেকে পুজোর বিপুল সামগ্রী জোগাড় করে এনেছে। রঘুবীর পুজো শুরু করেছেন। ষষ্ঠীর বোধন হয়ে গেছে। চলছে সপ্তমীর মহাস্নান। দেবীস্বরূপা সুসজ্জিতা নবপত্রিকাকে একেকটি ...
  • অন্য পদ্মাবতী
    রাজা দেবপালের সহিত দ্বন্দ্বযুদ্ধে রানা রতন সিংয়ের পরাজয় ও মর্মান্তিক মৃত্যুর সংবাদ রাজপুরীতে পঁহুছানোমাত্র সমগ্র চিতোরনগরীতে যেন অন্ধকার নামিয়া আসিল। হায়, এক্ষণে কে চিতোরের গরিমা রক্ষা করিবে? কেই বা চিতোরমহিষী পদ্মাবতীকে শত্রুর কলুষ স্পর্শ হইতে বাঁচাইবে? ...
  • আমার প্রতিবাদের শাড়ি
    আমার প্রতিবাদের শাড়িসামিয়ানা জানেন? আমরা বলি সাইমানা ,পুরানো শাড়ি দিয়ে যেমন ক্যাথা হয় ,গ্রামের মেয়েরা সুচ সুতো দিয়ে নকশা তোলে তেমন সামিয়ানাও হয় । খড়ের ,টিনের বা এসবেস্টাসের চালের নিচে ধুলো বালি আটকাতে বা নগ্ন চালা কে সভ্য বানাতে সাইমানা টানানো আমাদের ...
  • টয়লেট - এক আস্ফালনগাথা
    আজ ১৯শে নভেম্বর, সলিল চৌধুরী র জন্মদিন। ইন্দিরা গান্ধীরও জন্মদিন। ২০১৩ সাল অবধি দেশে এটি পালিত হয়েছে “রাষ্ট্রীয় একতা দিবস” বলে। আন্তর্জাতিক স্তরে গুগুল করলে দেখা যাচ্ছে এটি আবার নাকি International Men’s Day বলে পালিত হয়। এই বছরই সরকারী প্রচারে জানা গেল ...
  • মার্জারবৃত্তান্ত
    বেড়াল অনেকের আদরের পুষ্যি। বেড়ালও অনেককে বেশ ভালোবাসে। তবে কুকুরের প্রভুভক্তি বা বিশ্বাসযোগ্যতা বেড়ালের কাছে আশা করলে দুঃখ লাভের সম্ভাবনা আছে। প্রবাদ আছে কুকুর নাকি খেতে খেতে দিলে প্রার্থনা করে, আমার প্রভু ধনেজনে বাড়ুক, পাতেপাতে ভাত পড়বে আমিও পেটপুরে ...
  • বসন্তবৌরী
    বিল্টু তোতা বুবাই সবাই আজ খুব উত্তেজিত। ওরা দেখেছে ছাদে যে কাপড় শুকোতে দেয়ার একটা বাঁশ আছে সেখানে একটা ছোট্ট সবুজ পাখি বাসা বেঁধেছে। কে যেন বললো এই ছোট্ট পাখিটার নাম বসন্তবৌরী। বসন্তবৌরী পাখিটি আবার ভারী ব্যস্তসমস্ত। সকাল বেলা বেরিয়ে যায়, সারাদিন কোথায় ...
  • সামান্থা ফক্স
    সামান্থা ফক্সচুপচাপ উপুড় হয়ে শুয়ে ছবিটার দিকে তাকিয়েছিলাম। মাথায় কয়েকশো চিন্তা।হস্টেলে মেস বিল বাকি প্রায় তিন মাস। অভাবে নয়,স্বভাবে। বাড়ি থেকে পয়সা পাঠালেই নেশাগুলো চাগাড় দিয়ে ওঠে। গভীর রাতের ভিডিও হলের চাম্পি সিনেমা,আপসু রাম আর ফার্স্ট ইয়ার কোন এক ...
  • ইংরাজী মিডিয়ামের বাংলা-জ্ঞান
    বাংলা মাধ্যম নাকি ইংরাজী মাধ্যম ? সুবিধা কি, অসুবিধাই বা কি? অনেক বিনিদ্র রজনী কাটাতে হয়েছে এই সিদ্ধান্ত নিতে! তারপরেও সংশয় যেতে চায় না। ঠিক করলাম, না কি ভুলই করলাম? উত্তর একদিন খানিক পরিস্কার হল। যেদিন একটি এগার বছরের আজন্ম ইংরাজী মাধ্যমে পড়া ছেলে এই ...

এবারের নারীদিবস

Prativa Sarker

One who says 'hm' will be jailed
One who asks 'why'? will be exiled.

লিখেছিলেন তামিল কবি ভারথী।
আমাদের দেশের অবস্থা তো এখন এইরকমই। তবু না লিখে পারছি না কাল রন্ধন প্রতিযোগিতায় অংশ আপনি নিতেই পারেন, কিন্তু আমাকে দয়া করে ট্যাগ করবেন না। আলপনা দেওয়া খুব পছন্দ করি,বিশেষ করে আদিবাসী গ্রামের আলপনা। কিন্তু কাল সেরকম প্রতিযোগিতাতেও অংশ নেব না। কারণ কালকের দিনটা মেয়েদের ললিতকলায় পারদর্শিতা দেখাবার দিন নয়। রন্ধন বিদ্যায় নৈপুণ্য দেখাবারও নয়। হেভি ডিস্কাউন্টে জুয়েলারি, শাড়ি বা অন্য ভোগ্য খরিদ করে নিজের তথাকথিত নারীত্ব প্রমাণেরও নয়।

আন্তর্জাতিক নারী দিবস স্মরণ ও শপথ নেবার দিন। যাঁরা কর্মসচল আর সমাজের পচাগলা ঘায়ে মলম লাগিয়ে তার নিরাময় চেয়েছেন তাদের স্মরণ আর তাঁদের আরধ্ব কাজকে পরিণতি দেবার শপথ নেবার দিন এই ৮ই মার্চ। আমরা যেন তার সম্মান রাখতে পারি।

এই দিনটির একেবারে জন্মকথা বলে চুপ করি। ১৮৬৩ সালের এক হতভাগীর নির্মম পরিণতি চোখ টেনেছিল মহামতি মার্ক্সের। ক্যাপিটালে এই সম্বন্ধে লেখেন তিনি। আর তখন থেকে মেয়েদের সমস্যা নিয়ে যে ভাবনা চিন্তার পরিবর্তন সূচিত হয় তাইই পরিণতি পায় পরবর্তী কালে বিশ্বজোড়া নারী দিবস পালনে।
কুড়ি বছরের মেরী স্রেফ অতি খাটুনিতে মারা পড়েছিল। অভিজাত নারীর পোশাক বানাবার কারখানায় সময়মত ডেলিভারি দেবার তাগিদে তাকে খাটতে হতো গড়ে সাড়ে ষোলো ঘন্টা, সীজনে নাগাড়ে ত্রিশ ঘন্টা ! হ্যাঁ, তার পরম দয়ালু মালিক তাকে জাগিয়ে রাখবার জন্য তাকে চা,কফি, শেরি, পোর্টের সাপ্লাই দিয়ে যেতেন। ত্রিশ জনের বেশি মেয়ে গাদাগাদি করে যে ঘরে কাজ করতো তাতে নিশ্বাস নেবার মত হাওয়া ঢুকতো না। তো এক শুক্কুরবার মেরী অসুখে পড়লো আর রোববার তার প্রাণপাখী ফুড়ুৎ হলো। মালিক ভদ্রমহোদয়া নিশ্বাস ফেলে বাঁচলেন কারণ ওর মধ্যেই মেরী হাতের কাজটুকু শেষ করেই গেছে।
পরদিন সক্কাল সক্কাল লন্ডনের সব কাগজে ফলাও করে মেরীর কথা ছাপা হল "Death from simple over-work" এই রকম শিরোনামে।

তো এই হলোগে এক্কেবারে গোড়ার কথা। এত কষ্টের মধ্য দিয়ে যে দিনের জন্ম তাকে কি কোন ডিসকাউন্ট, তা যতই বড় মাপের হোক না কেন, সার্থক করতে পারে ?

তবে এই নারী দিবসে আমার একখান দাবী আছে। "মেয়েলি" দাবী 😁।
একজন নারী হিসেবে, মা হিসেবে আমার সন্তানের ওপর আমার অধিকারই শেষকথা। আমার এক সন্তানের রক্ত খেয়ে, তার স্বপ্নকে চুরচুর করে দিয়ে চিরকালের মতো কেড়ে নিয়েছে রাষ্ট্র ! রহিত ভেমুলা!
এই হতভাগ্য মা এখন ফেরত চায় তার গুম হয়ে যাওয়া আর এক ছেলেকে। নাজীব। নাজীবকে ফেরত দাও রাষ্ট্রদানব। আমার নারীদিবস পালন সার্থক হোক।



আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন