সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • মন্দিরে মিলায় ধর্ম
    ১নির্ধারিত সময়ে ক্লাবঘরে পৌঁছে দেখি প্রায় জনা দশেক গুছিয়ে বসে আছে। এটা সচরাচর দেখতাম না ইদানীং। যে সময়ে মিটিং ডাকা হ’ত সেই সময়ে মিটিঙের আহ্বাহক পৌঁছে কাছের লোকেদের ফোন ও বাকিদের জন্য হোয়া (হোয়াটস্যাপ গ্রুপ, অনেকবার এর কথা আসবে তাই এখন থেকে হোয়া) গ্রুপে ...
  • আমাদের দুর্গা পূজা
    ছোটবেলায় হঠাৎ মাথায় প্রশ্ন আসছি্ল সব প্রতিমার মুখ দক্ষিন মুখি হয় কেন? সমবয়সী যাকে জিজ্ঞাস করেছিলাম সে উত্তর দিয়েছিল এটা নিয়ম, তোদের যেমন নামাজ পড়তে হয় পশ্চিম মুখি হয়ে এটাও তেমন। ওর জ্ঞান বিতরন শেষ হলো না, বলল খ্রিস্টানরা প্রার্থনা করে পুব মুখি হয়ে আর ...
  • দেশভাগঃ ফিরে দেখা
    রাত বারোটা পেরিয়ে যাওয়ার পর সোনালী পিং করল। "আধুনিক ভারতবর্ষের কোন পাঁচটা ঘটনা তোর ওপর সবচেয়ে বেশী ইমপ্যাক্ট ফেলেছে? "সোনালী কি সাংবাদিকতা ধরল? আমার ওপর সাক্ষাৎকার মক্সো করে হাত পাকাচ্ছে?আমি তানানা করি। এড়িয়ে যেতে চাই। তারপর মনে হয়, এটা একটা ছোট্ট খেলা। ...
  • সুর অ-সুর
    এখন কত কূটকচালি ! একদিকে এক ধর্মের লোক অন্যদের জন্য বিধিনিষেধ বাধাবিপত্তি আরোপ করে চলেছে তো অন্যদিকে একদিকে ধর্মের নামে ফতোয়া তো অন্যদিকে ধর্ম ছাঁটার নিদান। দুর্গাপুজোয় এগরোল খাওয়া চলবে কি চলবে না , পুজোয় মাতামাতি করা ভাল না খারাপ ,পুজোর মত ...
  • মানুষের গল্প
    এটা একটা গল্প। একটাই গল্প। একেবারে বানানো নয় - কাহিনীটি একটু অন্যরকম। কারো একান্ত সুগোপন ব্যক্তিগত দুঃখকে সকলের কাছে অনাবৃত করা কতদূর সমীচীন হচ্ছে জানি না, কতটুকু প্রকাশ করব তা নিজেই ঠিক করতে পারছি না। জন্মগত প্রকৃতিচিহ্নের বিপরীতমুখী মানুষদের অসহায় ...
  • পুজোর এচাল বেচাল
    পুজোর আর দশদিন বাকি, আজ শনিবার আর কাল বিশ্বকর্মা পুজো; ত্রহস্পর্শ যোগে রাস্তায় হাত মোছার ভারী সুবিধেজনক পরিস্থিতি। হাত মোছা মানে এই মিষ্টি খেয়ে রসটা বা আলুরচপ খেয়ে তেলটা মোছার কথা বলছি। শপিং মল গুলোতে মাইকে অনবরত ঘোষনা হয়ে চলেছে, 'এই অফার মিস করা মানে তা ...
  • ঘুম
    আগে খুব ঘুম পেয়ে যেতো। পড়তে বসলে তো কথাই নেই। ঢুলতে ঢুলতে লাল চোখ। কি পড়ছিস? সামনে ভূগোল বই, পড়ছি মোগল সাম্রাজ্যের পতনের কারণ। মা তো রেগে আগুন। ঘুম ছাড়া জীবনের কোন লক্ষ্য নেই মেয়ের। কি আক্ষেপ কি আক্ষেপ মায়ের। মা-রা ছিলেন আট বোন দুই ভাই, সর্বদাই কেউ না ...
  • 'এই ধ্বংসের দায়ভাগে': ভাবাদীঘি এবং আরও কিছু
    এই একবিংশ শতাব্দীতে পৌঁছে ক্রমে বুঝতে পারা যাচ্ছে যে সংকটের এক নতুন রুপরেখা তৈরি হচ্ছে। যে প্রগতিমুখর বেঁচে থাকায় আমরা অভ্যস্ত হয়ে উঠছি প্রতিনিয়ত, তাকে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে, "কোথায় লুকোবে ধু ধু করে মরুভূমি?"। এমন হতাশার উচ্চারণ যে আদৌ অমূলক নয়, তার ...
  • সেইসব দিনগুলি…
    সেইসব দিনগুলি…ঝুমা সমাদ্দার…...তারপর তো 'গল্পদাদুর আসর'ও ফুরিয়ে গেল। "দাঁড়ি কমা সহ 'এসেছে শরৎ' লেখা" শেষ হতে না হতেই মা জোর করে সামনে বসিয়ে টেনে টেনে চুলে বেড়াবিনুনী বেঁধে দিতে লাগলেন । মা'র শাড়িতে কেমন একটা হলুদ-তেল-বসন্তমালতী'...
  • হরিপদ কেরানিরর বিদেশযাত্রা
    অনেকদিন আগে , প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে এই গেঁয়ো মহারাজ , তখন তিনি আরোই ক্যাবলা , আনস্মার্ট , ছড়ু ছিলেন , মানে এখনও কম না , যাই হোক সেই সময় দেশের বাইরে যাবার সুযোগ ঘটেছিলো নেহাত আর কেউ যেতে চায়নি বলেই । না হলে খামোখা আমার নামে একটা আস্ত ভিসা হবার চান্স নেই এ ...

আমার শিক্ষকবেলা

Sumita Sarkar

আমার শিক্ষকবেলা
http://s7.postimg.org/mr1em8waj/108.jpg

ছবিটা দেখতে দেখতে সেই কতোদিন আগে ফিরে যাচ্ছি। ওই ছোট্ট ছোট্ট দুষ্টুমিষ্টি মুখগুলো আমার আর শর্বাণীদির চারপাশে ...... আচ্ছা, ওদের মধ্যে কি আমিও আছি? একই সংগে আমার শৈশব আর যৌবন পাশাপাশি?...... কেমন যেন ধাঁধা লেগে যাচ্ছে। আসলে স্কুলের ওই মাঠটা যেখানে ছবি তোলা হয়েছে, যে গাছটার নিচে, ঠিক ওইখানেই যে আমিও ছোটবেলায় খেলে বেড়িয়েছি! ওই গাছটার নিচে হত আমাদের প্রার্থনা, একদিন গাছের ডাল থেকে টুপ করে আমার মাথায় খসে পড়েছিল শুঁয়োপোকা আমারই অজা

আরও পড়ুন...

এক যে আছে গাছ

অবন্তিকা

ছোটো ছোটো পানের মতো পাতাওলা ওই গাছটার ভেতরে অল্প একটু দিদুন থাকে l রাত্তিরবেলা বলে মিষ্টি খাবো, বিকেলবেলায় কোল্ডড্রিংক দিতে গেলে বলে বড্ড বেশি ঠাণ্ডা l ছোটো ছোটো পানের মতো পাতাওলা ওই বাহারে গাছটার মধ্যে এখন দিদুন থাকে l আপাতত এই সপ্তাহখানেকের ট্রানজিশন l গুছিয়ে নেওয়ার অবসরটুকুন...

বাবা আর তাপস ঘাটের সিঁড়ি বেয়ে বেশ কিছুটা এগিয়ে গেল l ছেলেটা এক্কেবারে গা ঘেঁষে এসে দাঁড়িয়েছে l
হেই মা, খিদে পেয়েছে l
কী খাবি?
চা খাবো, চা l
কোথায়?
হই তো দোকান l
তোর নাম কী?
আমার...

আরও পড়ুন...

দ্য রেইনম্যান

উদয়ন ঘোষচৌধুরি


সিন ওয়ান
হিন্দি সিনেমা থেকে আমরা জানতে পারি, বম্বে হল বৃষ্টি আর আচমকা হাওয়ার শহর। নিরালা বাসস্টপে হঠাৎই ভেঙে যায় নায়িকার ছাতা। ধাঁধিয়ে চলে যায় সাঁৎ সাঁৎ হেডলাইটেরা। জুম ইন হতে চায় নির্মোক আনাচকানাচ। এরপর দু রকম প্যাঁচ। ‘জানোয়ার’ এলে বাড়তে থাকে অডিয়েন্সের আঁচ। ‘দুষ্টু’ এলে কাট টু সো-কিউট নাচ। তারপর এন্ট্রি নায়িকার বাপি। খুলতে থাকে নিগ্রহের ঝাঁপি। দু-তিনটে খুন বা খারাপি। বৃষ্টি ও বম্বেকে তাই এ রূপেই মাপি।


সিন টু
আন্ধেরি ইস্টে তেলি গল্লি। পনেরো ইঞ্চির একটা দেয়াল। ওটা একজ

আরও পড়ুন...

অহল্যা

Abhijit Majumder

আকাশের লক্ষন বড় ভালো ঠেকলো না অহল্যার। বৃষ্টি নামতে পারে। এই অকালের বৃষ্টিতে ভিজলে শরীর অসুস্থ হয়ে পড়া কিছু আশ্চর্যের নয়। বয়সও তো কম হল না। এই বয়সে এতটা রাস্তার ধকল সামালানোই মুশকিল তার ওপর বৃষ্টি-বাদলায় ভিজলে তো আর রক্ষে নেই। সঙ্গে যে ব্রাহ্মনকন্যাটি থাকে সে বহুবার নিষেধ করেছিল, কিন্তু খবরটি শুনে অহল্যা আর না এসে থাকতে পারলেন না। শোনা কথায় বিশ্বাস নেই। তার ওপর শ্রুতি ও স্মৃতির ওপর নির্ভরশীল সংবাদ রাজধানী থেকে জনপদ পার হয়ে অরন্যে পৌঁছতে পৌঁছতে যে কতবার বিকৃত হয় তার নির্ণয় কে করে?

জীবনে

আরও পড়ুন...

প্যাসেজ টু হেভেন (পর্ব-৮)

Maskwaith Ahsan

পিনাক-৬ সোসাইটি
বেহেশতে একটি আশ্চর্য ঘটনা ঘটেছে; লীথি নদীর ঘাটে একটি অলৌকিক লঞ্চ এসে ভিড়েছে; বেশ কিছু মানুষ নিয়ে। তারা জানাচ্ছে তারা বাংলাদেশ থেকে এসেছে। দেবুদা তড়িঘড়ি করে পৌঁছে যায় থ্যানাটস ঘাটে। সেখানে তাজউদ্দীন রয়েছেন; উনি সবাইকে সমবেদনা জানাচ্ছেন; কদিন প্রিয় মানুষের জন্য কষ্ট হবে তারপর সয়ে যাবে। এটাই জীবন। মানুষের অমোঘ নিয়তি।

কল্পনা চাকমা এগিয়ে আসে; চিৎকার করে বলে; কী হবে পৃথিবী নামের দোজখে ধুকে ধুকে বেঁচে থেকে। এই তো অনন্ত আনন্দের জীবন।
নূর হোসেন হাসি মুখে বলে, আমার মৃত্যুত

আরও পড়ুন...

নারী ও নেমোসিস: ২০১৫

শিবাংশু

নারী ও নেমোসিস: ২০১৫
-----------------------------

অহল্যা ভারতীয় মহাকাব্যের জটিল জগতেও একটি জটিলতম চরিত্র। সম্ভবতঃ কৃষ্ণা দ্রৌপদী'কে নিয়েও কেউ এই স্তরের সত্ত্বাসম্ভব নারীকল্পনা করেনি। কে অহল্যা, কেন অহল্যা, কীভাবে অহল্যা? অগণন ব্যাখ্যা রয়েছে তার। সেই ঋগবেদের খ্রিস্টপূর্ব নবম শতকের ব্রাহ্মণ থেকে পঞ্চদশ শতকের অর্বাচীন পুরাণকাল পর্যন্ত অহল্যা নামক প্রতীকটিকে কেন্দ্র করে ভারতীয় পুরুষ তার সন্ধান চালিয়ে গেছে, 'নারীত্ব' কী ও কেন?
--------------------------------------
শব্দার্থে 'অহ

আরও পড়ুন...

ভিভিয়ান

সুকান্ত ঘোষ

তোমার কবিতার ভিতরে সবসময় মেয়ে থাকে কেন?
কবিতার ভিতরে মেয়ে? আমি তো শব্দ লিখেছি, শব্দ দিয়ে বাক্য হয়েছে – আমার কিছু বলা কথা, অনেক না বলা কথা, এই সব নিয়েই তো –
আসলে বলতে চাইছি - মেয়ে, অবদমিত যৌনতা, শরীর এইসব ছাড়াও তো শব্দ হয় – বাক্যও মনে হয় লেখা যায়। কবিতায় শুধু মেয়ে আসবে কেন?
কিন্তু আমি তো প্রেমের কবিতা লিখিনি। আমার কবিতায় ওরা এসেছিল –
শুধু প্রেমের কবিতা লিখে কি আলাদা হওয়া যায়?
আমি তো আলাদা হতে চাই নি – আমি তো শুধু ওদের মনে রাখতে চেয়েছিলাম, ওদের মনে করতে চেয়েছিলাম –
তাহলে

আরও পড়ুন...

'বাহুবলী' প্রসঙ্গে

Parichay Patra

‘বাহুবলী’ দেখলাম, তামিল ভার্সনটি দেখতে হল, দ্বিভাষিক ছবির তেলুগু ভার্সন মেলবোর্নের সিনেমা চেন থেকে সরিয়ে নিয়ে তামিলটাই দেখান শুরু করেছে। দুর্ভাগ্যজনক, তবে আশা করছি তেলুগুটা পরে দেখার সুযোগ পাওয়া যাবে। তেলুগু দেখতে চাওয়ার কারণ কেবলমাত্র এই নয় যে পরিচালক এস এস রাজামৌলী এবং অভিনেতাদের প্রধান অংশ মূলত তেলুগুভাষী, বরং এটাও যে এই জঁরটাই distinctively তেলুগু। চল্লিশ থেকে ষাটের দশক পর্যন্ত তেলুগু ছবিতে বিশেষ জনপ্রিয় ছিল একটি জঁর (লুজলি ব্যবহার করছি, আদতে ভারতীয় ছবিতে জঁরের ধারণা জটিল এবং গোলমেলে), যার ন

আরও পড়ুন...

সুগার, সুগার - তোমা বিহনে কেউ কি ক্ল্যাসিক্যাল ?

সুকান্ত ঘোষ

পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ঘুরে এবং সেখানকার ছোট, বড় ও ধাবা টাইপের রেষ্টুরাণ্ট, কফি শপ, প্যাটিসারী ইত্যাদি জায়গায় খেয়ে আমি এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছি যে ভারতবর্ষে আমরা অনেক জটিল খাবার দাবার (যেমন কাঙালী ভোজনের খিচুরী, বিধবা ঠাকুমা-পিসিমাদের হাতে রান্না শুক্ত ইত্যাদি) আবিষ্কার করলেও আপাত সহজ দুটি জিনিস একেবারেই আমরা বানাতে পারি না - চীজ্‌ ও রুটি। আজ্ঞে না, চীজ্‌ ও পনীর এক জিনিস নয়। চীজ্‌কে পনীর বলা, একজন চীনাকে জাপানী বলে সনাক্ত করার মতনি ভ্রান্তিকর প্রায়। চীজ্‌ তৈরীর ইতিহাসে যে তিনটি দেশের নাম সর্বপ্রথম মন

আরও পড়ুন...

আশmoney

উদয়ন ঘোষচৌধুরি


ভাস্কর বলত, তার মাথায় একটা প্রজাপতি ছিল। কিছু একটা লেখার চেষ্টা করেছিলাম সেটা নিয়ে কয়েক বছর আগে। কি মনে করে উদোমাদা সেই লেখা ছেপেও ছিল 'যত্নঘর' (যেটার নতুন নাম রেখেছি 'প্রত্নঘর')। কথাটা সেটা নয়; কথাটা হল প্রজাপতি হোক বা শুয়োর, প্রত্যেকের মাথায় একটা করে জরায়ু থাকে। আর সেই জরায়ুতে থাকে একটা ভাবনা। সব ভাবনা ফাটে না। কিন্তু ফেটেও আটকে গেলে? কনসটিপেশন জানেন? কিম্বা, সিজারিয়ান ডেলিভারি? অথবা, রাইটার্স’ ডেজার্ট? এগুলোর কোনওটাই টের না থাকলে থেমে যান, আর এগিয়ে লাভ নেই।


অনেকেই নিশ্চই

আরও পড়ুন...

বিজ্ঞান ও অপবিজ্ঞানঃ গবেষণার সাতকাহন

Ritwik Kumar Layek

বৈজ্ঞানিক গবেষণা সম্পর্কে আমাদের বাঙালীদের কিছু মিথ দিয়ে শুরু করা যাক। আমাদের চোখে বৈজ্ঞানিক মানে একজন রকস্টার, একজন আত্মকেন্দ্রিক উন্নাসিক ম্যাজিসিয়ান। গল্পে, কমিক্সে তাই যখন বিজ্ঞানীর চরিত্র আসে, সে আর পাঁচটা লোকের মত নয়। পুলিশের ডিটেকটিভের সাথে শার্লক হোমসের যা তফাৎ, একজন ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানের শিক্ষকের সাথে প্রফেসর ক্যালকুলাস, ফিলিয়াস ফগ, বা প্রফেসর শঙ্কুর তফাৎ তার চেয়ে অনেক বেশী। এরা ঠিক মাটির মানুষ নয়।
এরা নাহয় কল্পবিজ্ঞানের বিজ্ঞানী। কিন্তু আমরা যখন ফাইনম্যানের কথা পড়ছি, বা ডারউ

আরও পড়ুন...

কলেরার দিনগুলোতে প্রেম~

বিপ্লব রহমান

(১) রাইস স্যালাইনগুলো বেশ করেছে। প্যাকেটের গায়ে প্রস্তুত প্রণালির ক্ষুদে ছবি আছে। দুই হাতে চুড়ি পরা। সেবা মানেই নারী? বিষয়টি কি আপত্তিকর? নারীবাদী কাম এনজিওগুলো কি বলে? ওরাই তো নারীমুক্তি, মানবাধিকার আর আদিবাসী মুক্তির জিম্মাদার্।

রাশিদাকে জিজ্ঞাসা করা যায়। লালমাটিয়া মহিলা কলেজে পড়াতেন। এখন অবসর নিয়েছেন। ‘নারীপক্ষ’ করেন। ৬০ বছর বয়সেও খুব সচল। দেখলে ৪০-৪৫ মনে হয়। চুলগুলো রং করে খানিকটা লালচে-কালো। শাহবাগের ‘অন্তরে’ রেঁস্তোরায় লুচি-আলুর দম খেতে খেতে মনোপজ সর্ম্পকে বলেছিলেন। আমাদের সঙ্গে ছ

আরও পড়ুন...

ইফতার পার্টি এবং একটি প্রস্ন

Animesh Baidya

গত ৮ জুলাই আনন্দবাজার পত্রিকার সম্পাদকীয়র পাতায় বিশিষ্ট আইনজীবী এক্রামুল বারি 'কেন এই ভন্ডামি' শিরোনামে একটি লেখা লেখেন। লেখাটি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ এবং প্রাসঙ্গিকও বটে। লেখাটির মূল বক্তব্য হলো ইফতার পার্টির হাত ধরে আমাদের নানান রাজনৈতিক দল সংখ্যালঘুদরদী হওয়ার একটা অদ্ভুত প্রতিযোগিতায় নাম লিখিয়েছে। ইফতার পার্টি আয়োজনে তাদের যে তাগিদ দেখা যায় সংখ্যালঘু মুসলমান সমাজের উন্নতি সাধনে সে তাগিদ তাদের নেই। ইফতার পার্টি আয়োজন যেন রাজনৈতিক স্বার্থ সিদ্ধির উৎসবে পরিণত হয়েছে। এমনকি যে উৎসবে সামিল আর.এস.এস.-এর

আরও পড়ুন...

আমি কি নিজেকে ভালো শিক্ষক (না কি বলব জ্ঞানার্জন সহায়ক) বলে মনে করি? পর্ব ৪ -- ‘ম’ যা লিখেছেন (দ্বিতীয় মন্তব্যে) এবং খানিকটা উত্তর।

Salil Biswas

১) আপনাদের স্কুলটি যেহেতু ব্যক্তিগত উদ্যোগে তৈরী এবং সরকারী অনুদান প্রাপ্ত নয় তাই ধরে নিচ্ছি আপনাদের কারিকুলাম নিজেরাই তৈরী করেন,এবং সেখানে সরকারী রূপরেখা অনুসরণ করার কোনো দায় আপনাদের নেই।ক্লাশ নাইন থেকে যেহেতু সরকারি পাঠক্রম মেনে চলতে হয় তাই আপনারা কি শুরু থেকেই একটা সমান্তরাল পাঠক্রম তৈরী করেন নাকি আপনাদের পছন্দমত সিলেবাস তৈরীর স্বাধীনতা আছে? মানে আমি সিলেবাস সম্পর্কে জানতে আগ্রহী।

আমাদের বিদ্যালয় ব্যক্তিগত উদ্যোগে তৈরি নয়। এর পত্তন করেন শ্রমজীবী হাসপাতালের মানুষজন। এই হাসপাতালের মত ব

আরও পড়ুন...

বইচই

উদয়ন ঘোষচৌধুরি




সমকামে বিধ্বস্ত এক অসম্পূর্ণ পুরুষ, যাকে আশিরনখ ঘেন্না করছে তার নিজেরই বোন। সর্বাঙ্গ সুতোহীন হয়েও মুখের ব্যান্ডেজ খোলে না এক বার-নারী, দাঙ্গা তাকে চির-দগদগে করে চলে গেছে। তথাকথিত ভদ্রপল্লীর দুই মা-মেয়ে, গোপনে শরীর বেচাই যাদের পেশা; নেশার্ত এক রাতে মা বিপরীতারুঢ় হয় লম্পট বেরোজগার ছেলের বিছানায়। এক গল্পের কথক নেহাৎই বিছানায় হামা-টানা এক শিশু, যার মা প্রতি হাটবারে দাঁড়ায় খদ্দের খুঁজতে; অকেজো বুড়ো বাবা ভাড়া করে তাকে আর মাঝরাতে হিঁচড়ে তুলে নিয়ে যায় তার বদরাগী ছেলে; সায়া খুলে মা দ্যাখা

আরও পড়ুন...

প্যাসেজ টু হেভেন (পর্ব-৭)

Maskwaith Ahsan

রোদ্দুর আক্রান্ত রবি

পৃথিবীতে বড় ধরণের মানবিক বিপর্যয়ে বেহেশতে এলার্ম বাজে। আজকাল খুব ঘনঘন এলার্ম বাজছে। বড় ঘটনার বড় এলার্ম; ছোট ঘটনায় ছোট এলার্ম। গাজা উপত্যকায় ইজরায়েলী গণহত্যা-ইরাক আর সিরিয়ায় আইএস আই এস গণহত্যায় বড় বড় এলার্ম বেজেছে। বেহেশতে সবাই চিন্তিত। পৃথিবী কী তবে নিমজ্জনের মুখে! দেবুদা বুঝতে পারেনা কী করণীয়। সেমিনার-সিম্পোজিয়াম করে কাজ হচ্ছেনা। মানুষ হত্যা থেমে নেই; অমানুষেরাই বেশী সংঘবদ্ধ।

দেবুদা কবিগুরুকে ফোন করে, গুরু উপায় কী!

--দেবু চলে এসো আজ একটা অন্যধরণের

আরও পড়ুন...

সমপ্রেম ও যুক্তিবাদ (কিস্তি ৩)

Abhijit Majumder

সমপ্রেম ও যুক্তিবাদ (কিস্তি ৩)
প্রাককথন
সমপ্রেম নিয়ে বিরূদ্ধমত কারোর সাথে তর্ক-বিতর্ক করার সময় প্রায়ই একটা অসুবিধের সম্মুখীন হই। যাকে পরিভাষায় বলা হয়, গোলপোস্ট শিফটিং। জানি না সেটা আমার যুক্তির ত্রুটি না অন্য পক্ষের। যেমন, সে বলল সমপ্রেম বিদেশ থেকে আমদানি, ভারতীয় সংস্কৃতির বিরোধী। আমি বোঝাতে বসলাম কিভাবে প্রাচীন ভারতেও সমলিঙ্গে যৌনক্রিয়া ছিল। অপরপক্ষ বলল, প্রাচীন ভারতে থাকলেই কি আজকেও করতে হবে? সে তো বহুবিবাহ, বাল্যবিবাহ অনেক কিছুই ছিল। অপ্রাকৃতিক কিছু মেনে নেওয়া যায় না। আমি বোঝাতে বসলাম

আরও পড়ুন...