বিপ্লব রহমান RSS feed

বিপ্লব রহমানের ভাবনার জগৎ

আরও পড়ুন...
সাম্প্রতিক লেখালিখি RSS feed
  • আমাদের দুর্গা পূজা
    ছোটবেলায় হঠাৎ মাথায় প্রশ্ন আসছি্ল সব প্রতিমার মুখ দক্ষিন মুখি হয় কেন? সমবয়সী যাকে জিজ্ঞাস করেছিলাম সে উত্তর দিয়েছিল এটা নিয়ম, তোদের যেমন নামাজ পড়তে হয় পশ্চিম মুখি হয়ে এটাও তেমন। ওর জ্ঞান বিতরন শেষ হলো না, বলল খ্রিস্টানরা প্রার্থনা করে পুব মুখি হয়ে আর ...
  • দেশভাগঃ ফিরে দেখা
    রাত বারোটা পেরিয়ে যাওয়ার পর সোনালী পিং করল। "আধুনিক ভারতবর্ষের কোন পাঁচটা ঘটনা তোর ওপর সবচেয়ে বেশী ইমপ্যাক্ট ফেলেছে? "সোনালী কি সাংবাদিকতা ধরল? আমার ওপর সাক্ষাৎকার মক্সো করে হাত পাকাচ্ছে?আমি তানানা করি। এড়িয়ে যেতে চাই। তারপর মনে হয়, এটা একটা ছোট্ট খেলা। ...
  • সুর অ-সুর
    এখন কত কূটকচালি ! একদিকে এক ধর্মের লোক অন্যদের জন্য বিধিনিষেধ বাধাবিপত্তি আরোপ করে চলেছে তো অন্যদিকে একদিকে ধর্মের নামে ফতোয়া তো অন্যদিকে ধর্ম ছাঁটার নিদান। দুর্গাপুজোয় এগরোল খাওয়া চলবে কি চলবে না , পুজোয় মাতামাতি করা ভাল না খারাপ ,পুজোর মত ...
  • মানুষের গল্প
    এটা একটা গল্প। একটাই গল্প। একেবারে বানানো নয় - কাহিনীটি একটু অন্যরকম। কারো একান্ত সুগোপন ব্যক্তিগত দুঃখকে সকলের কাছে অনাবৃত করা কতদূর সমীচীন হচ্ছে জানি না, কতটুকু প্রকাশ করব তা নিজেই ঠিক করতে পারছি না। জন্মগত প্রকৃতিচিহ্নের বিপরীতমুখী মানুষদের অসহায় ...
  • পুজোর এচাল বেচাল
    পুজোর আর দশদিন বাকি, আজ শনিবার আর কাল বিশ্বকর্মা পুজো; ত্রহস্পর্শ যোগে রাস্তায় হাত মোছার ভারী সুবিধেজনক পরিস্থিতি। হাত মোছা মানে এই মিষ্টি খেয়ে রসটা বা আলুরচপ খেয়ে তেলটা মোছার কথা বলছি। শপিং মল গুলোতে মাইকে অনবরত ঘোষনা হয়ে চলেছে, 'এই অফার মিস করা মানে তা ...
  • ঘুম
    আগে খুব ঘুম পেয়ে যেতো। পড়তে বসলে তো কথাই নেই। ঢুলতে ঢুলতে লাল চোখ। কি পড়ছিস? সামনে ভূগোল বই, পড়ছি মোগল সাম্রাজ্যের পতনের কারণ। মা তো রেগে আগুন। ঘুম ছাড়া জীবনের কোন লক্ষ্য নেই মেয়ের। কি আক্ষেপ কি আক্ষেপ মায়ের। মা-রা ছিলেন আট বোন দুই ভাই, সর্বদাই কেউ না ...
  • 'এই ধ্বংসের দায়ভাগে': ভাবাদীঘি এবং আরও কিছু
    এই একবিংশ শতাব্দীতে পৌঁছে ক্রমে বুঝতে পারা যাচ্ছে যে সংকটের এক নতুন রুপরেখা তৈরি হচ্ছে। যে প্রগতিমুখর বেঁচে থাকায় আমরা অভ্যস্ত হয়ে উঠছি প্রতিনিয়ত, তাকে প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হচ্ছে, "কোথায় লুকোবে ধু ধু করে মরুভূমি?"। এমন হতাশার উচ্চারণ যে আদৌ অমূলক নয়, তার ...
  • সেইসব দিনগুলি…
    সেইসব দিনগুলি…ঝুমা সমাদ্দার…...তারপর তো 'গল্পদাদুর আসর'ও ফুরিয়ে গেল। "দাঁড়ি কমা সহ 'এসেছে শরৎ' লেখা" শেষ হতে না হতেই মা জোর করে সামনে বসিয়ে টেনে টেনে চুলে বেড়াবিনুনী বেঁধে দিতে লাগলেন । মা'র শাড়িতে কেমন একটা হলুদ-তেল-বসন্তমালতী'...
  • হরিপদ কেরানিরর বিদেশযাত্রা
    অনেকদিন আগে , প্রায় সাড়ে তিন বছর আগে এই গেঁয়ো মহারাজ , তখন তিনি আরোই ক্যাবলা , আনস্মার্ট , ছড়ু ছিলেন , মানে এখনও কম না , যাই হোক সেই সময় দেশের বাইরে যাবার সুযোগ ঘটেছিলো নেহাত আর কেউ যেতে চায়নি বলেই । না হলে খামোখা আমার নামে একটা আস্ত ভিসা হবার চান্স নেই এ ...
  • দুর্গা-বিসর্জনঃ কৃষ্ণ প্রসাদ
    আউটলুকের প্রাক্তন এডিটর, কৃষ্ণ প্রসাদ গতকাল (সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৭) একটি লেখা (https://www.faceboo...

জড়ো জীবন~

Biplob Rahman

["মোরে সান্তাল বানাইছে ভগমান গো/ মোরে মানুষ বানায়নি ভগমান"...]

গত জুনে গিয়েছিলাম রংপুর-দিনাজপুর। দুটি আদিবাসী সান্তাল গ্রামে মানবাধিকার লংঘনের সরেজমিন সংবাদ করতে। রংপুরে আকাশমনিতে বন সৃজন করবে বলে বন বিভাগ উচ্ছেদ নোটিশ দিয়েছে ভূমিহীন শত সান্তাল পরিবারকে। আর দিনাজপুরে ভূমি দখল করতে সন্ত্রাসীরা দিনে-দুপুরে চারজন সান্তাল কৃষককে গাছের সঙ্গে ঝুলিয়ে বেধড়ক পিটিয়ে প্রায় পঙ্গু করে দিয়েছে। ...

খুব কাছ থেকে অনেকদিন পর দেখলাম অভাবের প্রকৃত করাল গ্রাস। ঘরে ঘরে ক্ষুধা। প্রতিটি সান্তাল পরিবারে দুবেলা, বড়োজোর একবেলা ভাত জোটে। তিন বেলা অন্ন সংস্থান হয়, এমন পরিবার খুজেঁ পাওয়া মুস্কিল।

স্কুল পড়ুয়া ছাত্রছাত্রীরা জানিয়েছে, এমন অনেক দিন হয়েছে, সকালে এক গ্লাস পানি খেয়ে তারা ক্লাসে গেছে। দুপুরে বাড়ি ফিরেও দেখে ভাত নেই। বাবা-মা সারাদিন ক্ষেতমুজুরি করার পর শুধু রাতে হয়তো সবাই পেট পুরে খেয়েছে। আবার স্কুল থেকে ফিরে ক্ষুধার্থ অবস্থাতেই জমিতে ক্ষেতমুজুরি করতে হয়েছে, এমন ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যাও কম নয়। ...

খর রোদের ভেতর মাটির ভগ্ন ঝুপড়ি ঘরগুলোর সামান্য ছায়ায় দাঁড়িয়ে কথা বলি নানা বয়সী আদিবাসী মানুষের সঙ্গে। কসাইয়ের নির্লিপ্ততায় দ্রুত হাতে টুকে নিতে থাকি নিউজ-নোট। কারো কারো ছবি তুলি মোবাইল ফোনে। গদলঘর্ম হতে হতে কল চিপে পানি খাই। ...

সে সময় নাম বিস্তৃত একজন মাঝ বয়সী কিষাণী আমাকে বলেছেন, প্রায় ২০ বছর আগে বিয়ে হয়েছে তার। বিয়ের পরদিন থেকেই তিনি স্বামী, শশুড়-শাশুড়ির সঙ্গে ক্ষেতে গেছেন মজুরি দিতে।...সেই থেকে শ্রম দাসত্ব চলছেই। অভাব, উচ্ছেদ আতংক কোনোটিরই যেনো শেষ নেই।...

ফেরার পথে বগুড়ার ধনকুণ্ডীর মোড়ে আমরা সাংবাদিক-মানবাধিকার দল ক্ষণিকের যাত্রা বিরতি করি। সেখানেই হঠাৎ চোখে পড়ে এক ভিনটেজ কার-- ফক্সওয়াগন গাড়ির খোলটিকে। এটি এখন শো-পিস, নগর নিসর্গ।

একসময় উত্তরবঙ্গের সান্তাল, ওঁরাও, মুণ্ডা, কোলসহ ২৭টি বিপন্ন আদিবাসী জনগোষ্ঠিদেরও আক্ষরিক অর্থে বিলুপ্তির পর হয়তো আমরা এমনি করে মমি বানিয়ে স্মৃতিচিহ্ন হিসেবে সড়ক মোড়ে সাজিয়ে বাড়াবো যন্ত্র-জীবনের শোভা! কে জানে?

ভাবতে ভাবতে, বিষম ঘোর লাগে এই চিন্তনে যে, এরাই নাকি দুর্ধর্ষ শিকারী জাতির উত্তোরাধীকার! এরাই তো নাচোলে ইলা মিত্রের নেতৃত্বে কাঁপিয়ে দিয়েছিলো জমিদারী। আরো আগে সান্তাল হুলে, দন্ত-দখরে ভোঁতা করে দিয়েছিল ব্রিটিশ রাজসিংহের।...আর ১৯৭১ এ সান্তাল-ওঁরাও-মুণ্ডা দল বেঁধে যোগ দিয়েছিলো মুক্তিযুদ্ধে। বাঙালি মুক্তিযোদ্ধার থ্রি নট থ্রি- রাইফেলের পাশাপাশি অসীম সাহসে নিজস্ব তীর-ধনুকে এরাই তো ঘেরাও করেছিল পাকিস্তানী সামরিক ঘাঁটি রংপুর সেনা নিবাস! সম্মুখ যুদ্ধে এরাও ঢেলেছে বুকের তাজা রক্ত!...

হায়! আজ সিঁধু নাই, কানহু নাই, বিরসা মুণ্ডাও তো নাই! আছে শুধু গুটি কয় দাতাগোষ্ঠির অর্থপুষ্ট ভেড়ার ছালওয়ালা এনজিও, আর মিশনারী গির্জা। অপরপ্রান্তে হাড্ডিসার, প্রায় ভগ্ন মেরুদণ্ডী কালো কালো মানুষজন!

__

[নিউজ লিংক: http://www.kalerkantho.com/print-edition/news/2014/06/17/97066]
__
মূল লেখাটি এখানে: http://biplobcht.blogspot.com/2014/09/blog-post_29.html
বিভাগ: আদিবাসী অধিকার, ব্লগাড্ডা, মুক্তমনা, বাংলাদেশ


Avatar: aranya

Re: জড়ো জীবন~

পড়লাম। আর কি লিখব জানি না। বস্তুত, কিছুই লেখার নেই। একই শোষণ, অত্যাচারের ইতিহাস চলে আসছে কতদিন ধরে ..
Avatar: Biplob Rahman

Re: জড়ো জীবন~

একটু দেরীতে বলছি, আপনার বিনীত পাঠ ও প্রতিক্রিয়ার জন্য ধন্যবাদ। চলুক।


আপনার মতামত দেবার জন্য নিচের যেকোনো একটি লিংকে ক্লিক করুন