রৌহিন RSS feed

রৌহিন এর খেরোর খাতা। হাবিজাবি লেখালিখি৷ জাতে ওঠা যায় কি না দেখি৷

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • পরীবালার দিনকাল
    ১--এ: যত তাড়াতাড়িই কর না কেন, সেই সন্ধ্যে হয়ে এলো ----- খুব বিরক্ত হয়ে ছবির মা আকাশের দিকে একবার তাকাল, যদি মেঘ করে বেলা ছোট লেগে থাকে৷ কিন্তু না: আকাশ তকতকে নীল, সন্ধ্যেই হয়ে আসছে৷ এখনও লালবাড়ির বাসনমাজা আর মুনি দের বাড়ি বাসন মাজা, বারান্দামোছা ...
  • বল ও শক্তি: ধারণার রূপান্তর বিভ্রান্তি থেকে বিজ্ঞানে#1
    আধুনিক বিজ্ঞানে বস্তুর গতির রহস্য বুঝতে গেলেই বলের প্রসঙ্গ এসে পড়ে। আর দু এক ধাপ এগোলে আবার শক্তির কথাও উঠে যায়। সেই আলোচনা আজকালকার ছাত্ররা স্কুল পর্যায়েই এত সহজে শিখে ফেলে যে তাদের কখনও একবারও মনেই হয় না, এর মধ্যে কোনো রকম জটিলতা আছে বা এক কালে ছিল। ...
  • আমার বাবা আজিজ মেহের
    আমার বাবা আজিজ মেহের (৮৬) সেদিন সকালে ঘুমের ভেতর হৃদরোগে মারা গেলেন।সকাল সাড়ে আটটার দিকে (১০ আগস্ট) যখন টেলিফোনে খবরটি পাই, তখন আমি পাতলা আটার রুটি দিয়ে আলু-বরবটি ভাজির নাস্তা খাচ্ছিলাম। মানে রুটি-ভাজি খাওয়া শেষ, রং চায়ে আয়েশ করে চুমুক দিয়ে বাবার কথাই ...
  • উপনিষদ মহারাজ
    একটা সিরিজ বানাবার ইচ্ছে হয়েছিলো মাঝে। কেউ পড়েন ভালোমন্দ দুটো সদুপদেশ দিলে ভালো লাগবে । আর হ্যা খুব খুব বেশী বাজে লেখা হয়ে যাচ্ছে মনে হলে জানাবেন কেমন :)******************...
  • চুনো-পুঁটি বনাম রাঘব-বোয়াল
    চুনো-পুঁটি’দের দিন গুলো দুরকম। একদিন, যেদিন আপনি বাজারে গিয়ে দেখেন, পটল ৪০ টাকা/কেজি, শসা ৬০ টাকা, আর টোম্যাটো ৮০ টাকা, যেদিন আপনি পাঁচ-দশ টাকার জন্যও দর কষাকষি করেন; সেদিনটা, ‘খারাপ দিন’। আরেক দিন, যেদিন আপনি দেখেন, পটল ৫০ টাকা/কেজি, শসা ৭০ টাকা, আর ...
  • আগরতলা নাকি বানভাসি
    আগরতলা বানভাসি। দামী ক্যামেরায় তোলা দক্ষ হাতের ফটোগ্রাফ বন্যায় ভাসিয়ে দিচ্ছে ফেসবুকের ওয়াল। দেখছি অসহায়ের মতো সকাল, দুপুর বিকেল, রাত হোল এখন। চিন্তা হচ্ছে যাঁরা নীচু এলাকায় থাকেন তাঁদের জন্য। আমাদের ছোটবেলায় ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি হোত হাওড়া নদীর বুক ভরে উঠতো ...
  • ভূতের_গল্প
    পর্ব এক"মদন, বাবা আমার ঘরে আয়। আর গাছে গাছে খেলে না বাবা। এক্ষুনি ভোর হয়ে যাবে। সুয্যি ঠাকুর উঠল বলে।"মায়ের গলার আওয়াজ পেয়ে মদনভূত একটু থমকাল। তারপর নারকেলগাছটার মাথা থেকে সুড়ুৎ করে নেমে এল নীচে। মায়ের দিকে তাকিয়ে মুলোর মত বিরাট বিরাট দাঁত বার করে ...
  • এমাজনের পেঁপে
    একটি তেপায়া কেদারা, একটি জরাগ্রস্ত চৌপাই ও বেপথু তোষক সম্বল করিয়া দুইজনের সংসারখানি যেদিন সাড়ে ১২১ নম্বর অক্রুর দত্ত লেনে আসিয়া দাঁড়াইল, কৌতূহলী প্রতিবেশী বলিতে জুটিয়াছিল কেবল পাড়ার বিড়াল কুতকুতি ও ন্যাজকাটা কুকুর ভোদাই। মধ্য কলিকাতার তস্য গলিতে অতটা ...
  • ব্যক্তিগত হিরোশিমা ডে অথবা ফ্রেন্ডশিপ ডে
    ঘুম থেকে উঠেই দেখি পিতাশ্রী ও মাতাশ্রী হিরোশিমা ডে পালন করছে। পার্ল হারবারে কে বোমা ফেলেছিলো জানিনা কিন্তু মাতারাণী আলমারি খুলে শাড়ি টাড়ি পরে তৈরী। পিতাশ্রী হতাশ ও ভীত গলায় আমায় অনুযোগ করলেন, দেখ না আমি কিচ্ছু বলিনি খালি বলেছি এ বর্ষায় কেউ দই খায় তাতেই ...
  • মেয়েদের চোরাগোপ্তা স্ল্যাং-2
    আমাদের এক্কাদোক্কা বেলায় সে অর্থে কোনো স্ল্যাং নেই। জাতীয় পতাকা উড়লে যেমন কোন সমস্যা নেই, দারিদ্র নেই। ডগডগে সিঁদুরের ক্যামোফ্লেজে যেমন সম্পর্কের শীতলতা নেই। বিজ্ঞাপনের ঢেউয়ে যেমন ভেসে নেই নিয়োগের লাশ।পাঁচমিশেলি কলোনির খোলা কন্ঠ থাকে। ভাষা থাকে। আর বাবু ...

প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

রৌহিন

গত তিনদিন ধরে ফেসবুকের আকাশে বাতাসে ঘুরে বেড়াচ্ছে সেই অমোঘ বানী – অমর্ত্য সেন বলেছেন তালাকের ফলে মাত্র ১.৩% মুসলিম মহিলা বিচ্ছিন্না এবং ক্ষতিগ্রস্ত, অতএব তিন তালাক কোন সমস্যাই নয়। অমর্ত্য বামপন্থী (পড়ুন বামৈস্লামিক) বুদ্ধিজীবি বলেই এমন অসংবেদী কথা বলতে পারেন। এতেই প্রমাণ হল বামেরা কেবল মুসলিম তোষণকেই ধর্মনিরপেক্ষতা বোঝেন। তারা সিউডো সেকুলার। ইত্যাদি, প্রভৃতি।
প্রথমে একটু বিষয়টা বোঝা প্রয়োজন। কতটা সত্যি, কতটা জল, ইত্যাদি। ঘটনা হল প্রাতীচী ট্রাস্টের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে এই স্টাডি লিঙ্কটি নেই। সেটা সম্ভবত: প্রাতীচীরই গাফিলতি – ওএবসাইটটি আপডেটেড নয়। অতএব আমাদের ভরসা এ বিষয়ে টাইমস অফ ইন্ডিয়ায় প্রকাশিত একটি রিপোর্ট। http://m.timesofindia.com/city/kolkata/Death-not-talaq-does-them-part-
in-Bengal/articleshow/55934400.cms

এই রিপোর্ট ফার্স্ট হ্যান্ড নয় কিন্তু কয়েকটা ব্যপার এখান থেকে বোঝাই যায়। প্রথমত: প্রাতীচী ট্রাস্ট শুধু তার অবজার্ভেশনটুকু প্রকাশ করেছেন – নিরীক্ষার ফলাফল। এটা সমস্যা কি না এ নিয়ে বক্তব্য রাখেননি। রেখে থাকলে সেটা এমনিতেও পদ্ধতিগত ভুল ধরা হত কারণ এই ধরণের সমীক্ষা থেকে কোন সিদ্ধান্তে আসা সম্ভব নয় – তা করাও হয় না। দ্বিতীয়ত:, অমর্ত্য এ বিষয়ে আদৌ কিছু বলেনি, তার সংস্থা একটা সমীক্ষা প্রকাশ করেছে মাত্র। এটাকে অমর্ত্যর বক্তব্য বলে প্রচার করলে এরপর থেকে দিলীপ ঘোষের কথাও মোদীর বক্তব্য হিসাবে প্রচার পেতে পারে। তৃতীয়ত:, ১.৩% র হিসাব কোন ডেটা সেটে সেটা পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।
এই সমীক্ষার বাইরেও একটা বিরাট বড় সমাজ আছে। তাতে মুসলমান বলে একটা সম্প্রদায় আছে। গরীব বলেও একটা সম্প্রদায় আছে। তাদের নিয়ে শহুরে বাবুদের, শাইনিং পরহিতাকাঙখী মধ্যবিত্তদের, হিন্দুত্ববাদী সংখ্যাগুরু সমাজের বিপুল পরিমাণ মাথাব্যথাও আছে। তিন তালাকের ফলে গরীব মুসলমান নারী কত কষ্টে আছে সে কথা ভেবে কয়েক পুকুর জল এদের চোখ দিয়ে গড়িয়েও গেছে। তা সেই সমাজকে আমরা কে কে দেখেছি কাছ থেকে? আমার নিজের দেখা খুব কম – আমি সমাজসেবক কোনদিন ছিলাম না – বিপ্লবী হবার শৌখিন মজদুরির শখও বহুদিন হল ঘুঁচেছে। তবে আমাদের পৈতৃক বাড়ি, যা এককালে গন্ডগ্রামই ছিল এখন কালের চাকায় চড়ে মফস্বলের দোরগোড়ায় উপনীত, সেখানে আমাদের বাড়ির পরেই শুরু হয় মুসলমান পাড়া। চেনা খুব সহজ। পাকা রাস্তা এবং ইলেক্ট্রিকের পোল, এখনো, আমাদের বাড়িতে এসেই শেষ হয়ে যায়। আগে মুসলমান পল্লী। গরীব মুসলমান পরিবার সব। আর কাজের সূত্রে কিছু গ্রামে গঞ্জে ঘুরে ফিরে দেখা কিছু পরিবার। তাদের দুয়েকজনের ঘরে পাত পেড়ে খেতেও হয়েছে কখনো সখনো বাধ্য হয়ে। আমার ভদরলোকি উঁচু নাক সিঁটকে রেখে। তা এটুকুই চেনা জানা। তালাকপ্রাপ্তা কারোর সাথে আলাপ হয়নি। নির্যাতিতা অসহায় নারী অনেক দেখেছি। এগুলো তথ্য হিসাবে অকিঞ্চিৎকর।
গুণীজনেরা বলবেন এত সারকাজম লেখার মান নষ্ট করে – এতটার প্রয়োজন ছিল না। আমার মতে ছিল। ছিল কারণ শাইনিং মধ্যবিত্ত এবং হিন্দুত্ববাদীদের এই হঠাৎ করে তালাক দরদী হয়ে ওঠায় আমি নির্যাতিতার পাশে দাঁড়ানোর সদিচ্ছা আদৌ দেখতে পাচ্ছি না। এটা নেহাৎই একটা রাজনৈতিক বক্তব্য, কারণ তাদের নিজেদের মহিলাদের জন্য এভাবে তাদের প্রাণ কাঁদে না। তাদের ঘরে এখনো “পরম্পরা”র নামে, “ভারতীয় সংস্কৃতি”র নামে নারী নির্যাতনের চাষ। এবং এই অছিলায় তিন তালাকের বিরোধিতা করার নামে একই সাথে একটু ইসলামকে গালিও দেওয়া গেল আবার অভিন্ন দেওয়ানী আইনের হয়ে একটু দালালীও করে নেওয়া গেল। চালনি বলে ছুঁচকে ---
বামপন্থীদের এই প্রসঙ্গে কী অবস্থান, এটা এই মুহুর্তে বেশ জটিল প্রশ্ন। কারণ বামপন্থী কারা, বামপন্থাই বা সঠিক কোনটা, এ নিয়ে দ্বন্দ্ব ও ধন্ধ অব্যাহত। আমি আমার মত করে বামপন্থার সংজ্ঞা স্থির করেছি এবং সেই সংজ্ঞা অনুযায়ী আমি নিজেকে বাম বলে মনে করি। অতএব এ বিষয়ে আমার ব্যক্তিগত অবস্থানটুকু বলব যা আমার ধারণানুযায়ী বামপন্থার বক্তব্য। এই বক্তব্যের দায় অন্য কোন বামপন্থী নাই নিতে পারেন।
১। তিন তালাক প্রথা সমর্থন করিনা। কারণ তা বর্তমান রূপে লিঙ্গ নিরপেক্ষ নয়, নারীবিরোধী। এই প্রথার পরিবর্তন চাই। যে মুসলিম মহিলারা এবং তাঁদের যেসব সহযোগীরা এজন্য মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড এবং ভারতীয় আইন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে লড়ছেন তাঁদের সমর্থন করি।
২। অভিন্ন দেওয়ানি আইন সমর্থন করিনা। কারন ভারতীয় আইন বর্তমান রূপে প্রচুর অসঙ্গতিপূর্ণ এবং নিজেই লিঙ্গ নিরপেক্ষ নয়। এই আইনের আমূল সংস্কার না হওয়া অবধি অভিন্ন দেওয়ানী আইন আসলে হিন্দু আইনই। তা সমদর্শী নয়।
৩। মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড, হিন্দু আনডিভাইডেড ফ্যামিলি এক্ট, ম্যারেড উওম্যান এক্ট – এগুলির বিলুপ্তি চাই। পরিবর্তে এগুলির নতুন বিকল্প চাই যারা আধুনিক আইন ব্যবস্থা ও জীবনধারার সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ হবে।
৪। আদিবাসীদের নিজস্ব বিচার ব্যবস্থা বা সালিশী সভার বিলুপ্তি চাইনা। কিন্তু সেই সভায় কোন বহিরাগতের কোনরকম প্রভাব থাকা চলবে না। কৌমের বাইরের কারো বিচার সালিশী সভায় চলবে না।
৫। সমাজের সমস্ত স্তরে সব রকম লিঙ্গভিত্তিক নির্যাতনের অন্ত চাই। শুধু নারীর ওপর নির্যাতন নয়, সমকামী, রূপান্তরকামী, রূপান্তরিত, উভকামী, হিজড়া, ইত্যাদিদের প্রতি সহমর্মী এবং সমতাপূর্ণ আইন চাই।
এগুলো আমার চাওয়া – আমার মতে বামপন্থী হিসাবে। অবস্থান। সংখ্যাগুরুর আগ্রাসনের বিরুদ্ধে। শাইনিং ইন্ডিয়ার বিরুদ্ধে। রাষ্ট্রক্ষমতার দম্ভের বিরুদ্ধে। আমার দেশের মানুষের পক্ষে।


মন্তব্যের পাতাগুলিঃ [1] [2] [3] [4] [5] [6] [7] [8] [9] [10]   এই পাতায় আছে 178 -- 197
Avatar: দ

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

আহাহা সত্যি এই রামমোহন যে কি করল! কেমন সুন্দর হিন্দুসমাজ বিধবা হলেই মেয়েগুলোকে দড়দ্দম চিতেয় তুলে নিশ্চিন্ম্ত হত। তখন কিনা এই বেনামী বাবুরা কত্ত চ্যাষ্টা করেছিলেন রামমোহনকে এক্কেবারে প্রাণে মেরে ফেলতে যাতে হিন্দুদের নিজ্স্ব ধর্মমতের নিজ্স্ব সব নিয়ম কানুন চালু থাকে। এখন তো তবু যাহোক পেছনে লাথি মেরেই থেমে যেতে চাইছেন।
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

@তিন তালাক,
আপনার কথাটা আর একটু সম্প্রসারিত করি?
"ভালো না খারাপ সেটা মুসলিম মহিলাদেরকেই ঠিক করতে দিন না"--আপনি আমি কে? ওঁরাই তো কেস করেছেন এটা অমানবিক বলে। ভুগবেন ওঁরা আর ব্যথা লাগছে কি না ঠিক করবেন আপনি?

১) APMLB কোন আইনসিদ্ধ সাংবিধানিক সংস্থা নয়। কোন লিগ্যাল লোকাস স্ট্যান্ডাই নেই।
২) মুসলিম সমাজ মানেই কি খালি পুরুষ ? তাহলে তিন তালাক বাতিল করতে চেয়ে সুপ্রীম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন যে মহিলারা -- এঁদের অনেকেই হিজাব পরেছেন-- এঁরা কি মুসলিম সমাজের বাইরে?
৩) এটা আদৌ মুসলিম ধর্মাচরণের অনিবার্য অঙ্গ নয়। তাহলে পাকিস্তান থেকে শুরু করে বাইশটি মুসলিম দেশে খারিজ হত না। তাহলে সেকুলার ভারত রাষ্ট্রে এর অস্তিত্ব থাকে কি করে?

৪) @s,
আপনার উইকি কোটের শেষ দুটো থেকেঃ
the parties are not within the degrees of prohibited relationship unless the custom or usage governing each of them permits of a marriage between the two;
the parties are not sapindas of each other, unless the custom or usage governing each of them permits of a marriage between the two."
--- যাঁরা বলছিলেন আইন ও প্রথা গুলিয়ে ফেলার কথা তাঁরা খেয়াল করুন কীভাবে হিন্দু ম্যারেজ অ্যাক্ট ও কাস্টম এবং ইউসেজ কে বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে তার জন্যে ব্যবস্থা রাখছে।
তেলুগু সমাজের হিন্দুদের মামাতো পিসতুতো ভাইবোন এবং মামা ও ভাগ্নীর মধ্যে বিয়েকে বিশেষ প্রাথমিকতা দেওয়া হয়।
বাঙালীদেরও কি তাই? অথবা অন্য পূর্ব এবং পশ্চিম ভারতীয় হিন্দুদের?

Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

নারী,
"আর ইয়ে "ইউরোপ বা চীনে অধিকাংশ জনগোষ্ঠী একটি প্রধান ভাষা বা ধর্মের অনুগামী" খুব হাস্যকর বক্তব্য "
--- একটু ভাবুন। ইউরোপ কি একটি দেশ? একটি রাষ্ট্র? সমগ্র ইউরোপে কি একটি কমন সিভিল কোড আছে? তাহলে? প্রত্যেক দেশের আলাদা সিভিল কোড কেন?
চীনের জনসংখ্যার ৯০% এর বেশি হান সম্প্রদায় ও ভাষা মান্দারিন। এবার ভারতের সঙ্গে তুলনা করে দেখুন।

অমিত,
১)কেউ বলছে না সরকার চুপ করে থাকবে বা কোর্টে বক্তব্য পেশ করবে না। আমরা সবাই চাই সুপ্রীম কোর্ট দ্রুত মামলা সম্পন্ন করে তিন তালাক প্রথা বাতিলের পক্ষে রায় দিন।
২) বিকল্প কী হবে? যে বাইশটি মুসলিম দেশে তিন তালাক নেই সেখানে কীভাবে ডিভোর্স হয়? বা, পিটিশনার মুসলিম মহিলারা যেভাবে চাইছেন সেভাবে।
আমার ক্ষুদ্রবুদ্ধিতে মুসলিম ম্যারেজ অ্যাক্টের তিন তালাক পদ্ধতিটি নাল অ্যান্ড ভয়েড ঘোষণা করে সামান্য ডিভোর্স যেভাবে হয় --- অর্থাৎ মুখের কথায় না হয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়ে-- সেটাই ভাল হবে। মুসলিম ম্যারেজ যেহেতু কন্ট্র্যাক্ট তাই আদালতে ফয়্সলার পথ সহজ হবে। ব্রিচ অফ কন্ট্র্যাক্ট দেখালেই---!
শুধু 'তিন তালাক' বাতিলের উদ্দেশ্যে ইউসিডি?
৩) ল কমিশন একটি প্রশ্নাবলী পাবলিকের উদ্দেশে বাজারে ছেড়েছে। গুরুতেই কেউ লিং দিয়েছিলেন। তাতে আমার তোলা সমস্ত প্রশ্নগুলোই আছে। আপাতত সরকার সে নিয়ে নীরব।
৪) বিজেপির ইউসিডির প্রস্তাব নিয়ে বিরোধিতা আদৌ ছায়াবাজি নয়। চল্লিশ বছর ধরে আর এস এস এলাকায় আছি। সহকর্মী ও ব্যক্তিগত বন্ধুদের মধ্যে অনেকেই সংঘ পরিবারের। ঘটনাচক্রে বছর দুই আর এস এস এর কালচারাল ফ্রন্ট "সংস্কার ভারতী"র নাটক শাখার ছত্তিসগড়ের সচিব ছিলাম।
ভাল করেই জানি-- কাশ্মীরের বিশেষ সুবিধার ধারাটি রদ করা ও ইউনিফর্ম সিভিল কোড লাগু করা ওদের রাষ্ট্রীয় এজেন্ডা । আর এটা বলতে ওরা মেজরিটারিয়ান ভিউ নিয়ে প্রকারান্তরে হিন্দু অ্যাক্টের কথাই বলে। তাই আজ অবদি কোন খসড়া দেয় নি।
আর এরাই হিন্দু সিভিল কোডের সংস্কারের কীরকম বিরোধিতা করেছিল তা তো ডকুমেন্টেড।
এদের দূর্গাবাহিনীর মটোগুলো দেখুন --এরা আদৌ নারীর সমানাধিকারে বিশ্বাস করে না।
সতীদাহ নিয়ে রাজস্থানে এদের কি রোল ছিল (রূপ কুঁয়র) ভুলে গেলেন?
Avatar: amit

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

রঞ্জনদা,
সেটাই তো জানতে চাইছি ইউসিডি এর সমস্ত এজেন্ডা গুলো কি ? মুসলিম দের একাধিক বিয়ে বন্ধ করা তো শুধু একটা পয়েন্ট, বাকি গুলো কি ? সেই ল কমিশন এর প্রশ্নাবলীর লিংক কেও দিতে পারবেন আর একবার ?

ইউরোপ এর প্রতিটি দেশে আলাদা সিভিল কোড থাকবে সেটাই স্বাভাবিক নয় কি ? এখনো অবধি দেশ লেভেল এই সিভিল কোড ইমপ্লিমেন্ট করা যায়, EU-তে বেশ কিছু বিসনেস এন্ড ট্যাক্স রুল EU-ওয়াইড করা হয়েছিল এবং সেটা UK-র ব্রেক্সিট এর পেছনে একটা বড়ো ক্যাটালিস্ট। কিন্তু সব কটা দেশের সিভিল কোড খুব একটা আলাদা কিছু নয়।

জানতে আগ্রহী পাকিস্তানে সংখ্যালঘু দের বিয়ে বা ডিভোর্স এর জন্য কি আলাদা আইন নাকি এক।

এই ২১ শতকে এই টুকু আশা করা যায় যে বেসিক আইন হবে (এসব আগেও অনেকেই লিখেছিলেন)

1। প্রতিটি বিয়ে সরকারি ভাবে রেজিস্ট্রি করা হোক (যে যার মতো আচার/ বিচার যা ইচ্ছে করুক না কেন)
2। রেজিস্ট্রি ফর্ম এ ধর্ম লেখা আদৌ জরুরি নয় , কিন্তু পাত্র পাত্রীর আধার কার্ড, পান কার্ড সব ডিটেলস থাক যাতে কেও ঠকাতে না পারে
3। বহুবিবাহ নিষিদ্ধ করা হোক কড়া ভাবে সব ধর্মের জন্য। ধরা পড়লে কড়া শাস্তির ব্যবস্থা হোক ক্রিমিনাল কোড এ , সিভিল কোড নয়
4। ডিভোর্স এর নিয়ম সরল করা হোক এবং সেটাও ধর্ম নিরপেক্ষ
5. আলিমনি রুল এক করা হোক হোক সবার জন্য , যেটা আদালত ঠিক করবে । যতই আপনি দেনমোহর আর কন্ট্রাক্ট এর কথা বলুন , সেসব ই টোকেন জেস্টোর, সেটা নিজে আপনিও জানেন । আমার নিজের ঘনিষ্ঠ পরিবারে মুসলিম আত্মীয় আছেন , সুতরাং এই বিষয়ে একেবারে আনপড় নই ।
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

অমিত,
এক ও দুইনম্বর পয়েন্টে একদম সহমত। ঠিক যেমন আজ সরকার জন্মমৃত্যুর রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করেছে সেইভাবে সব ধর্মের বিয়েরই রেজিস্ট্রেশন করা বাধ্যতামূলক করা হোক। সেইসঙ্গে তার ফি খুব কম, জাস্ট টোকেন, রাখা হোক। নইলে জনসংখ্যার অধিকাংশ চাপে পড়বে, বিশেষ করে গ্রামের প্রান্তিক লোকজন।
চার/পাঁচেও একমত। সেটা সিভিল কে এড়িয়ে ক্রিমিনাল প্রসিডিউর অ্যাক্ট দিয়েই হতে পারে। শাহবানো জিতে যেত, তৎকালীন রাজীব সরকার রাজনৈতিক চাপ সৃষ্টি করে সিজেম কোর্টের রায় গাজোয়ারি করে খারিজ করাল।
এ নিয়ে ইদানীং, সম্ভবতঃ গতবছর, কোন মুসলিম মহিলার খোরপোষ নিয়ে ওই আইনের সহায়তায় দিল্লির কোন আদালত পজিটিভ রায় দিয়েছিলেন বলেই মনে পড়ছে।ডিটেইল্স মনে নেই।
বাকি রইল তিন নম্বর।
এ নিয়ে আমার দুইখান কথা।
এক , একসঙ্গে সব ফ্রন্ট না খুলে আগে মুসলিম মহিলারা যে দাবি নিয়ে সরব হয়েছেন সেটা মেনে নেওয়া হোক-- তিন তালাক দ্রুত নিষিদ্ধ করা হোক।
দুই, বহুবিবাহ, আর্থিক কারণেই, অধিকাংশ মুসলিম করেন না, বিশেষতঃ শহরে। আমি দু'বছর আগে নরেন্দ্রপুরে থাকাকালীন কাজের মহিলাকে বলেছিলাম --কোরানে দুই পত্নীর বেশি কোথাও স্পষ্ট করে বলা নেই। তাও রাইডার আছে যে পুরুষটি দুই বৌকে সমান স্বাচ্ছন্দ দিয়ে রাখতে সক্ষম হলে তবেই। তবে কেন?
মেয়েটি হেসে বলল -- কেন ব্যস্ত হচ্ছেন দাদা? কে আজ দুটো বৌ পালবে? আমার একটিই সন্তান--মেয়ে। আমার অটো ড্রাইভার স্বামী তো দ্বিতীয় বিয়ে করে নি। আমার মেয়েকে বিয়ে দিয়েছি--ওর কোন সতীন নেই।
দেখুন, আমার যত মুসলিম সহকর্মী ছিল কারও দুই বৌ নেই, সন্তান এক বা দুই। অথচ আমার ইউপি ওলা ব্রাহ্মণ ও জাঠ সহকর্মীর ক্রমশঃ তিন এবং চার সন্তান।
অবশ্য আমার চেনা মুসলিম পরিবারের আগের জেনারেশনে কারও কারও দুই বিয়ে। চার বিয়ে দেখিনি।
আর পাকিস্তানে হিন্দুদের বিয়ের আলাদা নিয়ম। কিন্তু ওদের সেই বিয়ে রেজিস্ট্রি করার অধিকার ছিল না। ইদানীং পাকিস্তানের সংসদ আইন পাশ করে হিন্দুদের সেই অধিকার দিয়েছেন যা নিয়ে পাকিস্তানের হিন্দু সমাজ উল্লসিত-- ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর।
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

ল কমিশনের কোশ্চেনেয়ার এর লিং কেউ অক্টোবরের থার্ড উইকে তিন তালাক সংক্রান্ত টইয়ে দেওয়া ছিল। কেউ যদি তুলে দেন!
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

যতদূর জানি ইউরোপের অধিকাংশ দেশে জনসংখ্যার বিশাল অংশ ক্রীশ্চান। আলবেনিয়া ব্যতিক্রম। এবং সেই দেশগুলোতে সম্ভবতঃ কোন অ-খ্রিশ্চান আজ পর্য্যন্ত রাষ্ট্রপতি/প্রধানমন্ত্রী হয় নি। আবার আলবেনিয়াতে (কম্যুনিস্ট শাসনকাল বাদ দিলে) কোন অ-মুসলিম সর্বোচ্চ পদে বসে নি। ভারতে রাষ্ট্রপতি হিন্দু/মুসলিম/শিখ কমিউনিটি থেকে হয়েছেন।
Avatar: link

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

Avatar: amit

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

লিঙ্ক টার জন্য ধন্যবাদ।

প্রশ্ন গুলো ভালো করে দেখলুম আর সত্যি বলতে আপত্তিজনক কিছু খুঁজে পেলুম না। জানিনা এটাই উসি কোডের জন্য মতামত নেওয়া হচ্ছে কি না, তবে প্রশ্ন গুলো সবকটাই দরকারি এবং এড্রেস করা জরুরি। আমার মত কোনো গোষ্ঠী বা ধর্মের আচার রক্ষার দায়ে যেন কোনো ইন্ডিভিজুয়াল কে বলি না দেওয়া হয়, যেটা এখন হয়ে থাকে। তিন তালাক নিয়ে যেমন প্রশ্ন আছে, হিন্দু মহিলা দেড় সম্পত্তির অধিকার নিয়েও প্রশ্ন আছে, সুতরাং আমি অন্তত এই প্রশ্ন গুলোকে biased বলতে পারছি না।

একটা বেসিক জিনিস আবার বলতে চাই। যতই বলা হোক যে ইউরোপ এ খ্রীষ্টান আইন আইন চালানো হয়, সেখানে পার্সোনাল আইন কিন্তু সম্পূর্ণ ভাবে ধর্ম নিরপেক্ষ। ধর্ম এবং ব্যক্তির মধ্যে সংঘাত হলে আইন ব্যক্তিকে সাপোর্ট করে। এই ২১ শতকে সেটাই সবার আশা করা উচিত। জন্মসূত্রে আমি হিন্দু বা মুসলিম হই , সেটা যখন আমার চয়েস নয় , তখন সেই ধর্ম রক্ষার দায়ভার আমার ওপর বর্তায় কেন ?

যারা উসি কোডের বিরোধিতা করছেন, তারা এই প্রশ্ন গুলো নিয়ে তাদের আপত্তির পয়েন্ট গুলো জানাবেন ? দয়া করে শুধু বিরোধিতার জন্য বিরোধিতা নয় বা ডিসক্লেইমার নয় , স্পেসিফিক উত্তর দিন প্লিজ ।

Avatar: nari

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

একদিকে ব্যক্তিঅধিকার,জেন্ডার ডিসক্রিমিনেশন , নারীর অধিকার ইত্যাদি নিয়ে বড় বড় কথা বলা হয় , আবার হিন্দু ম্যারেজ এক্ট তেলুগুদের মধ্যে মামাতো পিসতুতো সম্পর্কে বিয়েতে কেন ছাড় নিয়ে কত চিন্তা ! কে কাকে বিয়ে করবে , ভিন্ন ধর্মের না ভিন্ন জাতের না ভিন্ন ভাষার না ভিন্ন ফ্যামিলি ট্রির সেটা নিয়ে রাষ্ট্রর তো মাথা ঘামানো উচিত নয়,একমাত্র দেখা উচিত দুই অ্যাডাল্ট এর সম্মতি আছে কিনা । মানিক ও বিজয়াদিরা যদি বিয়ে করতে চান তো করবেন , ব্যক্তিস্বাধীনতা তো তাই বলে ! দেশের একটাই ম্যারেজ এক্ট হোক এবং তাতে এসব রাইডার গুলোর কোনো দরকার নেই ।বরং বিচ্ছেদ হলে মেয়েটি আলিমনি উপযুক্ত পরিমানে পেলো কিনা, সন্তানের অধিকার পেলো কিনা , সম্পত্তিতে কন্যা সন্তান সমান ভাগ পেলো কিনা সেটা রাষ্ট্রর আইন করে নিশ্চিত করা উচিত, এবং তা সমস্ত ধর্ম বর্ণ জাত নির্বিশেষে ( bold & underline )। বহুবিবাহ নারীর প্রতি অবমাননা যা নারীর সমানাধিকার ক্ষুন্ন করে । হয় বহুবিবাহ লুপ্ত করা উচিত নয়তো সব ধর্মের সব লিঙ্গের ( নারী পুরুষ নির্বিশেষে ) মানুষকে বহুবিবাহের অধিকার দেওয়া উচিত । "আমার দেখা নেই " বলে সাবজেক্টিভ পার্সপেক্টিভ থেকে পুরুষের বহুবিবাহ যেন হয়না এমন একটা মিথনির্মানের পুরোনো পুরুষতান্ত্রিক কৌশল ধরে ফেলা যায় সহজেই। এদেশের পুরুষতন্ত্র অবশ্য ছলেবলে কৌশলে ডিভাইড এন্ড রুল নীতি নিয়ে নারীদের মধ্যে ধর্মের ভিত্তিতে বিভাজন করতে তৎপর - যাতে যতদিন পারা যায় সমগ্র নারীদের না পারুক কিছু নারীকে অন্তত অবদমিত করে রাখা যায় ।তাই তো "একসঙ্গে সব ফ্রন্ট না খুলে আগে" বা "সেটা দুদিন পরে বিচার করলেও ইতর বিশেষ হবে না" ইত্যাদি কুযুক্তি সেই যেনোতেনোপ্রকারেন নারীকে দমিয়ে রাখার কৌশলের অঙ্গ । যুগে যুগে এরাই রামমোহন কে বাধা দিয়ে সতীদাহ প্রথা বন্ধ করার সময়। নইলে আম্বেদকর যে পার্সোনাল ল কে টেম্পোরারি বলে গিয়েছিলেন তার নারীঅবমাননাকর ধারা গুলো কিকরে দশকের পর বিনা প্রশ্নে চলতেই থাকে ?
Avatar: boka harami

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

বিষয়বস্তু সম্বন্ধিত সমালোচনা করবেন না। মুদি চাড্ডি ইত্যাদি বলে খেউড় করুন। তাপ্পর দেখুন কি রকম স্ট্যান্ডিং ওভেশন পান। নেহাত বোকা বা পাক্কা চাড্ডি না হলে কেউ কূট প্রশ্ন করে নাকি সেক্যুলার বিপ্লবীদের!! যত সব ইয়ে।
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

জনৈক 'বোকা হারামী'র আগের পোস্তগুলোর বক্তব্যের সঙ্গে একেবারে দ্বিমত। কিন্তু পদ্ধতিগত প্রশ্নে আগের পোস্টটির সঙ্গে ১০০% সহমত।
বক্তব্যের বিরোধিতা না করে বক্তার প্রতি টীকাটিপ্পনি ঠিক নয়।

নারী,
আপনার বক্তব্যের স্পিরিটের ও মূল বক্তব্যের সঙ্গে একমত। কিন্তু মনে হচ্ছে আপনি তার সঙ্গে আমার লড়াইয়ের জন্যে ট্যাকটিক্যাল লক্ষ্যের প্রশ্নকে ভুল বুঝেছেন।
হ্যাঁ, এটা একটা লড়াই এবং দীর্ঘকালীন। তাই রণনীতি ও রণকৌশলের ফোকাস খুব জরুরি। আমার বিনীত নিবেদন -- আমি আপনি চাইলেই অচলায়তনের গোটা দেয়ালটা একসঙ্গে হুড়মুড় করে ভেঙে পরবে না, পরে না। তাই রামমোহন/বিদ্যাসাগর/আম্বেদকর আইন/নীতি প্রণয়ন করে গেলেও তা বাস্তবায়িত হতে সময় লাগে।
সেইজন্যে দরকার অচলায়তনের সবচেয়ে দুর্বল জায়গাটাতে ঘা মেরে কিছু ইঁট ফেলে দিয়ে জায়গা বানানো। বর্তমান প্রসঙ্গে সেটা হল তিন তালাক। এর বিরুদ্ধে মুসলিম নারীরা আওয়াজ তুলেছেন। পিতৃতন্ত্র পার্সোনাল ল বোর্ডের মুখোশে বাজে যুক্তিদিয়ে প্রাণপন চেষ্টা করছে এটা আটকানোর।
এর পরে আসবে বহুবিবাহের ইস্যু। প্রথমটায় সফল হলে মহিলারা সাহস পাবেন দ্বিতীয় আওয়াজটাও তুলতে। এইটুকুই বলার।
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

অমিত,
আমি ল কমিশনের প্রশ্নাবলী সেইসময়েই ফিল আপ করে নির্দিষ্ট সময়ের অনেক আগেই অন লাইনে পাঠিয়ে দিয়েছি।
সংক্ষেপে, সমর্থন করেছি-- জাতিধর্ম নির্বিশেষে তিন তালাক/বহুবিবাহ ও নারীপুরুষের সম্পত্তিতে সমানাধিকারের দাবিগুলোকে।
কিন্ত এর জন্যে সম্বন্ধিত কমিউনিটি অ্যাক্টকে একেবারে তুলে না দিয়ে রেলিভ্যান্ট সেকশানগুলোকে তুলে রিফর্ম করার পক্ষে মত দিয়েছি। ইউসি কোডের পক্ষে নয়।
বিভিন্ন ধর্মের যে যে ধারা বা কাস্টমগুলো রেট্রোগ্রেড বা অমানবিক বা লিঙ্গবিভেদক--সেগুলো সব বাতিল করাই যথেষ্ট বলে মত দিয়েছি।
Avatar: amit

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

একদম ঠিক আছে রঞ্জন দা । সবাই নিজের মতামত দিন, সেটাই তো গণতন্ত্রের প্রাথমিক শর্ত। আমি ও পাঠালাম। ইন ফ্যাক্ট যদি মেজর পয়েন্ট গুলোতে একমত হওয়া যায়, আর ব্যক্তির অধিকার বা চয়েস কে ধর্ম বা রাষ্ট্রের অত্যাচার থেকে সুরক্ষিত রাখা যায়, সেটাই তো আসল উদ্দেশ্য , এবার সেটাকে ইউসি কোড বলা হোক বা অন্য কিছু তাতে কি এসে গেলো।

আমার নিজের যেটা মেজর কনসার্ন, ইন্ডিয়া তে যেভাবে কমিউনিটি একট গুলো কে এক্সপ্লইট করা হয়, সেটা র স্কোপ রেখে দিলে সেটার মিস ইউস হবেই। আর ব্যক্তি লেভেল এ লড়ার শক্তি গোষ্ঠীর থেকে কম। তাই আইন এ যেন ব্যক্তিকে প্রাধান্য দেওয়া হয়, গোষ্ঠীকে নয়। ট্রেডিশন বা ধর্ম রক্ষার নাম নিরীহ মোষ দের মারা নিয়ে যে দেশে মিছিল হতে পারে সুপ্রিম কোর্ট এর বিরুদ্ধে, সেখানে শাহবানও বা রূপ তনয়ার রা যে পায়ের তলায় পিষে যাবে সেটা তো বলার অপেক্ষা রাখে না।

আরো একটা কথা। এটা অবশ্য আপনাকে বলা নয় , যারা রেগে যাচ্ছেন তাদের জন্য । চাড্ডিদের গালাগাল দিতে গিয়ে আমরা নিজেরা যেন যুক্তি না হারিয়ে ফেলি, তাহলে আমরা তো রিভার্স চাড্ডি হয়ে যাবো ।
Avatar: Boka harami

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

রঞ্জন বাবু
লেখকের আগের লেখাগুলো পড়লে ওনার ওয়ান পয়েন্ট এজেন্ডা অর্থাৎ মুদি চাড্ডি খেস্তাও সম্বন্ধে কোনো সন্দেহ থাকে নাকি!!! উনি নিরাপদ দূরত্বে বসে বিপ্লব বিপ্লব খেলতে ও লোকজন কে উস্কাতে বিশেষ পটু।
Avatar: ranjan roy

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

আমি অমিতের শেষ লাইনটিকে লাইক দিলাম।
এজেন্ডা বা নীতির প্রশ্নে ভিন্ন মতামত নিয়ে বিতর্ক জরুরী। হোলিয়ার দ্যান দাউ অ্যাটিচুড কমিউনিকেশন নষ্ট করে।
আর খিস্তি করে কী লাভ? হিন্দিবলয়ে তো মেজরিটারিয়ান চিন্তারই প্রাধান্য? কত জনকে খিস্তি করবেন? বঙ্গ তো গোটা ভারতবর্ষ নয়!
বিতর্ক চলুক।
Avatar: রৌহিন

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

"মুদি চাড্ডি খেস্তাও"টা এজেন্ডা হিসাবে মন্দ নয় কো। বেশ এফেক্টিভ শর্টকাট। মুদি এবং চাড্ডি যেহেতু এসেনশিয়ালি রঙ, তাদের খেস্তালে তা নিজগুণেই রাইট হয়ে যায়। এবার মতবাদ যেহেতু লেফট, সুতরাং লেফট ইজ রাইট বা রাইট ইজ লেফট এসব করতে করতে একটা বেশ লেফট রাইট লেফট রাইট ফরোয়ার্ড মার্চ হয়ে যায়। মন্দ না। থ্যাঙ্কস ফর দ্য আইডিয়া বোকা হারামী
Avatar: pi

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

এই অংশটা থাক। এই নিয়ে কাল আদালতের শুনানি থেকে।

আজ মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডকে আদালত প্রশ্ন করেছে, তারা কাজিদের এমন কোনও নির্দেশিকা দিতে পারেন কি না, যাতে নিকাহনামা বা মুসলিমদের বিয়ের চুক্তিতেই মহিলারা তিন তালাক মানবেন না বলে জানিয়ে দিতে পারবেন? পার্সোনাল ল’ বোর্ডের প্রকাশিত একটি বই দেখিয়ে প্রধান বিচারপতি বলেন, ‘‘শুক্রবারের নমাজেই বোঝানো হয়, তালাক-এ-বিদ্দাত বা তিন তালাক পাপাচার।’’ ল’ বোর্ডের আইনজীবীরা বলেছেন, সব সদস্যের সঙ্গে কথা বলে জবাব দেওয়া হবে। তবে সব কাজি এমন নির্দেশিকা না-ও মানতে পারেন।
অ্যাটর্নি জেনারেল অবশ্য নিকাহনামার কার্যকারিতাই উড়িয়ে দিয়েছেন। তাঁর যুক্তি, মুসলিম সমাজে যে সব মহিলা শিক্ষা, আয় ও অধিকারের প্রশ্নে পিছিয়ে, সেখানে তাঁদের নিকাহনামায় এই ‘দর কষাকষি’ করার সুযোগ কোথায়! সিব্বল যুক্তি দেন, আধুনিক নিকাহনামা চালু হচ্ছে। পার্সোনাল ল’ বোর্ড গত ১৪ এপ্রিল নিজেই প্রস্তাব এনেছে, তিন তালাক পাপাচার। কেউ তা করলে তাকে সামাজিক ভাবে বয়কট করা উচিত। মুসলিমদের খুব সামান্য অংশ এই প্রথা মানে। তা-ও আস্তে আস্তে উঠে যাচ্ছে। কিন্তু আদালত বা সরকার ধর্মীয় বিশ্বাসে হস্তক্ষেপ করলে, মুসলিম সমাজের জেদ চেপে যাবে। জমিয়ত-উলেমা-ই-হিন্দও যুক্তি দিয়েছে, কোনটি খারাপ, কোনটি ভাল, তা আদালতের বলে দেওয়ার দরকার নেই।....

http://www.anandabazar.com/national/triple-talaq-human-sacrifice-years
-old-too-centre-tells-court-1.614426?ref=hm-new-stry#

Avatar: chagol

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

সুপ্রিম কোর্ট হলো বিজেপি র ব্রাঞ্চ অফিস। এসব সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের স্বাধিকার কেড়ে নেওয়ার হিন্দু অপচেষ্টা। তিন তালাক মুসলিম সমাজের প্রথা। সুপ্রিম কোর্ট এই প্রথা বন্ধ করতে বলার অধিকার রাখে না।
Avatar: রৌহিন

Re: প্রসঙ্গ তিন তালাক: প্রতীচী ট্রাস্ট: অমর্ত্য সেন: এবং চাড্ডিত্ব

কপিল সিব্বল ঝানু লোক - আগের দিন আদালতে মোক্ষম যুক্তি দিয়েছিল - অযোধ্যায় রাম জন্মেছিল এটা যেমন স্রেফ বিশ্বাস, তিন তালাক একটি ধর্মীয় নীতি - এটিও তেমন। কারেকশন করতে হলে দুটোই করা উচিৎ। এটা এপিক বক্তব্য হিসাবেই ইতিহাসে রেকর্ডেড থাকা দরকার।

মন্তব্যের পাতাগুলিঃ [1] [2] [3] [4] [5] [6] [7] [8] [9] [10]   এই পাতায় আছে 178 -- 197


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন